Latest Post


মোহা.আব্দুল মালেক হিমু,ফ্রান্স : প্যারিসে সিলেট শাহজালাল স্পোটিং ক্লাব ফ্রান্সের উদ্যোগে দাবা ও ক্যারাম প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করা হয়েছে।
গত ৩০শে জুলাই প্যারিসের গার দো নর্দের পারিজিয়ান হোটেলের হল রুমে প্রথমে ক্যারাম প্রতিযাগিতার উদ্বোধন করেন সিলেট সমাজ কল্যাণ সমিতি ফ্রান্সের উপদেষ্ঠা শহীদ চৌধুরী । ক্লাবের সভাপতি ফয়সল উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও শাহজান মিয়ার পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ইয়থ ক্লাবের সভাপতি শরীফ আল মোমিন, সাধারন সম্পাদক টি.এম রেজা, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর নুর শিকদার, ফ্রান্স বাংলা প্রেসক্লাবের সদস্য সচিব মোহা. আব্দুল মালেক হিমু, স্বরলিপি শিল্পি গোষ্ঠির সভাপতি এমদাদুল হক স্বপন, ফ্রান্স আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক সালেহ আহমদ। এছাড়া দাবার প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন সিলেট সমাজ কল্যাণ সমিতি ফ্রান্সের উপদেষ্ঠা সুনাম উদ্দিন খালেক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক সভাপতি সালেহ আহমদ চৌধুরী, সাধারন সম্পাদক সুব্রত ভট্টাচাজ শুভ, জালালাবাদ এসোসিয়েশন ফ্রান্সে সভাপতি হেনু মিয়া, ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রিয়জুল ইসলাম, বাংলাদেশ ইয়থ ক্লাবের ক্রিড়া সম্পাদক এম এম রুমেল, আব্দুল আহাদ, সিলেট শাহজালাল স্পোটিং ক্লাব ফ্রান্সের প্রচার সদ্পাদক সামছু মিয়া, বাংলাদেশ ক্রিকেট ক্লাব প্যারিসের সাধারন সম্পাদক ওয়হিদ টিপু সহ কমিউনিটির বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ।


প্রেসরিলিজ: সিলেটের কানাইঘাট প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সিনিয়র সহ সভাপতি, বর্তমানে ফ্রান্স প্রবাসী এবং ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক দেলওয়ার হোসেন সেলিমের পিতা আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম (সিরাজ ডাক্তার) আর নেই।

সোমবার (২৩ জুলাই ২০১৮) বিকেল ৪টার দিকে তিনি ইন্তেকাল করেছেন। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ডায়াবেটিক ও লিভার জনিত রোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল প্রায় ৭২ বছর। তিনি স্ত্রী, ছেলে মেয়ে, নাতি নাতনী সহ অসংখ্য আত্বীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম ১৯৪৬ সালে ঝিংগাবাড়ী ইউনিয়নের গোয়ালজুর গ্রামের এক সম্ভান্ত পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। পড়াশোনা শেষে সরকারি শিক্ষক হিসেবে কর্মজীবনে যোগদান করেন। একপর্যায়ে তিনি চাকুরী নিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে চলে যান। এরপর দেশে ফিরে গাছিবাড়ি বাজারে তার নিজস্ব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হোসেন ফার্মেসি পরিচালনা করেন। তিনি একজন সমাজসেবী ও শিক্ষানুরাগী হিসেবে সর্বমহলে সুপরিচিত ছিলেন। আর্তমানবতার সেবায় তিনি ১৯৯৯ সালে গ্রামের বাড়ির পাশে ঢাকনাইল দক্ষিণ কমিউনিটি ক্লিনিকের জন্য  গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারকে জমি দান করেন।  
বর্ণাঢ্য কর্ম জীবনের অধিকারী সমাজসেবী আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলামের মৃত্যুতে গোটা এলাকা সহ দেশে বিদেশে শোকের ছায়া নেমে আসে। স্যোশাল মিডিয়া ফেসবুক জুড়ে শোক প্রকাশ ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে অনেকেই স্ট্যাটাস আপলোড করেছেন। অনেকেই তার মৃত্যুর সংবাদ শোনে  সিলেট শহরের মিরাবাজার আগপাড়ার বাসায় ছুটে যান।
সোমবার বাদ মাগরিব মিরাবাজার আগপাড়া জামে মসজিদে প্রথম জানাযার নামাজ এবং রাত ৯ টায় গাছবাড়ি কামিল মাদ্রাসা মাঠে দ্বিতীয়  জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। গাছবাড়ি মাদ্রাসা মাঠে জানাযার নামাজে ইমামতি করেন সিলেট ৫ আসনের সাবেক এমপি মাওলানা ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী। মিরাবাজার জামে মসজিদে ইমামতি করেন মসজিদের ইমাম। বিপুল সংখ্যক মানুষ উভয় জানযায় অংশ গ্রহণ করেন। পরে সিলেট শহরের মানিকপীর কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। 

উল্লেখ্য, মরহুমের বড় ছেলে সাংবাদিক দেলওয়ার হোসেন সেলিম এবং কনিষ্ঠ ছেলে সোয়েব আহমদ  বর্তমানে ফ্রান্সে স্হায়ীভাবে বসবাস করছেন। দ্বিতীয় ছেলে দিলদার হোসেন শামীম কানাইঘাট উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এবং ফ্রেন্ডশিপ এন্টারপ্রাইজের পরিচালক, আরেক কনিষ্ঠ ছেলে সাইফুর রহমান শিপু বর্তমানে গ্রীসে রয়েছেন।  
এদিকে, আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলামের মৃত্যু সংবাদ পেয়ে ফ্রান্সে বসবাসরত তার আত্বীয়স্বজন ও কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ পৃথক দোয়া মাহফিল আয়োজন করেন। মরহুমের কনিষ্ঠ ছেলে সোয়েব আহমদের প্যারিসের বাসায় অনুষ্ঠিত দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন জাফর তালহা। এতে অংশ গ্রহণ করেন ব্যবসায়ী হারুন মিয়া, মরহুমের বড় ছেলে সাংবাদিক দেলওয়ার হোসেন সেলিম, নাতি এনাম আহমদ, কামাল তাজ, সোহেল, আহমদ মোরাদ চৌধুরী শামীম, ছাত্রনেতা খায়রুল আলম মাজেদ প্রমুখ। 

বিভিন্ন মহলের শোক:
সাংবাদিক দেলওয়ার হোসেন সেলিমের পিতা, সমাাজসেবী আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলামের  মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় হুইপ সিলেট-৫ (জকিগঞ্জ-কানাইঘাট) আসনের সংসদ সদস্য সেলিম উদ্দিন এমপি,কানাইঘাট উপজেলা  পরিষদের চেয়ারম্যান আশিক উদ্দিন চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম রানা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মরিয়ম বেগম, কানাইঘাট কলেজের অধ্যক্ষ সামছুল আলম মামুন,উপাধ্যক্ষ লোকমান হোসাইন, বিশিষ্ট কলামিস্ট ও কানাইঘাটের উলামায়ে কেরাম গ্রন্থের লেখক আব্দুর রহিম, গাছবাড়ী আইডিয়্যাল কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল মতিন,গাছবাড়ী মডার্ণ একাডেমীর প্রধান শিক্ষক মাহবুবুল হক, কানাইঘাট প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বর্তমানে সিলেট প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি এম.এ. হান্নান,বর্তমান সভাপতি রোটারিয়ান শাহজাহান সেলিম বুলবুল, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এখলাছুর রহমান, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, কোষাধ্যক্ষ মিছবাহুল ইসলাম, সহ সম্পাদক আব্দুন নূর,ক্রীড়া সংস্কৃতি ও প্রকাশনা সম্পাদক মাহবুবুর রশিদ,সদস্য কাওছার আহমদ, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের উপপ্রচার প্রকাশনা সম্পাদক, সাতবাক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ পলাশ, জেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক এমাদ উদ্দিন মানিক, কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক ও সাবেক মেয়র লুৎফুর রহমান, কানাইঘাট পৌর মেয়র নিজাম উদ্দিন আল মিজান, কানাইঘাট উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও কলামিস্ট মহি উদ্দিন,ঝিংগাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্বাস উদ্দিন, কানাইঘাট সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মামুনুর রশীদ মামুন, দক্ষিণ বাণীগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ, আলহাজ্ব বশির আহমদ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরুল আমিন, ঢাকনাইল সমাজ উন্নয়ন সংস্থার সাবেক  সভাপতি নুরুল আম্বিয়া, ঢাকনাইল মডেল কিন্ডার গার্ডেনের সাবেক প্রধান শিক্ষক ও আরব আমিরাত প্রবাসী ফয়জুল ইসলাম জাহিদ, ঝিংগাবাাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আব্বাস উদ্দিন, মেম্বার সাইদুর রহমান, মামুন রশীদ বাবুল, আজমল চৌৌধুরী, সহ  শিক্ষক ফখরুল ইসলাম, সিলেট জর্জ কোর্টের আইনজীবী এডভোকেট আব্দুস সাত্তার, এডভোকেট তাজ উদ্দিন মাখন, নবাব চৌধুরী এডুকেশন এন্ড ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের প্রতিষ্টাতা ও লন্ডন প্রবাসী আহমেদ ইকবাল চৌধুরী, বিএনপি নেতা ও সৌদি আরব প্রবাসী কামাল উদ্দিন, গোয়ালজুর আদর্শ তরুণ সংঘের সাবেক সেক্রেটারি রোটারেক্টর আমিনুল ইসলাম, সাবেক ছাত্র লীগ নেতা ও ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সহ প্রচার সম্পাদক মহি উদ্দিন সুহেল, সাবেক যুবলীগ নেতা ও দুবাই প্রবাসী ফারুক আহমদ, সিলেট জেলা ছাত্রলীগের উপ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক  জামিল আহমদ, বিশিষ্ট সমাজসেবক শিক্ষানুরাগী ও সৌদি আরব বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আবু বকর সিদ্দিক, সাবেক ছাত্র লীগের নেতা ও সৌদি আরব প্রবাসী সায়েম আহমদ, যুব রেড ক্রিসেন্ট সিলেট ইউনিটের যুব প্রধান মোঃ মিনহাজুল আবেদিন, যুব রেড ক্রিসেন্ট সিলেট ইউনিটের জনসংযোগ ও পরিকল্পনা বিভাগীয় প্রধান আফজাল হোসেন তুহিন, রোটারেক্ট ক্লাব অব সিলেট গ্রীণ বাডস এর সভাপতি রোটারেক্টর মাহবুব কামালি, কানাইঘাট উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য ও বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সুহেল আহমদ চৌধুরী, সিলেট ছাত্র ও যুব কল্যাণ ফেডারেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান এইচ এম আব্দুর রহমান, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক রোটারেক্টর ইমদাদুর রহমান ইমদাদ,
ফ্রান্স বাংলা প্রেসক্লাবের আহবায়ক ফয়ছল আহমদ দ্বীপসদস্য সচিব মোহা. আব্দুল মালেক হিমু, সিনিয়র সদস্য মাহবুব হোসাইন, একাত্তার টিভির ইউরোপ প্রতিনিধি নুরুল ওয়াহিদ, অধ্যাপক অপু আলম, এটিএন বাংলা ফ্রান্স প্রতিনিধি দেবেশ বড়ূয়া, নয়া দিগন্তের নুরুল ইসলাম, বাসু গোস্বামী, সুনন্দন বড়ুয়া, মিশুক হোসাইন । ফ্রান্স কমিউনিটি ব্যক্তিদের মধ্যে শোক প্রকাশ করেছেন, আয়েবার মহাসচিব কাজি এনায়েত উল্লাহ , ভাইস প্রেসিডেন্ট ফখরুল আলম সেলিম,  সিলেট বিভাগ সমাজ কল্যান সমিতি ফ্রান্সের সাধারন সম্পাদক সুব্রত ভট্টাচার্জ শুভ, জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সভাপতি হেনু মিয়া, ফ্রান্স বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পদক জালাল খান, সাংবাদিক মান্নান আজাদ, স্বরলিপি শিল্পি গোষ্টির সভাপতি এমদাদুল হক স্বপন, শাহজালাল স্পোটিং ক্লাবের সভাপতি ফয়ছল উদ্দিন প্রমুখ 


মিরন নাজমুলঃ প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসির সাথে মত বিনিময় সভা হয়েছে বার্সেলোনা প্রবাসী বাংলাদেশীদের। গত ২১ জুলাই শনিবার বার্সেলোনা শহরের উরখেল সেন্ত্রো সিভিকের হল রুমে স্পেনে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। মন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি সরকারি প্রতিনিধি দলের দুই দিনব্যাপী স্পেন সফরের অংশ হিসেবে এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি এবং রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকার  স্থিরচিত্রঃ সালাহ উদ্দিন


স্পেনের মাদ্রিদে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সভায় মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রবাসীদের বিভিন্ন সমস্যা ও দাবির কথা শোনেন। পরে তার বক্তব্যে সে সব সমস্যা ও দাবিগুলো বিশ্লেষণ করে তার জবাব দেন এবং বিশেষ বিশেষ ক্ষেত্রে দূতাবাসকে সেগুলোর সমাধানকল্পে দূতাবাসকে পরামর্শ দেন। 
উপস্থিতির একাংশ। স্থিরচিত্রঃ সালাহ উদ্দিন।

দাবিগুলোর মধ্যে পাসপোর্ট জটিলতা, পুলিশ ক্লিয়ারেন্স পেতে দীর্ঘসময় ক্ষেপন, প্রবাসীদের ভোটাধিকার, প্রবাসীর মৃত্যুতে লাশ পরিবহনে বাংলাদেশ সরকারের সব খরচ বহন, বার্সেলোনায় স্থায়ী কনস্যুলার অফিস স্থাপন, বিমান বন্দরে প্রবাসীদের নিরাপত্তাসহ বিভিন্ন বিষয় ওঠে আসে। মন্ত্রী প্রবাসীদেরকে বাংলাদেশের সোনালী সন্তান বলে উল্লেখ করে প্রবাসীদের প্রশাসনিক সার্বিক সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন। আলোচনা পর্বে অংশ নেয়া প্রবাসী বাংলাদেশীরা তাদের দাবিদাওয়ার পাশাপাশি দূতাবাসের কার্যক্রমের প্রশংসা করেন। বিশেষ করে প্রায় দেড় বছর ধরে প্রতি দুই মাস অন্তর অন্তর বার্সেলোনায় এসে কনস্যুলার সেবা দেয়ায় স্থানীয় প্রবাসীরা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
সভাপতির বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকার প্রবাসীদের মৌলিক দাবিগুলো প্রবাসীদের পক্ষে মন্ত্রীর কাছে তুলে ধরেন। তিনি প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্সে চলতি অর্থ বছরে অর্জন করা রেমিটেন্স যে কোন সময় থেকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উল্লেখ করে প্রবাসীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে ২টা পর্যন্ত চলা এই মত বিনিময় সভা সঞ্চালনা করেন দূতাবাসের হেড অব চ্যান্সারি হারুন আল রশিদ। সভায় মন্ত্রীর সফর সঙ্গী হিসেবে উপস্থিত সরকারী কর্মকর্তাবৃন্দ প্রবাসীদের দেশের উন্নয়ন অনেক গুরুত্বপূর্ণ সহযোগী উল্লেখ করে বক্তব্য দেন। এ ছাড়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দূতাবাসের প্রথম সচিব (লেবার উইং) মোহাম্মদ শরিফুল ইসলাম।
উক্ত আলোচনা সভায় বার্সেলোনার স্থানীয় সাংবাদিকসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


জনপ্রিয় অনলাইন : বাংলাদেশী বংশদূত আফতাব হোসাইন যুক্তরাজ্যের সাউথ ওয়েলস ইউনিভার্সিটি থেকে এল.এল.বি অনার্স গ্র্যাজুয়েট লাভ করেছেন।
বুধবার (১১জুলাই) ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাসে আনুষ্টানিক ভাবে এ ডিগ্রি অর্জনের ফলাফল ঘোষনা করা হয়। আফতাব হোসাইন শাহজালাল জামেয়া ইসলামিক স্কুল এন্ড কলেজ থেকে এসএসসি এবং জালালাবাদ ক্যান্টেমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। আফতাব হোসাইন সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের রামপাশা গ্রামের মরহুম জানিজ্জল আলী ও মোছা ছালেহা বেগম দম্পতির ছেলে এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সহকারী অধ্যাপক ডক্টর এম মুজিবুর রহমানের ছোট ভাই। আফতাব হোসাইনের এই সাফল্যের জন্যে দেশ-বিদেশের সকলের দোয়া কামনা করেছেন তার মাতা-ভাই-বোনসহ আত্বীয় স্বজন।

ফয়জুল হক রানাঃ বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার কারামুক্তি কামনা করে কাতালোনিয়া বিএনপি এবং অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে দোয়া ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়। ১৩ জুন বার্সেলোনার ইসলামিক সেন্টার শাহ জালাল জামে মসজিদে বিপুল সংখ্যক মানুষের উপস্থিতিতে এ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। 

কাতালোনিয়া বিএনপির সভাপতি সফিউল আলম শফির সার্বিক তত্বাবধানে এ মাহফিলে আওয়ামী সরকারের দ্বারা মিথ্যা মামলায় কারান্তরীন নেত্রী   বেগম খালেদা জিয়ার কারামুক্তি এবং রোগমুক্তি কামনা করে দোয়া করা হয়। 
স্থানীয় বাংলাদেশী কমিউনিটি নেত্রীবৃন্দ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির হারুন রশীদ, এম লায়েবুর রহমান, মোঃ সাজ্জাদ, আজমান আলী, হোসেন আহমদ সুমন, আনহার মিয়া, রাসেল আহমদ, যুবদল সভাপতি শফিক খান, সাধারণ সম্পাদক ফয়সল আহমেদ, সেচ্চাসেবক দলের সভাপতি আক্কাস মিয়া, সাধারণ সম্পাদক এ আর লিটু প্রমূখ। 

ফয়জুল হক রানাঃ বার্সেলোনা এশিয়া কাপ ২০১৮ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১লা জুলাই। বার্সেলোনার  মঞ্জুইক পাহাড়ের ক্রিকেট মাঠে অনুষ্ঠিত হবে এ ত্রিদেশীয় ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। টুর্নামেন্টে ভারত এবং পাকিস্থানের বিপক্ষে খেলায় অংশ নেবে বাংলাদেশ।
মাঠে গিয়ে সমর্তন প্রদান এবং জনমত গঠনের লক্ষ্যে স্পেন বাংলা প্রেসক্লাবের সাথে সৌজন্য বৈঠক করে বাংলাদেশীয় ক্রিকেট ক্লাবদের পক্ষ্যে  বাংলাদেশ কিং ক্রিকেট ক্লাব।
গোটা স্পেনের মধ্যে ক্রিকেটীয় সংস্কৃতি গড়ে তোলার বিহত্তর লক্ষ্যে কাতালোনিয়া সরকারের সহযোগীতায় বিশ্ব ক্রিকেটে প্রতিনিধিত্বকারী এশিয়ার তিন দেশ ভারত, পাকিস্থান এবং বাংলাদেশের স্থানীয় ক্রিকেটারদের নিয়ে এশিয়া কাপের আয়োজন করে।  ১লা জুলাই মঞ্জুইক ষ্টেডিদিয়ামে  টি-টোয়েন্টি সংস্করনে লীগ পদ্ধতিতে আয়োজিত হচ্ছে এ টুর্নামেন্ট। ইতিমধ্যে এ টূর্নামেন্টকে নিয়ে ক্রিকেট প্রমীদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এতে ভারত ও পাকিস্থানী সমর্তকরা এগিয়ে থাকলেও বাংলাদেশী অনেকাংশে ভাবলেশহীন। 
স্থানীয় বাংলাদেশ কিং ক্রিকেট ক্লাবের সভাপতি আশরাফ হোসেন মামুন বলেন, ভারত ও পাকিস্থানের ক্রিকেট ক্লাবের  সাথে সমান্তরালে চলতে  হলে  বাংলাদেশী কমিউনিটি এবং ব্যাবসায়ীদের পৃষ্ঠপোশকাতা একান্তই প্রয়োজন। ক্রিকেট সরঞ্জামাদি এবং ক্লাব পরিচালনা ব্যায়বহুল হওয়াতে এককভাবে ক্লাবের পক্ষ্যে ব্যায়ভার বহন করা অনেকটা দষ্কর। 
বাংলাদেশ কিং ক্রিকেট ক্লাবের আশরাফ হোসেন মামুন, ময়েজ উদ্দিন, জুবেদ আহমদ, সাইফুল ইসলাম, জায়েদ আহমদ, মাহজারুল ইসলাম, মইনুল ইসলাম, হাসান আহমদ এবং 
স্পেন বাংলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আফাজ জনি, সাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান হোসেন, কোষাধ্যক্ষ ফয়জুল হক রানা, প্রচার সম্পাদক এম লায়েবুর রহমান উপস্থিত ছিলেন। 

আফাজ জনিঃ বার্সেলোনার শাহ জালাল জামে মসজিদ প্রতিষ্ঠার পর থেকে মসজিদ পরিচালনা কমিটি এবং মুসল্লীদের সহযোগীতায় দৈনন্দিন নামাজের পাশাপাশি, ঈদের জামাত, প্রবাসী মৃতব্যাক্তির জানাজ নামাজ, ছাত্র-ছাত্রীদের বাৎসরিক শিক্ষা কোর্স সহ ধর্মীয় যাবতীয় উৎসব পালন করে আসছে। বিশেষ করে প্রতি রমজানে আল্লাহ নৈকট্ট লাভের আশায় বার্সেলোনায় বসবাসরত বিভিন্ন পরিবার এবং সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন প্রতিদিনই মসজিদের মুসল্লীদের ইফতার করিয়ে থাকেন, পাশাপাশি মসজিদ পরিচালনা কমিটি তাঁদের নিজেদের জন্য রমজানের একদিন নির্দ্রিষ্ট রাখেন মুসল্লীসহ কমিউনিটি ব্যাক্তিদের নিয়ে একদিন ইফতার করার জন্য। ধারাবাহিকতায় এ রমজানের  ২৭ তারিখ, মঙ্গলবার বিগত বছরের ন্যায় এবারও আয়োজন করে ইফতার ও দোয়া মাহফিলের।


পরিচালনা কমিটির এ ইফতার ও দোয়া মাহফিলে আউয়াল ইসলাম, সাব্বির আহমদ দুলাল, তাজুল ইসলাম, করিম উদ্দিন, মুকিত খান, নুরে জামাল খোকন, খালেদুর রহমান, কামাল আহমেদ, ওয়াজিজুর রহমান মুজিব, মাসুম আহমদ, খালেদ লিটন সহ বার্সেলোনায় বসবাসরত অনেক  মুসল্লী ছাড়াও স্পেন বাংলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আফাজ জনি, সাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান হোসেন এবং প্রচার সম্পাদক এম লায়েবুর রহমান  উপস্থিত ছিলেন। 

ইফতার পূর্বে শাহ জালাল জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ মোওলানা ইসমাইল হোসেন এবং হাফেজ মোওলানা রাকিবুল হাসান পবিত্র কালাম পাঠ এবং দোয়া পরিচালনা করে বিশ্ব মুসলিম উম্মার শান্তি কামনা করার পাশাপাশি সদ্য প্রয়াত মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক হাজী মফিজুল ইসলামের  জন্যও বিশেষ মোনাজাত করেন। 

মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি সুরুজ্জামান জামান, সহ-সভাপতি আব্দুল বাসিত কয়সর, সহ-সভাপতি আবু বকর, সদস্য আব্দুল জব্বার, সহ-সাধারণ সম্পাদক বনি হাহদার মান্না, অফিস সম্পাদক  ইকবাল আহমদ জোনায়েদ, সদস্য  লুৎফুর রহমান সুমন,  আব্দুল জব্বার,  এলাইস মিয়া উপস্থিত ছিলেন।

পরিচালনা কমিটির সভাপতি সুরুজামান জামান উপস্থিতির ধন্যবাদ জ্ঞাপন করার পাশাপাশি মসজিদ পরিচালনা করতে সকলের আন্তরিক সাহায্য সহযোগিতা কামনা করেন।



ডেক্স রিপোর্টঃ বার্সেলোনা বিয়ানীবাজার বাসীর আয়োজনে প্রবাসী বাংলাদেশীদের সৌজন্যে আয়োজন করে ইফতার ও দোয়া মাহফিল। ২৫শে রমজানরবিবার শাহ জালাল জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হয় এ মাহফিল।


আয়োজকরা জানানমূলত বিয়ানীবাজার বাসীর মধ্যে ঐক্য আরোও সুদৃঢ় করতে এ আয়োজন।
ইফতার ও দোয়া মাহফিলে বিয়ানীবাজার প্রবাসী আব্দুল বাসিত কয়সরলুৎফুর রহমান সুমনকরিম উদ্দিনসোলায়মান বাসিতআব্দুল আলীমখালেদুর রহমানগিয়াস উদ্দিনমোহাম্মদ কামালতাজুল ইসলামমোরশেদ আলমশরিফ হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় কমিউনিটি ব্যাক্তিবর্গের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আবুল কালাম আজাদআব্দুল হাকিমজাহাঙ্গীর আলমসাব্বির আহমদ দুলাল, শাহ আলম স্বাধীনইকবাল আহমদ জুনাইদমুকিত খানমাসুম আহমেদমনিরুজ্জামান সুহেলসামসুল ইসলামওয়াজিজুর রহমান মুজিবআবুল কালামশিপলু আহমেদ নিয়াজিকাওসার হাসান, ফয়জুর রহমান  প্রমুখ।
শাহ জালাল জামে মসজিদের ইমাম মোওলানা ইসমাইল হোসেন ইফতার পূর্বে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত এবং বিশ্বের সকল মুসলমানদের জন্য বিশেষ মোনাজাত করেন।



আফাজ জনিঃ পরস্পরের মধ্যে ভ্রাত্বিত্ব, সম্পৃতি রক্ষা এবং আল্লাহ্‌র নৈকট্য লাভের আশায় ইফতার ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে বার্সেলোনার সর্ববৃহৎ আঞ্চলিক সংগঠন এসোসিয়েশন কুলতুরাল দে সুনামগঞ্জ এন কাতালুনিয়া গত ৯ই জুন বার্সেলোনার রামলা দেল রাভালের একটি রেষ্টূরেন্টে আয়োজন করা হয় এ অনুষ্ঠান। মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন এসোসিয়েশনের সভাপতি মনোয়ার পাশা, পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম আবির। অনুষ্ঠানে আগত অতিথিবৃন্দকে ধন্যবাদসহ শুভেচ্ছা জানান এসোসিয়েশন কুলতুরাল দে সুনামগঞ্জ এন কাতালুনিয়া সহ-সভাপতি মোঃ হারুন মিয়া। ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ইসরাক ইসলামের পবিত্র কোরআন  তেলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হয় অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিকতা।


ইফতার ও দোয়া মাহফিলে বিশেষ আকর্ষন হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ থেকে আগত অতিথি মুফাস্সির মাওলানা জনাব জুনায়েদ আল-হাবিব। তিনি ইফতার পূর্ব আলোচনায় রমজানের তাৎপর্য নিয়ে উপস্থিতির উদ্দেশে বিশেষ বয়ান পেশ করেন।

সংগঠনের অন্যানের মধ্যে এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল মিয়া, সহকারি কোষাধক্ষ্য নজরুল ইসলাম ছাড়াও আবু ইউসুফ, আঃ হান্নান, ব্দুল হাই, ছুরত খাঁন, সোবহান মিয়া, লেবু মিয়া, দারা চৌধূরী, আব্দুল গনি, এলাইছ মিয়ানাজমুল হুসাইন, আব্দুল মতিন প্রমূখ।

কমিউনিটি নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন  আবুল কালাম আজাদ, মাহারুল ইসলাম মিন্টু,  রফিক মিয়া, শামীম হাওলাদার, জাহাঙ্গীর আলম, আব্দুল কাদির, আনোয়ার চৌঃ, মনিরুজ্জামান সোহেল, আবুল কালাম, গিয়াস উদ্দীন, আব্দুল আজিজ, নূরুল ইসলাম, শফিকুর রহমান, শফিক খাঁন, মহিবুল হাসান খান কয়েশ, ওয়াহিদুল ইসলাম হালিম, আলাউদ্দিন মিয়া, সৈয়দ জুয়েল,  এ আর লিটু, বেলাল উদ্দীন, মঈনুল ইসলাম, আমিন উদ্দিন(রফিক) ইকবাল হুসাইন, আলী আহমদ প্রমূখ।
উল্লেক্ষ্য, আঞ্চলিক সংগঠন হিসেবে এসোসিয়েশন কুলতুরাল দে সুনামগঞ্জ এন কাতালুনিয়াই প্রথম এসোসিয়েশন যারা নির্বাচনের মাধ্যমে তাদের কমিটি গঠন করে

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget