Latest Post


কবির আল মাহমুদ ,মাদ্রিদ : বিক্রমপুর-মুন্সিগঞ্জ জন্ম দিয়েছে অনেক আলোকিত মানুষের। যারা দেশের সীমানা পেরিয়ে বহির্বিশ্বে নেতৃত্ব দিচ্ছেন।
প্রাচিনকাল থেকে ইতিহাস-ঐতিহ্য আর শিক্ষা দীক্ষায় ছিলো বিক্রমপুর-মুন্সিগঞ্জ সুনাম। মুক্তিযুদ্ধসহ সহ দেশের সকল দুর্যোগে বিক্রমপুর-মুন্সিগঞ্জের প্রবাসীরা সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। এছাড়াও এসব প্রবাসীরা দেশে বিনিয়োগ করে দেশ ও দশের কল্যাণেও নিয়োজিত আছেন। প্রবাসের অন্যতম আঞ্চলিক সংগঠন বিক্রমপুর-মুন্সিগঞ্জ সমিতি মাদ্রিদ স্পেনের নব নির্বাচিত কমিটির বর্ণাঢ্য ও জাকজমাক অভিষেক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন বক্তারা।
হল ভর্তি বিক্রমপুর-মুন্সিগঞ্জ এবং কম্যুনিটির গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের স্বত:স্ফূর্ত উপস্থিতিতে অভিষেক অনুষ্ঠানটি গতকাল বুধবার (৫সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বাঙালী অধ্যুষিত লাভাপিয়েসের ঢাকা ক্যাফে রেস্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত হয়।দুই পর্বে বিভক্ত এই অনুষ্ঠান তারা প্রাণভারে উপভোগ করেন। অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে ছিলো পুরাতন কমিটির বিদায়, দ্বিতীয় পর্বে নব নির্বাচিত কমিটির অভিষেক ও আলোচনা সভা এবং শেষে সাংস্কৃতিক পর্ব।
পুরাতন কমিটির বিদায় পর্ব শেষে নতুন কমিটির সভাপতি মাহবুর রহমান ঝন্টুর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক রাসেল দেওয়ান ও যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আব্দুল আলিমের যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্পেনে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের হেড অব চ্যান্সারি হারুন আল রশিদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন সংগঠনের সাবেক প্রধান উপদেষ্টা আক্তার হোসেন আতা
, সদ্য সাবেক সভাপতি গোলাম মোস্তফা জাহাঙ্গীর,উপদেষ্টা ইসলাম শেখ ,সুমন নূর সেন্টু খান জাফর, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি এ এস আর আই রবিন ,আল মামুন ,সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি এনায়েতুল করিম তারেক ,সাবেক সাধারন সম্পাদক কামরুজ্জামান সুন্দর , নব গঠিত কমিটিকে স্বাগত জানিয়ে বক্তব্য দেন ব্যাবসায়ী জাকির হোসাইন ,রাজনীতিবিদ দুলাল সাফা ,রিজভী আলম , আবুল খায়ের ,গ্রেটার সিলেট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি লুৎফুর রহমান ,সাধারন সম্পাদক ইসলাম উদ্দিন পংকী ,শিপার আহমেদ ,ভালিয়েন্তে বাংলার সভাপতি মোঃ ফজলে এলাহী ,ঢাকা জেলা সমিতির উপদেষ্টা এস এম আহমেদ মনির ,মাগুরা সমিতির সভাপতি সৈয়দ মাসুদুর রহমান নাসিম, গাজীপুর জেলা অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোরশেদ আলম তাহের ,ফরিদ পুর সমিতির দিদারুল আলম দিদার,এমদাদ হুসাইন ,নোয়াখালী সমিতির সাধারন সম্পাদক রানা মাসুদুর রহমান ,আনোয়ারুল আজিম ,আবু জাফর রাসেল ,হুমায়ুন কবির রিগ্যান ,ব্রাম্মন বাড়িয়া সমিতির ফখরুল হাসান ,সায়েম সরকার ,মামুনুর রশিদ ডালিম ,মোঃ শামীম ,মোঃ মাঈন উদ্দিন ,জেন্স শিপার ,কাজী পারভেজ ,রুবেল খান প্রমুখ ।
  অভিষিক্ত কর্মকর্তারা হলেন- সভাপতি মাহবুব রহমান ঝন্টু
,সাধারন সম্পাদক রাসেল দেওয়ান ,সাংগঠনিক সম্পাদক জয়নাল আবদীন রানা ,সহ-সভাপতি মো. শাহিন, সহ-সভাপতি আবু তাহের শেখ, সহ-সভাপতি পনির হাওলাদার ,সহ-সভাপতি নুরুল আমিন, সহ-সভাপতি সেলিম হাওলাদার, সহ-সভাপতি মাসুদ শিকদার, সহ-সাধারণ সম্পাদক আবদুল আলিম, সহ-সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল ঢালি, সহ-সাধারণ সম্পাদক শেখ রাজন, সহ-সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম, সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. রাজু, সহ-সাধারণ সম্পাদক সেলিম হাসান, সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. নিশাদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াহিদুজ্জামান, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো. রওনক, অর্থ সম্পাদক সোহেল আহমেদ, সহ অর্থ সম্পাদক মাসুদ রানা, দফতর সম্পাদক সুমন শেখ, সহ-দফতর সম্পাদক জুবায়ের শেখ, প্রচার সম্পাদক মো. রফিক, ধর্ম সম্পাদক ইব্রাহিম খান, ক্রীড়া সম্পাদক রুবেল, সহ-ক্রীড়া সম্পাদক শাওন আহমদ, সংস্কৃতিক সম্পাদক মো. বাবু, নির্বাহী সদস্য মাহফুজ, নির্বাহী সদস্য সেলিম মিয়া, নির্বাহী সদস্য রান্টু হোসেন ও মো. খোকন প্রমুখ।
প্রধান অতিথি বাংলাদেশ দূতাবাসের হেড অব চ্যান্সারি হারুন আল রশিদনতুন কমিটিকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন
, আমার বাড়ি বিক্রমপুর মুন্সিগঞ্জে নয়, কিন্তু বিক্রমপুর মুন্সিগঞ্জ তথা স্পেনে বসবাসরত বাঙালি কমিউনিটির সাথে আমার সম্পর্ক আত্মার আত্মীয়ের মত।রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকারের নেতৃত্বে আমরা সব সময় কমিউনিটির পাশে ছিলাম, আগামীতেও থাকবো।তিনি কমিউনিটির উন্নয়নে সবাইকে একযোগে কাজ করার আহবান জানান। নব নির্বাচিত সভাপতি মাহবুব রহমান ঝন্টু উপস্থিত সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, আপনারা আমাদের যে গুরু দায়িত্ব দিয়েছেন তা পালন করতে আমরা আপনাদের সহযোগিতা চাই। আমরা আপনাদের সহযোগিতায় যথাযথভাবে পালন করবো এবং এই সংগঠনের ঐতিহ্যকে আরো সমৃদ্ধ করবো। এই সংগঠনকে একটি আদর্শ সংগঠনে পরিণত হবে। সাধারণ সম্পাদক রাসেল দেওয়ান অনুষ্ঠান সফল করার জন্য যারা বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করেছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। অনুষ্ঠানে বিক্রমপুর মুন্সিগঞ্জ সমিতির সদস্য পারভেজ-মৌসুমীর ৭ম বিবাহ বার্ষিকী উপলক্ষে কেক কেটে তাদের দাম্পত্য জীবনের সাফল্য কামনা করেন নেতৃবৃন্দ।


লায়েবুর খাঁন : স্পেনের কাতালোনিয়ায় বসবাসরত বিয়ানীবাজারবাসীদের সংগঠন 'বিয়ানীবাজার জনকল্যান এসোসিয়েশন' এর প্রস্তুতি সভা অনুষ্টিত হয়।
গত রবিবার বার্সেলোনার স্থানীয় রেষ্ঠুরেন্টে সংগঠনের সভাপতি লুৎফুর রহমান সুমনের সভাপতিত্বে ও লোকমান হোসেনের উপস্থাপনায়  আলোচনা সভায় উপস্হিত ছিলেন প্রধান উপদেষ্টা আব্দুল বাছিত, ইসলাম উদ্দিন,সালা উদ্দিন,ফয়ছল আহমেদ প্রমুখ ।
আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন সিনিওর সহসভাপতি আব্দুল করিম, সুহেদ মিয়া শাহেদ, সমছু মিয়া ,শাহ আব্দুল কাদির,মোরশেদ আলম লায়েক, খালেদুর রহমান, কবির আহমেদ,হাসান শাহরিয়ার সহ আরো অনেকে ।
সভায় সর্বসম্মতিক্রমে আগামী ১৬ই সেপ্টেম্বর
রবিবার বাদ মাগরিব সংগঠনের পক্ষ থেকে শাহজালাল জামে মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল আয়োজনের সিদ্ধান্ত গৃহিত সহ চলিত মাসের মধ্যে সংগঠনের অভিষেক অনুষ্ঠান করার জন্য গুরুত্ব আরোপ করা হয় ।

লায়েবুর খাঁন : স্পেনের কাতালোনিয়ায় বসবাসরত বিয়ানীবাজারবাসীদের সংগঠন 'বিয়ানীবাজার জনকল্যান এসোসিয়েশনএরপুর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষনা করা  হয়েছে। গত  রা সেপ্টেম্বর রোজ রবিবার বার্সেলোনার স্থানীয় একটি হলে অনুষ্টিত এ সাধারন সভায় বিয়ানীবাজারবাসী উপস্থিত সকল সদস্যদের সম্মতিক্রমে লুৎফুর রহমান সুমনকে সভাপতি ও লোকমান হোসেন সাধারন সম্পাদক এবং সু্হেদ মিয়া শাহেদ অর্থ সম্পাদক, মোরশেদ আলম লায়েককে সাংগঠনিক সম্পাদক করে বিয়ানীবাজার জনকল্যান এসোসিয়েশনের ৩১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়।

সংগঠনের নবনির্বাচিত সভাপতি লুৎফুর রহমান সুমনের সভাপতিত্বে ও লোকমান হোসেনের পরিচালনায় আলোচনা সভায়  উপস্হিত ছিলেন প্রধান উপদেষ্টা আব্দুল বাছিত, উপদেষ্টা ইসলাম উদ্দিন,সালা উদ্দিন,ফয়ছল আহমেদ প্রমুখ ।আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন  সুহেদ মিয়া শাহেদ, সমছু মিয়া ,কবির আহমেদ,হাসান শাহরিয়ার সহ আরো অনেকে ।
অনুষ্টিত সভায় বক্তারা কাতালোনিয়ায় বসবাসরত বিয়ানীবাজারবাসীর  মধ্যকার ঐক্য বজায় রেখে সম্মিলিতভাবে বিয়ানীবাজার  তথা বাংলাদেশের উন্নয়নে ভূমিকা রাখার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। আলোচনা সমালোচনার মধ্যে দিয়ে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট কার্যকরী পরিষদের নিম্নে প্রদান করা হলো :
সভাপতি লুৎফুর রহমান সুমন ,সিনিওর সহ সভাপতি সামছুর রহমান,সহ সভাপতি  ফয়ছল আহমেদ,সহ সভাপতি শিব্বির আহমেদ,সহ সভাপতি আব্দুল করিম,সাধারন সম্পাদক লোকমান হোসেন,সহ সাধারন সম্পাদক শাহ আব্দুল কাদির,যুগ্ম  সম্পাদক মাহফুজুর রহমান (স্বপন),যুগ্ম সম্পাদক জনি আহমেদ,যুগ্ম সম্পাদক খালেদুর রহমান,যুগ্ম সম্পাদক আলী হোসেন,অর্থ সম্পাদক সুহেদ মিয়া (শাহেদ),সহ অর্থসম্পাদক শরিফ হোসেন, সহ অর্থসম্পাদক মোঃ আজাদ,সাংগঠনিক সম্পাদক মোরশেদ আলম লায়েক, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক কবির আহমেদ,প্রচার সম্পাদক মোঃ দেলওয়ার, সহ প্রচার সম্পাদক বাবুল হোসেন,ক্রীড়া সম্পাদক মশিউর রহমান (মোহন),সহ ক্রীড়াসম্পাদক রেজাউল ইসলাম,সহ ক্রীড়াসম্পাদক জামিল আহমেদ,দপ্তর সম্পাদক জামিল হোসেন,সহ দপ্তরসম্পাদক  হাসান শাহরিয়ার,আন্তর্জাতিক সম্পাদক আলমগীর সিদ্দিকী,সহ আন্তর্জাতিক সম্পাদক সালিম হোসেন,ধর্ম সম্পাদক মজির আহমেদ,সহ ধর্মসম্পাদক ওয়াহিদুর রহমান শিপলু,সাংস্কৃতিক সম্পাদক বাবুল আহমেদ, সহ সাংস্কৃতিক সম্পাদক মঞ্জু আহমেদ,সমাজকল্যান সম্পাদক রেদওয়ান আহমেদ,সহ সমাজকল্যান সম্পাদক হোসেন আহমেদ,সহ সমাজকল্যান সম্পাদক লেছু মিয়া,  মহিলা সম্পাদিকা লিপি বেগম,সহ মহিলা সম্পাদিকা জাহানারা আক্তার,সহ মহিলা সম্পাদিকা চমকি ।
 ১৭ সদস্য বিশিষ্ট উপদেষ্টা পরিষদের ব্যক্তি বর্গ হলেন :
প্রধান উপদেষ্টা আব্দুল বাছিত কাওছার,মোঃ ইসলাম উদ্দিন,মোঃ সালা উদ্দিন,হান্নান,আবুল হোসেন,খায়ের আহমেদ আবু,খালেদ আহমেদ,সুহেল আহমেদ,আমিন আলী রফিক,নিজাম উদ্দিন,খালিকুর রহমান,তাজুল ইসলাম,সুলেমান বাছিত,রহিম উদ্দিন,আব্দুল কাদির,সেলিম খাঁন ।


লায়বুর  : গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় কাতালোনিয়া যুবলীগ এর উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ৪৩তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস পালিত হয়েছে।
ত ১৮ই আগষ্ট   বার্সেলোনার স্হানীয়মধুর ক্যান্টিন রেস্টুরেন্টে কাতালোনিয়া যুবলীগের আয়োজনে পবিত্র কোরান শরিফ তেলাওয়াত, দোয়া ও আলোচনার সভা অনুষ্ঠিত হয়। যুবলীগ সভাপতি আমির হোসেন আমুর সভাপতিত্বে শোক দিবসের অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান বিজয়। সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন মোঃ সালাউদ্দিন। এ সময় বক্তব্য রাখেন নাজমুল আলম শফি, সাব্বির আহমদ দুলাল, লালন মিয়া, মনিরুজ্জামান সুহেল প্রমুখ ।

বক্তারা বলেন, সামনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ সরকারকে আবার নির্বাচিত করে জননেত্রী শেখ হাসিনার মিশন এবং ভিশন বাস্তবায়ন করার জন্য প্রবাসে সকল মুজিব সৈনিকেরা এক হয়ে কাজ করতে হবে এবং সামাজিক যোগাযোগ ফেসবুকে জামাত,বিএনপির সকল অপপ্রচার এবং গুজবের দিকে সজাগদৃস্টি রেখে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।
আলোচনা সভা শেষে ১৫ই আগস্টে সকল শহীদের আত্মার শান্তি এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যার দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ দোয়া পরিচালনা করেন বার্সেলোনা ফুলতলি জামে মসজিদের ইমাম কাজি মুজিবুর রহমান ।


মোহা.আব্দুল মালেক হিমু,ফ্রান্স : প্যারিসে সিলেট শাহজালাল স্পোটিং ক্লাব ফ্রান্সের উদ্যোগে দাবা ও ক্যারাম প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করা হয়েছে।
গত ৩০শে জুলাই প্যারিসের গার দো নর্দের পারিজিয়ান হোটেলের হল রুমে প্রথমে ক্যারাম প্রতিযাগিতার উদ্বোধন করেন সিলেট সমাজ কল্যাণ সমিতি ফ্রান্সের উপদেষ্ঠা শহীদ চৌধুরী । ক্লাবের সভাপতি ফয়সল উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও শাহজান মিয়ার পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ইয়থ ক্লাবের সভাপতি শরীফ আল মোমিন, সাধারন সম্পাদক টি.এম রেজা, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর নুর শিকদার, ফ্রান্স বাংলা প্রেসক্লাবের সদস্য সচিব মোহা. আব্দুল মালেক হিমু, স্বরলিপি শিল্পি গোষ্ঠির সভাপতি এমদাদুল হক স্বপন, ফ্রান্স আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক সালেহ আহমদ। এছাড়া দাবার প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন সিলেট সমাজ কল্যাণ সমিতি ফ্রান্সের উপদেষ্ঠা সুনাম উদ্দিন খালেক। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাবেক সভাপতি সালেহ আহমদ চৌধুরী, সাধারন সম্পাদক সুব্রত ভট্টাচাজ শুভ, জালালাবাদ এসোসিয়েশন ফ্রান্সে সভাপতি হেনু মিয়া, ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রিয়জুল ইসলাম, বাংলাদেশ ইয়থ ক্লাবের ক্রিড়া সম্পাদক এম এম রুমেল, আব্দুল আহাদ, সিলেট শাহজালাল স্পোটিং ক্লাব ফ্রান্সের প্রচার সদ্পাদক সামছু মিয়া, বাংলাদেশ ক্রিকেট ক্লাব প্যারিসের সাধারন সম্পাদক ওয়হিদ টিপু সহ কমিউনিটির বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ।


প্রেসরিলিজ: সিলেটের কানাইঘাট প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সিনিয়র সহ সভাপতি, বর্তমানে ফ্রান্স প্রবাসী এবং ফ্রিল্যান্স সাংবাদিক দেলওয়ার হোসেন সেলিমের পিতা আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম (সিরাজ ডাক্তার) আর নেই।

সোমবার (২৩ জুলাই ২০১৮) বিকেল ৪টার দিকে তিনি ইন্তেকাল করেছেন। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি দীর্ঘদিন ধরে ডায়াবেটিক ও লিভার জনিত রোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল প্রায় ৭২ বছর। তিনি স্ত্রী, ছেলে মেয়ে, নাতি নাতনী সহ অসংখ্য আত্বীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলাম ১৯৪৬ সালে ঝিংগাবাড়ী ইউনিয়নের গোয়ালজুর গ্রামের এক সম্ভান্ত পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। পড়াশোনা শেষে সরকারি শিক্ষক হিসেবে কর্মজীবনে যোগদান করেন। একপর্যায়ে তিনি চাকুরী নিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে চলে যান। এরপর দেশে ফিরে গাছিবাড়ি বাজারে তার নিজস্ব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হোসেন ফার্মেসি পরিচালনা করেন। তিনি একজন সমাজসেবী ও শিক্ষানুরাগী হিসেবে সর্বমহলে সুপরিচিত ছিলেন। আর্তমানবতার সেবায় তিনি ১৯৯৯ সালে গ্রামের বাড়ির পাশে ঢাকনাইল দক্ষিণ কমিউনিটি ক্লিনিকের জন্য  গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারকে জমি দান করেন।  
বর্ণাঢ্য কর্ম জীবনের অধিকারী সমাজসেবী আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলামের মৃত্যুতে গোটা এলাকা সহ দেশে বিদেশে শোকের ছায়া নেমে আসে। স্যোশাল মিডিয়া ফেসবুক জুড়ে শোক প্রকাশ ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে অনেকেই স্ট্যাটাস আপলোড করেছেন। অনেকেই তার মৃত্যুর সংবাদ শোনে  সিলেট শহরের মিরাবাজার আগপাড়ার বাসায় ছুটে যান।
সোমবার বাদ মাগরিব মিরাবাজার আগপাড়া জামে মসজিদে প্রথম জানাযার নামাজ এবং রাত ৯ টায় গাছবাড়ি কামিল মাদ্রাসা মাঠে দ্বিতীয়  জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। গাছবাড়ি মাদ্রাসা মাঠে জানাযার নামাজে ইমামতি করেন সিলেট ৫ আসনের সাবেক এমপি মাওলানা ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী। মিরাবাজার জামে মসজিদে ইমামতি করেন মসজিদের ইমাম। বিপুল সংখ্যক মানুষ উভয় জানযায় অংশ গ্রহণ করেন। পরে সিলেট শহরের মানিকপীর কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। 

উল্লেখ্য, মরহুমের বড় ছেলে সাংবাদিক দেলওয়ার হোসেন সেলিম এবং কনিষ্ঠ ছেলে সোয়েব আহমদ  বর্তমানে ফ্রান্সে স্হায়ীভাবে বসবাস করছেন। দ্বিতীয় ছেলে দিলদার হোসেন শামীম কানাইঘাট উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এবং ফ্রেন্ডশিপ এন্টারপ্রাইজের পরিচালক, আরেক কনিষ্ঠ ছেলে সাইফুর রহমান শিপু বর্তমানে গ্রীসে রয়েছেন।  
এদিকে, আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলামের মৃত্যু সংবাদ পেয়ে ফ্রান্সে বসবাসরত তার আত্বীয়স্বজন ও কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ পৃথক দোয়া মাহফিল আয়োজন করেন। মরহুমের কনিষ্ঠ ছেলে সোয়েব আহমদের প্যারিসের বাসায় অনুষ্ঠিত দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন জাফর তালহা। এতে অংশ গ্রহণ করেন ব্যবসায়ী হারুন মিয়া, মরহুমের বড় ছেলে সাংবাদিক দেলওয়ার হোসেন সেলিম, নাতি এনাম আহমদ, কামাল তাজ, সোহেল, আহমদ মোরাদ চৌধুরী শামীম, ছাত্রনেতা খায়রুল আলম মাজেদ প্রমুখ। 

বিভিন্ন মহলের শোক:
সাংবাদিক দেলওয়ার হোসেন সেলিমের পিতা, সমাাজসেবী আলহাজ্ব সিরাজুল ইসলামের  মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় হুইপ সিলেট-৫ (জকিগঞ্জ-কানাইঘাট) আসনের সংসদ সদস্য সেলিম উদ্দিন এমপি,কানাইঘাট উপজেলা  পরিষদের চেয়ারম্যান আশিক উদ্দিন চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম রানা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মরিয়ম বেগম, কানাইঘাট কলেজের অধ্যক্ষ সামছুল আলম মামুন,উপাধ্যক্ষ লোকমান হোসাইন, বিশিষ্ট কলামিস্ট ও কানাইঘাটের উলামায়ে কেরাম গ্রন্থের লেখক আব্দুর রহিম, গাছবাড়ী আইডিয়্যাল কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল মতিন,গাছবাড়ী মডার্ণ একাডেমীর প্রধান শিক্ষক মাহবুবুল হক, কানাইঘাট প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বর্তমানে সিলেট প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি এম.এ. হান্নান,বর্তমান সভাপতি রোটারিয়ান শাহজাহান সেলিম বুলবুল, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এখলাছুর রহমান, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, কোষাধ্যক্ষ মিছবাহুল ইসলাম, সহ সম্পাদক আব্দুন নূর,ক্রীড়া সংস্কৃতি ও প্রকাশনা সম্পাদক মাহবুবুর রশিদ,সদস্য কাওছার আহমদ, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের উপপ্রচার প্রকাশনা সম্পাদক, সাতবাক ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ পলাশ, জেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক এমাদ উদ্দিন মানিক, কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক ও সাবেক মেয়র লুৎফুর রহমান, কানাইঘাট পৌর মেয়র নিজাম উদ্দিন আল মিজান, কানাইঘাট উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও কলামিস্ট মহি উদ্দিন,ঝিংগাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্বাস উদ্দিন, কানাইঘাট সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মামুনুর রশীদ মামুন, দক্ষিণ বাণীগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসুদ আহমদ, আলহাজ্ব বশির আহমদ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরুল আমিন, ঢাকনাইল সমাজ উন্নয়ন সংস্থার সাবেক  সভাপতি নুরুল আম্বিয়া, ঢাকনাইল মডেল কিন্ডার গার্ডেনের সাবেক প্রধান শিক্ষক ও আরব আমিরাত প্রবাসী ফয়জুল ইসলাম জাহিদ, ঝিংগাবাাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আব্বাস উদ্দিন, মেম্বার সাইদুর রহমান, মামুন রশীদ বাবুল, আজমল চৌৌধুরী, সহ  শিক্ষক ফখরুল ইসলাম, সিলেট জর্জ কোর্টের আইনজীবী এডভোকেট আব্দুস সাত্তার, এডভোকেট তাজ উদ্দিন মাখন, নবাব চৌধুরী এডুকেশন এন্ড ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের প্রতিষ্টাতা ও লন্ডন প্রবাসী আহমেদ ইকবাল চৌধুরী, বিএনপি নেতা ও সৌদি আরব প্রবাসী কামাল উদ্দিন, গোয়ালজুর আদর্শ তরুণ সংঘের সাবেক সেক্রেটারি রোটারেক্টর আমিনুল ইসলাম, সাবেক ছাত্র লীগ নেতা ও ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সহ প্রচার সম্পাদক মহি উদ্দিন সুহেল, সাবেক যুবলীগ নেতা ও দুবাই প্রবাসী ফারুক আহমদ, সিলেট জেলা ছাত্রলীগের উপ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক  জামিল আহমদ, বিশিষ্ট সমাজসেবক শিক্ষানুরাগী ও সৌদি আরব বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আবু বকর সিদ্দিক, সাবেক ছাত্র লীগের নেতা ও সৌদি আরব প্রবাসী সায়েম আহমদ, যুব রেড ক্রিসেন্ট সিলেট ইউনিটের যুব প্রধান মোঃ মিনহাজুল আবেদিন, যুব রেড ক্রিসেন্ট সিলেট ইউনিটের জনসংযোগ ও পরিকল্পনা বিভাগীয় প্রধান আফজাল হোসেন তুহিন, রোটারেক্ট ক্লাব অব সিলেট গ্রীণ বাডস এর সভাপতি রোটারেক্টর মাহবুব কামালি, কানাইঘাট উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য ও বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সুহেল আহমদ চৌধুরী, সিলেট ছাত্র ও যুব কল্যাণ ফেডারেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান এইচ এম আব্দুর রহমান, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক রোটারেক্টর ইমদাদুর রহমান ইমদাদ,
ফ্রান্স বাংলা প্রেসক্লাবের আহবায়ক ফয়ছল আহমদ দ্বীপসদস্য সচিব মোহা. আব্দুল মালেক হিমু, সিনিয়র সদস্য মাহবুব হোসাইন, একাত্তার টিভির ইউরোপ প্রতিনিধি নুরুল ওয়াহিদ, অধ্যাপক অপু আলম, এটিএন বাংলা ফ্রান্স প্রতিনিধি দেবেশ বড়ূয়া, নয়া দিগন্তের নুরুল ইসলাম, বাসু গোস্বামী, সুনন্দন বড়ুয়া, মিশুক হোসাইন । ফ্রান্স কমিউনিটি ব্যক্তিদের মধ্যে শোক প্রকাশ করেছেন, আয়েবার মহাসচিব কাজি এনায়েত উল্লাহ , ভাইস প্রেসিডেন্ট ফখরুল আলম সেলিম,  সিলেট বিভাগ সমাজ কল্যান সমিতি ফ্রান্সের সাধারন সম্পাদক সুব্রত ভট্টাচার্জ শুভ, জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সভাপতি হেনু মিয়া, ফ্রান্স বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পদক জালাল খান, সাংবাদিক মান্নান আজাদ, স্বরলিপি শিল্পি গোষ্টির সভাপতি এমদাদুল হক স্বপন, শাহজালাল স্পোটিং ক্লাবের সভাপতি ফয়ছল উদ্দিন প্রমুখ 


মিরন নাজমুলঃ প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসির সাথে মত বিনিময় সভা হয়েছে বার্সেলোনা প্রবাসী বাংলাদেশীদের। গত ২১ জুলাই শনিবার বার্সেলোনা শহরের উরখেল সেন্ত্রো সিভিকের হল রুমে স্পেনে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের উদ্যোগে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। মন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি সরকারি প্রতিনিধি দলের দুই দিনব্যাপী স্পেন সফরের অংশ হিসেবে এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি এবং রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকার  স্থিরচিত্রঃ সালাহ উদ্দিন


স্পেনের মাদ্রিদে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত সভায় মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রবাসীদের বিভিন্ন সমস্যা ও দাবির কথা শোনেন। পরে তার বক্তব্যে সে সব সমস্যা ও দাবিগুলো বিশ্লেষণ করে তার জবাব দেন এবং বিশেষ বিশেষ ক্ষেত্রে দূতাবাসকে সেগুলোর সমাধানকল্পে দূতাবাসকে পরামর্শ দেন। 
উপস্থিতির একাংশ। স্থিরচিত্রঃ সালাহ উদ্দিন।

দাবিগুলোর মধ্যে পাসপোর্ট জটিলতা, পুলিশ ক্লিয়ারেন্স পেতে দীর্ঘসময় ক্ষেপন, প্রবাসীদের ভোটাধিকার, প্রবাসীর মৃত্যুতে লাশ পরিবহনে বাংলাদেশ সরকারের সব খরচ বহন, বার্সেলোনায় স্থায়ী কনস্যুলার অফিস স্থাপন, বিমান বন্দরে প্রবাসীদের নিরাপত্তাসহ বিভিন্ন বিষয় ওঠে আসে। মন্ত্রী প্রবাসীদেরকে বাংলাদেশের সোনালী সন্তান বলে উল্লেখ করে প্রবাসীদের প্রশাসনিক সার্বিক সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন। আলোচনা পর্বে অংশ নেয়া প্রবাসী বাংলাদেশীরা তাদের দাবিদাওয়ার পাশাপাশি দূতাবাসের কার্যক্রমের প্রশংসা করেন। বিশেষ করে প্রায় দেড় বছর ধরে প্রতি দুই মাস অন্তর অন্তর বার্সেলোনায় এসে কনস্যুলার সেবা দেয়ায় স্থানীয় প্রবাসীরা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
সভাপতির বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকার প্রবাসীদের মৌলিক দাবিগুলো প্রবাসীদের পক্ষে মন্ত্রীর কাছে তুলে ধরেন। তিনি প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্সে চলতি অর্থ বছরে অর্জন করা রেমিটেন্স যে কোন সময় থেকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উল্লেখ করে প্রবাসীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।
দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে ২টা পর্যন্ত চলা এই মত বিনিময় সভা সঞ্চালনা করেন দূতাবাসের হেড অব চ্যান্সারি হারুন আল রশিদ। সভায় মন্ত্রীর সফর সঙ্গী হিসেবে উপস্থিত সরকারী কর্মকর্তাবৃন্দ প্রবাসীদের দেশের উন্নয়ন অনেক গুরুত্বপূর্ণ সহযোগী উল্লেখ করে বক্তব্য দেন। এ ছাড়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দূতাবাসের প্রথম সচিব (লেবার উইং) মোহাম্মদ শরিফুল ইসলাম।
উক্ত আলোচনা সভায় বার্সেলোনার স্থানীয় সাংবাদিকসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


জনপ্রিয় অনলাইন : বাংলাদেশী বংশদূত আফতাব হোসাইন যুক্তরাজ্যের সাউথ ওয়েলস ইউনিভার্সিটি থেকে এল.এল.বি অনার্স গ্র্যাজুয়েট লাভ করেছেন।
বুধবার (১১জুলাই) ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাসে আনুষ্টানিক ভাবে এ ডিগ্রি অর্জনের ফলাফল ঘোষনা করা হয়। আফতাব হোসাইন শাহজালাল জামেয়া ইসলামিক স্কুল এন্ড কলেজ থেকে এসএসসি এবং জালালাবাদ ক্যান্টেমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। আফতাব হোসাইন সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার রামপাশা ইউনিয়নের রামপাশা গ্রামের মরহুম জানিজ্জল আলী ও মোছা ছালেহা বেগম দম্পতির ছেলে এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সহকারী অধ্যাপক ডক্টর এম মুজিবুর রহমানের ছোট ভাই। আফতাব হোসাইনের এই সাফল্যের জন্যে দেশ-বিদেশের সকলের দোয়া কামনা করেছেন তার মাতা-ভাই-বোনসহ আত্বীয় স্বজন।

ফয়জুল হক রানাঃ বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার কারামুক্তি কামনা করে কাতালোনিয়া বিএনপি এবং অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে দোয়া ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়। ১৩ জুন বার্সেলোনার ইসলামিক সেন্টার শাহ জালাল জামে মসজিদে বিপুল সংখ্যক মানুষের উপস্থিতিতে এ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। 

কাতালোনিয়া বিএনপির সভাপতি সফিউল আলম শফির সার্বিক তত্বাবধানে এ মাহফিলে আওয়ামী সরকারের দ্বারা মিথ্যা মামলায় কারান্তরীন নেত্রী   বেগম খালেদা জিয়ার কারামুক্তি এবং রোগমুক্তি কামনা করে দোয়া করা হয়। 
স্থানীয় বাংলাদেশী কমিউনিটি নেত্রীবৃন্দ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির হারুন রশীদ, এম লায়েবুর রহমান, মোঃ সাজ্জাদ, আজমান আলী, হোসেন আহমদ সুমন, আনহার মিয়া, রাসেল আহমদ, যুবদল সভাপতি শফিক খান, সাধারণ সম্পাদক ফয়সল আহমেদ, সেচ্চাসেবক দলের সভাপতি আক্কাস মিয়া, সাধারণ সম্পাদক এ আর লিটু প্রমূখ। 

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget