বার্সা লা লিগা শিরোপার দৌড় জমিয়ে তুলল

জনপ্রিয় অনলাইন
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২১
  • ৪৭ বার পঠিত

স্প্যানিশ লা লিগার ৩৩তম রাউন্ডের ম্যাচে আগেই পয়েন্ট হারিয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ আর রিয়াল মাদ্রিদ। পয়েন্ট টেবিলের তিনে থাকা বার্সেলোনার সামনে সহজ সুযোগ ছিল টেবিলের চূড়ায় ওঠার। সেই লক্ষ্যে ঘরের মাঠে বৃহস্পতিবার রাতে গ্রানাডাকে আতিথ্য দেয় বার্সা। লিওনেল মেসির গোলে শুরুটাও দুর্দান্ত বার্সেলোনার। তবে শেষ পর্যন্ত দুর্দান্ত ভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে বার্সার মাঠ থেকে নিজেদের ইতিহাসের প্রথম জয় নিয়ে ফেরে গ্রানাডা। আর তাতেই লা লিগার শিরোপা জয়ের দৌড় জমে ওঠে আরও বহুগুনে।

রিয়ালের মাঠে এল ক্লাসিকোয় হারের পর টানা দুই জয় ও শিরোপা লড়াইয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী দলগুলো পয়েন্ট হারানোয় শিরোপা ভাগ্য ফিরেছিল বার্সার। এক ম্যাচ হাতে রেখেই রিয়ালের সমান পয়েন্ট ছিল তাদের। আর লিগ লিডার অ্যাটলেটির চেয়ে পিছিয়ে ছিল মাত্র দুই পয়েন্টের ব্যবধানে। অর্থাৎ গ্রানাডার বিপক্ষে জয় পেলেই এককভাবে চলতি মৌসুমে প্রথমবারের মতো লিগের শীর্ষে উঠে আসবে বার্সা। অর্থাৎ সবকিছু একেবারে নিজেদের হাতেই ছিল কাতালানদের।

তবে লা লিগায় নতুন মোড়ের জন্ম দেওয়ার জন্যই বোধহয় এমনটা করে বসল বার্সা। ঘরের মাঠে এগিয়ে গিয়ে শেষ পর্যন্ত হেরে বসল। আর তাতেই লিগ টেবিলে সেই আগের মতোই তিন নম্বরে রইলো রোনাল্ড কোম্যানের দল। শীর্ষে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ, দুইয়ে রিয়াল মাদ্রিদ। আর চারে সেভিয়া।

শীর্ষ চার দলকে একে অন্যের চেয়ে পৃথক করে রেখেছে মাত্র তিনটি পয়েন্ট। অ্যাটলেটিকো শীর্ষে অবস্থান করছে ৭৩ পয়েন্ট নিয়ে। বার্সার সমান ৭১ পয়েন্ট নিয়েও দুইয়ে রিয়াল। দুই দলের মুখোমুখি দেখায় দুইবারই রিয়ালের জয়ের কারণেই বার্সার ওপরে অবস্থান বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের। আর ৭০ পয়েন্ট নিয়ে বার্সা ও রিয়ালের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে সেভিয়া।

অর্থাৎ লিগের এখন আর মাত্র পাঁচটি ম্যাচ বাকি থাকলেও বলা মুশফিল ঠিক কাদের ঘরে উঠতে যাচ্ছে লা লিগার এবারের মৌসুমের শিরোপা।

ঘরের মাঠে ডি বক্সের বাইরে গ্রিজম্যানকে পাস দিয়ে দ্রুত ভেতরে ঢুকে পড়েন মেসি। সঙ্গে লেগে থাকা প্রতিপক্ষের একজনকে এড়িয়ে বল ধরার ফাঁকেই ফ্রেঞ্চ ফরোয়ার্ড দারুণভাবে শরীরটা ঘুরিয়ে ফিরতি পাস বাড়ান। আর বল ধরে বাঁ পায়ের কোনাকুনি শটে ঠিকানা খুঁজে নেন আর্জেন্টাইন তারকা। রেকর্ড সাতবারের পিচিচি ট্রফি জয়ী মেসি এবারও ছুটছেন লা লিগায় সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়ার পথে। এই নিয়ে তার গোল হলো ২৬। পাঁচ গোল কম নিয়ে দুইয়ে রিয়াল মাদ্রিদের করিম বেনজেমা।

খেলার দ্বিতীয়ার্ধের ৬৩ মিনিটে সমতায় ফেরে গ্রানাডা। গোল হজম করায় ডাগআউটে বেশ ক্ষুব্ধ দেখা যায় কোম্যানকে। খানিক পরেই কোনো এক বিষয়ে মন্তব্য করায় তাকে লাল কার্ড দেখান রেফারি। এরপর ম্যাচের ৭৯তম মিনিটে মোলিনার গোলে লিড নেয় গ্রানাডা। বাকি সময়ে মরিয়া চেষ্টা চালালেও উল্লেখযোগ্য কোনো সুযোগই তৈরি করতে পারেনি বার্সেলোনা। মাঠ ছাড়ে আসরে ষষ্ঠ হারের তেতো স্বাদ নিয়ে।

আর বার্সার এমন হারেই লিগের দৌড় আরও বেশি রোমাঞ্চকর হয়ে ওঠে। শীর্ষ চার দলের প্রত্যেকেরই এখনও রয়েছে লিগ জয়ের সমান সুযোগ। তবে শেষ পর্যন্ত কাদের ঘরে উঠতে যাচ্ছে ২০২০/২১ মৌসুমের লা লিগার শিরোপা তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে আরও বেশ কয়েকটি রাউন্ড।




নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..