কবির আল মাহমুদ, স্পেন : করোনাভাইরাসে স্পেনে একরাতে নতুন করে আরও ৫৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতে এখনো করোনা সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগে মৃত্যুর সংখ্যা ১২০ জন। এছাড়া নতুন করে আরও অনেক মানুষ আক্রান্ত হওয়ায় আক্রান্তের সংখ্যা ৪ হাজার ২০৯।
এমন অবস্থায় জরুরি অবস্থার তিন ধাপের প্রথমটি জারি হয়েছে। স্পেনের টেলিভিশনের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, চীনের উহান থেকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া ভাইরাসটিতে আশঙ্কাজনক হারে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় জরুরি অবস্থার তিন ধাপের প্রথমটি অর্থাৎ জরুরি রাষ্ট্রীয় সতর্কতা’ (স্টেট অব এলার্ট) জারি করেছে দেশটির সরকার। স্টেট অব এলার্ট জারি থাকবে ১৫ দিন। এছাড়া এই জরুরি সতর্কতা জারির কারণে দেশটির সরকার দেশব্যাপী বিস্তৃতি নানা পদক্ষেপ নিতে পারবে এবং প্রয়োজনে মানুষকে নিজের বাড়িঘর ছেড়ে নিরাপদ স্থানে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়াও হতে পারে। স্প্যানিশ গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে রাজধানী মাদ্রিদে সকল ধরনের রেস্তোরাঁ, পানশালা এবং দোকান বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে। শুধু সুপারমাকের্ট এবং ওষুধের দোকানগুলোই খোলা থাকবে। টিভিই নামের একটি গণমাধ্যম বলছে, এটা শুরু হতে পারে আগামীকাল। তবে আঞ্চলিক কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষণিকভা এ নিয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারেনি। বিশ্বের মধ্যে পঞ্চম সর্বোচ্চ করোনাভাইরাস আক্রান্তের ঘটনা ঘটেছে। ইউরোপে ইতালির পর দেশটির অবস্থান দ্বিতীয়। দেশটিতে করোনাভাইরাসের বিস্তার শুরু হয়েছিল মাদ্রিদ এবং বাস্ক কাউন্টি থেকে।

Axact

Jonoprio

জনপ্রিয়২৪ একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বিশ্বজুড়ে রেমিডেন্স যোদ্ধাদের প্রবাস জীবন নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয় ২০০৩ সালে। স্পেনে বাংলাভাষী প্রবাসীদের প্রথম অনলাইন নিউজ পোর্টাল।.

Post A Comment:

0 comments: