2019-04-21


কবির আল মাহমুদ : আগামী ২৮ এপ্রিল অনুষ্ঠিতব্য স্পেনের জাতীয় নির্বাচনে অভিবাসনবান্ধব ১০ দফার নির্বাচনী ইশতেহারের ঘোষণা দিয়েছে কাতালোনিয়ার বামপন্থী দল এসকেররা রেপুবলিকানা দে কাতালোনিয়া (ইআরসি)। এই নির্বাচনী ইশতেহার প্রচারের মাধম্যে দলটির পক্ষে ভোট চাইছেন প্রবাসী বাংলাদেশীরা।  

ইশতেহারে উল্লেখিত ১০ দফা দাবিগুলোর মধ্যে আছে- পরিবারের সাথে বসবাসের অধিকার, বৈধ বসবাসের সর্বোচ্চ ৫ বছরের মধ্যে স্পেনের নাগরিকত্ব প্রদান, বৈধ বাসস্থানের অনুমতি প্রদান সহজলভ্য ও অপ্রত্যাশিত অনিময় এড়িয়ে চলা, আইনি ও নিরাপদ এসাইলম এর অধিকার প্রতিষ্ঠা করা, নতুনদের স্বাগতম জানানোর পদ্ধতি গতিশীল করা এবং বিকেন্দ্রীকরণ করা, অভিবাসীদের ভোটাধিকার নিশ্চিত করা, বর্ণবাদ এবং বিদেশী বিদ্বেষ প্রতিরোধ করার জন্য যে সকল সংগঠন বর্ণবাদ, বিদেশী বিদ্বেষ এবং মানবাধীকার বিরোধী প্রচারণা চালায় তাদের অবৈধ ঘোষণা করা, সমতা-বৈচিত্র ও মিথষ্ক্রিয়ার মাধ্যমে সকল রাজনৈতিক মতাদর্শকে অন্তঃসাংস্কৃতির দৃষ্টিকোণ থেকে বিচার করা, সম কর্মসংস্থান তৈরিসহ কর্মক্ষেত্রে বিনা বৈষম্য তৈরি নিশ্চিত করা, অভিবাসীদের জন্য সংগ্রহ, অন্তর্ভুক্তি এবং শিক্ষাগত সহায়তা তহবিল নিশ্চিত করা।
কাতালোনিয়ার এই রাজনৈতিক দল ইআরসি-এর বাংলাদেশ বিষয়ক সমন্বয়ক হিসেবে কাজ করেন সালেহ আহমেদ। এবারের জাতীয় নির্বাচনে প্রবাসী বাংলাদেশীদের ভূমিকা নিয়ে তাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, ‘সাম্প্রতিক অতীতের যে কোন নির্বাচনের সাথে তূলনা করলে এবারের নির্বাচনী প্রচারণায় কাতালোনিয়ায় বসবাসকারী আমরা প্রবাসী বাংলাদেশীরা প্রচারণায় বেশি অংশগ্রহণ করছি। 
এ ক্ষেত্রে আমাদের দল ইআরসি অভিবাসনবান্ধব ১০ দফা নির্বাচনী ইশতেহারকে সামনে রেখে আমরা প্রচারণা চালাচ্ছি। আমাদের দল অভিবাসীদের দাবি নিয়ে বেশী কাজ করায় যৌক্তিক কারণে আমাদের পক্ষে প্রচারণাটা বেশি পাচ্ছি তাঁদের কাছ থেকে। এছাড়া তিনি আগামী জাতীয় নির্বাচনে প্রবাসী বাংলাদেশীদের পক্ষ থেকে সংসদ সদস্য প্রার্থী দেবার আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
নির্বাচনের সময় যতই ঘনিয়ে আসছে দলের স্থানীয় নেতৃবৃন্দের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করেন প্রবাসী বাংলাদেশীদেরও বিভিন্ন রাজনৈতিক প্রচারপত্র, প্ল্যাকার্ড, পেস্টুন হাতে নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা নামতে দেখা যাচ্ছে। বাংলাদেশী কমিউনিটির অনেক বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ নির্বাচনী সভায় স্থানীয় বড় বড় রাজনৈতিক নেতাদের সাথে সমান হয়ে স্টেজে ভোটপ্রচারণা ও দাবিদাওয়া নিয়ে বক্তব্য দিচ্ছেন। 
ইআরসি অভিবাসীদের পক্ষে শ্লোগান দিচ্ছে- ভোটা পারা নো ডেসক্রিমিনাসিয়ন। অর্থাৎ বৈষম্যনীতির বিরুদ্ধে ভোট দিন। এই শ্লোগানের প্রবাসীদের নিয়ে বৈষম্যনীতির বিরুদ্ধে ভোট দেয়ার যে আহ্বান করা হচ্ছে সেটা প্রবাসীরা ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন এবং দলটির পক্ষে প্রচারণায় তাদের অংশগ্রহণে আরো অনুপ্রাণিত করছে বলে বিশ্লেষকরা মনে করছেন।


সাহাদুল সুহেদ:  বাংলাদেশে মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহানের হত্যাকাণ্ড- গুরুত্বের সঙ্গে প্রকাশ করেছে স্পেনের সংবাদ মাধ্যম।  স্পেনের জাতীয় দৈনিক লা ভানগুয়ারদিয়াও জনপ্রিয় টেলিভিশন লা সেক্সতাসহ বেশ কয়েকটি সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে  ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহানের হত্যাকা-ের খবর।
স্পেনের প্রভাবশালী জাতীয় দৈনিক লা ভানগুয়ারদিয়াগত ১৮ এপ্রিল আন্তর্জাতিক সংবাদ বিভাগে শিরোনাম করে যৌন হয়রানির রিপোর্টের জন্য বাংলাদেশে এক যুবতীকে জীবন্ত পুড়িয়ে হত্যা
  সংবাদটির শুরুটা ছিলো এভাবে- তার নাম নুসরাত জাহান রাফি। ওরা তার গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। ঘটনার প্রায় দুই সপ্তাহ আগে তিনি তার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। ১৯ বছর বয়সী এ তরুণীর মৃত্যু সাথে সাথে হয়নি। পাঁচদিন পর তার হৃদযন্ত্র পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়। পত্রিকাটিতে নুসরাত হত্যায় জড়িত সন্দেহে মাদ্রাসার পরিচালককে গ্রেফতারের কথাও উল্লেখ করা হয়। নুসরাত হত্যার প্রতিবাদে বাংলাদেশ নারী মুক্তি কেন্দ্র এর ব্যানারে নুসরাতের জন্য পদযাত্রাএর ছবি সংবাদে সংযুক্ত করা হয়।
সেক্সতাটেলিভিশন সংবাদে নুসরাত হত্যার খবর গুরুত্বসহকারে প্রচার করে। ১৯ এপ্রিল প্রচারিত সংবাদটিতে উল্লেখ করা হয়- নুসরাতের মৃত্যু পুরো বাংলাদেশকে হতাশ করেছে। কর্তৃপক্ষ ১৫ জনকে গ্রেফতার করেছে, যাদের মধ্যে সাতজনই হত্যার অভিযোগের সাথে জড়িত। মাদ্রাসার অধ্যক্ষ জেল হাজতে রয়েছেন। নুসরাতের করা অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ নথিভুক্ত যে পুলিশ কর্মকর্তা করেছিলেন, তাকে তার পদ থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।
এল পুবলিকোএর শিরোনাম ছিলো- যৌন নির্যাতন: বাংলাদেশে এক তরুণীকে জীবন্ত পুড়ানো হয়। গত ১৮ এপ্রিল প্রকাশিত এ সংবাদের বিস্তারিত অংশে ছিলো- নুসরাত জাহান রাফী বাংলাদেশে যৌন নির্যাতনের সর্বশেষ শিকার। ১৯ বছর বয়সী মেয়েটি তার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করেছিলেন। অভিযোগের মাত্র ২ সপ্তাহ পরে তাকে তার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জীবন্ত পুড়ানো হয়। ৫দিন পর তিনি মৃত্যুবরণ করেন।
 লা সেক্সতাটেলিভিশনের রিপোর্টের বরাত দিয়ে সংবাদ মাধ্যমটি আরো জানায়, মৃত্যুর আগে শেষ বিবৃতিতে নুসরাত জানায়, ‘অধ্যক্ষ আমাকে স্পর্শ করেছিলেন; আমার শেষ নি:শ্বাস থাকা পর্যন্ত আমি এ অপরাধের বিরুদ্ধে লড়াই করবো।সংবাদের শেষাংশে উল্লেখ করা হয়, এশিয়ার দেশগুলোতে রক্ষণশীল সমাজ কর্র্তৃক প্রত্যাখানের ভয়ে অধিকাংশ যৌন হয়রানির সংবাদ প্রকাশিত হয় না।
এল কমর্সিও’, ‘এল উসিভার্সাল’, ‘টেলিমুণ্ডো’, ‘উল্তিমা অরাসহ স্পেনের
  বিভিন্ন শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যমও নুসরাত হত্যার খবর প্রচার করে।
সুত্র : এসবিএন নিউজ ।


জনপ্রিয় অনলাইন : স্পেনের আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে প্রচারণার অংশ হিসেবে দেশটির ক্ষমতাসীন দল সোস্যালিস্ট পার্টি মাদ্রিদে বাংলাদেশি মুসলমান কম্যুনিটির সাথে মতবিনিময় সভা করেছে। গত ২০ এপ্রিল স্থানীয় সময় রাত ৮টায় শহরটির বাঙালি অধ্যুষিত এলাকা লাভাপিয়েস সংলগ্ন বায়তুল মুকাররম জামে মসজিদে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।  সোস্যালিস্ট পার্টির নেতৃবৃন্দ ছাড়াও বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশি এ মতিবিনিময় সভায় অংশগ্রহণ করেন।
বায়তুল মুকাররম জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি খোরশেদ আলম মজুমদারের সভাপতিত্বে ও ভালিয়েন্তে বাংলার সভাপতি ফজলে এলাহীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত এ মতবিনিময় সভায় সোসালিস্ট পার্টির নেতারা আসন্ন সংসদ নির্বাচনে নিজ দলের প্রার্থীদের জয়ী করার জন্য বাংলাদেশি মুসলিম কম্যুনিটির সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন। বাংলাদেশি কম্যুনিটির নেতৃবৃন্দ লাভাপিয়েস অঞ্চলে একটি বড় মসজিদ নির্মাণের ব্যাপারে বর্তমান ক্ষমতাসীন দল সোসালিস্ট পার্টির সহযোগিতা প্রত্যাশা করার পাশাপাশি অভিবাসী আইন শিথীল করার জন্য দলটির নেতৃবৃন্দের
  দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।


সোস্যালিস্ট পার্টির ফেডারেল এক্সিকিউটিভ কমিশন ও মাদ্রিদ অ্যাসেম্বলীর সদস্য মনিকা সিলভানা গনজালেজ তার বক্তব্যে বলেন, সোসালিস্ট পার্টি অভিবাসী বান্ধব দল এবং সরকার গঠন করলে অভিবাসীদের নিয়ে কাজ করতে আগ্রহী। দলের আরেক নেতা হেনা বলেন, সকলের জন্য নির্ভরশীল একটি দেশ স্পেনগড়তে সোস্যালিস্ট পার্টি কাজ করছে। দলের বিজয় নিয়ে শীঘ্রই আবার দেখা করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি। নির্বাচনে ভোট ও সহযোগিতা চেয়ে আরো বক্তব্য দেন সোসালিস্ট পার্টি নেতা কারোলিনা, মানুয়েল নির্বাচনে দলের জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।
মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশ মুসলিম কম্যুনিটির পক্ষে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের সিনিয়র সহ সভাপতি আল আমিন মিয়া, বায়তুল মুকাররম জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল খালেক। এর আগে সোস্যালিস্ট পার্টির নেতৃবৃন্দ মসজিদে এলে তাদের ফুল দিয়ে স্বাগত জানানো হয়।
সুত্র : এসবিএন নিউজ ।


আফাজ জনিঃ স্পেনের বন্দরনগরী বার্সেলোনার প্রবাসী কুলাউড়াবাসীর ঐক্যের সংগঠন কুলাউড়া ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন এন কাতালোনিয়ার ২০১৯-২০ সেশনের ২ বছর মেয়াদী কার্যকরি কমিটি গঠন সম্পন্ন হয়েছে।

বার্সেলোনার রাভালস্থ একটি রেষ্টুরেটে গত ২২শে এপ্রিল অনুষ্ঠিত হয় নবগঠিত কার্যকরি কমিটির পরিচিতি সভা।


কার্যকরি কমিটির সভাপতি শিপলু আহমেদ নিয়াজীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক কাওসার হাসানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয় এ পরিচিতি সভা।
সঙ্গঠনের প্রতিষ্ঠাকালিন সভাপতি এবং বর্তমান কার্যকরি কমিটির প্রধান উপদেষ্ঠা নজরুল ইসলাম এ সময় নবগঠিত কমিটিকে উপস্থিতির নিকট পরিচয় করিয়ে দেন। সভায় এ সময় প্রবাসী কুলাউড়াবাসী ছাড়াও আমন্ত্রীত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্পেন বাংলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আফাজ জনি, সাংগঠনিক সম্পাদক লোকামান হোসেন, কোষাধ্যক্ষ ফয়জুল হক রানা, প্রথম সদস্য মিরন নাজমুল, প্রচার সম্পাদক এম লায়েবুর রহমান, সদস্য মোঃ সালাহ উদ্দিন, সদস্য জাফার হোসেন প্রমূখ।

সভাপতি শিপলু আহমেদ নিয়াজী, সিনিয়র সহ সভাপতি মুক্তাদির রহমান মুক্তি, সহ সভাপতি আতাউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক কাওসার হাসান, যুগ্ম সম্পাদক এ আর লিটু, সহ সাধারণ সম্পাদক ফয়জুর রহমান, সহ সাধারণ সম্পাদক জায়েদুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল আমিন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউর রহমান রাজা, কোষাধ্যক্ষ আব্দুল মুমিন, সহ কোষাধ্যক্ষ মারুফ আহমদ, প্রচার সম্পাদক সালাম বুলবুল, সহ প্রচার সম্পাদক ইসহাক আলী, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আসাবুর রহমান চৌধুরী, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম, সহ সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক আরাফাত হোসাইন রুমান, ক্রীড়া সম্পাদক আবুল হোসেন, সহ ক্রীড়া সম্পাদক মিঠু আহমদ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক শারমিন আক্তার, সহ মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ফারিহা আক্তার মিম এবং আফাজ জনি, মুজিবুর রহমান, এজাজুর রহমান রাসেল, খোকন মিয়াকে কর্যনির্বাহী সদস্য করে ২৫ সদস্য বিশিষ্ট পূর্নাজ্ঞ কমিটি ঘোষনা করা হয়। 

এছাড়াও নজরুল ইসলাম, আবুল কালাম(শান্তা কলমা), আব্দুল কাদির, আবুল কালাম (বার্সেলোনা), আব্দুল আহাদকে কার্যকরি পরিষদের উপদেষ্ঠা হিসেবে মনোনীত করা হয়।

সভায় উপস্থিত বক্তারা অতীতের ন্যায় ঐক্যবদ্ধভাবে ভবিষৎ কর্মপরিকলনা বাস্তবায়ন এবং সঙ্গঠনকে আরো শক্তিশালী করে মানবতার সেবায় নিবেদিত করে কাজ করবেন বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
উল্লেখ্যঃ গঠনতন্ত্র মোতাবেক বিগত কমিটির মেয়াদপূর্ণ হওয়ার পূর্বেই সদ্য সাবেক সভাপতি আবুল কালাম আজাদের নেতৃত্বে পুরাতন কমিটি বিলুপ্ত করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটির হাতে ক্ষমতা হস্থান্তর করা হয়।


Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget