স্পেনে ঈদ উল ফিতর উদযাপিত


সাহাদুল সুহেদ : যথাযথ মর্যাদা, আনন্দ উৎসব ও ধর্মীয় ভাব গাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে স্পেনে ঈদ উল ফিতর উদযাপন হয়েছে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার স্পেনে বসবাসরত মুসলমান প্রবাসী বাংলাদেশিরা তাদের প্রধান এ ধর্মীয় উৎসব নিজেদের মধ্যে ভাগাভাগি করে নেন। রাজধানী শহর মাদ্রিদ, পর্যটন নগরী বার্সেলোনাসহ স্পেনের বিভিন্ন শহরে ছড়িয়ে থাকা প্রবাসী বাংলাদেশিরা ঈদের নামাজ আদায়, একে অপরের বাসায় গিয়ে ঈদের কুশলাদি বিনিময় করে ঈদের দিনকে আনন্দময় করার চেষ্টা করেন। তবে ঈদের দিন সরকারী ছুটি না থাকায় নামাজ আদায় করেই কাজে ছুটতে দেখা গেছে অধিকাংশদের।

মাদ্রিদ : রাজধানী মাদ্রিদে স্পেনের সবচেয়ে বড় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে ইসলামিক কালচারাল সেন্টার (এম৩০ মসজিদ, ভেনতাস)এ। সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত এ ঈদের জামাতে বিভিন্ন দেশের মুসলিম কুটনীতিকরা অংশগ্রহণ করেন। এ মসজিদে স্পেনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হাসান মাহমুদ খন্দকার, দূতালয় প্রধান এম হারুণ আল রাশিদ, প্রথম সচিব (শ্রম) মোহাম্মদ শরিফুল ইসলাম ঈদের নামাজ আদায় করেন।

বাংলাদেশি অধ্যুষিত লাভাপিয়েসের বায়তুল মুকাররম বাংলাদেশি মসজিদের তত্ত্বাবধানে প্রথমবারের মতো রেইনা সুফিয়া মিউজিয়াম সংলগ্ন খোলা ময়দানে সকাল ৭টা ৪৫ মিনিট ও ৮টা ৪৫ মিনিটে ঈদের ২টি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। জামাত দুইটিতে বাংলাদেশ, পাকিস্তান, মরোক্ক, সেনেগালসহ কয়েক হাজার মুসল্লী অংশ গ্রহন করেন। মহিলাদের জন্য ছিল নামাজের বিশেষ ব্যবস্থা।

বাংলাদেশ দূতাবসের বাণিজ্যিক সচিব মোহাম্মদ নাভিদ শফিউল্লাহ, কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব খোরশেদ আলম মজুমদার, বাংলদেশ অ্যসোসিয়েশনের সভাপতি কাজী এনায়েতুল করিম তারেকসহ স্থানীয় বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক, আঞ্চলিক ও সাংবাদিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ রেইনা সুফিয়া মিউজিয়াম সংলগ্ন খোলা ময়দানে ঈদের নামাজে অংশগ্রহণ করেন।

নামাজ শেষে খুতবায় বিশ্বের মুসলমানদের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করা হয়। বাংলাদেশি অধ্যুষিত এলাকা হওয়ায় রেইনা সুফিয়া মিউজিয়াম প্রাঙ্গনটিতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের আধিক্য ছিল লক্ষ্যনীয়। ঈদকে ঘিরে মিউজিয়াম প্রাঙ্গনটি যেন হয়ে ওঠে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মিলনমেলার একটি ক্ষেত্র। তবে সরকারী ছুটি না থাকায় নামাজ শেষে অনেককেই কাজের উদ্দেশে ছুটতে দেখা গেছে।

মাদ্রিদের সান ক্রিস্টোবাল এর ফ্রন্টন মিনি কাম্পোতে সকাল ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। উল্লেখযোগ্য সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশিরা ঈদের জামাতে অংশগ্রহণ করেন।
বার্সেলোনা:
পর্যটন নগরী বার্সেলোনায় বাংলাদেশি অধ্যুষিত এলাকা রাভাল সংলগ্ন শাহ জালাল জামে মসজিদ, লতিফিয়া ফুলতলী জামে মসজিদ ও দারুল আমাল জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির উদ্যোগে পৃথকভাবে অনেকগুলো ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। শাহ জালাল জামে মসজিদের উদ্যোগে মসজিদে সকাল ৬টা ৪৫ মিনিট, মসজিদ সংলগ্ন খোলা মাঠে সকাল ৭টা ২০ মিনিট, মসজিদে সকাল ৮টা ১৫ মিনিটে ৩টি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। তৃতীয় জামাতে মহিলারাও অংশগ্রহণ করেন। লতিফিয়া ফুলতলী জামে মসজিদের উদ্যোগে মসজিদে সকাল ৬টা ৫০ মিনিট, সকাল ৭টা ৩০ মিনিট, সকাল ৮টা ৩০ মিনিট ও মাকবা প্রাঙ্গনে খোলা ময়দানে সকাল ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। দারুল আমাল জামে মসজিদের তত্ত্বাবধানে সকাল ৬টা ৪০ মিনিট ও সকাল ৭টা ৩০ মিনিটে ঈদের ২টি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও পেদ্রো প্রাঙ্গনে সকাল ৬টা ৪৫ মিনিট, ৭টা ২৫ মিনিট ও ৮টা ৫ মিনিটে ঈদের ৩টি বিশেষ জামাত অনুষ্ঠিত হয়। সান্তা কলোমায় পলি ডিপোর্টিভোতেও অনুষ্ঠিত হয় ঈদের ১টি জামাত।

বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত ঈদের প্রতিটি জামাতেই ছিলো প্রবাসী বাংলাদেশিদের উপচে পড়া ভিড়। নামাজের পর বিশেষ মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহর কল্যাণ কামনা করা হয়। নামাজ শেষে বাংলাদেশিরা একে অপরের সাথে কোলাকুলি ও কুশল বিনিময় করেন।
এছাড়াও স্পেনের টেনেরিফ, লানজারোতে, মালাগা, আলিকান্তে, মুরছিয়া, সেভিয়া, গ্রানাদাসহ বিভিন্ন শহরে ছড়িয়ে থাকা মুসলিম প্রবাসী বাংলাদেশিরা ঈদের নামাজ আদায় ও আনন্দ উচ্ছ্বাসে ঈদ উল ফিতর উদযাপন করেছেন।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget