তুলুজে বৈশাখী উৎসবে শহীদ মিনার স্থাপনের ঘোষনা স্থানীয় প্রশাসনের


নুরুল ওয়াহিদ,তুলুজ থেকে : বাংলাদেশে এখন কদম ফুটার মাস আষাড় হলেও ফ্রান্সে অনুকূল আবহাওয়ার কারনে বাঙ্গালীদের মনে প্রানে লালন করছে বৈশাখ। প্রতি বছর এই সময় পিংক সিটি খ্যাত তুলুজে আয়োজন করা হয় বৈশাখী উৎসব।
আর এই আয়োজন করে বাংলাদেশি কমিউনিটি অ্যাসোসিয়েশন তুলুজ । সাপ্তাহিক ছুটির দিন থাকায় ১৬ই জুন ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনায় আয়োজন করা হয় বৈশাখী উৎসব। বাংলাদেশী কমিউনিটি এসোসিয়েশন তুলুজের সভাপতি ফখরুল আকম সেলিমের সভাপতিত্বে সাকের চৌধুরী ও বিপ্লবের যৌথ পরিচালনায় প্রথম পর্বে স্থানীয় ডেপুটি মেয়র জন ক্লদ দারদলে, অল ইউরোপীয়ান বাংলাদেশ এসোসিয়েশন আয়েবা মহা সচিব কাজী এনায়েত উল্লা,অষ্ট্রিয়া প্রবাসী আয়েবা সহ সভাপতি আহমদ ফিরুজ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।
শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য রাখেব সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক কবি জাহাঙ্গীর হোসাইন।এসময় সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা ফারুক হোসাইন
,শাহীন খান, মোতালেব মিয়া,সহ সভাপতি জুসেফ ডি কোস্থা। ফিরুজ আলম মামুন,কোষদক্ষ তাজিমুদ্দিন খোকন,সমাজ কল্যান সম্পাদক শ্রীবাস দেবনাথ দেব,ইফতেখার মাহমুদ সহ কার্যকরি কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। দ্বিতীয় পর্বে আয়োজন করা হয় নানা রকমের পিঠা মেলা আর আর মনোমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের । ছোট আর বড়দের রং-বেরঙের বৈচিত্র্যপূর্ণ দেশীয় পোশাক, সাজসজ্জায় এক দিনের জন্য হল প্রাঙ্গনটি হয়ে উটে আনন্দমুখর একটি ছুট্ট বাংলাদেশ ।
এ সময় আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ফখরুল আকম সেলিম জানান
, শহরে বেড়ে উটা নতুন প্রজন্মের কাছে বাংলা কৃষ্টি এবং সংস্কৃতি পরিচয় করিয়ে দেয়ার পাশাপাশি অন্যান্য কমিউনিটিতে বাঙ্গালী কৃষ্টি- সংস্কৃতি তুলে ধরতেই তাদের এমন আয়োজন। বাংলাদেশী কমিউনিটি অ্যাসোসিয়েশন তুলুজের বোশাখী অনুষ্ঠানে অতিথি যোগ দিয়ে স্থানীয় ডেপুটি মেয়র জন ক্লদ দারদলে বলেন,বাংলা ভাষা শহীদের স্মরণে খুব শীঘ্রই তুলুজ শহরে শহীদ মিনার র্নিমিন হচ্ছে ।
তুলুজে শহীদ মিনার প্রোজেক্ট প্রশাসন এবং বাংলাদেশী কমিউনিটির মধ্যে একটি সেতু বন্ধন হিসেবে কাজ করবে।তিনি এই প্রজেক্ট বাস্থবায়নে বিলম্ভ হওয়ায় দুঃখ প্রকাশ করেন। আয়েবা মহা সচিব কাজী এনায়েত উল্লাহ বলেন
, তুলুজে ফ্রান্সের বুকে প্রথন শহীদ মিনার স্থাপনের সিদ্বান্তের জন্য স্থানীয় প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন তুলুজের শহীদ মিনার স্থাপনের ধারাবাহিকতা অন্যন্য দেশে ও শহরে শহীদ মিনার স্থাপনের প্রতি প্রবাসী বাংলাদেশীরা আগ্রহ দেখাবে।এতে করে সর্বচ্ছ সম্মান দেখানো হবে ভাষা শহীদ দের। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে ইভা ও শশীর দলের নৃত্যের পাশাপাশী গান পরিবেশন করেন কন্ঠ শিল্পি লাবনী বড়ুয়া, রাখি ও মেহেদী হাসান স্বপন।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget