2017-11-12

রনি মোহাম্মদ,লিসবন,পর্তুগাল : প্রথম বারের মত অনুষ্টিত পর্তুগালের ইউনিভার্সিটি ইনস্টিটিউট অব লিসবন (আইএসসিটিই) কর্তৃক আয়োজিত গ্লোবাল ভিলেজ ইভেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ।
পর্তুগালে আইএসসিটিই বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত বাংলাদেশী শিক্ষার্থী সহ বিশ্বের প্রায় ৩০টি দেশের শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ দেশের স্টল নিয়ে এতে অংশগ্রহণ করেন।
গত ১৩ নভেম্বর সকাল ১১টা থেকে শুরু হয়ে দিনব্যাপি চলে ইভেন্টটির কার্যক্রম।আইএসসিটিই বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজিত ইভেন্টটিতে বিভিন্ন দেশের শিক্ষার্থীরা তাদের নিজ নিজ দেশের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য তুলে ধরেন। মেলায় পর্তুগাল, স্পেন, ব্রাজিল, ইতালি, ফ্রান্স, আমেরিকা, আর্জেন্টিনা, জাপান, মেক্সিকো, সুইডেন, ইংল্যান্ড, গ্রিস, দক্ষিণ কোরিয়া, জার্মানি, চেক রিপাবলিক, চীন, নরওয়ে, নেপাল, ও বাংলাদেশসহ মোট ৩০টি দেশের শিক্ষার্থীদের স্টল ছিল।
ইভেন্টে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের স্টল প্রথম স্থান অর্জন করে। বাংলাদেশ স্টলে ছিল বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী রিকশা, নকশিকাঁথা, তাঁতের শাড়ি ও দেশীয় নিত্যব্যবহার্য সামগ্রী সহ দেশীয় রান্না করা বিভিন্ন ধরনের পিঠা সহ হরেক রকমের খাবার।
আইএসসিটিইর গ্লোবাল ভিলেজ ইভেন্টে বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের সার্বিক সহযোগিতায় করেন বাংলাদেশ দূতাবাস, লিসবন, পর্তুগাল।
মেলায় পর্তুগালে অধ্যয়নরত পিএইচডি শিক্ষার্থী রিমি আহমেদ বিদেশি শিক্ষার্থীদের হাতে মেহেদি দিয়ে করা বিভিন্ন ডিজাইনের আলপনা এঁকে সবাইকে মুগ্ধ করেন। ইভেন্টে উপস্থিত হয়ে বাংলাদেশ স্টল ঘুরে দেখেন পর্তুগালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. রুহুল আলম সিদ্দিকী এবং দূতাবাসের দ্বিতীয় সচীব মোঃ হাসান আব্দুল্লাহ তৌহিদ। শিক্ষার্থীরা মেলায় সহযোগিতার জন্য বাংলাদেশ দূতাবাস ও রাষ্ট্রদূত মো. রুহুল আলম সিদ্দিকীকে ধন্যবাদ জানান।
বাংলাদেশের স্টলের ব্যবস্থাপনায় ছিলেন মো. রাসেল আহমেদ, মোহাম্মদ অরণ্যর রুদ্য, রিমি আহমেদ, সামিউল হক, সিলভানা অরণ্য, গাজি আতিক শামীম, কামাল হোসেন ও সজিব আহমেদ প্রমুখ।

লায়েবুর খাঁন : স্বজন মানেই আত্মার বন্দন এই শ্লোগানকে সামনে নিয়ে স্পেনের বার্সিলোনার কাতালুনিয়ায় সর্ব ইউরোপীয় স্বজন ফাউন্ডেশনের প্রথম স্বজন মিলন মেলা গত ১৪ই নভেম্বের বার্সিলোনার কাতালুনিয়ার স্থানীয় একটি রেস্টুরেন্টে অনুষ্টিত হয়
এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ব স্বজন ফাউন্ডেশন র প্রতিষ্টাতা ফজরুল হক এনাম ,ও সর্ব ইউরোপীয় স্বজন ফাউন্ডেশন র প্রিয় মুখ মর্তুজা আলী বাবুল , স্বজনদের উদ্দেশ্যে স্বজন ফাউন্ডেশনের নিয়ম নীতি ও উদ্দেশ্য সবার সামনে তুলে ধরেন এবং উপস্থিত সকল স্বজনদের ধন্যবাদ ও পরিচয় করিয়ে দেন স্বজন প্রধান ফজরুল হক এনাম ।সভায় উপস্থিত ছিলেন বার্সিলোনার বসবাসরত বাংলাদেশ কমিউনিটির বিভিন্ন রাজনৈতিক সংগঠন, সামাজিক সংগঠন ,ইসলামিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ।
সভায় উপস্থিত স্বজনদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন , ফ্রান্স থেকে আগত অতিথি
স্বজন মর্তুজা আলী বাবুল , বার্সিলোনা কমিউনিটি নেতা যথাক্রমে ,মনোয়ার পাশা,লেবু মিয়া,হারূণ রশিদ,শাহজাহান আহমদ,দিলাল হুসেন,আঃ রকিব স্বপন,এলাইস মিয়া , শাহীন মিয়া , আব্দুল মতিন ,ছুরত মিয়া ,আলাউর রহমান , সুজন মিয়া , হাবিবুর রহমান ,বেলাল উদ্দিন ,রাজু হাসান সৈয়দ ,কিরণ আহমদ , মারুফ আহমেদ ,হাবিবুর রহমান ,রেজাউর রহমান,ফয়সল আহমদ , আকরাম ,বাবলু ,হিমেল,তুফায়েল মিয়া,মুজিবুর রহমান ,জাবেদুর রহমান রাজন,শফিকুন্নুর,মনির আহমদ, সাহেদ আহমদ , জসিম উদ্দিন ,তুহিন আহমদ , ফারুক মিয়া,আব্দুল গনি,আব্দুল ওয়াকিব প্রমুখ।
উপস্থিত সকল স্বজনরা
স্বজন ফাউন্ডেশনের উত্তরুত্তর সফলতা ও ইউরুপের সকল যে যেখানে আসেন তাদের বন্দন যেন আজীবন অটুট থাকে একে অন্যের আত্মার পরম আত্মীয় হয়ে থাকতে পারেন এই আসা বেক্ত করেন , পরিশেষে স্বজনমাওলানা আজিমুল ইসলাম সেলিমের বক্তব্যের পরে তিনি মোনাজাত পরিচালনা করেন ।

রাজারহাট(কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়ের সহায়তায় নদী ভাঙ্গন কবলিত ও বন্যাদূর্গত বাস্তুহারাদের মাঝে ঢেউটিন ও চেক বিতরণ করা হয়েছে।
গত ১৩ই নভেম্বর সোমবার বিকালে উপজেলা পরিষদ চত্বরে অনুষ্ঠিত বিতরণী অনুষ্ঠানে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ আবুল হাসেম, সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ¦ আবুনুর মোঃ আক্তারুজ্জামান, ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ কপিল উদ্দিন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রফিকুল ইসলাম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ ছানাউল্লা, ইউপি চেয়ারম্যান রবীন্দ্রনাথ কর্মকার, প্রেসক্লাব রাজারহাটের সভাপতি এস এ বাবলূ ও সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে উপজেলার বিদ্যানন্দ ও ঘড়িয়ালডাঙ্গা ইউনিয়নের ২৯জন বাস্তুহারা পরিবারের মাঝে ২বান্ডিল করে টিন ও গৃহ নির্মাণের জন্য ৬হাজার টাকার চেক বিতরণ করা হয়। উল্লেখ্য, সম্প্রতি ভয়াবহ বন্যায় এবং তিস্তা নদী ভাঙ্গনের শিকার ২শত বাস্তুহারা পরিবারের মাঝে পর্যায়ক্রমে ঢেউটিন ও গৃহনির্মাণের জন্য চেক বিতরণ করা হবে।

রাজারহাট(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধি : গত ১৪ নভেম্বর মঙ্গলবার কুড়িগ্রামের রাজারহাটে এক গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা করেছে নাকি সে বিষপানে আত্মহত্যা করেছে এ নিয়ে এলাকায় নানা ধরনের জল্পনা-কল্পনার সৃষ্টি হয়েছে।

এলাকাবাসী ও নিহতের পরিবার জানান, উপজেলা নাজিমখান ইউনিয়নের রতিরাম পাঠানপাড়া গ্রামের প্রাণকান্তের কন্যা বাসনা রানী(২১) এর সাথে চার বছর আগে একই উপজেলার রাজারহাট ইউনিয়নের তালতলা গ্রামের চঞ্চল রায়ের বিয়ে হয়। ঘটনার ৫/৭দিন আগে এলাকার জনৈক এক যুবক বাসনা রানীর মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে বিভিন্ন ধরনের ম্যাসেজ প্রেরণ করে। বিষয়টি জানাজানি হলে তার স্বামী সম্প্রতি ওই যুবককে হাজির করে গ্রাম্য শালিশের মাধ্যমে ৪৫হাজার টাকা জরিমানা আদায় করে। এসময় স্বামী চঞ্চল, ভাসুর উজ¦লসহ পরিবারের লোকজন বাসনা রানীকে ভৎর্সনা করে বেদম মারপিট করে গুরুতর আহত করে। এসময় তাকে চিকিৎসা দেয়া হয়নি। বরং তার উপর আরো নির্যাতনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়া হয়। গত সোমবার রাতে বাসনা রানী মারা যায়। বাড়ীর লোকজন বাসনা বিষপানে আত্মহত্যা করেছে বলে চিৎকার দিলে এলাকাবাসী ছুটে গিয়ে লাশ দেখতে পায়। বিষয়টি ধামাচাপা দিতে রাতেই লাশ পুড়ে ফেলার সিন্ধান্ত নেয় স্বামীসহ স্বামীর বাড়ীর লোকজন। এ নিয়ে এলাকায় মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় এলাকার বেশ কয়েকজন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জানান, নির্যাতন করেই মেয়েটিকে হত্যা করা হতে পারে। লাশের শরীরে বিভিন্ন স্থানে মারপিটের দাগ দেখা গেছে। বিষয়টি মিটিয়ে ফেলতে সারারাত বাসনা রানীর বাবার বাড়ীর লোকজনের সাথে দফায় দফায় বৈঠক হলেও লাশ দাহ করা সম্ভব হয়নি। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ভেকটিমের লাশ তার স্বামীর বাড়ীতে পড়ে রয়েছে। ঘটনার পর থেকে স্বামী চঞ্চলসহ পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোখলেসুর রহমান জানান, রাতেই পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছে। তবে নিদিষ্টভাবে কেউ অভিযোগ না দেয়ায় কোন ব্যবস্থা গ্রহন করা সম্ভব হয়নি।

সেলিম উদ্দিন,পর্তুগাল : র্তুগালের ইউনিভার্সিটি ইনস্টিটিউট অব লিসবন (আইএসসিটিই) কর্তৃক আয়োজিত গ্লোবাল ভিলেজ ইভেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ।
আইএসসিটিই বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত বিশ্বের ৩০টি দেশের শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ দেশের স্টল নিয়ে এতে অংশগ্রহণ করেন। মেলায় বাংলাদেশের স্টল গত ১৩ নভেম্বর সকাল ১১টা থেকে শুরু হয়ে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত চলে ইভেন্টটির কার্যক্রম। আইএসসিটিই বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজিত ইভেন্টটিতে শিক্ষার্থীরা তাদের নিজ নিজ দেশের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য তুলে ধরেন। মেলায় পর্তুগাল, আর্জেন্টিনা, জাপান, মেক্সিকো, স্পেন, সুইডেন, গ্রিস, দক্ষিণ কোরিয়া, ইতালি, ফ্রান্স, জার্মানি, চীন, নরওয়ে ও বাংলাদেশসহ মোট ৩০টি দেশের শিক্ষার্থীদের স্টল ছিল। ইভেন্টে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের স্টল প্রথম স্থান অর্জন করে। বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা বাংলাদেশ স্টলে ছিল রিকশা, নকশিকাঁথা, শাড়ি ও নিত্যব্যবহার্য সামগ্রীসহ দেশীয় রান্না করা খাবার। বাদ যায়নি মেহেদিও। পিএইচডি শিক্ষার্থী রিমি আহমেদ বিদেশি শিক্ষার্থীদের হাতে বিভিন্ন ডিজাইনের মেহেদি এঁকে সবাইকে মুগ্ধ করেন। ইভেন্টে উপস্থিত হয়ে বাংলাদেশ স্টল ঘুরে দেখেন পর্তুগালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. রুহুল আলম সিদ্দিকী। স্টলের ব্যবস্থাপনায় ছিলেন মো. রাসেল আহমেদ, রিমি আহমেদ, সামিউল হক, সিলভানা অরণ্য, গাজি আতিক শামীম, কামাল হোসেন ও সজিব আহমেদ প্রমুখ। বিদেশি শিক্ষার্থীর হাতে মেহেদি আঁকার দৃশ্য আইএসসিটিইতে অধ্যয়নরত বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা বলেন, এ ধরনের ইভেন্ট বিশ্ব দরবারে আমাদের নিজস্ব সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য উপস্থাপন করার একটি অনন্য সুযোগ। পর্তুগিজ নাগরিক ছাড়াও অন্যান্য দেশের মানুষের সামনে আমরা বাংলাদেশের বিভিন্ন ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি উপস্থাপন করতে পেরেছি। এটা আমাদের কাছে আনন্দের। শিক্ষার্থীরা সহযোগিতার জন্য বাংলাদেশ দূতাবাস ও মো. রুহুল আলম সিদ্দিকীকে ধন্যবাদ জানান।

নাজমুল হোসেন,ইতালির ভেনিস থেকে : শরীয়তপুর মাদারীপুর ও মানিকগঞ্জের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড: নাভানা আক্তার ইতালির ভেনিস আগমনে ভেনিসে বসবাসরত ভেনিস প্রবাসীদের আয়োজনে বিশাল গণ সংবর্ধনা অনুষ্ঠান গত ১১ই নভেম্বর  শনিবার স্থানীয় একটি হলরুমে অনুষ্ঠিত হয়েছে। শরীয়তপুর এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন ঢালী এর সভাপতিত্বে বিপ্লবী আক্তার ও হান্নান বাবুর যৌথ পরিচালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের শুরুতে সংবর্ধিত অতিথিকে ভেনিস আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ ও শরীয়তপুর জেলা প্রবাসীদের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন প্রধান অতিথি এমপি নাভানা আক্তার,প্রধান বক্তা বাংলাদেশ এসোসিয়েশন ভেনিসের সাধারণ সম্পাদক মজিবুর সরকার,ভেনিস আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি রফিক সৈয়াল,সহ সভাপতি রুহুল আমিন সৈয়াল,বিল্লাল হোসেন ঢালী,সালাউদ্দিন সর্দার,যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান,সাংগঠনিক সম্পাদক মোক্তার মোল্লা সহ ভেনিস বিভিন্ন আঞ্চলিক ও কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ। সংবর্ধিত ব্যক্তি তার বক্তব্যে নিজ জেলার প্রবাসীদের কাছে পেয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে পড়েন। নদী ভাঙ্গন এলাকার জেলা প্রবাসীদের সম্মুখে প্রবাসীদের আকুল আবেদনের পরিপেক্ষিতে তিনি কান্না কণ্ঠে বলেন,শরীয়তপুর জেলার নদী ভাঙ্গন রোধ প্রকল্পের জন্য ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর সাথে আলাপ হয়েছে এবং তিনি এই প্রকল্পের দ্রুত বাস্তবায়নের চেষ্টা করছেন বলে তিনি অতিবাহিত করেন। পরিশেষে স্থানীয় সংগীত ও নৃত্য শিল্পীদের এবং অতিথি শিল্পীদের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রবাসীদের উপস্থিতি ছিল লক্ষণীয়।

জনপ্রিয় অনলাইন : ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের উপকণ্ঠে একটি সড়কে জুমার নামাজ আদায় করার প্রতিবাদ জানিয়েছে প্রায় ১০০ জন ফরাসি রাজনীতিক। শুক্রবার স্থানীয় মুসলিমরা জুমার নামাজ আদায় করার সময় মিছিল করে তারা প্রতিবাদ জানান।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, রাজনীতিকদের প্রতিবাদের মুখে পড়েন প্রায় ২০০ মুসল্লি। ক্লিশি শহরে এই ঘটনা ঘটে। রাজনীতিকরা জাতীয় সংগীত গেয়ে মিছিল করে মুসল্লিদের বাধা দিতে চেষ্টা করেন। পুলিশ উভয় পক্ষকে আলাদা করার চেষ্টা করে। কিন্তু ধস্তাধস্তি এড়ানো যায়নি।
সমালোচকরা বলছেন, সড়কে নামাজ আদায় করা মেনে নেওয়া যায় না। তবে মুসল্লিরা বলছেন, মার্চ মাসে টাউন হল নিষিদ্ধ করার পর নামাজ আদায়ের জন্য তাদের কোনও জায়গা নেই।
প্যারিস আঞ্চলিক কাউন্সিলের সভাপতি ভেলেরিয়ে পেকরিসি রাজনীতিকদের এই আন্দোলনের নেতৃত্ব দেন। তিনি বলেন, সরকারি জায়গা এভাবে দখল করা যায় না।
ক্লিশি শহরের ডানপন্থী মেয়র রমি মুজিউ সড়কে নামাজ আদায় নিষিদ্ধ করার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
আব্দেলকাদের নামের এক মুসল্লি জানান, নামাজ আদায়ের জন্য তারা একটি সম্মানজনক জায়গা চান। জুমার নামাজ সড়কে আদায় করা তাদের জন্য সুখকর নয়।

ফ্রান্সে প্রায় ৫০ লাখ মুসলমান বাস করেন। পশ্চিম ইউরোপের যে কোনও দেশের তুলনায় মুসলমানদের সংখ্যা এখানে সবচেয়ে বেশি।

জনপ্রিয় অনলাইন : স্পেনের প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রাজয় বলেছেন, আগামী মাসে কাতালোনিয়ার আঞ্চলিক নির্বাচন বিচিছন্নতাবাদী ঝড় থামাতে সহযোগিতা করবে। কাতালোনিয়ার সায়ত্বশাসন কেড়ে নিয়ে কেন্দ্রের শাসন জারির অঞ্চলটিতে প্রথম সফরে গিয়ে এ কথা বলেন তিনি।

কাতালোনিয়ার রাজধানী বার্সেলোনায় এক সমাবেশে রাজয় বলেন, গত মাসে স্বাধীনতা ঘোষণার মধ্য দিয়ে কাতালোনিয়া সরকার আলোচনার সব পথ বন্ধ করে দেয়।
পপুলার পার্টি আয়োজিত সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী রাজয় বলেন, বিচ্ছিন্নতাবাদী ঝড় থেকে আমাদের কাতালোনিয়াকে রক্ষা করতে হবে গণতন্ত্র দিয়ে। আমরা কাতালোনিয়ার সবাইকে শান্ত থাকার আহ্বান জানাচ্ছি।
ভাষণে রাজয় দাবি করেন, আঞ্চলিক নির্বাচনে সঠিক ফর আসছে আগামী বছর দেশের অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি ৩ শতাংশ বেশি হবে।
কাতালোনিয়ার স্বাধীনতাপন্থী নেতা কার্লেস পুজেমনকে বরখাস্ত,  আঞ্চলিক সরকারের ক্ষমতা কেড়ে নিয়ে পার্লামেন্টকে ভেঙ্গে দেওয়া এবং অঞ্চলটির স্বায়ত্তশাসন বাতিল করার দুই সপ্তাহ পর রাজয় বার্সেলোনা সফর করলেন। ২১ ডিসেম্বর সেখানে নতুন করে নির্বাচনের দিন ঠিক করা হয়েছে।

এদিকে, স্পেনের বার্সেলোনায় শনিবার স্বাধীনতাপন্থী কাতালান নেতাদের মুক্তির দাবিতে সাড়ে সাত লাখ লোক বিক্ষোভ করেছে। স্পেনের কাছ থেকে স্বাধীনতা দাবি করায় তাদের আটক করা হয়েছে। সূত্র: বিবিসি।

জনপ্রিয় অনলাইন : মিয়ানমারের ডি ফ্যাক্টো নেত্রী ও দেশটির রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা অং সান সু চি আবারও রোহিঙ্গাদের নিরাপদে রাখাইনে ফিরিয়ে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। সোমবার ৩১ তম অ্যাসোসিয়েশন অব সাউথইস্ট এশিয়ান নেশন্স (আসিয়ান)-এর সম্মেলনের প্লেনারি অধিবেশনে এই প্রতিশ্রুতির কথা জানান সু চি। তিনি জানিয়েছেন, বাংলাদেশের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের তিন সপ্তাহের মধ্যে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেবে মিয়ানমার।

মিয়ানমারের সংবাদমাধ্যম ম্যানিলা বুলেটিন জানায়, আসিয়ান সম্মেলনের সভাপতিত্ব করা ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুয়ার্তের মুখপাত্র হ্যারি রক জুনিয়র জানান, সম্মেলনে মিয়ানমারের কাছে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের  নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। এই উদ্বেগের পর সু চি জানিয়েছেন, বাংলাদেশের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের তিন সপ্তাহের মধ্যে রোহিঙ্গাদের রাখাইনে ফিরিয়ে নেওয়া হবে।
হ্যারি রক জানান, সম্মেলনে যখন রোহিঙ্গা শরণার্থীদের অবস্থা জানতে চাওয়া হয় তখন মিয়ানমার জানায় কফি আনান কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুতদের মানবিক সহযোগিতাকে স্বাগত জানানো হচ্ছে।
দুয়ার্তের মুখপাত্র সাংবাদিকদের জানান, ফিলিপাইন শুধু মারাউই শহরের বাস্তুচ্যুতদের পাশাপাশি রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য ত্রাণ সহযোগিতা প্রয়োজন বলে স্বীকার করেছে।
এর আগে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক খবরে জানিয়েছে, আসিয়ান সম্মেলনের খসড়া ঘোষণায় রোহিঙ্গা সংকটের বিষয়টি উল্লেখ করা হয়নি। মঙ্গলবার সম্মেলন শেষে এই আনুষ্ঠানিকভাবে এই ঘোষণা পাঠ করা হবে। ঘোষণার একটি অনুচ্ছেদে ভিয়েতনাম ও ফিলিপাইনে মানবিক সহযোগিতার বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে। একইভাবে রাখাইনে আক্রান্ত সম্প্রদায়কে মানবিক সহযোগিতার কথা শুধু উল্লেখ করা হয়েছে। যদিও রাখাইনে চলমান সামরিক অভিযানের মুখে ছয় লক্ষাধিক রোহিঙ্গার বাংলাদেশে পালিয়ে আসার বিষয়ে কোনও বক্তব্য নেই।
রয়টার্স জানিয়েছে, খসড়ায় রাখাইনের পরিস্থিতির কোনও বিস্তারিত তথ্য দেওয়া হয়নি এবং রোহিঙ্গা শব্দও ব্যবহার করা হয়নি। মিয়ানমারের ডি ফ্যাক্টো নেত্রী অং সান সু চি বিদেশি নেতাদের রোহিঙ্গা শব্দ ব্যবহার না করার আহ্বান জানিয়েছিলেন।
চলমান রোহিঙ্গা সংকট শুরু হওয়ার পর থেকে আসিয়ান সদস্য মালয়েশিয়া উদ্বেগ জানিয়ে আসছিল। তবে আসিয়ানের নীতি সদস্য রাষ্ট্রের অভ্যন্তরীন বিষয়ে কথা না বলার কারণে বিষয়টি সম্মেলনের আলোচ্য হিসেবে গ্রহণ করা হয়নি। এর আগে সেপ্টেম্বর মাসে আসিয়ানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বক্তব্য থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নেয় রোহিঙ্গা ইস্যু না থাকায়।

উল্লেখ্য, ২৫ আগস্ট রাখাইনে পুলিশ ফাঁড়িতে হামলার পর সামরিক অভিযান জোরদার করে মিয়ানমার। এ অভিযানের পর ৬ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। জাতিসংঘ মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জাতিগত নিধনযজ্ঞের অভিযোগ এনেছে। বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থা, রোহিঙ্গারা মানবতাবিরোধী অপরাধের শিকার হচ্ছে বলে দাবি করেছে। মিয়ানমার এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

জনপ্রিয় অনলাইন : বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, বিএনপি দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে যাবে না। শেখ হাসিনার অধীনে কোনো সুষ্ঠু নির্বাচন হবে না, হতে পারে না। যারা সামান্য স্থানীয় সরকার নির্বাচনেই ভোট চুরি করে জিততে চায় তাদের অধীনে জাতীয় নির্বাচনের মতো বৃহৎ দায়িত্ব কোনওভাবেই নিরপেক্ষ হতে পারে না। নির্বাচনে ইভিএম বাতিল ও সেনা মোতায়েন করতে হবে।

রবিবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দলের সমাবেশে খালেদা জিয়া এ কথা বলেন। আওয়ামী লীগ সরকারের সমালোচনা করে খালেদা জিয়া বলেন, এরা ক্ষমতায় থেকে জনগণকে যেমন ভয় পাচ্ছে, তেমনি বিভিন্ন দল বিশেষ করে বিএনপিকে ভয় পায়। যার কারণে আজকের সমাবেশে আসা নেতাকর্মীদের বিভিন্ন জায়গায় বাধা দিয়েছে।
তিনি বলেন, এরা যে এত ছোট মনের, আজকে তারা দ্বিতীয় দিনের মতো প্রমাণ করে দিয়েছে। এত ছোট মন নিয়ে রাজনীতি করা যায় না। এরা মানুষকে ভয় পায়। এজন্য ৭ নভেম্বর আমাদের জনসভা করতে দেয়নি। আজকে অনুমতি দিয়েছে। কিন্তু জনগণ যেন আসতে না পারে, সেই ব্যবস্থা করেছে। গণপরিবহন বন্ধ করে দিয়েছে। বাইরের জেলার মানুষ যেন না আসতে পারে। রাজধানীর হোটেলগুলোতে অভিযান চালিয়েছে। অনেক নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে।
তিনি আরও বলেন, এমনকি আমিও যেন সমাবেশে আসতে না পারি সেই ব্যবস্থাও করেছে। আমি বাসা থেকে বের হয়ে দেখি রাস্তায় খালি বাস রেখে দিয়েছে। খালেদা জিয়া বলেন, বহুদলীয় গণতন্ত্রে মতপার্থক্য থাকবেই, দেশের কল্যাণে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, দেশের বাইরে সরকারের 'এজেন্সির লোক' দিয়ে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহাকে পদত্যাগে বাধ্য করা হয়েছে। তিনি বলেন, দেশ দুর্নীতিতে ছেয়ে গেছে দাবি করে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেন, ‌প্রতিনিয়ত প্রতি প‌দে প‌দে দুর্নী‌তি। দুদুক প‌ড়ে আছে বিএন‌পির পেছ‌নে। অথচ যারা দুর্নী‌তি কর‌ছে তা‌দের দি‌কে চোখ প‌ড়ে না দুদকের। বাংলা‌দেশ ব্যাংক থে‌কে ৮০০ কো‌টি টাকা কারসা‌জি ক‌রে কারা বিদেশে পাচার করেছে দেশবাসী তা জানে। তবু দুদক চুপ হয়ে আছে।
সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, আওয়ামী লীগ যত‌দিন ক্ষমতায় থাক‌বে তত‌দিন দেশে গুম খুন হত্যা চলতেই থাকবে। আমরা রাজনী‌তি‌তে গুনগত প‌রিবর্তন চাই, ঐক্যের রাজনী‌তি কর‌তে চাই। এসময় চলমান রো‌হিঙ্গা সমস্যাকে ভোটার‌বিহীন সরকার নয় দেশের জাতীয় সমস্যা বলে উল্লেখ করেন তিনি। আর এই জাতীয় সমস্যা মোকাবিলায় ভোটারবিহীন এই অবৈধ সরকার চুপ থাকলেও জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সমাধানের পথে অগ্রসর হওয়ার জন্য বিএনপির সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের প্রতি জোর আহ্বান জানান খালেদা জিয়া। 

বিকাল সোয়া ৩টার দিকে সমাবেশস্থলে আসেন খালেদা জিয়া। দীর্ঘ ১৯ মাস পরে রাজধানীর কোনো সমাবেশে বক্তব্য দিচ্ছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। দুপুর ২টার দিকে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সমাবেশ শুরু হয়। ওলামা দলের কেন্দ্রীয় সভাপতি হাফেজ মাওলানা আবদুল মালেক কোরআন তেলাওয়াত করেন।

রনি মোহাম্মদ,পর্তুগাল থেকে: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি পর্তুগালের আয়োজনে গত ১১ নভেম্বর শনিবার মহান জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে পর্তুগালের রাজধানী লিসবনে স্থানীয় গ্রীন চিলি রেস্টুরেন্টে এক  আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
পর্তুগাল বিএনপির সভাপতি অলিউর রহমান চৌধুরী সভাপতিত্বে ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আমির সোহেলের সঞ্চালনায় সভার বক্তব্য রাখেন পর্তুগাল বিএনপির সিঃ সহ-সভাপতি নজরুল ইসলাম সিকদার,
সেভ বাংলাদেশ পর্তুগালের আহ্বায়ক সোলেমান মিয়া, পর্তুগাল বিএনপির সহ সভাপতি কাজী এমদাদ মিয়া,জহির
ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ইউছুফ তালুকদার, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মনজুরুল হোসেন জিন্নাহ, মুকিতুর রহমান চৌধুরী, সাইফুল হক,
সাংগঠনিক সম্পাদক লিটন কাদেরি, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক সুমন আহমদ ও প্রচার সম্পাদক আব্দুল ওয়াহিদ চৌধুরী পারভেজ প্রমুখ। এসময় বক্তারা বলেন, ৭ নভেম্বর মহান জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মাজারে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে শ্রদ্ধা নিবেদনের সুযোগ না দেয়া সরকারের স্বৈরাচারী মনোভাবের বহিঃপ্রকাশ।
শুধু দেশে নয় প্রবাস থেকেও সকলে এক সাথ হয়ে দেশের হারিয়ে যাওয়ায় গণতন্ত্র এবং ভোটাধিকার, সার্বভৌমত্ব, বাকস্বাধীনতা ফিরিয়ে আনতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget