2017-02-05

জনপ্রিয় অনলাইন ডেস্ক : কানাডার একটি আদালত পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির ষড়যন্ত্রের প্রমাণ না পাওয়ার বিষয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে বিএনপি কখনো মন্তব্য করেনি। এখন কোথায় কী প্রমাণ হলো না হলো, তা বিএনপির বিষয় নয়। দুর্নীতির অভিযোগে বিশ্বব্যাংক পদ্মা সেতুর অর্থায়ন বন্ধ করে দিয়েছিল। এটা নিয়ে তখন বিএনপি বক্তব্য দিয়েছিল।

আজ শনিবার বিকেলে বাংলা একাডেমিতে একুশে গ্রন্থমেলায় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন। এর আগে তিনটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন তিনি।
পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির ষড়যন্ত্রের প্রমাণ পাননি কানাডার টরন্টোর এক আদালত। তাই কানাডার মন্ট্রিলভিত্তিক প্রকৌশল প্রতিষ্ঠান এসএনসি-লাভালিনের সাবেক তিন কর্মকর্তাকে অভিযোগ থেকে খালাস দেওয়া হয়।
আজ পত্রিকায় প্রকাশিত ছবিতে দেখা যায়, নতুন মনোনীত প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা স্থানীয় রাজনৈতিক নেতাদের মিষ্টি খাওয়াচ্ছেন, ফুল নিচ্ছেন। বিষয়টি উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল আবারও নতুন মনোনীত সিইসির নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। তিনি বলেন, আজ গণমাধ্যমে প্রকাশিত ছবির মাধ্যমে প্রমাণিত হয়েছে, সিইসির বিষয়ে বিএনপি যে বক্তব্য দিয়েছিল, তা সত্য। এই সিইসির নেতৃত্বে নির্বাচন কমিশন (ইসি) কখনোই নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করতে পারবে না। তাঁর দলীয় পক্ষপাতের বিষয়টি এখন পরিষ্কার হয়ে গেছে।

জনপ্রিয় অনলাইন : বাংলাদেশে প্রতিবছর বিদেশি পর্যটক আসার সংখ্যা দুই লাখের বেশি নয়। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) বরাত দিয়ে জাতিসংঘের ওয়ার্ল্ড ট্যুরিজম অর্গানাইজেশনের (ইউএনডব্লিউটিও) প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য পাওয়া গেছে। ইউএনডব্লিউটিও এই তথ্য বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের কাছেও পাঠিয়েছে।

অবশ্য বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড (বিটিবি) কর্তৃপক্ষ এই তথ্যকে অসম্পূর্ণ বলছে। তবে এই তথ্য কেন অসম্পূর্ণ বা প্রকৃত তথ্য কী, সে ব্যাপারে প্রথম আলোর পক্ষ থেকে জানতে চাওয়া হলে সংস্থাটি কোনো সদুত্তর দিতে পারেনি।
পরিসংখ্যান ব্যুরো থেকে ইউএনডব্লিউটিওকে পাঠানো হিসাবে দেখা গেছে, ২০১১ থেকে ২০১৪এই চার বছরে বাংলাদেশে পর্যটক এসেছেন যথাক্রমে ১ লাখ ৫৪ হাজার ৬১৭, ১ লাখ ২৪ হাজার ৯৪৩, ১ লাখ ৪৮ হাজার ৩৪৯ ও ১ লাখ ২৫ হাজার ৩৪ জন।
যদিও ২০১৬ সালকে পর্যটনবর্ষ ঘোষণা করার সময় পুলিশের বিশেষ শাখার উদ্ধৃতি দিয়ে বিটিবি কর্তৃপক্ষ বলেছিল, ২০১৫ সালে বাংলাদেশে বিদেশি পর্যটক আসেন প্রায় ৬ লাখ ৪২ হাজার। এ ছাড়া সরকারের তিন বছর মেয়াদি
ভিজিট বাংলাদেশ প্রকল্পের যে লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়, তাতে উল্লেখ করা হয়‍, ২০১২ সালে ৫ লাখ ৮৩ হাজার বিদেশি পর্যটক আসেন। বিটিবির লক্ষ্য বলা হয়েছে প্রতিবছর পর্যটকসংখ্যা ১৫ শতাংশ হারে বাড়ানো হবে।
বিবিএস ও বিটিবিএই দুই প্রতিষ্ঠানই বিশেষ শাখা থেকে তথ্য পেয়েছে দাবি করলেও সেই তথ্যে গরমিল রয়েছে।
বিটিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আখতারুজ্জামান খান কবির প্রথম আলোকে বলেন, বিটিবি এসব তথ্য পেয়েছে বিশেষ শাখা থেকে।
আর বিবিএসের ডেপুটি ডিরেক্টর শাহাবুদ্দিন সরকার প্রথম আলোকে বলেন, আমরা নিজেরা কোনো পরিসংখ্যান করি না। পুলিশের বিশেষ শাখা (এসবি) এ বিষয়ে হালনাগাদ করা তথ্য আমাদের দিলে তা আমরা সেটি দিই। তিনি আরও বলেন, দেশে কত বিদেশি পর্যটক আসেন, সেই হিসাব একমাত্র পুলিশের বিশেষ শাখা (এসবি) করে থাকে। পৃথিবীর সব দেশেই বিশেষ ব্রাঞ্চ তথ্য হালনাগাদ করে থাকে।

ইউএনডব্লিউটিও তাদের সদস্যদেশগুলোর পর্যটন পরিসংখ্যান নিয়ে প্রকাশনা বের করে থাকে। ২০১১ থেকে ২০১৪ সালের তথ্য বাংলাদেশ ইউএনডব্লিউটিওকে দিলেও ২০১৫ সালের পরিসংখ্যান দিতে পারেনি। এ জন্য ইউএনডব্লিউটিও বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডকে গত বছরের মার্চে পাঠানো ই-মেইল বার্তায় তথ্য দেওয়ার জন্য অনুরোধ করে। কিন্তু ট্যুরিজম বোর্ড ২০১৫ সালের কোনো তথ্যই দিতে পারেনি ইউএনডব্লিউটিওকে। ২০১৬ সালের হিসাবও পাওয়া যায়নি।
এ ব্যাপারে শাহাবুদ্দিন সরকার প্রথম আলোকে বলেন, স্পেশাল ব্রাঞ্চ কোনো তথ্য দেয়নি ২০১৫ সালের। ২০১৫এর পাশাপাশি সরকার ঘোষিত পর্যটনবর্ষ-২০১৬ সালেও কতজন বিদেশি পর্যটক এসেছেন, তা জানা যায়নি।
সংস্থাটির ওয়েবসাইটে দেশে ২০০০-০৯ সালে বিদেশি পর্যটক আগমনের পরিসংখ্যানের একটি তালিকা দেওয়া রয়েছে। এই তালিকার শেষ বর্ষ ২০০৯ সালে ২ লাখ ৬৭ হাজার ১০ জন পর্যটক এসেছেন উল্লেখ করা হয়।
অবশ্য পুলিশের বিশেষ শাখার দুজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে আনুষ্ঠানিক কোনো মন্তব্য করতে চাননি। একজন কর্মকর্তা বলেন, তাঁদের হিসাবে ভুল থাকার কারণ নেই।
বাংলাদেশের ট্যুর অপারেটররাও দাবি করছেন, রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে ২০১৩ সাল থেকে দেশে ক্রমাগত বিদেশি পর্যটক কম আসছেন। জঙ্গি হামলার কারণে গত বছরও পরিস্থিতির পরিবর্তন হয়নি বলে জানিয়েছেন তাঁরা। কিন্তু বিটিবির নির্বাহী কর্মকর্তা (বিপণন ও পরিকল্পনা) এ কে এম রফিকুল ইসলাম পর্যটন ব্যবসায়ীদের এমন দাবি নাকচ করে বলেন, দেশে বিদেশি পর্যটকের সংখ্যা বাড়ছে দিন দিন। তবে পর্যটক ট্যুর অপারেটরদের মাধ্যমে বিদেশিরা আর ভ্রমণে আসছেন না আগের মতো। সরাসরি নিজেরাই আসছেন।
জঙ্গি হামলার ব্যাপারে এ কে এম রফিকুল ইসলাম বলেন, গুলশানের হলি আর্টিজানে হামলার পর জাপান ও ইউরোপ থেকে ট্যুর বাতিল হয়েছে, এটা ঠিক। কিন্তু একই সময়ে চীন, ভারত ও অন্যান্য দেশের পর্যটকের আবার বেড়েছে। অবশ্য বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন শাহবাগে এক অনুষ্ঠানে বলেন, গুলশানে হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলার মধ্যে পর্যটক আসার সংখ্যা কমে গেছে।

বিটিবি এবং বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের মধ্যে যে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (২০১৬ সালের ১ জুলাই থেকে ২০১৭ সালের ৩০ জুন) হয়েছে, তাতে বিটিবির সমস্যা ও চ্যালেঞ্জগুলোর মধ্যে উল্লেখ করা হয়েছেবাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডে ক্যাটাগরিভিত্তিক পর্যটন আগমন-বিষয়ক কোনো তথ্য-উপাত্ত নেই। এ-বিষয়ক ডেটাবেইস তৈরি করার ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সংস্থা, যেমন : বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো, বিশেষ শাখা, বাংলাদেশ মিশন ইত্যাদির কাছে নির্ভরশীল হতে হয়। পর্যটক আগমনসংক্রান্ত ডেটাবেইস তৈরি করার বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলোকে সমন্বিত করে কার্যক্রম গ্রহণ বিটিবির অন্যতম একটি চ্যালেঞ্জ।

জনপ্রিয় অনলাইন : আগামী ৬ মার্চ থেকে কেএম নুরুল হুদার নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের নির্বাচন কমিশনের নির্বাচনী পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। ওইদিন নতুন ইসির অধীন দেশের ১৮টি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে দলীয়ভিত্তিতে প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি নতুন কমিশনের শপথের পরই দায়িত্ব শুরু হচ্ছে। এছাড়াও ২২ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে গাইবান্ধা-১ আসনের উপ-নির্বাচন। নির্বাচন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সামনে দিনগুলি নতুন ইসির জন্য অগ্নিপরীক্ষা। নতুন ইসি কেমন হবে, তা ৬ মার্চের নির্বাচনের পর বোঝা যাবে। তবে নির্বাচন সুষ্ঠু ও প্রভাবমুক্তভাবে সম্পন্ন করে সদ্যবিদায়ী রকিব কমিশনের বদনাম ঘোচানোর সুযোগ পাবেন।
ইসি সূত্রে জানা গেছে, নতুন ইসির অধীন ২০১৮ সালের ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে একাদশ সংসদ নির্বাচন। যদিও সংসদ নির্বাচনের আগে সাতটি সিটি করপোরেশনের ভোট গ্রহনের সুযোগ পাবে নতুন ইসি। এর মধ্যে চলতি বছরেই শুরু হবে কুমিল্লা ও রংপুর সিটির ভোট। আগামী সংসদ নির্বাচনের আগে গাজীপুর, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট সিটির ভোট অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ৬ মার্চ দেশের ১৪ জেলার ১৮ উপজেলায় চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেন বিগত নির্বাচন কমিশন (ইসি)। গত ১ ফেব্রুয়ারি ইসি থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা সংশ্লিষ্ট নির্বাচন কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসনকে জানানো হয়েছে।

গত ৬ ফেব্রুয়ারি সার্চ কমিটির সুপারিশের পর রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ কে এম নুরুল হুদাকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার করে পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করেন। অন্য কমিশনাররা হলেন-সাবেক অতিরিক্ত সচিব মাহবুব তালুকদার, সাবেক সচিব মো. রফিকুল ইসলাম, অবসরপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজ বেগম কবিতা খানম ও ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদত্ হোসেন চৌধুরী।

জনপ্রিয় অনলাইন : গত বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় ভোর থেকে যুক্তরাষ্ট্রে তুষার ঝড় শুরু হয়েছে।
তুষার ঝড়ে স্থবির হয়ে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের জনজীবন। দেশটির নিউ ইয়র্ক, পেনসিলভেনিয়া, নিউজার্সি, কানেটিকাট ও রোড আইল্যান্ডের বাসিন্দাদের ভোগান্তি চরমে। যার মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশিরাও। এসব এলাকায় প্রায় ২৮ লাখ আমেরিকানের বসবাস। এর মধ্যে রয়েছে প্রায় চার লাখ বাংলাদেশি।

ভোর থেকে ঘণ্টায় ৪০ থেকে ৫৫ মাইল বেগে এ তুষার ঝড় বয়ে যায়।  কয়েক ইঞ্চি বরফে ঢাকা পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের এ অঞ্চলগুলো।  ফলে এলাকাগুলো সড়ক, রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়েছে। বাতিল হয়েছে কয়েক হাজার ফ্লাইট।

তুষার ঝড়ের কারণে সন্ধ্যায় বিশেষ সতর্কতা জারি করে কর্তৃপক্ষ।

জনপ্রিয় অনলাইন : ইন্দোনেশিয়ার রাজধানী জাকার্তার জাতীয় মসজিদ ইসতিকলালে শনিবার ১ লাখের বেশি মানুষ গণ প্রার্থনায় অংশগ্রহণ করার মধ্য দিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে। আগামী বুধবার অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে মুসলিম প্রাথীকে সমর্থন দেওয়ার জন্য প্রার্থনাসভায় আহ্বান জানায় ধর্মীয় নেতারা।
কোরআনের নিন্দাজ্ঞাপনকারী জাকার্তার গভর্নর বাসুকি জাহজা পূর্ণমার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে রাস্তায় মিছিল করার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে পুলিশ। তাই বিক্ষোভ প্রদর্শনে শনিবার মসজিদে লোকজনকে জড়ো করা হয়। দেশটির ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী চীনা ক্রিশ্চিয়ান জনগণ আহক নামে পরিচিত। এই সম্প্রদায়ের গভর্নর বাসুকি ধর্মের নিন্দা করায় ব্লাসফেমির দায়ে তার বিরুদ্ধে বিচার চলছে। ওদিকে নির্বাচনে বাসুকির প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন অপর দুই মুসলিম প্রার্থী হারিমুর্ত্রি ইয়োধুয়ানো এবং আনেইস বাসওয়েদান। 

২০১৯ সালে দেশটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তাই এ নির্বাচনকে বিশ্লেষকরা প্রক্সি নির্বাচন হিসেবে দেখছে। এক বিক্ষোভকারী জানিয়েছেন, ১৫ ফেব্রুয়ারি একজন মুসলিম নেতাকে ভোট দিয়ে আমরা সন্তুষ্ট থাকতে চাই। জাকার্তা একজন মুসলিম নেতার দ্বারা শাসিত হবে, যিনি আল্লাহর প্রতি নিজেকে উৎসর্গ করবেন। এছাড়া তিনি ইয়োধুয়ানো, বাসওয়েদেনকে নির্বাচিত করতে নাগরিকদের প্রতি আহ্বান জানান।


এদিকে পুলিশ জানিয়েছে, এদিন লাখো মানুষ বিক্ষোভে অংশ নেয়। এত মানুষ হয় যে, মসজিদে তার ধারণক্ষমতা ছিলো না। রাস্তায়ও বহু মানুষ অবস্থান নেয়।  সারা দেশ থেকে জনতার ঢল রাজধানীর দিকে নেমে আসে। বিশেষ এই প্রার্থনা সভায় অন্য দুই মুসলিম প্রার্থীকেও দেখা যায়। ওদিকে এ নির্বাচনে প্রার্থীরা যদি ৫০ শতাংশর বেশি ভোট না পান তাহলে এপ্রিলে পুনরায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আল জাজিরা।

জনপ্রিয় অনলাইন : জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র এবং প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় বলেছেন, শেখ হাসিনার সরকারের সুনাম নষ্ট করতেই বিশ্বব্যাংক পদ্মা সেতু নিয়ে দুর্নীতির মিথ্যে অভিযোগ তুলেছিল। তত্কালীন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন বাংলাদেশ সরকারকে শায়েস্তা করতে এ সেতুর অর্থায়ন বন্ধ করতে নির্দেশ দেন বিশ্বব্যাংককে। আমার মায়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ড. মুহাম্মদ ইউনূসের বারবার তাগাদার অংশ হিসেবেই হিলারি এ কাজ করেছিলেন।

পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির ষড়যন্ত্রের অভিযোগ কানাডার আদালতেও নাকচ হয়ে যাওয়ার পর গতকাল শনিবার সজীব ওয়াজেদ জয় তার ফেসবুকে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে এ কথা বলেন। সজীব ওয়াজেদ জয় বিশ্বব্যাংক, সাবেক মার্কিন  পররাষ্ট্র মন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন ও গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ড. মুহাম্মদ  ইউনূসের কড়া সমালোচনা করেন। এই প্রকল্পে দুর্নীতি হয়েছিল বলে যেসব সমালোচনাকারী সরব হয়েছিলেন, তাদের ক্ষমা চাওয়ারও আহ্বান জানান সজীব ওয়াজেদ জয়।
পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির ষড়যন্ত্রের মামলার রায়ে কোনো দুর্নীতির প্রমাণ পাওয়া যায়নি বলে রায় দেন কানাডার টরেন্টোর এক আদালত। তাই কানাডার মন্ট্রিলভিত্তিক প্রকৌশল প্রতিষ্ঠান এসএনসি-লাভালিনের সাবেক তিন কর্মকর্তাকে অভিযোগ থেকে খালাস দেওয়া হয়। সজীব ওয়াজেদ জয় তার পোস্টে লেখেন,
বিশ্বব্যাংক  মনগড়া প্রমাণ হাজির করেছিল। আমি নিজে এ সব প্রমাণপত্র দেখেছি। এগুলো একেবারে বানানো। কোনো কিছুরই বিশদ প্রমাণ নেই। একটা অজানা সূত্রের কথা বলা হয়েছিল। যার নাম কখনো প্রকাশ পায়নি। এমনকি কানাডার আদালতও তা খুঁজে পায়নি।

ড. মুহাম্মদ ইউনূস সম্পর্কে সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন,তার কারণে বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অবকাঠামোর প্রকল্প বন্ধ করার চেষ্টা করেছিল। এই সেতুর ফলে লাভবান হবে বাংলাদেশের কয়েক কোটি মানুষ। আর এতে বদলে যাবে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল। ইউনূস বিদেশি শক্তির সহযোগিতা নিয়ে ইচ্ছাকৃতভাবে বাংলাদেশের ক্ষতি করতে চেয়েছিলেন।
সজীব ওয়াজেদ লেখেন, মুহাম্মদ ইউনূস ও তার পরিবারের সদস্যরা মিলে গ্রামীণ ব্যাংকের ৩০ শতাংশ শেয়ারের মালিক।

জয় লিখেছেন,এটা লজ্জাজনক যে আমাদের সুশীল সমাজের একটি অংশ বিশ্বব্যাংকের পক্ষ নিয়ে এ দেশের বিপক্ষে অংশ নেন। তারা দেশের অত্যন্ত সম্মানিত, দক্ষ এবং পরিশ্রমী মানুষের সম্মান নষ্ট করেছেন। এ সব ব্যক্তিদের মধ্যে আমার মায়ের উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান রয়েছেন। বাংলাদেশের বিপক্ষে অবস্থান নেওয়া এ সব মানুষ দেশপ্রেমিক নন। সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, তার আওয়ামী লীগ সরকার এবং সম্মান ক্ষুণ্ন হওয়া মানুষদের কাছে এ সব সমালোচকের ক্ষমা প্রার্থনা এখন পাওনা। তিনি আরো বলেন, তাদের উচিত বাংলাদেশের কাছেও ক্ষমা চাওয়া।

লায়েবুর খান : বাংলাদেশের প্রথম এইচডি টেলিভিশন চ্যানেল এসএটিভির ৪র্থ বর্ষপূর্তি এবং ৫ম বছরে পদার্পন উপলক্ষ্যে স্পেনের বার্সেলোনা বাংলা স্কুলের কোমলমতি শিক্ষার্থীদের নিয়ে আনন্দ উৎসব পালন করা হয়।

গত ১৯ জানুয়ারী স্থানীয় এস্কুয়েলা পিয়া'য় এসএটিভির স্পেন প্রতিনিধি লোকমান হোসেন এর ব্যবস্হাপনায় ও বার্সেলোনা বাংলা স্কুলের সার্বিক সহযোগিতায় কমিউনিটি বিশিষ্ঠ ব্যক্তিবর্গের উপস্হিতিতে কেক কেটে এসএটিভির জন্মদিন উদযাপন করা হয় ।
জাহাঙ্গীর আলমের পরিচালনায় অনুষ্টানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন বাংলা স্কুলের শিক্ষার্থী।
আফাজ জনি এবং জিনাত শফিক টেলিভিশনের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করে উপস্থিতির পক্ষ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করেন। পরে জাতীয় সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশন করেন স্কুলের শিক্ষার্থীরা।
এসময় অন্যানের মধ্যে আলাউদ্দিন হক, আউয়াল ইসলাম, শাহ আলম স্বাধীন, মনোয়ার পাশা, মোহাম্মদ জুয়েল আহমেদ, শফিক খান, জাহাঙ্গীর আলম, লায়েবুর রহমান, তৌফিকুজ্জামান সহজ, মনিরুজ্জামান সুহেল প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
উপস্হিত সবাই এসএ টিভির সাফল্য কামনা করে আশা ব্যাক্ত করেন, যাতে এসএটিভি প্রবাসী বাংলাদেশীদের সুখে দুঃখে সাথে থাকে এবং প্রবাসীদের সমস্যা গুলো তুলে ধরার উপর গুরুত্ব আরোপ করে।
আনন্দ উৎসবে এসএটিভির মাধ্যমে বার্সেলোনা প্রবাসী জন্য স্হায়ী শহিদ মিনার স্হাপনের জন্য ঐক্য বদ্ধ হওয়ার আহবানও জানানো হয়।

লায়েবুর খান : বিদ্যার দেবী শ্রী শ্রী সরস্বতী পূজা পালন করেছে স্পেন প্রবাসী সনাতন ধর্মাবলর্ম্বীরা ।
গত ১লা ফেব্রুয়ারী পুজা দে ফিয়েস্তা কোলতোরাল দে বাঙ্গালী বার্সেলোনার স্হানীয় মন্দীরে হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম এই ধর্মীয় উৎসবে পঞ্চমী তিথিতে বিদ্যা ও জ্ঞানের অধিষ্ঠাত্রী দেবী সরস্বতীর চরণে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন অগণিত ভক্তরা । এসময় সংগঠনের নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্হিত ছিলেন, রওনাথ চট্টপদ্যায়,সুভ্রত পাল,শিমুল চৌধুরী,প্রদীব দেননাথ,রাধা বাবু,সজিব মার্থন,সন্কর দেবনাথ,সুভল সাহা প্রমুখ ।

ভক্তরা, অজ্ঞতার অন্ধকার দূর করতে কল্যাণময়ী দেবীর চরণে প্রণতি জানান। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মতে দেবী সরস্বতী সত্য, ন্যায় ও জ্ঞানালোকের প্রতীক। বিদ্যা, বাণী ও সুরের অধিষ্ঠাত্রী।

লায়েবুর খান : ফুটবল আর বিশ্বের সুন্দর নগরীর মধ্যে অন্যতম বার্সেলোনা শহর। আর এ শহরে বিগত ১০ বছরের মতো এ বছরও চলতি মাসের ২৭ তারিখে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় মোবাইল সম্মেলন মোবাইল ওয়ার্ড কংগ্রেস ২০১৭। মোবাইল দ্য নেক্সট এলেমেন্ট প্রতিপাদ্য নিয়ে বরাবরের মতোই মোবাইল টেলিযোগাযোগ শিল্পের বৈশ্বিক সংগঠন জিএসএমএ এই সম্মেলনের আয়োজন করছে। গত বছরের ২ আগস্ট লন্ডন শহরে জিএসএমএ কর্তৃক প্রচারিত ঘোষণাপত্রে চলতি বছরের ২৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ২ মার্চচার দিনব্যাপী এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার তারিখ ঘোষণা করা হয়।
২০০৬ সাল থেকে ২০১৬ পর্যন্ত একটানা প্রতিবছর এই মোবাইল কংগ্রেসের আয়োজন করে বার্সেলোনা শহর বর্তমানে মোবাইল কংগ্রেসের রাজধানীতে পরিণত হয়েছে। প্রথমে ২০১৮ সাল পর্যন্ত এ মোবাইল উৎসব বার্সেলোনায় হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ২০১৫ সালে ফিরা বার্সেলোনার সঙ্গে এক চুক্তিপত্রের মাধ্যমে ২০২৩ সাল পর্যন্ত তা বর্ধিত করা হয়েছে।


প্রতি বছরই বিশ্বের বড় বড় মোবাইল কোম্পানিগুলো পুরো বছর জুড়ে মোবাইল কংগ্রেসে তাদের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ মোবাইল প্রযুক্তির ব্রিফিং দিতে এবং তা প্রদর্শনীতে যুক্ত করার প্রস্তুতি নিতে থাকে। তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে মোবাইল কংগ্রেসের চার দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের জন্য পুরো ফেব্রুয়ারি ও মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহ বার্সেলোনা শহরের ব্যস্ততা ও সাজসজ্জা হয় চোখে পড়ার মতো। টুরিস্টদের পদচারণায় বার্সেলোনা হয়ে ওঠে অতিথিপরায়ণ। শহরের আনাচকানাচে হোটেলগুলো পরিপূর্ণ হয়ে ওঠে। তাতে অন্য সবার মতো প্রবাসী বাংলাদেশিদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানেও এই ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসের ইতিবাচক অর্থনৈতিক প্রভাব পড়ে।
বিশ্বের বড় বড় মোবাইল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো এই সম্মেলনে অংশ নিচ্ছে। বার্সেলোনা শহরের ফিরা গ্রান ভিয়া ও ফিরা মনজুয়িকে এ সম্মেলনের জন্য ৯৪ হাজার বর্গমিটার এলাকা জুড়ে বিভিন্ন দেশের মোবাইল প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য পৃথক পৃথক প্যাভিলিয়ন ও কংগ্রেসের অন্যান্য ইভেন্টে পরিচালনার স্থান নির্ধারিত থাকবে। জিএসএম ধারণা করছে, বিশ্বের প্রায় ২১০টি দেশের ২ হাজার ২০০ মোবাইল কোম্পানি ও মোবাইল শিল্পের সঙ্গে জড়িত প্রায় এক লাখ এক হাজার প্রফেশনাল এ কংগ্রেসে যোগদান করবেন।
বিশ্বের নাম করা সব মোবাইল ব্রান্ড কোম্পানি আইবিএম, ইনটেল, লেবোভো, এলজি, মার্সিডিজ বেঞ্জ, মাইক্রোসফট, এনইসি, নকিয়া, ওরাকল, অরেঞ্জ, ফিলিপস, স্যামসাং, এসএপি, সনি মোবাইল, টেলেফোনিকা, ভোডাফোন, আওএল, চিসকো সিস্টেম, ডেউটস টেলিকম, এরিকসন, ফোর্ড, গুগল, হেউল্ট পেকার্ড এন্টারপ্রাইজ, এইচটিচি ও হুয়াওয়েইসহ অন্যান্য কোম্পানিগুলো কংগ্রেসে অংশগ্রহণ করবে। এবারের ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে টেলিযোগাযোগ মাধ্যমের সফল প্রতিষ্ঠানগুলো মোবাইল সামগ্রী উৎপাদনের ফলে সৃষ্ট পরিবেশ দূষণের ওপর আলোকপাতসহ মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরির উদ্যোগ নেবে। নানা ধরনের আকর্ষণীয় ইভেন্টের সঙ্গে এবার থাকবে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সি তথা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও রোবট টেকনোলজির ওপর বিশেষ প্রদর্শনী থাকছে এই ওয়ার্ড মোবাইল কংগ্রেসে।

সুফিয়ান আহমদ,বিয়ানীবাজার প্রতিনিধিঃ পূর্ব বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষ গ্রুপের নেতার উপর হামলা চেষ্টার ঘটনায় উত্তেজনা বিরাজ করছে বিয়ানীবাজারে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা ছাত্রলীগের স্বাধীন গ্রুপের কয়েকজন কর্মী  বিয়ানীবাজার সরকারী কলেজ ক্যাম্পাসে পল্লব গ্রুপের সিনিয়র নেতা জাফর আহমদের উপর হামলার চেষ্টা চালায়। এসময় উভয় গ্রুপের নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনলেও উভয় গ্রুপের মধ্যে এখনো উত্তেজনা বিরাজ করছে। যেকোন সময় উভয় গ্রুপ আবারো সংঘর্ষে জড়াতে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে। তবে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে পুলিশ।  

জানা যায়, বিয়ানীবাজার উপজেলা ছাত্রলীগের পল্লব গ্রুপের সিনিয়র নেতা জাফর আহমদ বৃহস্পতিবার দুপুরে বিয়ানীবাজার সরকারী কলেজে তাঁর বোনকে ভর্তি করতে আসলে পূর্ব বিরোধের জেরে স্বাধীন গ্রুপের কয়েকজন কর্মী দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তার উপর হামলা চালায়। এ সময় ক্যাম্পাসে থাকা কয়েকজন ছাত্রলীগ নেতাকর্মী জাফরকে হামলার হাত থেকে রক্ষা করেন। বিষয়টি দ্রুত পল্লব গ্রুপের নেতাকর্মীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে তারা কলেজ ক্যাম্পাসে এসে অবস্থান নিলে উভয় গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এদিকে, এঘটনার পর থেকে পৌরশহরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। উত্তেজনা বিরাজ করছে উভয় গ্রুপের মধ্যেও। যেকোন সময় উভয় গ্রুপ সংঘর্ষে জড়াতে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে। তবে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে পুলিশ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে বলে জানান বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী। তিনি জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। তবে এ ঘটনায় কোন অভিযোগ দায়ের হয় নি।

ইমদাদুর রহমান ইমদাদ,সিলেটঃ বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি যুব রেডক্রিসেন্ট সিলেট ইউনিটের উদ্যোগে বুধবার (8 ফেব্রুয়ারী) বিকেলে সিলেট নগরীর রেডক্রিসেন্ট যুব ইউনিট কার্যালয়ে নব-গঠিত কার্যকরী কমিটির ২০১৭-১৯ বর্ষের অভিষেক ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ অভিষেক ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান  অতিথি রেডক্রিসেন্ট সিলেট ইউনিটের সেক্রেটারি আব্দুর রহমান জামিল বলেন, যুব রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি সিলেট ইউনিটের নব-নির্বাচিত যুব প্রধান মোঃ মিনহাজুল আবেদীন তার মেধা ও যোগ্যতা দিয়ে যুব প্রধান নির্বাচিত হয়েছে। সে একজন দক্ষ সংগঠক ও আন্তর্জাতিক প্রশিক্ষন প্রাপ্ত। সে ইতোমধ্যে  বিশ্বের বিভিন্ন দেশে রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির উদ্যোগে  প্রশিক্ষণ  নিয়ে আসছে। তার নেতৃত্বে যুব  রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি সিলেট ইউনিট অনেক এগিয়ে যাবে। প্রধান অতিথি নব-গঠিত কার্যকরী কমিটির সকলকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। অভিষিক্ত মোঃ মিনহাজুল আবেদীন তার উপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের ক্ষেত্রে সকলের সহযোগীতা কামনা করেন।  

রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি সিলেট ইউনিটের কার্যকরী কমিটির সদস্য সুয়েব আহমদ এর সভাপতিত্বে ও উপ-যুব প্রধান ১ নাজিম খাঁনের পরিচালনায়, অনুষ্টানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি সিলেট ইউনিটের সদস্য খোকন আহমদ,  ইউনিট অফিসার ও সহকারী পরিচালক আলাউদ্দিন, বিদায়ী সাবেক যুব প্রধান সায়মন মিয়া।অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে  তিলাওয়াত করেন রাসেল মিয়া। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জনসংযোগ ও পরিকল্পনা বিভাগীয় প্রধান আফজাল হোসেন তুহিন, সদ্য বিদায়ী সভাপতি সায়মন মিয়া। অনুষ্ঠানে সদ্য বিদায়ী সভাপতি নতুন যুব প্রধানের হাতে দায়িত্ব হস্তান্তর করেন।এবং নব-নিযুক্ত যুব প্রধানকে ফুল দিয়ে বরণ করেন যুব সদস্যবৃন্দ। অনুষ্টানে আরো উপস্থিত ছিলেন যুব রেডক্রিসেন্ট সিলেট ইউনিটের নব-গঠিত কার্যকরী কমিটির উপ-যুব প্রধান২ তোফায়েল হোসেন, জনসংযোগ ও পরিকল্পনা বিভাগীয় প্রধান আফজল হোসেন তুহিন, বিভাগীয় প্রধান রক্ত মাহবুব কামালী, প্রশিক্ষণ বিভাগীয় প্রধান শাহনুর চৌধুরী সাথি, বিভাগীয় উপ-প্রধান প্রশিক্ষণ আতিকুর রহমান,  সেবা ও স্বাস্থ্য বিভাগীয় প্রধান পারভেজ আহমদ, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতি বিভাগীয় উপ-প্রধান ফারহান আহমদ সুয়েব, বিভাগীয়  উপ-প্রধান বন্ধুত্ব দাইয়ান আহমদ, সাংস্কৃতি বিভাগীয় উপ-প্রধান সুমা বেগম এবং যুব রেডক্রিসেন্ট সিলেট ইউনিটের সাধারণ সদস্য ইমদাদুর রহমান ইমদাদ, রাসেল মিয়া, লোকমান হোসেন, আলী হায়দার জামি, সাহেল আহমদ, ঝলক চক্রবর্তী  মিজানুর রহমান, কামরান আহমদ, আব্দুল্লাহ রহমান, সুফিয়ান আহমদ, সাজিদুর রহমান সাজু, কোহিনুর চৌধুরী লাকি, নুসরাত হোসেন মুক্তা, বদরুল আহমদ শুভ,  সৈয়দ নাঈমুর রহমান, আব্দুর রহমান রাহেল, সুমি বেগম, সামছুল ইসলাম ফাহিম, আশফাকুর রহমান সাকিব, স্বপ্নিল মন্ডল, মিটুন দাস প্রমুখ। 


উল্লেখ্য, নব-নিযুক্ত মিনহাজুল আবেদীন সিলেট এম সি কলেজ  সমাজ বিজ্ঞান বিভাগে মাস্টার্স শেষ বর্ষে অধ্যয়নরত আছেন। তিনি ২০০৯ সালে রেডক্রিসেন্টে যোগদান  করার পর থেকে বিভিন্ন ট্রেনিং নিয়ে অতি অল্প সময়ে সক্রিয় যুব সদস্য হয়ে উঠেন। তার পর যুব কার্যকরী কমিটির ফ্রেন্ডশিপ বিভাগে যোগদান করেন। ২০১৫-১৭ সালের যুব কমিটিতে উপ-যুব প্রধান১ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এই সময়ের মধ্যে  তিনি কয়েকটি বিশেষ ট্রেনিং RFL ট্রেনিং ও TOT ট্রেনিং দক্ষতার সহিত সম্পন্ন করেন। ২০১৩ সালে তুরস্কে বাংলাদেশর একমাত্র প্রতিনিধি হিসেবে আন্তর্জাতিক বন্ধুত্ব ক্যাম্পে অংশগ্রহণ করেন।এবং বর্তমান ইউনিট RFL এর একজন সক্রিয় সদস্য। তিনি বাংলাদেশ রেড়ক্রিসেন্ট এর পাশাপাশি আরোও অনেক সামাজিক ও আন্তর্জাতিক  সংগঠনের সাথে যুক্ত রয়েছেন। এর মধ্যে রোটারেক্ট আন্তর্জাতিক জেলা সংগঠন। ২০০৯ সালে রোটারেক্ট আন্দোলনে যোগদান  করার পর থেকে সিলেটের স্বনামধন্য ক্লাব 'রোটারেক্ট ক্লাব অব সিলেট গ্রীণ বাডস এর ২০১১-১২ রোটা বর্ষে সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। এরই ধারাবাহীকতায় ডিস্ট্রিক্ট জোনাল রিপ্রেজেন্টেটিভ, চিফ ডিস্ট্রিক্ট ট্রেইনার ও বর্তমান রোটাবর্ষ ২০১৬-১৭ এর রোটারেক্ট ডিস্ট্রিক্ট সেক্রেটারি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।বর্তমানে তিনি সিলেট খুরশিদ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছেন। তাকে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি যুব রেড ক্রিসেন্ট সিলেট ইউনিটের যুব প্রধান নির্বাচিত করায় তিনি সকলের প্রতি কৃতজ্ঞ।

বিজ্ঞপ্তি : সম্প্রতি বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি বুলু কর্তৃক বিতর্কিত কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বেলজিয়াম আওয়ামীলীগ সভাপতি শহিদুল হক শহীদ ও সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর চৌধুরী রতন।দলীয় বিবৃতিতে এ প্রতিবাদ জানান তারা।
বিবৃতিতে বলেন,গত ২ ফেব্রুয়ারি ব্রাসেলসে সর্ব ইউরোপ আয়োজিত বিএনপি-জামাতের এক পক্ষিও সেমিনারের প্রতিবাদে আওয়ামী লীগের মানব বন্ধন কর্মসৃচি নিয়ে বজলুর রশিদ বুলুর নতুন চক্রান্তের যে নীলনকশা করেছেন তা নিন্দনীয় ও দলীয় সংবিধান বহির্ভুত। নেতৃবৃন্দ বলেন, আমরা বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি বুলু কর্তৃক একটি বিশেষ বিজ্ঞপ্তি ফেইস বুকে দেখতে পাই যা শুধু মিথ্যাই নয় এক পাগলের প্রলাপ মাত্র৷ বুলু যেন পূর্বের মতো হুমকিধমকি বর্জন করে মুজিব আদর্শের সৈনিকদের সাথে কি ভাবে ব্যবহার করতে হয় সেই আদব কায়দা শিখে যেন আওয়ামী লীগের নাম ব্যবহার করে৷ নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বুলু ও পলিনের ফেইস বুকে ঢাকা থেকে প্রকাশিত বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে ভেসে উঠল তাদের মুখোশ। তাদের বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে বলেছেন গত ০২-০২-২০১৭ তারিখে ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টে বি, এন, পি-জামাত আয়োজিত সেমিনারের বিরুদ্ধে যারা অপপ্রচার চালাচ্ছে তারা কখনো আওয়ামী লীগার হতে পারে না। নিঃসন্দেহে তারা তারেক জিয়ার এজেন্ট। হাঁ উনি ঠিকই বলেছেন যে জামাত-বি,এন,পি র বিরুদ্ধে অপপ্রচার, হা কিন্তু তা নয়, ইউরোপ আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা বি,এন,পি-জামাতের সেমিনারের বিরুদ্ধে রুখে দাড়িয়েছে। তাদের এই কথা প্রমান করে যে তারা দুই জন ছাড়া সবাই আওয়ামী লীগ করে। কেননা আমাদের নেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা এবং ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগের সম্মানীত সভাপতি বাবু অনিল দাস গুপ্ত ও সম্মানীত সাধারণ সম্পাদক এম, , গনি ভাইয়ের নির্দেশেই ইউরোপের বিভিন্ন দেশ থেকে আগত নেতা কর্মীরা বি,এন,পি-জামাত আয়োজিত সম্মেলনের বিরুদ্ধে একত্রিত হন এবং মানব বন্ধন করেন। তা হলে কি ইউরোপের বিভিন্ন দেশ থেকে আগত নেতা কর্মীরা আমাদের নেত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা এবং ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগের সম্মানীত সভাপতি বাবু অনিল দাস গুপ্ত ও সম্মানীত সাধারণ সম্পাদক এম, , গনি ভাইয়ের কথা শুনে ভূল করেছেন ? বেলজিয়ামের পথভ্রষ্ঠ কর্মী উল্ল্যেখ করে তারা সতর্কবানী দিয়েছেন। বেলজিয়ামের পথভ্রষ্ঠ কারা তা এই লেখার মাধ্যমেই প্রকাশিত হয়েছে। কিছুদিন পূর্বেও ফেইসবুকের এক স্টেটাসে লিখেছিলেন বেলজিয়ামের কিছু লোক হালুয়া রুটির ভাগ না পেয়ে চিল্লাচিল্লী করছে ইউরোপের নেতা-কর্মীদের মধ্যে কারা দেশে বসে ইউরোপের রাজনীতি করে? যারা মৌসুমী পাখি তারাই ইউরোপের সাইন বোর্ড গলায় ঝুলিয়ে দেশে গিয়ে মন্ত্রী পাড়ায় হালুয়া রুটি খোজে। নেতৃবৃন্দ বলেন, ইউরোপের বিভিন্ন দেশের নেতাদেরকে দালাল আখ্যায়িত করার কোনো অবকাশ নেই তারাও যে ইউরোপের পরিক্ষীত নেতা তা কে না জানে? নেতৃবৃন্দ আশাপ্রকাশ করেন, যথাশীগ্রই তার মিথ্যাচার বিবৃতি প্রত্যাহার করে বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের কাছে ক্ষমা চাইবেন৷

এনায়েত হোসেন সোহেল,প্যারিস,ফ্রান্স : বর্ণাঢ্য আয়োজন ও জাঁকজমকের মধ্য দিয়ে ইউরোপের সর্ব বৃহৎ বাংলাদেশি সামাজিক সংগঠন ইউরোপিয়ান প্রবাসী বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের (ইপিবিএ) সুইজারল্যান্ড শাখার অভিষেক ও সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
৫ ফেব্রুয়ারি রোববার বিকেলে জুরিসের একটি হলে এ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় পর্ষদের প্রধান উপদেষ্টা ও চ্যানেল আই ইউরোপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রেজা আহমদ ফয়সল চৌধুরী শোয়েব। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সুইজারল্যান্ড শাখার সভাপতি রফিকুল ইসলাম ।
তিন পর্বে সাজানো অনুষ্ঠানের প্রথম পর্ব পরিচালনা করেন ফ্রান্স শাখার সংগঠনের সদস্য কারার কাওসার। অনুষ্ঠানের শুরুতে ভাষা শহীদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা ও বাংলাদেশের জাতীয় সংগীতের মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। অভিষেকে নবগঠিত ইপিবিএ সুইজারল্যান্ড শাখার সকল কর্মকর্তাকে উত্তরীয় পরিয়ে পরিচয় করিয়ে দেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও অনুষ্ঠানের প্রধান আলোচক শাহানুর খান।
দ্বিতীয় পর্বে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন অভিষেক অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ব্রিটেনের টাওয়ার হ্যামলেটের স্পিকার কাউন্সিলর খালিছ উদ্দিন আহমদ। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার ওসমান হোসেন মনির।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন
,সংগঠনের কেন্দ্রীয় কোষাধ্যক্ষ শরফুদ্দিন আহমদ জুয়েল, উপদেষ্টা এইচ এস হায়দার,সিনিয়র সহসভাপতি শওকত হোসেন বিপু , জিকু বাদল, মামুন মিয়া,নাহার মমতাজ,ফ্রান্স শাখার সভাপতি ফারুক খান,ইতালি শাখার সভাপতি লায়লা শাহ । বক্তব্য রাখেন,এডভোকেট গ্লোর ,বাংলাদেশ সরকারের সুইজারল্যান্ড দূতাবাসের কর্মকর্তা ওয়াদুদ আকন্দ ,সুইজারল্যান্ড শাখার সাধারণ সম্পাদক শাহাদৎ হোসেন ,সহ সভাপতি আনিস খান,রতন খান,আসকির মিয়া,হারুন বেপারী,শেখ আনোয়ার,কবির মোল্লা,এম শামীম,সোহেল আহমদ রুবেল,ইশফাক নিপুন প্রমুখ। বক্তারা দেশ গঠনে সকল প্রবাসীদের অবদানকে স্মরণীয় করে রাখতে প্রতি বছর একদিন প্রবাসী দিবস পালন, প্রবাসীদের মরদেহ রাষ্ট্রীয় খরচে দেশে প্রেরণ, দ্বৈত নাগরিকত্ব প্রদান, প্রবাসীদের আইডি কার্ড প্রদান, ভোটাধিকার প্রয়োগ, ঢাকাসহ বিভিন্ন বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশন হয়রানির প্রতিকারসহ বেশ কয়েকটি বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারের ইতিবাচক সহযোগিতার আবেদন এবং ইপিবিএর জোরালো দাবির পরিপ্রেক্ষিতে প্রবাস বন্ধু কল সেন্টার চালু করায় বাংলাদেশ সরকারকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। অনুষ্ঠানে ব্রিটেনের টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলের পক্ষ থেকে ইপিবিএ ফ্রান্স, সুইজারল্যান্ড, ও ইতালি শাখার নেতৃবৃন্দকে ক্রেষ্ঠ উপহার দেন টাওয়ার হ্যামলেটস স্পিকার খালিছ উদ্দিন আহমদ। এসময় গত এক বছরে প্রবাসীদের উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখায় দশজন নেতৃবৃন্দকেও বিশেষ উপহার প্রদান করা হয়।
এছাড়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় রিসার্চ এন্ড ডেভোলফম্যান্ট সম্পাদক সুলতান বাবর
, সহসাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, মেহেদী হাসান অলি,সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম মোস্তফা ,সহকোষাধক্ষ অজয় দাস , প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এনায়েত হোসেন সোহেল, কর্মসংস্থান সম্পাদক শাহাদৎ হোসেন সাইফুল,ইপিবিএ ফ্রান্স শাখার সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম,সুইজারল্যান্ড শাখার সাধারণ সম্পাদক শাহাদৎ হোসেন ফ্রান্স শাখার মহিলা সম্পাদিকা সুমা দাস, প্রচার সম্পাদক জাকির হোসেইন ,আন্তর্জাতিক সম্পাদক মিজানুর রহমান। অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে রুবেল আহমদ সোহেল ও সেলিমা খানের যৌথ উপস্থাপনায় গান ও নৃত্য পরিবেশন করেন জেনেভা বাংলা স্কুল, সুমা দাস ও জার্মান থেকে আগত শিল্পী কণা। নৃত্য পরিবেশন করেন আয়েশা। তবলায় ছিলেন হারুনুর রশিদ। এছাড়া জাদু নৈপুণ্যে সুইস প্রবাসীদের মাতিয়ে রাখেন ম্যাজিক রাজা জাহাঙ্গীর।

জনপ্রিয় অনলাইন : নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এমপিদের উদ্দেশে ভাষণ দেওয়ার যোগ্যতা রাখেন না বলে মনে করেন ব্রিটিশ পার্লামেন্টের স্পিকার জন বারকো। ট্রাম্পকে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ভাষণ দেওয়ার জন্য আমন্ত্রণের ঘোর বিরোধিতা করেছেন তিনি। আর কারণ হিসেবে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের বর্ণবাদ এবং লিঙ্গবৈষম্য বিরোধী অবস্থানের কথা উল্লেখ করেন তিনি। মঙ্গলবার (৭ ফেব্রুয়ারি) এ খবরটিকে প্রধান শিরোনাম করেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান।

সংবাদমাধ্যমটির প্রতিবেদনে বলা হয়, কোনও বিদেশি নেতাকে পার্লামেন্টে ভাষণ দেওয়ার জন্য যে তিনজনের অনুমোদন প্রয়োজন, হাউস অব কমনসের স্পিকার তাদের একজন। অপর দুজন হলেন পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ হাউস অব লর্ডসের স্পিকার লর্ড ফওলার এবং পার্লামেন্ট ভবন প্যালেস অব ওয়েস্টমিনিস্টারের দায়িত্বে থাকা লর্ড গ্রেট চ্যাম্বারলেইন।
কিন্তু ট্রাম্পকে ব্রিটিশ পার্লামেন্টে দেখতে চান না বারকো। তিনি বলেন,
পার্লামেন্টে একজন বিদেশি নেতার ভাষণ দেওয়ার সুযোগটি স্বয়ংক্রিয় অধিকার নয়,বরং তা অর্জিত সম্মান।
বারকো বলেন,
অভিবাসী নিষেধাজ্ঞার আগে থেকেই আমি পার্লামেন্টে ট্রাম্পের বক্তব্য রাখার বিরুদ্ধে ছিলাম। আর ওই নিষেধাজ্ঞার পর এখন আরও তীব্রভাবে ট্রাম্পের বক্তব্য রাখার বিরোধিতা করছি।
এই ব্রিটিশ স্পিকার জানান, তিনি ট্রাম্পকে পার্লামেন্টের অন্য কোনও কক্ষেও দেখতে চান না। বারকো বলেন,
আমি ট্রাম্পকে পার্লামেন্টের রয়েল গ্যালারিতেও বক্তব্য রাখার আমন্ত্রণ জানাতে চাই না।
/এফইউ/

রনি মোহাম্মদ : রূপকথার কথা-কল্পের মত যেমন_ ছোটবেলায় পড়েছিলাম কত রূপকথা, সেখানে ছিল অনেক রাজা আর রাণীদের কথাএক যে ছিল রাজা আর এক যে ছিল রাণী''...! সেসব রূপকথার গল্প আমরা সবাই শুনেছিলাম এবং জানি ও। হয়তো সেসব রূপকথা, শুধুই নিছক গল্প হয়তো কিছু সত্য, নয়তো কথা-কল্প ! মাঝে মাঝে তবুও হয়তো এই সকল গল্প কখনও কখনও কিছু মানুষের জীবন এবং মনের সাথে মিলে যায়..! তেমনি এক জন নারী ''শিরিন ফেরদাউসের'' তার বাস্তুব জীবনের পথ চলার গল্পের কথা নিয়ে অমর একুশে গ্রন্থমেলায় প্রকাশ হয়েছে গল্পগ্রন্থ রূপন্তি। বইটি প্রকাশ করেছে ''বাংলার কবিতা প্রকাশন''। পাওয়া যাবে স্টল নং ২৭, লিটল ম্যাগ চত্বর বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ। প্রচ্ছদ করেছেন রাজিব রায়। মূল্য রাখা হয়েছে ১২০ টাকা।

‘রূপন্তি’ শিরিন ফেরদাউসের প্রথম গল্পগ্রন্থ। ‘রূপন্তির' গল্পগুলো ২০১৫ থেকে ২০১৬ সালের মধ্যে লিখিত। সব গল্পই বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। পাঠকের সুবিধার্থে গল্পগুলো একত্রিতো করে এবারের বই মেলায় প্রকাশ করেছে ''বাংলার কবিতা প্রকাশন''। গল্পগুলো সমসাময়িক এক জন নারীর সমস্যা, প্রেম, স্বপ্ন, হতাশা, অবহেলা প্রভৃতি বিষয় নিয়ে আবর্তিত হয়েছে। সহজ-সাবলীল ভাষায় লেখা গল্পগুলো সবশ্রেণির পাঠকের বোধগম্য হবে সহজেই।

সুফিয়ান আহমদ, বিয়ানীবাজার প্রতিনিধিঃ বিয়ানীবাজারের মুড়িয়া ইউনিয়নের ঘুঙ্গাদিয়া গ্রাম থেকে জনতা তিন গরু চোঁরকে হাতেনাতে আটক করে থানা পুলিশের হাতে হস্তান্তর করেছে। ধৃত চোঁরেরা তাদের গডফাদারের নাম প্রকাশ্যে বলে দেয়ায় এনিয়ে এলাকায় চলছে তোঁলপাড়। পুলিশ আটক দুজনসহ গডফাদার গিয়াস উদ্দিনের নাম উল্লেখ করে মামলা করলেও আটককৃত একজনকে ছেঁড়ে দিয়েছে। পুলিশের কৌশলী এজাহার মামলা হিসেবে গণ্য করার বিষয়ে এলাকায় মিশ্রপ্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার বিকালে মুড়িয়া ইউনিয়নের ঘুঙ্গাদিয়া এলাকার স্থানীয় জনগন গরু চুরির অভিযোগে  একই গ্রামের  লুৎফুর রহমানের পুত্র ছালেক হোসেন (৩০) ও আব্দুল কাদিরের পুত্র রুহেল আহমদসহ অপর একজনকে আটক করে তাদের উত্তম মাধ্যম দিয়ে থানা পুলিশের হাতে তুলে দেয়। এসময় পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তারা তাদের গডফাদার হিসেবে গিয়াস উদ্দিনের নাম প্রকাশ করে। অভিযোগ রয়েছে পুলিশ, গিয়াস উদ্দিনের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা নিয়ে গিয়াস উদ্দিনের নাম এজাহারে উল্লেখ করলেও রহস্যজনক কারণে তার পিতার নাম উল্লেখ করে নি। এছাড়া আটক তিনজনের মধ্যে একজনকে ছেড়ে দেয়া হয়। যা নিয়ে এলাকায় চলছে কাঁনাঘোষা।

এব্যাপারে বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ চন্দন কুমার চক্রবর্তী জানান, স্থানীয় জনগন চোরকে আটক করে আমাদের জানালে আমরা তাদেরকে আটক করে থানায় নিয়ে আসি, তারা গরু চুরির সাথে জড়িত বলে প্রাথমিকভাবে স্বীকারোক্তি দিয়েছে। তবে একজনকে ছেড়ে দেয়ার বিষয়টি তিনি স্বীকার করে বলেন, সে চোঁর না হওয়ায় তাকে ছেড়ে দিয়েছি।

সুফিয়ান আহমদ, বিয়ানীবাজার প্রতিনিধিঃ ১২৫ বোতল ভারতীয় মদসহ একটি প্রাইভেট কার আটক করেছে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ । এসময় হাতেনাতে দুমাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হলেও কারের চালকসহ অপর দুব্যবসায়ী পালিয়ে যায়। মঙ্গলবার  রাতে উপজেলার শেওলা ইউনিয়নের ঢেউনগর এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলো, জকিগঞ্জ উপজেলার বীরশ্রী ইউপির জামডোহর গ্রামের ছিফত আলীর পুত্র আব্দুল হালিম (৩০) ও সামছ উদ্দিনের পুত্র মোস্তফা উদ্দিন (২১)। তাদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশের একটি দল মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে বিয়ানীবাজার-সিলেট সড়কের শেওলা সেতু এলাকায় ওৎপেতে তাকে। এ সময় শেওলা সেতু এলাকায় একটি প্রাইভেট কার (ঢাকা মেট্রো গ ১৪-৩৯১৩) আসার পর পুলিশ গতিরোধ করে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে কারের চালকসহ ৪ মাদক ব্যবসায়ী পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশের সাথে মাদক ব্যবসায়ীদের ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। পুলিশ আহত অবস্থায় মোস্তফা উদ্দিন ও আব্দুল হালিমকে আটক করে। কারের চালকসহ অপর দুমাদক ব্যবসায়ী পালিয়ে যায়। এসময় পুলিশ আটককৃত কার তল্লাশী করে ১২৫ বোতল ভারতীয় অফিসার্স চয়েজ মদ উদ্ধার করে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এব্যাপারে বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা চন্দন কুমার চক্রবর্তী জানান, মাদকের বিরুদ্ধে বিয়ানীবাজার থানার ধারাবাহিক অভিযানের ভিত্তিতে এদেরকে আটক করা হয়েছে। বিয়ানীবাজার থেকে মাদক নির্মূলে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

সুফিয়ান আহমদ, বিয়ানীবাজার প্রতিনিধিঃ বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ উপজেলার শেওলা ইউনিয়নের কাকরদিয়ায় অভিযান চালিয়ে একটি চোরাই অটোরিক্সাসহ একজনকে আটক করেছে। আটককৃত অটোরিক্সার চালক কাকরদিয়া এলাকার মৃত আসাব আলীর পুত্র আসলাম উদ্দিন্। মঙ্গলবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে অটোরিক্সাসহ আটক করা হয়। এদিকে এঘটনার পর থেকে এ গাড়ির মালিক দাবিদার ময়দুল পলাতক রয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ উপজেলার শেওলা ইউপির কাকরদিয়া বড় মসজিদ এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় তারা ভুয়া নাম্বারের অটোরিক্সাসহ (মৌলভীবাজার থ ১১-২২৯৪) এর চালককে আটক করে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে আটককৃত চালক জানায়, এ গাড়ির মালিক একই গ্রামের ময়দুল ইসলাম। সিএনজি আটকের পর থেকে ময়দুল পলাতক বলে পুলিশ জানিয়েছে।

এবিষয়ে বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ  চন্দন কুমার চক্রবর্তী বলেন, চুরি যাওয়া একটি সিএনজি উদ্ধার করা হয়েছে। চালককে গ্রেফতার করা হয়েছে তবে গাড়ির মূল মালিককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

বিজ্ঞপ্তি : সিলেটের কানাইঘাটে নবাব চৌধুরী এডুকেশন এন্ড ওয়েলফেয়ার ট্রাষ্ট এর উদ্যোগে অসহায় দরিদ্রদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ ও গরীব-মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্যে আর্থিক অনুদান প্রদান করা হয়।

সম্প্রতি রাজাগঞ্জ ইউপির বীরদলস্থ গ্রীণবার্ড কিন্ডার গার্টেনের হলরুমে এলাকার বিশিষ্ট মুরব্বি আহমদ হুসেনের সভাপতিত্বে এবং ট্রাষ্টের নির্বাহী পরিচালক বদরুল ইসলাম চৌধুরীর সঞ্চালনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কানাইঘাট পৌরসভার মেয়র নিজাম উদ্দিন আল মিজান।
বিশেষ অথিতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ৯নং রাজাগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলাম,সিলেট সরকারী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক শওকত হোসেন চৌধুরী, এডভোকেট আব্দুছ ছাত্তার এডভোকেট নজরুল ইসলাম। ।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন নবাব চৌধুরী এডুকেশন এন্ড ওয়েলফেয়ার ট্রাষ্টের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান যুক্তরাজ্য প্রবাসী বিশিষ্ট সমাজসেবী,শিক্ষানুরাগী ব্যাংকার আহমেদ ইকবাল চৌধুরী।
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গ্রীনবার্ড কিন্ডার গার্টেনের প্রধান শিক্ষক শামসুদ্দিন,মাও:তহুরুল ইসলম,দূর্বার তরুন সংঘের সভাপতি আবুল খায়ের,দুবাই প্রবাসী তাজ উদ্দিন,মাস্টার শামসুদ্দিন,নুরুল ইসলাম চৌধুরী প্রমূখ।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন হাফিজ রুহুল আমিন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কানাইঘাট পৌর মেয়র নিজাম উদ্দিন বলেন, এলাকার দারিদ্র বিমোচন, শিক্ষা,আর্থ  সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে নবাব চৌধুরী এডুকেশন এন্ড ওয়েলফেয়ার ট্রাষ্ট কাজ করে যাচ্ছে জেনে আমি অত্যন্ত আনন্দিত। তিনি সমাজকল্যাণ মূলক বিভিন্ন কর্মকান্ডের জন্য ট্রাষ্টের প্রতিষ্টাতা যুক্তরাজ্য প্রবাসী আহমেদ ইকবাল চৌধুরী’র ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং তাকে ধন্যবাদ জানান।

রনি মোহাম্মদ,ব্রাসেলস,বেলজিয়াম: বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের অন্যতম নেতা শহীদ এ এইচ এম কামারুজ্জামানের স্ত্রী জাহানারা জামান আর নেই। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।


জাহানারা জামানের  মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন সর্ব ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক এম এ গনি। জনাব এম এ গনি এক বিবৃতিতে মরহুমার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করেনছেন।

বাহার উদ্দিন বকুল, জেদ্দা, সৌদি আরব: শীতের দিনে শীতের পিঠা আর খেজুরের রস, কে কে খাবি আয় সকলে উনুন পাশে বস ।
মজার মজার পিঠা খাবো গল্প হবে নবান্নের,  পৌষ মাসের এই উৎসবে বাদ থাকবো কি জন্য? খোকা খুকু আয় সকলে দাদু বানায় পিঠা, শীতের রোদে দুপা মেলে খাবো মণ্ডা পিঠা ।
নবান্নের ঘ্রাণে পৌষ পার্বণে পিঠা উৎসবে মাতুক প্রবাসী বাংলাদেশি। জেদ্দার যান্ত্রিক নগরবাসী প্রায় ভুলতে বসেছে বারো মাসের তেরো পার্বণের দেশের সাংস্কৃতির অনন্য ঐতিহ্য পিঠার স্বাদ আর ঐতিহ্যকে।
  আবহমান গ্রাম বাংলার কুয়াশা ঢাকা শীতে ধোঁয়া ওড়ানো চুলার পাশে মা-চাচি,খালা-মামি আর দাদি-নানির হাতে পিঠা খাওয়ার সুখ সম্প্রীতি প্রবাসীদের কাছে এখন শুধুই সোনালি অতিত,
তাই প্রবাসে নুতন প্রজন্মের কাছে  এই চিরন্তর ঐতিহ্যকে তুলে ধরতে গত ০২ ফেব্রুয়ারি জেদ্দার একটি কমুনিটি সেন্টারে জেদ্দার জনপ্রিয় বৈশাখী, সামাজিক ও  সাংস্কৃতিক সংগঠন আয়োজন করে  নবান্ন্য পিঠা উৎসব । স্বদেশ জুড়ে চলা নবান্নের ঢেউ এসে লেগেছে প্রবাসীদের জীবনেও।
এরই বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে জেদ্দা প্রবাসী সমাজের  পিঠা উৎসব মানেই পিঠার প্রতিযোগিতা। মনের মাধুরি মিশিয়ে পিঠার নকশা, কারুকাজ, ভিন্নতায় পুরস্কার জিতে নিতে তৎপরতা অনেক  ভাবীদের।
নকশাদার বাহারি পিঠার সাথে যুক্ত হয় হরেক রকম পিঠা পুলি, পাটিসাপটা, দুধ চিতই, আনারকলি, এমনি প্রায় ২৫ পদের পিঠা  টেবিলে সাজানো বাংলার ঐতিহ্যে ভরপুর বাহারি সব পিঠা দেখে নতুন প্রজন্ম পরিচিত হয় স্বদেশের ঐতিহ্য আর সংস্কৃতির সাথে।
  বিচারকম-লী সাজানো বাহারী পিঠা দেখে দেখে এবং ছেঁকে ছেঁকে তালিকা করেন বিজয়ীদের। অতঃপর চলে মন খুলে পিঠা-পুলি খাওয়ার ধুম। প্রবাসে নবান্নের পিঠা আয়োজন যেনো স্বদেশের আমেজে অবগাহন। পিঠা উৎসবের আয়োজক ও পরিচালক  সারতাজুল আলম দিপুর পরিচালনায় অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি শিল্পী মাহফুজুর রহমান।
প্রধান অতিথি জেদ্দা কনস্যুলেটের ভারপ্রাপ্ত কনসাল জেনারেল ড. নজরুল ইসলাম , এ ছাড়া ও আরও উপস্থিত ছিলেন জেদ্দার সামাজিক রাজনৈতিক সাংস্কৃতিক ও বিভিন্ন্য শ্রেণির পেষার  নেতৃবৃন্দ । সংক্ষিপ্ত  আলোচনায়  প্রধান  অতিথি  ড. নজরুল  ইসলাম  বলেন, স্বদেশ-সংস্কৃতি  এবং  নবান্ন  উৎসবের  স্মৃতিচারণ  করেন  এবং  বাহারি সব পিঠা-পুলির  প্রশংসা করে, নতুন  প্রজন্মকে  আপন  সংস্কৃতির  সাথে  পরিচয়  করিয়ে  দিতে  আয়োজক ও অংশ গ্রহণকারীদেরকে আন্তরিক  ধন্যবাদ জানান।
অনুষ্ঠানে  সম্মাননা  পুরস্কার  তুলে  দেয়া  হয়  বিজয়ী  পিঠা প্রতিযোগিনীদের  হাতে পিঠা উৎসবের পাশাপাশি ছিল মনোজ্ঞ  সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

মিরন নাজমুল, বার্সেলোনা : স্পেনের বার্সেলোনায় আমিস্তাদেছ মুখেরেছ কমিউনিদাদ দে বাংলাদেশ এন কাতালুনিয়া তথা বন্ধুসুলভ মহিলা সংগঠনের উদ্যোগে বাংলার পিঠা উৎসব ১৪২৩ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
গত ৪ ফেব্রুয়ারী রবিবার সন্ধ্যায় বার্সেলোনা শহরের একটি হলরুমে অনুষ্ঠিত এই পিঠা প্রদর্শনিতে বাংলার ঐতিহ্যময় অন্তত ৬৫ ধরণের পিঠার প্রদর্শনী করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ দূতাবাস মাদ্রিদের ফাস্ট সেক্রেটারি শরিফুল ইসলাম, বাংলাদেশ দূতাবাসের বার্সেলোনা কনস্যুলার সিনিয়র রামন পেদ্রোসহ বার্সেলোনার সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। সংগঠনের সভাপতি শিউলি আক্তারের সভাপতিত্বে, সাধারণ সম্পাদক খাদিজা আক্তার মনিকার পরিচালনায় এবং নিগার সুলতানা ও তানিয়া আক্তারের প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত ও সমবেত কণ্ঠে বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়। প্রথমেই প্রধান ও বিশেষ অতিথিদের কেক কাটার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের মূল পর্ব শুরু হয়। এরপর ৬জন বিচারকের মাধ্যমে পিঠার উপস্থাপনা ও স্বাদের জন্য আলাদা আলাদা পয়েন্টের ভিত্তিতে ৫জনকে সেরা পিঠার প্রদর্শণীর জন্য নির্বাচিত করে পুরষ্কৃত করা হয়। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় অংশে উপস্থিত সকলের জন্য পিঠা পরিবেশন করে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করেন স্থানীয় শিল্পীরা। অনুষ্ঠানের বিশেষ আকর্ষণ ছিল শিশু শিল্পীদের অংশগ্রহণে ফ্যাশন শো। এছাড়া বাংলা দেশাত্মবোধন ও ফোকগান ও  নৃত্য পরিবেশন করা হয়। সর্বশেষের সমাপনী বক্তব্যে সংগঠনের সভাপতি সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে প্রবাসের মাটিতে বাংলাদেশের সংস্কৃতিকে ধরে রাখতে এবং কোমলমতী শিশুদের আমাদের ঐতিহ্যে সাথে পরিচিত করে তুলতে আরো সুন্দর সুন্দর অনুষ্ঠান উপহার দেবার কথা ঘোষণা করেন।   

পর্তুগাল প্রতিনিধি : আওয়ামীলীগ মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, উপমহাদেশের বিশিষ্ট পার্লামেন্টারিয়ান, বর্ষীয়ান আওয়ামীলীগ নেতা, সংবিধান বিশেষজ্ঞ, দেশ ও জাতি গনতন্ত্রের অতন্দ্র প্রহরী একজন প্রহরী ,বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের অন্যতম অভিবাবক, শ্রী বাবু সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত এমপি'র মৃত্যুতে পর্তুগাল আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে মহান এ নেতার প্রয়ানে বিনম্র শ্রদ্ধা ও গভীর শোক প্রকাশ করেছে পর্তুগাল আওয়ামীলীগ এর সভাপতি জহিরুল আলম জসিম এবং সাধারণ সম্পাদক শওকত ওসমান।


সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত রক্তে হিমোগ্লোবিন স্বল্পতাজনিত অসুস্থতায় ভুগছিলেন। শুক্রবার অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে শনিবার রাত ৮টার দিকে হাসপাতালের সিসিইউতে নেয়া হয়। এরপর রাত ৯টার দিকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয় তাকে। সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত ল্যাব এইড কার্ডিয়াক হাসপাতালের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. বরেণ চক্রবর্তীর তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন ছিলেন। চার ভাই ও এক বোনের মধ্যে সুরঞ্জিত ছিলেন সবার ছোট। তিন ভাই আগেই মারা গেছেন; একমাত্র বোন কলকাতায় বসবাস করছেন। সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের স্ত্রী জয়া সেনগুপ্ত একটি বেসরকারি সংস্থায় কাজ করেন। সৌমেন সেনগুপ্ত তাদের একমাত্র সন্তান।

জনপ্রিয় অনলাইন : নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনের লক্ষ্যে রাষ্ট্রপতি গঠিত সার্চ কমিটি ১০ জনের নাম চূড়ান্ত করতে সোমবার শেষ বৈঠকে বসছে। এই বৈঠকে সার্চ কমিটি রাষ্ট্রপতির কাছে জমা দেয়ার জন্য ১০ জনের নামের তালিকা চূড়ান্ত করবে। এরপরই সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদের সাথে তারা সাক্ষাৎ করবেন। ওই দিনই ছয় সদস্যের সার্চ কমিটির পক্ষ থেকে তাদের সুপারিশ করা লোকজনের নাম ও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সাথে মতবিনিময়ের সারসংক্ষেপ রাষ্ট্রপতির হাতে তুলে দেবেন। এই ১০ জনের তালিকা থেকে সিইসিসহ অনধিক পাঁচজনের ইসি নিয়োগ করবেন রাষ্ট্রপতি।

নতুন ইসি নিয়োগে রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ ছয় সদস্যের সার্চ কমিটি গঠন করে ৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে তাদের সুপারিশ দিতে বলেছেন। সময়সীমা শেষ হওয়ার দুই দিন আগেই বঙ্গভবনে যাচ্ছেন এই কমিটির সদস্যরা। সার্চ কমিটির সদস্যরা কাল সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বঙ্গভবনে যাচ্ছেন, এ তথ্য জানিয়ে আজ বিকেলে রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো: জয়নাল আবেদীন বলেছেন, সোমবার সন্ধ্যায় রাষ্ট্রপতির সাথে সার্চ কমিটির ছয় সদস্যের সাক্ষাৎ সূচি রয়েছে। আশা করা যায়, এ সময় সার্চ কমিটি সিইসি ও নির্বাচন কমিশনারদের নাম সুপারিশ করতে পারে।

সার্চ কমিটির সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, এর আগে সার্চ কমিটি প্রথমে ৩১টি রাজনৈতিক দলের কাছ থেকে নামের প্রস্তাব চেয়ে চিঠি পাঠায়। এতে ২৬টি রাজনৈতিক দল সাড়া দিয়ে কমিটির কাছে ১২৫ জনের নামের প্রস্তাব জমা দেয়। এরপর বিশিষ্টজনদের সাথে দুই দফা বৈঠকের পর ২০টি নামের সংক্ষিপ্ত তালিকা তৈরি করে। বৈঠকে ইসিতে গ্রহণযোগ্য ও নির্দলীয়দের চান বিশিষ্টজনেরা। এই গ্রহণযোগ্য সর্বোত্তমদের খুঁজতেই আজ শেষ বৈঠকে বসবে সার্চ কমিটি।
এ দিকে এই সংক্ষিপ্ত তালিকায় থাকা ব্যক্তিদের ব্যাপারে খোঁজখবর নেয়া ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে। আজকের বৈঠকে এসব নামের ব্যাপারে বিচার-বিশ্লেষণ করে যোগ্য ব্যক্তি খুঁজে বের করে ১০ জনের নাম চূড়ান্ত করা হবে।
সার্চ কমিটির একজন সদস্য জানান, বৈঠকে আমরা প্রস্তাবিত ১০ জনের নাম চূড়ান্ত করার চেষ্টা করব। প্রতিটি শূন্যপদের বিপরীতে দুজন করে ১০ জনের নাম সুপারিশ করব।
আজ সার্চ কমিটির সাচিবিক দায়িত্ব পালনকারী মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম বলেন, বৈঠকে সুপারিশ চূড়ান্ত হলে তা কালকের বৈঠক শেষে দেয়া হতে পারে। তবে সব কিছু বৈঠকেই সিদ্ধান্ত হবে।
এ দিকে মঙ্গলবার বিকেলে রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদের সাথে বিদায়ী সাক্ষাৎ করবেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) ও অন্য কমিশনাররা। কাজী রকীবউদ্দিন আহমদের নেতৃত্বাধীন বর্তমান ইসি এ মাসে বিদায় নেয়ার পর নতুন নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব নেবে। নতুন ইসি আগামী সংসদ নির্বাচন পরিচালনা করবে।
নির্বাচন কমিশন গঠনে গত ২৫ জানুয়ারি বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনকে প্রধান করে রাষ্ট্রপতি ছয় সদস্যের সার্চ কমিটি গঠন করেন। কমিটিকে ৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে রাষ্ট্রপতিকে ইসি গঠনের জন্য সুপারিশ করা লোকজনের নাম দিতে হবে।
কমিটির আরেকজন সদস্য জানান, কমিটির আজকের বৈঠকে সুপারিশ করা লোকজনের নাম চূড়ান্ত করা হবে। এরপরই সন্ধ্যায় তারা রাষ্ট্রপতির সাথে সাক্ষাৎ করবেন। ওই সময় রাষ্ট্রপতিকে সুপারিশ করা লোকজনের নাম ও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সাথে মতবিনিময়ের সারসংক্ষেপ তুলে দেবেন।

৮ ফেব্রুয়ারি বর্তমান প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকীবউদ্দিন আহমদ ও অন্য কমিশনারদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। শুধু পরে যোগদান করায় নির্বাচন কমিশনার শাহনেওয়াজের মেয়াদ শেষ হবে ১৫ ফেব্রুয়ারি। এ কারণে নিয়মানুযায়ী বিদায়ের আগের দিন রাষ্ট্রপতির সাথে সাক্ষাৎ করবেন সিইসি ও অন্য কমিশনাররা।

রনি মোহাম্মদ ,পর্তুগাল : ডেনমার্ক আওয়ামী লীগ এর সভাপতি ইকবাল হোসেন মিঠু ও সাধারণ সম্পাদক ড.বিদ্যুৎ বড়ুয়া, পর্তুগাল আওয়ামী লীগের সভাপতি জহিরুল আলম জসিম ও সাধারণ সম্পাদক শওকত ওসমান, সিনিয়র নেতা আবুল কালাম আজাদ এক বিবৃতিতে, প্রবীণ রাজনীতিবিদ আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য জননেতা সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত এম পি এর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন। রোববার ভোর রাত ৪টা ১০ মিনিটে তিনি পরলোক গমন করেন।  

সত্তরোর্ধ্ব সুরঞ্জিত রক্তে হিমোগ্লোবিন স্বল্পতাজনিত অসুস্থতায় ভুগছিলেন। শুক্রবার অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে শনিবার রাত ৮টার দিকে হাসপাতালের সিসিইউতে নেওয়া হয়। পরে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয় তাকে। ষাটের দশকের উত্তাল রাজনীতি থেকে উঠে আসা বামপন্থি এই নেতা বর্তমানে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য। সেই সাথে বাংলাদেশের সংবিধান প্রণয়নেও তিনি অসামান্য অবদান রেখেছিলেন।
সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের জন্ম ১৯৪৬ সালে সুনামগঞ্জের আনোয়ারাপুরে। প্রথম জীবনেই বামপন্থি আন্দোলনে জড়িয়ে পড়া সুরঞ্জিত দ্বিতীয়, তৃতীয়, পঞ্চম, সপ্তম, অষ্টম, নবম ও দশম জাতীয় সংসদসহ মোট সাতবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি ১৯৯৬ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সংসদ বিষয়ক উপদেষ্টার দায়িত্বে ছিলেন। ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ দ্বিতীয়বারের মতো ক্ষমতায় আসার পর তিনি রেলমন্ত্রী হন।সুরঞ্জিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর করেন। সেন্ট্রাল ল কলেজ থেকে এলএলবি করার পর আইন পেশায় যুক্ত হন তিনি।

আইন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত সুপ্রিম কোর্ট বার কাউন্সিলেরও সদস্য।

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget