ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের বর্তমান অবস্থা নিয়ে সংবাদ সম্মেলন

অনলাইন রিপোর্টঃ ডেনমার্ক আওয়ামী লীগ, ডেনমার্ক যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের  নেতৃবৃন্দদের উপস্থিতিতে ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের বর্তমান রাজনৈতিক অবস্থা নিয়ে গত ৫ই মে ২০১৭ রাত ১০ টায় স্থানীয় একটি রেস্তোরাঁয় সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের সভাপতি মোস্তফা মজুমদার বাচ্চুসাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, সহ-সভাপতি খোকন মজুমদার, জাহিদ বাবু, নাসির সরকার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নাইম উদ্দিন, সফিউল সাফি এবং সাংগঠনিক সম্পাদক সরদার সাইদুর রহমান,ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা রাফায়েত হোসেন মিঠু , হাসনাত রুবেল প্রমূখ।

সংবাদ সম্মেলনের সাথে একমত পোষন করেছেণ ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা  বাবু সুভাষ ঘোষ, মাহবুবুল হক,জাহিদুল ইসলাম কামরুল,সাইফুল আলম,সাবেক ছাত্র নেতা ফজলে এলাহি জুয়েল, ইনসান ভইয়া।  ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের সভাপতি  সহ-সভাপতি নিজাম উদ্দিন , মোহাম্মদ সহিদ, নাসরু হকযুগ্ম-সম্পাদক নুরুল ইসলাম টিটু সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ সেলিম, গোলাম কিবরিয়া শামীম সহ  কার্যকরী পরিষদ সদস্যগন।
এসময় ডেনমার্ক আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মাহবুবুর রহমান লিখিত বক্তব্যে বলেন,
ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের বর্তমান রাজনৈতিক অবস্থা ও ডেনমার্কের কিছু   বহিষ্কৃত, পদলোভি, সুবিধাবাদি, চক্রান্তকারীদের  ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের নামে ৬ই মে ২০১৭ যারা  সম্মেলনের  আয়োজন করেছে তাদের সাথে ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের কোন যোগসুত্র নেই ও এদের অবস্থান জানানোর জন্যই আজকের এই  সংবাদ সম্মেলন। 
এসময় তিনি উল্লেখ করেনঃ
১। ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের নামে ৬ই মে ২০১৭ যারা  সম্মেলনের  আয়োজন করেছে তাদের সাথে ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের কোন যোগসুত্র নেই এদের   অবস্থান ডেনমার্ক সহ ইউরোপের সকল দেশের নেতৃবৃন্দরা অবগত আছেন । সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি শ্রী অনিল দাশ গুপ্ত এর  গত ৭ই এপ্রিল প্রেস বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী জনাব মোস্তফা মজুমদার বাচ্চু ই ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের সম্মেলন তার অধীনে হবে।

২। সাংগঠনিক ভাবে তাদের কারোই   সম্মেলন করার অধিকার নাই, যিনি নিজেকে সভাপতি দাবিকারি  লিঙ্কল মোল্লা  তিনি দল থেকে প্রথমে অব্যাহতি পান পরে   ৫ বছরের জন্য সাসপেন্ড হন  এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক দাবিকারি  সাব্বির মুন্সি নিজেও ২০১৫ সালে সম্মেলনের আগের অব্যাহতি প্রাপ্ত  হয়েছেন।

৩।  এদের অনেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে সৈনিক নন, এরা পদলোভি, সুবিধাবাদি, অন্যদল থেকে আগত। কেউ কেউ আবার ডেনমার্ক  বি. এন  পি এর  কমিটিতেও  আছেন, কেউ আবার  অনেকর কাছে বঙ্গবন্ধুকে খুনি  দাবি  করেন।

৪।  বহিষ্কৃত, পদলোভি, সুবিধাবাদি, চক্রান্তকারীরা  সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির প্রধান  যাকে বানিয়েছেন তিনি নিজেই জাতীয় পার্টি করতেন আর দলে এসেছেন ২/১  বছর আগে। এই হাইব্রিডরা দলে আসার পর  থেকেই এই বিশৃঙ্খলা শুরু হয়েছে।

৫।  এরা সকাল বিকাল সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি শ্রী অনিল দাশ গুপ্ত ও সাধারণ সম্পাদক জনাব  এম এ গনির নামে কুৎসা রটায়।  শ্রী অনিল দাশ গপ্তের বিরদ্ধে  সর্বদা কটূক্তি ও কুৎসা করার বিভিন্ন অডিও আমরা সোশাল মিডিয়াতে দেখতে পাই।

৬। এরাই আওয়ামী রাজনীতির হুমকি, এদের এমন কর্মকাণ্ডে দলে বিভাজন তৈরি হচ্ছে, এদের মধ্যে থাকা বহিষ্কৃত, পদলোভি, সুবিধাবাদি, চক্রান্তকারী জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য হুমকি।


৭ । এদের মধ্যে কেউ আবার  অনেকর কাছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে  বরাবর  খুনি  দাবি  করেন।

৮। এদের  এই বিভাজন তৈরি করা ঐক্যবদ্ধ ভাবে  পতিহত করতে ডেনমার্ক আওয়ামী সকলের সহযোগিতা কামনা করি।

৯। সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি শ্রী অনিল দাশ গুপ্ত ও সাধারণ সম্পাদক জনাব  এম এ গনির নির্দেশ অমান্য করায় এদের সাংগঠনিক শাস্তি দাবি করি।

১০ ।  ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের সকল নেতা কর্মীকে ঐক্যবদ্ধ করে ডেনমার্ক আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করে অচিরে ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের ত্রি- বার্ষিক সম্মেলন কারার জন্য   সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি শ্রী অনিল দাশ গুপ্ত ও সাধারণ সম্পাদক জনাব  এম এ গনির কাছে অনুরোধ জানাই।

পরে নেতৃবৃন্দরা ঐক্যবদ্ধ আওয়ামীলীগ গঠনের জন্য সকলকে অনুরোধ জানান এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য সকল অপশক্তি রুখে দেয়ার জোর দাবি জানান।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget