নিজের আচরণে ক্ষমা চাওয়ার ইচ্ছা নেই মেসির!

জনপ্রিয় অনলাইন : আগামী বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে চিলির বিপক্ষে আর্জেন্টিনার ম্যাচে সহকারী রেফারির সঙ্গে অশালীন ভাষায় তর্ক করায় লিওনেল মেসিকে চার ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ফিফা। বিষয়টি নিয়ে জল্পনা কল্পনা চলছে, ফিফার কাছে ক্ষমা চাইলে লিওনেল মেসির ওপর থেকে চার ম্যাচের নির্বাসন উঠে যাবে।

আগামী ৪ মে জুরিখে ফিফার শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির সামনে হাজির হওয়ার কথা আলবেসেলিস্তা অধিনায়কের। কিন্তু আর্জেন্টিনার অধিকাংশ সংবাদপত্রের খবর, মেসি হাজির হলেও, নিজের আচরণের জন্য ক্ষমা চাওয়ার ইচ্ছা তার নেই! আর্জেন্টিনা জাতীয় ফুটবল ফেডারেশনের কর্মকর্তারা আগামী ৪ মে জুরিখে ফিফার দফতরে হাজির হওয়ার সময় সঙ্গে একটি ভিডিও ক্লিপিং নিয়ে যাচ্ছেন। সেখানে দেখানো হয়েছে, চিলি ম্যাচে সহকারী রেফারির সঙ্গে তর্ক করার সময় মেসি আক্ষরিক যে শব্দগুলো ব্যবহার করেছিলেন সেটা তিনি বার্সেলোনার হয়ে ট্রফি জেতার পরেও করেছিলেন।  ভিডিও ক্লিপিং দেখিয়ে আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশন প্রমাণ করতে চায় যে, মেসি অশালীন ভাষা ব্যবহার করেননি।  আর্জেন্টিনার একটি সংবাদপত্রের খবর, মেসি নাকি জানিয়েছেন, ক্ষমা চাওয়ার প্রশ্নই নেই। তাতে নির্বাসন না উঠলেও বিচলিত হবেন না!

মেসিকে ছাড়া আট ম্যাচে আর্জেন্টিনা পেয়েছে মাত্র ৭ পয়েন্ট। আর মেসি খেলেছেন, এমন ৬ ম্যাচে আর্জেন্টিনার অর্জন ১৫ পয়েন্ট। শীর্ষ চারটি টিম ওয়ার্ল্ডকাপের মূল পর্বে উত্তীর্ণ হবে। পঞ্চম দলটিকে প্লে-অফ বাধা উতরে যেতে হবে। আর এর নিচে শেষ করলে ১৯৭০-এর পর এই প্রথম কোনো বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনা হয়ে থাকবে শুধুই দর্শক!

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget