বাংলাদেশ এসোসিয়েশন পর্তুগাল নর্থ এর একুশ উদযাপন ও আলোচনা সভা

সেলিম উদ্দিন :  বাংলাদেশ এসোসিয়েশন পর্তুগাল নর্থ এর আয়োজনে গতকাল পর্তুর স্থানীয় এক অডিটোরিয়ামে প্রবাসী বাঙালিরা নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে স্মরণ করেছে ভাষা শহীদদের।
এ সময় মাতৃভাষা আদায় শীর্ষক প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনী ও অমর একুশ উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করেন বাংলাদেশ এসোসিয়েশন পর্তুগাল নর্থ এর সদস্যগণ।বাংলাদেশ এসোসিয়েশন পর্তুগাল নর্থ আয়োজনে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের বর্ণাঢ্য আয়োজনে গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় ভাষাশহীদকে স্মরণ করে পর্তুর স্থায়ী শহীদ মিনারে প্রভাতফেরি, আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ রকমারি আয়োজনে পালিত হয়েছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পর্তুগালে নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত রুহুল আমিন সিদ্দিক। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ পর্তুগাল শাখার সভাপতি জহিরুল আলম জসিম
, পর্তুগাল বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নজরুল ইসলাম সিকদার ,
পর্তুগাল আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক ,পর্তুগাল আওয়ামিলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এ ,কে রাকিব , পর্তুগাল আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক মিথুন ও শফিকুল ইসলাম , প্রচার সম্পাদক মুজিবুর মোল্লা।
এ সময় সংগঠনের নেতৃবৃন্দ লিসবন থেকে আগত বিশেষ অতিথিবৃন্দ ও প্রধান অতিথিকে ফুল আর বাংলাদেশ এসোসিয়েশন পর্তুগাল নর্থ এর পক্ষ থেকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়. সংগঠনের পক্ষ থেকে অল ইউরোপিয়ান বাংলা প্রেস ক্লাব এর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদককেও বিশেষ সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করেন।
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা উপলক্ষে পর্তুগালের রাজধানী লিসবনের পরে পর্তু শহরে প্রবাসী বাংলাদেশীদের নিঃশর্ত বৃহৎ মিলনমেলা আয়োজন করে বাংলাদেশ এসোসিয়েশন পর্তুগাল নর্থ।বাংলাদেশে মাতৃভাষা হিসেবে
বাংলার স্বীকৃতি এবং ১৯৫২ সালের একুশে ফেব্রুয়ারির ইতিহাস তুলে ধরা হয় একটি চমৎকার নাটিকা পরিবেশনার মধ্য দিয়ে।
দেশের গান এবং নিজ ভাষার প্রতি প্রবাসীরা ভালোবাসায় কতোটা আপ্লুত হয় বোঝা গেলো পুরো হলের পিনপতন নীরবতায়।রাষ্ট্রদূত প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন মহান একুশে ফেব্রুয়ারি আমাদের আত্মপরিচয়
,তিনি প্রবাসের তরুণ প্রজন্মকে উৎসাহিত করে প্রত্যেকের নিজ নিজ মাতৃভাষাচর্চাকে এগিয়ে নিয়ে যেতে আহ্বান জানান।
পর্তুগাল আওয়ামীলীগের সভাপতি জহিরুল আলম জসিম কিছুটা আবেগ্লাপুত হয়ে বলেন একুশের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে দেশের উন্নয়নে প্রবাসীদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যেতে হবে।
একুশে ফেব্রুয়ারি শোকাবহ হলেও এর যে গৌরবোজ্জ্বল অধ্যায় তা পৃথিবীর বুকে অনন্য। কারণ বিশ্বে এ যাবতকালে একমাত্র বাঙালি জাতিই ভাষার জন্য জীবন দিয়েছে।
তিনি আরো বলেন অবমূল্যায়ন থেকে নতুন শক্তির সৃষ্টি হয়। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এ
,কে ,রাকিব তার বক্তব্যে বলেন ১৯৫২ সাল আমাদের অত্যন্ত আপন হয়ে আমাদের হৃদয়ে চিরকালের জন্য ঠাঁই পেয়ে গেছে । আমাদের ভাষা বাংলাকে আমরা নিজের করে পেয়েছি । আমরা একটি দেশ পেলাম যার নাম বাংলাদেশ । আর একটি দিবস পেলাম যাকে সারা বিশ্ব স্বীকৃতি দিল আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে । সমাপনী বক্তব্যে সংগঠনের সভাপতি ফারুক হোসাইন বলেন সেদিন বাংলার ছাত্র সমাজ বজ্রদীপ্ত কন্ঠে ১৪৪ ধারা ভঙ্গের পক্ষে রায় দিয়েছিলেন বলে আমি আজ বাংলা ভাষায় কথা বলতে পারছি। শুভেচ্ছা বক্তব্যে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক কাজল আহমেদ বলেন আমরা বাঙালি, বাংলা আমাদের মাতৃভাষা।
এটা বাংলাদেশের জন্য এক অবিস্মরণীয় অর্জন বলা যায় মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীনতা অর্জনের পর এটিই সবচেয়ে বড় অর্জন। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস শুধু বাংলাদেশের জন্য নয় বরং এটি সকল মানুষের সকল ভাষার সারা বিশ্বের জন্য গৌরবের
, সকলের ভাষাকে ভালবাসার জানার এবং উন্নয়নের জন্য ভাবার দিন। তা সত্বেও বাংলাদেশই সবচেয়ে গর্বিত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের জন্য কারন বাংলাদেশের এবং ভাষা শহীদদের জন্যই আজ আমাদের সারা বিশ্বের মানুষের এ পাওয়া। বাংলাদেশ এসোসিয়েশন পর্তুগালের অন্যান্য সদস্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক , দপ্তর সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ ,মোহাম্মদ শরিফুজ্জামান খোকন সাধারণ সম্পাদক এসেম্বি কমিটি , সহসভাপতি ইদ্রিস মাতব্বর , আব্দুল হয় সাধারণ সম্পাদক অডিট কমিটি , মনিরুজ্জামান সভাপতি অডিট কমিটি , কোষাদক্ষ রাকিব হোসেন সহ বিভিন্ন স্তরের সদস্যগণ।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget