১২৫ বোতল ভারতীয় মদ ও প্রাইভেট কারসহ বিয়ানীবাজারে দু’মাদক ব্যবসায়ী আটক

সুফিয়ান আহমদ, বিয়ানীবাজার প্রতিনিধিঃ ১২৫ বোতল ভারতীয় মদসহ একটি প্রাইভেট কার আটক করেছে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ । এসময় হাতেনাতে দুমাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হলেও কারের চালকসহ অপর দুব্যবসায়ী পালিয়ে যায়। মঙ্গলবার  রাতে উপজেলার শেওলা ইউনিয়নের ঢেউনগর এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলো, জকিগঞ্জ উপজেলার বীরশ্রী ইউপির জামডোহর গ্রামের ছিফত আলীর পুত্র আব্দুল হালিম (৩০) ও সামছ উদ্দিনের পুত্র মোস্তফা উদ্দিন (২১)। তাদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশের একটি দল মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে বিয়ানীবাজার-সিলেট সড়কের শেওলা সেতু এলাকায় ওৎপেতে তাকে। এ সময় শেওলা সেতু এলাকায় একটি প্রাইভেট কার (ঢাকা মেট্রো গ ১৪-৩৯১৩) আসার পর পুলিশ গতিরোধ করে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে কারের চালকসহ ৪ মাদক ব্যবসায়ী পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশের সাথে মাদক ব্যবসায়ীদের ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। পুলিশ আহত অবস্থায় মোস্তফা উদ্দিন ও আব্দুল হালিমকে আটক করে। কারের চালকসহ অপর দুমাদক ব্যবসায়ী পালিয়ে যায়। এসময় পুলিশ আটককৃত কার তল্লাশী করে ১২৫ বোতল ভারতীয় অফিসার্স চয়েজ মদ উদ্ধার করে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এব্যাপারে বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা চন্দন কুমার চক্রবর্তী জানান, মাদকের বিরুদ্ধে বিয়ানীবাজার থানার ধারাবাহিক অভিযানের ভিত্তিতে এদেরকে আটক করা হয়েছে। বিয়ানীবাজার থেকে মাদক নির্মূলে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget