জাতির প্রয়োজনে আনসার বাহিনী সাড়া দিয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

জনপ্রিয় অনলাইন : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,জাতির যে কোন প্রয়োজনে আনসারবাহিনী সাহসকিতার সঙ্গে সাড়া দিয়েছে। এই বাহিনীর সদস্যদের জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস, নাশকতা ও মাদক পাচারের বিরুদ্ধে সততা, নিষ্ঠা ও সাহসিকতার সঙ্গে সক্রিয় দায়িত্ব পালন করতে আনসার বাহিনীর সদস্যদের প্রস্তুত থাকতে হবে।

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার সফিপুর আনসার ভিডিপি একাডেমীতে আজ রোববার বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ৩৭তম জাতীয় সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
এর আগে বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে আনসার-ভিডিপি একাডেমীর ইয়াদ আলী প্যারেড গ্রাউন্ডে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। এ সময় তাকে অভ্যর্থনা জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, স্বরাষ্ট্র সচিব, বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. নাজিম উদ্দীন।
এরপর প্রধানমন্ত্রীকে সশস্ত্র সালাম জানায় আনসার বাহিনীর একটি চৌকস দল। জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশিত হওয়ার পর একটি খোলা জিপে করে প্যারেড পরিদর্শন করেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর আনসার বাহিনীর সদস্যরা কুচকাওয়াজ প্রদর্শন করেন। কুচকাওয়াজের পর কৃতিত্বপূর্ণ কাজের স্বীকৃতি হিসেবে আনসার সদস্যদের পদক পরিয়ে দেন প্রধানমন্ত্রী।
প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে বলেন, আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী মাটি ও মানুষের বাহিনী। জরুরি প্রয়োজনে সরকারের বিশ্বস্ত সহযোগী হিসেবে এ বাহিনী বারবার রেখেছে তার উৎকৃষ্ট প্রমাণ। সর্ববৃহৎ ও সুশৃঙ্খল এ বাহিনী প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই দেশের প্রয়োজনে সর্বদা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছে।
কর্মমুখী ও কারিগরি প্রশিক্ষণের মাধ্যমে যুব সম্পদকে কর্মদক্ষ করে গড়ে তোলা এ বাহিনীর একটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ। এ বাহিনীর সদস্যগণ বর্তমানে যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানসম্মত শিক্ষা গ্রহণ করেছে এবং কর্মসংস্থানের মাধ্যমে দেশের বেকার সমস্যা সমাধানে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে।
আয় বৃদ্ধিমূলক কার্যক্রমের মাধ্যমে স্বনির্ভরতা অর্জনের ক্ষেত্রে এ বাহিনী সারাদেশে এক বিশাল পরিবর্তনের সূচনা করেছে। এ কার্যক্রম বাস্তবায়নের জন্যই প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে আনসার ও ভিডিপি উন্নয়ন ব্যাংক। ব্যাংকটি সদস্যদের আর্থিক উন্নয়নসহ নারী ক্ষমতায়নে বিশেষ অবদান রাখছে। প্রশিক্ষণ, দক্ষতা ও উন্নয়ন ও ঋণ গ্রহণ এর অপূর্ব সম্মিলনের মাধ্যমে দারিদ্র্য দূরীকরণে এ ব্যাংক কাজ করছে।
তিনি আরো বলেন, জাতিরপিতা আমাদের শিখিয়েছেন কি করে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে হয়। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে এগিয়ে যাবে। বিশ্বে এখন বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল। আমরা নিম্নমধ্যবিত্তের দেশে উন্নীত হয়েছি। আমাদের প্রবৃদ্ধি এখন ৭ দশমিক ১ ভাগে উন্নীত হয়েছে। ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নতসমৃদ্ধ দেশে পরিণত করে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলবো।
জনগণের নিরাপত্তা বিধানের জন্য সততা, শৃঙ্খলা, আন্তরিকতা ও সাহসের সঙ্গে কাজ করার জন্য আনসার সদস্যদের প্রতি আহবান জানান তিনি। 
Labels:

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget