2016-06-19

আব্দুল করিম,প্যারিস,ফ্রান্স : বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ৬৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করেছে ফ্রান্স আওয়ামীলীগ ।

প্যারিসের একটি অভিজাত হলরুমে গত ২৪শে জুন আলোচনা সভা, ইফতার ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজির আহমেদ সেলিম সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ আবুল কাশেমের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, আন্দোলন সংগ্রামের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের জন্ম। দেশ ও জনগণের জন্য আওয়ামীলীগ রাজনীতি করে। ডিজিটাল ও সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নেই ।

এ সময় বক্তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে প্রবাস থেকে সবাইকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ছায়াতলে আসার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন,ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সভাপতি নাজিম উদ্দিন আহমেদ , প্রতিষ্ঠাতা সাধারন সম্পাদক ও বর্তমান সহ-সভাপতি এম এ কাশেম , সহ সভাপতি সাহেদ আলী ,সাবেক সাধারন সম্পাদক সোহরাব মৃর্ধা , ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক মুজিবুর রহমান মুজিব ,ইউরোপিয়ান শ্রমিক লীগের সমন্বয়ক মিজান চৌধুরী মিন্টু , ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ ইকবাল হাসমী , ফ্রান্স শ্রমিক লীগের সভাপতি সাগর খাঁন ও সাধারন সম্পাদক আমিন খাঁন হাজারী , ফ্রান্স আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক নজরুল চৌধুরী , স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক জহিরুল ইসলাম বিপ্লব , ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সদস্য সাইফুল ইসলাম দুলাল সাবেক কোষাধ্যক্ষ জহিরুল হক , জাফর আহমেদ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ । আলোচনা সভার পূর্বে নেতৃবৃন্দ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্প স্তবক অর্পণ করেন । 

পরে কেক কেটে দলের জন্মদিন উদযাপন করেন দলীয় নেতা-কর্মীবৃন্দ । এ সময় স্লোগানে স্লোগানে সভাস্হল মুখরিত হয় । অনুষ্ঠানের শেষাংশে কেক কেটে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করে নেতাকর্মীরা।

অনলাইন ডেস্ক : ইউরোর কোয়ার্টার ফাইনালে টিকিটি পেতে রোববার মাঠে নামছে সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স ও বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানি। বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায় ফরাসিদের প্রতিপক্ষ হিসেবে মাঠে নামবে প্রজাতন্ত্রী আয়ারল্যান্ড। রাত ১০টায় জার্মানদের প্রতিপক্ষ স্লোভাকিয়া।

শেষ ষোলোর লড়াইয়ে প্রতিশোধের আগুন নিয়ে মাঠে নামবে জার্মানরা। অন্যদিকে ইউরোর প্রস্তুতি ম্যাচের পুনরাবৃত্তি ঘটাতে চাইবে স্লোভাকিয়া। ইউরোর আগে প্রীতি ম্যাচে ৩-১ গোলে জিতেছিল তারা। দলটির কোচ ভ্লাদিমির উইস বিশ্বাস করেন এবারও তার দল জিততে পারে।
প্রীতি ম্যাচের হিসেবে যা হোক না কেন, ইউরোর গ্রুপ পর্বের পারফরম্যান্সে জার্মানির কাছাকাছিও নাই স্লোভাকিয়া। দুটি জয় ও একটি ড্রতে মোট সাত পয়েন্ট নিয়ে সি গ্রুপে চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ ষোলোতে এসেছে জোয়াচিম লোর শিষ্যরা। অন্যদিকে বি গ্রুপে প্রথম দুটি দলের তালিকায়ও থাকতে পারেনি স্লোভাকরা। গ্রুপ পর্বে সেরা তৃতীয় স্থানের দল হিসেবে নক আউট পর্বে এসেছে তারা।
মুখোমুখি লড়াইয়েও জার্মানরা অনেক এগিয়ে। ১০ ম্যাচের মধ্যে সাতটিতে জিতেছে তারা। নক আউট পর্বেও তাদের সাফল্য কম নয়। সর্বশেষ ২০০৪ সালের ইউরোর গ্রুপ পর্ব পার করতে পারেনি। কিন্তু তারপর থেকে প্রতিটি বড় টুর্নামেন্টের সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে জার্মানি।
এদিকে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সবশেষ পাঁচ ম্যাচেই অপরাজিত আছে ফ্রান্স। আইরিশদের বিপক্ষে তাদের হার সেই ১৯৮১ সালে। তাও বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচে। সেবার ৩-২ গোলের ব্যবধানে হেরেছিল ১৯৯৮ বিশ্বকাপ জয়ী দলটি।
দুই দলের সর্বশেষ মুখোমুখি লড়াই হয়েছিল ২০০৯ সালে। বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের প্লে অফ ম্যাচের প্রথম লেগে ডাবলিনে ১-০ গোলে জিতেছিল ফ্রান্স। কিন্তু দ্বিতীয় লেগে ১-১ গোলে ড্র করে তারা।

অন্য ম্যাচে রোববার রাত ১টায় কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট পেতে বেলজিয়ামের মুখোমুখি হবে হাঙ্গেরি।

জনপ্রিয় অনলাইন : ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছাড়তে গণভোটে যুক্তরাজ্যের জনগণের রায় ইউরোপ মহাদেশের অন্যদেশগুলোকেও একই ধরনের পদক্ষেপ নিতে উদ্বুদ্ধ করে তুলেছে। ইতিমধ্যে নতুন করে অনেক দেশেই ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছাড়ার পক্ষে দাবি উঠেছে। ইইউতে থাকা, না থাকা বিষয়ে এরইমধ্যে গণভোটের দাবি তুলেছে নেদারল্যান্ডস, ডেনমার্ক, সুইডেন এবং ফ্রান্সের রক্ষণশীল এবং অভিবাসন-বিরোধী দলগুলো।

ইইউতে থাকা, না থাকা বিষয়ে একটি গণভোট আয়োজনে জোর প্রচেষ্টা চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ইতালির রক্ষণশীল দল ফাইভ স্টার মুভমেন্ট। এছাড়া ইতালির আরেক রক্ষণশীল দল নর্দার্ন লীগের নেতা মাত্তেও সালভিনি গণভোটের ফলাফলে ব্রিটিশ জনগণকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেছেন, এবার আমাদের পালা। ফ্রান্সের ন্যাশনাল ফ্রন্টের উপনেতা ফ্লোরিয়ান ফিলিপটও একই দাবি তুলেছেন।
ন্যাশনাল ফ্রন্ট দীর্ঘদিন ধরে ইইউ থেকে ফ্রান্সের বেরিয়ে আসার দাবি করছে। গত নির্বাচনে দলটি নিজেদের অবস্থান সংহত করেছে। ব্রিটেনের গণভোটের ফলাফল প্রকাশের পর ন্যাশনাল ফ্রন্ট আবারো ইইউ ছাড়ার দাবিতে সোচ্চার হয়েছে। মেরি ল পেন বলেছেন, ইইউতে থাকবে কি থাকবে না- ফরাসি নাগরিকদের অবশ্যই তা বেছে নেয়ার অধিকার আছে।

২০১৭ সালে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রার্থীদের মধ্যে মেরি ল পেন জনমত জরিপে এগিয়ে রয়েছেন। গত শুক্রবার ভিয়েনায় ইউরোপের রক্ষণশীল রাজনীতিকদের এক সমাবেশে তিনি বলেছেন, ইইউ ছাড়তে চাওয়ার পেছনে ইংরেজদের চেয়ে ফরাসিদের এক হাজারটি কারণ বেশি রয়েছে।
নেদারল্যান্ডসের অভিবাসনবিরোধী রাজনীতিবিদ ও ডাচ ফ্রিডম পার্টির নেতা গার্ট উইল্ডারস বলেছেন,ব্রিটেনের মতো নেদারল্যান্ডসে নেক্সিট ভোট আয়োজন করা চাই। আমরা আমাদের দেশ, আমাদের অর্থসম্পদ, আমাদের সীমান্ত ও অভিবাসন নীতির দায়িত্ব নিতে চাই।
আগামী মার্চে নেদারল্যান্ডসে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ পর্যন্ত কয়েকটি জনমত জরিপে গার্ট উইল্ডারসের দলকে এগিয়ে থাকতে দেখা গেছে। সর্বশেষ আরেকটি জরিপে দেখা গেছে, দেশটির ৫৪ শতাংশ মানুষ ইইউতে থাকার প্রশ্নে ব্রিটেনের মতো গণভোট আয়োজনের পক্ষপাতী।
এদিকে ডেনমার্কের রক্ষণশীল পিপলস পার্টি ব্রিটিশ জনগণের সাহসী সিদ্ধান্তকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেছে, সবারই মাথা উঁচু করে চলা চাই।
জার্মানির অভিবাসন ও ইইউবিরোধী রাজনৈতিক দল অল্টারনেটিভ ফর ডয়েশল্যান্ডের (এএফডি) প্রধান বিয়েট্রিক্স ফর স্টর্চ ব্রিটেনের স্বাধীনতা দিবসে অভিনন্দন জানিয়েছেন। ইউরোপীয় পার্লামেন্টের প্রেসিডেন্ট মার্টিন শুলজ ও ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট জঁ ক্লদ ইয়ুংকারের পদত্যাগ দাবি করে তিনি বলেন, রাজনৈতিক জোট হিসেবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ব্যর্থ হয়েছে।
তবে জার্মান চ্যান্সেলর ও ইউরোপের অন্যতম নেতা অ্যাঞ্জেলা মেরকেলের ভাষায়, এ বিরাট ধাক্কা সামলে ইউরোপীয় সমন্বয়ের স্বপ্ন এগিয়ে যাবে।

এদিকে ব্রেক্সিট পরবর্তী মন্তব্যে অস্ট্রিয়ার রক্ষণশীল দল ফ্রিডম পার্টি (এফপিও) ইউরোপীয় কমিশন ও ইউরোপীয় পার্লামেন্ট প্রধানদের পদত্যাগের আহ্বান জানিয়েছে। দলটি বলেছে, ইইউতে সংস্কার আনা না হলে অস্ট্রিয়াও ব্রিটেনের মতো গণভোট আহ্বান করবে।

রনি মোহাম্মদ,(লিসবন,পর্তুগাল): পর্তুগালের রাজধানীর লিসবনে বাঙালি অধ্যুসিত এলাকা রুয়া দা বেনফোরমোস কাজা দা আমিগোস হল রুমে পর্তুগাল আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মাহে রমজান উপলক্ষ্যে ইফতার মাহফিলের ও এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

পর্তুগাল আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শওকত ওসমানের পরিচালনায় ও সভাপতি জহিরুল আলম জসিমের সভাপতিত্বে উক্ত ইফতার মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন সাবেক উপদেষ্টা ও বাংলা কমিউনিটির নির্বাচন কমিশনার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জনাব আলহাজ্ব লেহাজ উদ্দিন, পর্তুগাল আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মাহাবুব আলম, সিনিয়র সহ সভাপতি মিয়া ফরহাদ, সহ সভাপতি  মহসিন হাবিব খাঁন, এম এ খালেক, পর্তুগাল আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা আবুল কালাম আজাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক মজিবুর মোল্লা, দপ্তর সম্পাদক শাফিউল আলম বাচ্চু, বেলাল রেজা, আরজু, মিজানুর রহমান, নজরুল ইসলাম, আইয়ুব খাঁন সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

আলোচনা পর্বে বক্তারা রমজান মাসের গুরুত্ব ও তাৎপর্য নিয়ে আলোচনা করে। তারা একই সঙ্গে দেশের কল্যাণে কাজ করতে ও বিদেশে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী ও প্রবাসেও আওয়ামী লীগকে আরও গতিশীল করা জন্য নিরলস পরিশ্রম করার আহ্বান জানান।


আলোচনা সভা শেষে ইফতারের পূর্ব মূহুর্তে মুসলিম উম্মার শান্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন বাইতুল মোকারম মসজিদের দ্বিতীয় খতিব হাফেজ মাওলানা হাসান।


অনলাইন ডেস্ক : গণভোটের মাধ্যমে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) থেকে বেরিয়ে যাওয়া ব্রিটেনকে ছাড়া এবার সভা আহ্বান করেছে ইইউ।


২৪ জুন সকালে ভোট গণনার ফলাফলের পর পরই ইইউ প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টাস্ক সংবাদমাধ্যমে ব্রিটেনকে ছাড়া সভা আয়োজনের কথা জানান। তিনি বলেছেন, এই সভার বিষয়টি আগে থেকেই নির্ধারিত ছিল। শুধু আনুষ্ঠানিক ঘোষণা এবার এলো মাত্র। আগামী সপ্তাহখানেকের মধ্যেই এই সভা হবে।
ডোনাল্ড টাস্ক বলেন, এই সংগঠনের ঐক্য এখন ধরে রাখার কোনো বিকল্প নেই। সে জন্য সবার সমান অংশগ্রহণ দরকার। এছাড়া ইংল্যান্ড যে এই জোট থেকে বেরিয়ে অাসছে তা তিনি আগে থেকেই আঁচ করতে পেরেছিলেন বলেও ইঙ্গিত দেন। বলেন, আমাদের আগে থেকে প্রস্তুতি ছিল, ভেবে রেখেছিলাম কী হতে পারে। ফলাফলে আমরা আরও পরিষ্কার ধারণা পেলাম। বেলজিয়ামের ব্রাসেলসে ইইউ কার্যালয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড টাস্ক আরও বলেন, এখন এই বিষয়ে কোনো অস্বচ্ছতা রইলো না। পরবর্তী ভূমিকা আমাদের সবাই মিলেই রাখতে হবে।

ফ্রান্স প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জ জেলা সমাজ কল্যাণ সমিতি ফ্রান্সের উদ্যোগে প্যারিস্থ্য সুনামগঞ্জ জেলা প্রবাসী ও ফ্রান্সের বাংলাদেশি কমিউনিটির বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক ও আঞ্চলিক সংগঠনের নেতা কর্মীদের উপস্থিতিতে প্যারিসের মেট্রো হুশ হলে এক ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গত ১৯ জুন সংগঠনের উপদেষ্টা নুরুল আবেদীন এর সভাপতিত্বে ও সুনামগঞ্জ পৌরসভার সাবেক প্যানেল মেয়র জসিম উদ্দিন ফারুক এর সঞ্চালনায় ইফতার পূর্ববর্তী আলোচনায় বক্তব্য রাখেন ফ্রান্স আওয়ামী লীগ সভাপতি মহসিন খান লিটন ,ফ্রান্স বিএনপি সভাপতি সৈয়দ সাইফুর রহমান ,সুনামগঞ্জ জেলা সমাজ কল্যাণ সমিতি,র সাবেক সভাপতি আংগুর আলম ,ফ্রান্স আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক দেলোওয়ার হোসেইন কয়েছ, সিলেট বিভাগ সমাজ কল্যাণ সমিতির সাধারন সম্পাদক রেজাউল করিম ,যুবদলের সভাপতি আরিফ হাসান, স্বরলিপি শিল্পি গোষ্ঠির সভাপতি এমদাদুল হক স্বপন, ইলিয়াছ মুক্তি পরিষদের আহবায়ক মফিজ আলী সহ সুনামগঞ্জ জেলা সমাজ কল্যাণ সমিতির নেতৃবৃন্দরা। এসময় বক্তারা সুনামগঞ্জ জেলা সমাজ কল্যাণ সমিতি,র বিভিন্ন উন্নয়ন মুলক কর্মকান্ডের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং এর উত্তরত্বর সাফল্য কামনা করে প্রবাসীদের পাশে থাকার কথার বলেন। পরে দেশ জাতির সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

অনলাইন ডেস্ক : পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারকে গভীর রাতে ঢাকায় তার শ্বশুরবাড়ি থেকে নিয়ে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, কয়েকজন আসামির সামনে মুখোমুখি করে বাবুল আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের একটি টিম বাবুলকে মিন্টু রোডের ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে যায়। যদিও ডিবি থেকে বলা হয়েছে, বাবুল আক্তারের স্ত্রী হত্যার ঘটনায় সন্দেহভাজন গ্রেফতার তিন খুনির মুখোমুখি করার জন্য তাকে ডিবি কার্যালয়ে নেয়া হয়েছে। বাবুল আক্তারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে না পেরে তার স্বজনদের মধ্যে সন্দেহ তৈরি হয়েছে। তার বাবা ও শ্বশুর বলছেন, বাবুলের স্ত্রী খুন হওয়ার পর থেকে পুলিশ নিরাপত্তা দিয়ে এসেছে। কিন্তু এখন তারাও সহযোগিতা করছে না। বাবুল আক্তারকে গোয়েন্দা পুলিশ কার্যালয়ে রাখা হয়েছে বলে শোনা গেলেও এ বিষয়ে মুখ খুলছেন না পুলিশের কোনো কর্মকর্তা। এ ব্যাপারে শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, সম্ভাব্য খুনিদের মুখোমুখি করে বাবুল আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডিবি পুলিশে নেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা আক্তার মিতুকে গত ৫ জুন চট্টগ্রামে তাদের বাসার কাছে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যা করা হয়।

মাম হিমু : ফ্রান্সে বসবাসরত ঐতিহ্যবাহী বৃহত্তর নোয়াখালী বাসীর পক্ষ থেকে বাংলাদেশ কমিউনিটির সর্বস্তরের নেতৃবন্দের সম্মানে প্যারিসের অভিজাত রেস্টুরেন্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে ইফতার ও দোয়া মাহফিল । বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত এ ইফতার মাহফিলে রাজনৈতিক,সামাজিক,সাংবাদিক সহ বিভিন্ন পেশার নারীপুরুষ ও শিশু সহ এক আনন্দঘন পরিবেশের সৃস্টি হয়, এ যেন ছোট্ট এক বাংলাদেশ ।

আয়োজকদের পক্ষ থেকে প্রবাসে দল মত নির্বিশেষে এ ভাতৃত্বের বন্দন অটুট রেখে বাংলাদেশ কমিউনিটিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করে সবাইকে অভিনন্দন জানিয়ে বক্তব্য রাখেন বৃহত্তর নোয়াখালী বাসীর পক্ষে সর্বজনাব এম এ তাহের, এইচ এম হায়দার, সাইফুল ইসলাম, কামাল হোসেন, স্বপন ভুঁইয়া,গোলজার হোসেন,মোহাম্মদ ফারুক,মোহাম্মদ আইয়ুব,সাফায়েত জামিল,এখলাক হক, হারুনউর রশিদ, আবু তাহের, মোহাম্মদ ইকবাল, সওকত হোসেন, মোশারফ হোসেন, মোকামাল,

রাসেল আহমেদ, ফরিদ আহমেদ, মোহাম্মদ জনি, মোহাম্মদ পলাশ, মোহাম্মদ নজরুল, ইসতিয়াক রাসেল, আজম খান, আব্দুল লতিফ, শরিফ উদ্দিন,লিটন বাদল, কামরুল হাসান এবং কমিউনিটির সম্মানিত নেতৃবন্দের মধ্যে জনাব শাহ জামাল, মফিজ আলী, মোহাম্মদ মুজিবুর ভাই, শামিম আহমেদ, জুনেদ আহমেদ, শরিফ আহমেদ, মোহাম্মদ বকুল,ফরিদ আহমেদ, মুহিব আহমেদ,আরিফ হোসেন, আলি আহমেদ, খসরুজ্জামান, সাগর আহমেদ, মনোয়ার হোসেন, সাগর বড়ুয়া, কানু মিয়া, আফসার আহমেদ, সালাউদ্দিন বালা, আফসার আহমেদ, আরাফাত হোসেন, মোহাম্মদ রায়হান, নিজাম উদ্দিন,মোহাম্মদ হোসেন, নারী অতিথী বৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নাসরীন জাহান, শামীমা আক্তার রুবি, নিশিতা বড়ুয়া, নাজমা আহমেদ নিঝুম সহ অসংখ্য অতিথীবৃন্দ। অনুষ্ঠানে দেশ ও জাতির কল্যাণে দোয়া পরিচালনা করেন জনাব করিম মাস্টার।

ঢাকা : পুলিশ কর্মকর্তা বাবা মাহফুজুর রহমান ও মা স্বপ্না রহমানকে হত্যার দায়ে আদালতের দেওয়া মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হবে না বলে মনে করেন তাঁদের মেয়ে ঐশী রহমান।

ঐশী রহমানের প্রত্যাশা, উচ্চ আদালতে আপিলের শুনানিতে তাঁকে খালাস দেওয়া অথবা দণ্ড কমানো হতে পারে। এসব বিষয়ে তিনি কিছু যুক্তিও তুলে ধরেছেন তাঁর আইনজীবীর কাছে।
সম্প্রতি ঐশীর সঙ্গে কারাগারে দেখা করার পর তাঁর আইনজীবী মাহবুব হাসান রানা এসব তথ্য জানান।
অ্যাডভোকেট মাহবুব হাসান রানা আজ বৃহস্পতিবার বলেন,
ঐশীর মামলায় নিম্ন আদালতের দণ্ডের বিরুদ্ধে করা আপিল ও ডেথ রেফারেন্স হাইকোর্টে শুনানির অপেক্ষায় রয়েছে। ঐশী বর্তমানে গাজীপুরের কাশিমপুর মহিলা কারাগারে রয়েছে। আমাকে প্রায় সময় কারাগারে তাঁর সঙ্গে আইনি বিষয়ে পরামর্শের জন্য দেখা করতে হয়।
গত সপ্তাহে দেখার করার সময় ঐশী আমাকে বলেছেন, কারাগারের কনডেম সেলে একাকী সময় কাটানো কষ্টকর। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এক ঘণ্টা তাঁকে কনডেম সেলের বাইরে হাঁটতে দেওয়া হয়। অন্য সময় ছোট একটি কক্ষে তাঁর সময় কাটাতে হয়। বিভিন্ন বই পড়ে ও ইবাদত করে দিন পার করেন তিনি।

খাবার হিসেবে কারাগার থেকে যা দেওয়া হয়, তার পাশাপাশি তাঁর চাচা কারাগারের অ্যাকাউন্টে টাকা জমা রাখেন। সেখান থেকে টাকা তুলে কারাগারের ক্যান্টিন থেকে খাওয়া-দাওয়া করেন। এ ছাড়া ছোট ভাইকে তিনি খুব মিস করে। মা-বাবার বিষয়টি নিয়ে তিনি হতাশা ব্যক্ত করেছেন।
তিনি আমাকে বলেছেন, তিনি পিতা-মাতাকে হত্যা করেননি। নিম্ন আদালত তাঁকে মৃত্যুদ- দিয়েছে। কিন্তু তাঁর বিশ্বাস, হাইকোর্টে তিনি খালাস পাবেন। কেননা, আসামি হিসেবে তাঁকে আদালত কিশোরী হিসেবে উল্লেখ করলেও রায়ে প্রাপ্তবয়স্কদের মতো দণ্ড দিয়েছেন। একজন কিশোরীকে মৃত্যুদ- দেওয়া যায় না। এ ছাড়া বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত কোনো নারীর ফাঁসি কার্যকর হয়নি। এটা তাঁকে আশান্বিত করে।

আইনজীবী মাহবুব হাসান রানা আরো বলেন,
আপিলে আমরা ২৫টি যুক্তি দেখিয়েছি। তন্মধ্যে অন্যতম যুক্তি হলো মামলার বাদী ঐশীর চাচাকে জেরা করার সময় বলেছেন, তাঁর ভাই নিহত মাহফুজুর রহমান বিয়ে করেছেন ১৯৯৪ সালে। মেয়ে ঐশীর জন্ম হয়েছে ১৯৯৬ সালে। এ ঘটনার সময় ঐশীর বয়স হয় ১৬ বছর। কিন্তু প্রসিকিউশন ১৯ বছর বয়স দেখিয়ে তাঁকে শিশু আইনে বিচার করতে দেয়নি। বাংলাদেশি ফৌজদারি আইন অনুযায়ী তিনি একজন কিশোরী। প্রাপ্তবয়স্ক হতে হলে তাঁর ১৮ বছর দরকার হতো। এ ছাড়া একজন আসামিকে ডিএনএ টেস্ট করার জন্য ছয়টি এক্স-রে করতে হয়। সেখানে ঐশীকে মাত্র তিনটি টেস্ট করা হয়েছে। নিয়মানুযায়ী এসব পরীক্ষার এক্স-রের কপি আদালতে উপস্থাপন না করে শুধু রিপোর্ট দেওয়া হয়েছে।
এ ছাড়া ২১ নম্বর সাক্ষী ডা. নাহিদ মাহজাবীন মোর্শেদের সাক্ষ্য আমলে নেননি।

যিনি তাঁর সাক্ষ্যে বলেছেন, ঘটনার সময় ঐশীর মানসিক ভারসাম্য ছিল না। এক বোতল হুইস্কি খেয়েছিল ঐশী রহমান।

ঐশীর শুনানি শিগগিরই এদিকে, ঐশী রহমানের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার জন্য ডেথ রেফারেন্সের শুনানি শিগগিরই শুরু হচ্ছে। একই সময়ে শুরু হবে নিম্ন আদালতের দেওয়া রায়ের বিরুদ্ধে ঐশীর করা আপিলের শুনানি। ডেথ রেফারেন্সের শুনানির জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে ৭২০ পৃষ্ঠার পেপারবুক। এই মামলার শুনানি এখন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার অনুমোদনের অপেক্ষায়।
সুপ্রিম কোর্টের একটি সূত্র জানায়, নিম্ন আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে ঐশীর করা আপিল ও রাষ্ট্রপক্ষের ডেথ রেফারেন্স আবেদনের শুনানির জন্য ঐশীর মৃত্যুদণ্ডাদেশ অনুমোদন বিষয়ক (ডেথ রেফারেন্স) ৭২০ পৃষ্ঠার পেপারবুক প্রস্তুত করা হয়েছে।
এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার (বিচার ও প্রশাসন) সাব্বির ফয়েজ আজ বৃহস্পতিবার বলেন,
ঐশীর মামলার পেপারবুক প্রস্তুত করা হয়েছে। প্রধান বিচারপতি অনুমতি দিলে শুনানির জন্য হাইকোর্টের কার্যতালিকায় আনা হবে।
হাইকোর্টের ডেথ রেফারেন্স শাখার তত্ত্বাবধায়ক বলেন,
ঐশী রহমানের ৭২০ পৃষ্ঠার পেপারবুকের কাজ শেষ হয়েছে। আমরা কয়েকটি ভাগে দ্রুত সময়ের মধ্যে এই পেপারবুক তৈরি করি।
গত বছরের ৬ ডিসেম্বর ২৫টি যুক্তি দেখিয়ে ঐশী রহমান হাইকোর্টে আপিল দায়ের করেন। আপিলে তিনি বলেছেন, তাঁর বিচার প্রক্রিয়া ছিল ভুলে ভরা। মিথ্যা সাক্ষীর ওপর ভিত্তি করে তাঁকে সাজা দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া বয়সের ক্ষেত্রে মামলার বাদীর বক্তব্য গ্রহণ করেননি আদালত।

অনলাইন ডেস্ক :  প্রায় অর্ধ শতাব্দী পর ইউরোপীয় ইউনিয়ন ছাড়ছে ব্রিটেন। এতে করে দেশটির রাজনীতি এবং অর্থনীতি অস্থিতিশীল হয়ে উঠতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। ২০০৮ সালের পর নতুন করে আবারও অর্থনৈতিক শঙ্কটে পড়তে যাচ্ছে ব্রিটেন।

সে সময় অর্থনৈতিক সংকট ছিল কিন্তু তখনও এত অস্থিতিশীল অবস্থায় পড়েনি দেশটি। গণভোটে ইউরোপ ছেড়ে যাওয়ার পক্ষে ভোট দিয়েছে ৫২ শতাংশ। ভোটের ফলাফলের পর জোটের সঙ্গে দীর্ঘ ৪৩ বছরের পথ চলা শেষ করতে হলো ব্রিটেনকে। স্থানীয় সময় সকাল ৪টা ৪০ মিনিটে গণভোটের ফলাফল জানানো হয়। আর ওই ফলাফলের পর ডলারের বিপরীতে পাউন্ডের পতন ঘটে। যা ব্রিটেনের অর্থনীতিতে বড় ধরনের হুমকি বলে মনে করা হচ্ছে। গত ৩১ বছরের রেকর্ড ভেঙে পাউন্ডের পতন হয়েছে। ১৯৮৫ সালের পর ডলারের বিপরীতে পাউন্ডের এমন পতন ঘটালো। এর ফলে বিশ্ব শেয়ার বাজারও ব্যাপকভাবে প্রভাবিত হচ্ছে। এই গণভোটকে ব্রিটেনের রাজনৈতিক ইতিহাসের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ও জটিল এক সিদ্ধান্ত বলে মনে করা হচ্ছে। গণভোটের কারণে পাউন্ডের ৩ ভাগ পতন হয়েছে। এদিকে গণভোটে ইইউ ছাড়ার পর ইউরোর বিপরীতে পাউন্ডের পতন হয়েছে ৬ দশমিক ৫ ভাগ। পাউন্ডের দাম কমতে কমতে এক পর্যায়ে এসে ১ দশমিক ৩৩০৫ ডলারে ঠেকেছে। এই পতনের হার ১০ শতাংশের বেশি। ১৯৮৫ সালের পর পাউন্ডের দাম এত নিচে আর কখনো নামেনি। ভোটের ফল গণনা শুরুর আগে পাউন্ডের দাম উঠেছিল ১ দশমিক ৫০ ডলার। কিন্তু ভোটের পর পরই পাউন্ডের দাম ৭ শতাংশ কমেছে এবং ডলারের বিপরীতে ইউরোর দামেও ধস নেমেছে। ভোটের এই প্রভাব পড়েছে শেয়ারবাজারেও। শুক্রবার লন্ডন স্টক এক্সচেঞ্জে ৮ শতাংশ ধস নেমেছে। এর প্রভাব শুধু ব্রিটেনেই নয়, জাপান এবং এশিয়ার শেয়ারবাজারেও ধস নেমেছে। ইইউ ত্যাগ করা ব্রিটেনের জন্য সুফল বয়ে আনবে নাকি অর্থনীতি আরো ধসের মুখে পড়বে তাই এখন দেখার অপেক্ষা। 

অনলাইন ডেস্ক : ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পক্ষে যুক্তরাজ্যের বেশিরভাগ মানুষ ভোট দেয়ার পর সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা দেশগুলো শনিবার বৈঠকে বসছে। 

জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফ্রাংক ওয়াল্টার স্টেইনমিয়ার ইইউর প্রতিষ্ঠাতা দেশগুলোর পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের সঙ্গে আলোচনার জন্য এ বৈঠকের আয়োজন করছেন। জার্মানির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ফ্রান্সের জ্যাঁ-মার্ক আরাউলÍ, নেদারল্যান্ডের বার্ট কোয়েনডার্স, ইতালির পাওলো জেনটিলোনি, বেলজিয়ামের দিদিয়ের রেইনডার্স ও লুক্সেমবার্গের জ্যাঁ অ্যাসেলবর্ন ইউরোপে চলমান রাজনৈতিক বিষয় নিয়ে বার্লিনে বৈঠক করবেন। 

জনপ্রিয় অনলাইন ডেস্ক :  ব্রিটেনের গণভোটে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে যাবার পক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠ রায়ের পর এখন ইউনাইটেড কিংডম অব গ্রেট ব্রিটেন বা যুক্তরাজ্যও টিকে থাকবে কিনা - তা নিয়েও সংশয় তৈরি হয়েছে।

গণভোটের ফলাফল থেকে বোঝা যায়, স্কটল্যান্ড, উত্তর আয়ারল্যান্ড এবং ওয়েলসেরও একটা অংশের ভোটাররা ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের থাকার পক্ষে ভোট দিয়েছেন - যারা ইংল্যান্ড ছাড়া যুক্তরাজ্যের অংশ অন্য তিনটি রাজ্য।
সুতরাং এখন প্রশ্ন উঠছে, ভোটের এই ফলাফলের পর তারা যুক্তরাজ্যের অংশ থাকবে কিনা।
বিশেষ করে স্কটল্যান্ডে দু বছর আগেই স্বাধীনতা প্রশ্নে এক গণভোটে ১০ শতাংশ ভোটের ব্যবধানে যুক্তরাজ্যে থাকার পক্ষের অংশ জয়ী হয়েছিল। উত্তর আয়ার‍ল্যান্ডে বহু দশক ধরে স্বাধীন আয়ারল্যান্ড প্রজাতন্ত্রের অংশ হবার দাবিতে সশস্ত্র সংগ্রাম চলেছে।
যুক্তরাজ্য ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের অংশ হবার পর এ ব্যাপারটা অনেক কমে এসেছিল। তাই প্রশ্ন হলো, সেই পুরোনো দাবিগুলো এবার আবারো উঠবে কিনা।
স্কটল্যান্ডের মুখ্যমন্ত্রী নিকোলা স্টার্জিওন বলেছেন, তারা যুক্তরাজ্য থেকে বেরিয়ে গিয়ে স্বাধীন হবার জন্য আরো একটি গণভোট করতে আইন প্রণয়নের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।
তিনি বলেন, দু বছর আগে যে পরিস্থিতিতে প্রথম গণভোট হয়েছিল - সে পরিস্থিতি এখন পুরো পাল্টে গেছে।
বৃহস্পতিবারের গণভোটের ফলে স্কটল্যান্ডকে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে আসতে হবে - যা গণতান্ত্রিকভাবে গ্রহণযোগ্য নয়। তাই এখন স্বাধীনতা প্রশ্নে নতুন গণভোট দরকার। - বলেন নিকোলা স্টার্জিওন।
উত্তর আয়ারল্যান্ডের সবচেয়ে বড় জাতীয়তাবাদী দল শিন ফেইনও বলেছে, আইরিশ প্রজাতন্ত্রের সাথে যুক্ত হবার প্রশ্নে একটি গণভোট করার পক্ষে এখন শক্ত যুক্তি রয়েয়ে। 

সূত্র: বিবিসি বাংলা

অনলাইন ডেস্ক : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, ইচ্ছাকৃতভাবে কোনো ক্রসফায়ার (বন্দুকযুদ্ধ) করেনি পুলিশ। আত্মরক্ষার্থে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে। আজ শুক্রবার নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

বন্দুকযুদ্ধ প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ক্রসফায়ার আমাদের পুলিশরা করে নাই। কারণ, আমাদের মূল উদ্দেশ্য হলো, মানে তাদের থেকে তথ্য নেওয়া এবং তারা যাতে ভবিষ্যতে এ ধরণের কর্মকাণ্ড পরিচালনা না করতে পারে। কাজেই আমরা সেই জায়গাটিতেই বিশ্বাস করি।
কাজেই কোনো ক্রসফায়ার আমাদের পুলিশ করেনি; বরং আত্মরক্ষা কিংবা তাকে ধরতে গিয়ে এ ধরণের ঘটনাগুলো ঘটেছে। এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সন্ত্রাসীদের অনেক নাম থাকে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গুলিতে নিহত শরীফুলই পুলিশের সন্দেহভাজন ব্লগার হত্যাকারী, যাঁর বেশ কয়েকটি নাম ছিল।
আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, একেকজন, একেক জায়গায়, একেক সময়, একেক নাম ধরে এরা আত্মপ্রকাশ করতো। কাজেই আমাদের কাছে যে নাম তারা স্বীকার করেছে, আমরা সেই নামটি প্রকাশ করি।

সাম্প্রতিক সময়ে জঙ্গি তৎপরতা বন্ধে সরকার পুরোপুরি না হলেও কাছাকাছি পৌঁছেছে বলে মন্তব্য করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, ঈদ সামনে রেখে দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছিল।

অনলাইন: যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন আগামী অক্টোবর নাগাদ পদত্যাগ করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। ইইউতে যুক্তরাজ্যের থাকা না-থাকা নিয়ে গণভোটে ত্যাগে ইচ্ছুক জনতা জয়লাভের পর আজ শুক্রবার তিনি এ ঘোষণা দেন।
 
ইইউতে যুক্তরাজ্যের থাকা না-থাকা নিয়ে অনেক দিন ধরেই বিতর্ক চলে আসছে। বিষয়টি যে যুক্তরাজ্যের জন্য অর্থনৈতিক যন্ত্রণা হয়ে দাঁড়াবে, এ ব্যাপারে তিনি আগেই সতর্ক করেছিলেন। কিন্তু তাঁর এই সতর্কতা উপেক্ষিত হয়েছে। 
গণভোটের রায়ে ত্যাগে ইচ্ছুক ব্যক্তিরা জয়ী হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী ক্যামেরন তাঁর লন্ডনের সরকারি বাসভবন ডাউনিং স্ট্রিটে সাংবাদিকদের বলেন, আমি মনে করি না পরবর্তী গন্তব্যে দেশকে নিয়ে যেতে চালকের ভূমিকায় থাকা আমার জন্য ঠিক হবে। 
তবে পরবর্তী কয়েক মাস দেশের হাল শক্ত করে ধরার অঙ্গীকার করেন ক্যামেরন। তিনি বলেন, অক্টোবরের শুরুতে নতুন একজন নেতা দায়িত্ব নেবেন।

অনলাইন ডেস্ক :  ব্রিটেনের জনগণ ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন (ইইউ) থেকে সরে আসার পক্ষে ভোট দেওয়ার পর প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগের ঘোষণা করেছেন ডেভিড ক্যামেরন। ডাউনিং স্টিটে পদত্যাগের ঘোষণা দেওয়ার সময় তার পাশে স্ত্রী সামান্তা ক্যামেরন উপস্থিত ছিলেন।

পদত্যাগের ঘোষণায় ক্যামেরন বলেছেন, জনগণের ইচ্ছার প্রতি সম্মান জানাতেই হবে। এখন পদত্যাগের ঘোষণা দিলেও তা অক্টোবর থেকে কার্যকর হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। কনজারভেটিভ পার্টির কনফারেন্সে নতুন নেতা নির্বাচন করা হবে বলে বিবিসি সূত্রে জানা গেছে। যদিও ভোটের পরপর ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, গণভোটে হারলেও ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে থাকবেন ক্যামেরন। গণভোটে ৫১.৯ শতাংশ লিভ ভোট দিয়ে অভিবাসন নীতি, শরণার্থী সংকট, অর্থনৈতিক নীতি, ব্রিটিশ ঐতিহ্য রক্ষার দাবির প্রতিই সংহতি জানালো তারা।

ইইউ থেকে বেরিয়ে এলে ৫০ কোটি মানুষের বাজার হারাবে ব্রিটেন রিমেইন পক্ষের এমন প্রচারণা সত্যেও হারই মেনে নিতে হলো তাদের। ই্‌ইউ'তে যোগ দেওয়ার ৪৩ বছর পরে এই না থাকার সিদ্ধান্ত কী প্রভাব ফেলে তা দেখতে শঙ্কাভরে অপেক্ষায় সারাবিশ্ব। ইতিমধ্যে মুদ্রাবাজারে ব্যাপক ধস নেমেছে। ১৯৮৫ সালের পরে পাউন্ডের দাম রেকর্ড পরিমাণ কমেছে।৫০ শতাংশের চেয়ে একটি ভোটও বেশি পেলে যেখানে জয় নিশ্চিত হতো সেখানে লিভ পেয়েছে ৫১.৯ শতাংশ। আর রিমেইন পেয়েছে ৪৮.১ শতাংশ। লিভের পক্ষে মোট ভোটের সংখ্যা ১ কোটি ৭৪ লাখ ১০ হাজার ৭৪২ টি এবং রিমেইনের পক্ষে ১ কোটি ৬১ লাখ ৪১ হাজার ২৪১ টি। ৪ কোটি ৬৫ লাখ ১ হাজার ২৪১ জন ভোটার দেশ জুড়ে ৪০ হাজার ভোটকেন্দ্রে ভোট দেয়। ভোট প্রদানের হার ৭২.২ শতাংশ। এর মধ্যে আবার অফিসিয়াল চিহ্ন না থাকা, একের অধিক পক্ষাবলম্বন, ব্যালেট প্যাপারে ছাপা নাম্বার বা স্বতন্ত্র চিহ্নিতকরণ মার্ক ছাড়া ভোটারকে চিহ্নিত করা যায় এমন লেখা বা ছাপ ব্যবহারের কারণে ২৬ হাজার ৩৩ টি ব্যালেট প্যাপার বাতিল করা হয়।ইংল্যান্ড, স্কটল্যান্ড, ওয়েলসের ৩৮০টি এবং নর্দান আয়ারল্যান্ড ও জিব্রাল্টারের জন্য একটি করে মোট ৩৮২টি ভোট গণনা কেন্দ্রে গণনা শেষে ফলাফল নিজ নিজ গণনা কর্মকর্তার কাছে  প্রদান করে। পরে যুক্তরাজ্যের ১১টি প্রশাসনিক অঞ্চল এবং নর্দান আয়ারল্যান্ডসহ মোট ১২টি আঞ্চলিক কেন্দ্র ভোটের ফল ঘোষণা করবে।

আব্দুল মালেক হিমু ফ্রান্স : ফ্রান্সে বাংলাদেশ কমিউনিটির সম্মানে ফ্রান্স বাংলা প্রেস ক্লাবের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে । 

প্যারিসের একটি অভিজাত রেস্টুরেন্টে প্রেস ক্লাবের সভাপতি নূরুল ওয়াহিদের সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়সাল আহম্মেদ দীপের পরিচালনায় ইফতার পূর্ব আলোচনায় বক্তব্য রাখেন ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের হেড অফ চ্যান্সেরী মোহাম্মদ হযরত আলী খান, আয়েবার সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার জয়নাল আবেদিন, মহাসচিব কাজী এনায়েত উল্লাহ ইনু, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদের ডীন প্রফেসর শাহাদাত আলী, অয়েবার কোষাধ্যক্ষ মুহিবুর রহমান মুহিব, তুলুজ বাংলাদেশী কমিউনিটি এসোসিয়েশনের সভাপতি ফখরুল আকম সেলিম, ফ্রান্স বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এম এ তাহের, জাতীয়তাবাদী মুক্তি পরিষদের সভানেত্রী শামিমা আক্তার রুবি।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন ফ্রান্স আওয়ামীলীগের সভাপতি মহসিন উদ্দিন খান লিটন, সিনিয়র সহ সভাপতি মনজুরুল ইসলাম চৌধুরী সেলিম, সাধারন সম্পাদক দিলওয়ার হোসেন কয়েছ, ইয়থ ক্লাব ফ্রান্সের সভাপতি শরিফ আল মুমিন, ফ্রান্স বিজনেস ফোরামের সভাপতি সত্তার আলী শাহ আলম, আয়েবার যুব বিষয়ক সম্পাদক কালাম মিয়া, ফ্রান্স মহিলা দলের সভানেত্রী মমতাজ আলো, শাহজালাল স্পেটিং ক্লাবের সভপতি ফয়সাল আহম্মদ সহ কমিউনিটির বিভিন্ন রাজনৈতিক সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ । পরে বাংলাদেশসহ বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে মুনাজাত করা হয়।
ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন :

সুফিয়ান আহমদ,বিয়ানীবাজার প্রতিনিধিঃ বিয়ানীবাজারে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দুপক্ষের মধ্যকার সংঘর্ষে প্রতিপক্ষের দায়ের কুপে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। 

গত ২২শে জুন সকাল সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার আলীনগর ইউনিয়নে এ সংঘর্ষে ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের আরও ১০ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। নিহত মাহতাব উদ্দিন স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা ও একই এলাকার মৃত মখন মিয়ার পুত্র। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট প্রেরণ করেছে এবং ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে তাৎক্ষণিক ৫জনকে ও পরে আরো ৩ জনকে আটক করেছে। এঘটনায় এলাকায় থমথমে পরিস্তিতি বিরাজ করছে। নিহত মাহতাবের পরিবারের অভিযোগ, বাড়ির নিকটবর্তি একটি জমি নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে এলাকায় ক্যাডার হিসেবে পরিচিত আব্দুল মুমিত সুমন গংদের বিরোধ চলে আসছিল। এই জমি দখল নিতে পায়তারা শুরু করে সুমন ও তাঁর সহযোগীরা। মঙ্গলবার রাতে আগাম জমি দখলের পায়তারার খবর থানা পুলিশকে অবহিত করা হয় কিন্তুু ওসি পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ সেখানে প্রেরণ না করে চারখাই পুলিশ ফাঁড়ি থেকে কজন পুলিশ প্রেরণ করেন। আর সংঘর্ষ চলাকালে স্পল্প সংখ্যক পুলিশ কার্যকর ভূমিকা পালনে ব্যর্থ হওয়ায় তাদের সামনেই ঘটেছে খুনের ঘটনা। পুলিশের দায়িত্বশীল একটি সূত্র মঙ্গলবার রাতে আলীনগর থেকে তাদেরকে সংঘর্ষের আশংকা করে ফোন দিয়ে পুলিশের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছিল বলে জানায়। সূত্রটি জানায়, ফোন পাওয়ার পর ওসিকে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বলা হলেও ওসি এ বিষয়ে তেমন পাত্তা দেন নি। তবে অন্য একটি সূত্র জানিয়েছে, চারখাই থেকে সংঘর্ষের খবর পেয়ে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনার চেষ্ঠা করলেও তাদের চোখের সামনে  দায়ের কুপে প্রাণ হারান মাহতাব। হামলাকারীদের তান্ডব দেখে উত্তেজিত জনতা হামলাকারীদের ধাওয়া করেন। এ সময় পুলিশ নিরাপদে সরে যায়। পরে বিয়ানীবাজার থেকে একদল পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এবং ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে মহিলাসহ ৮জনকে আটক করে।  এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।
জানা যায়, আলীনগর ইউনিয়নের পূর্ব আলীনগরে দুপক্ষের মধ্যে দীর্ঘ দিন থেকে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে মামলাও হয়। প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে প্রভাবশালী সুমন ও রুবেল বিভিন্ন ভাবে মামলা দিয়ে হয়রানী শুরু করে। এরই মধ্যে মঙ্গলবার  সুমন ও রুবেলের পক্ষ প্রতিপক্ষ দিনমজুর মাহতাবদের জমি দখলের পূর্ব ঘোষণা দেয়। ঘোষণা মোতাবেক বুধবার তারা জমি দখল নিতে এলে  মাহতাব উদ্দিনগং বাধা দেন। এ নিয়ে উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন।। এক পর্যায়ে সুমনগংরা রাম দা দিয়ে মাহতাবকে কোপ দিলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। রক্তাক্ত অবস্থায় মাহতাবকে উদ্ধার করে সিলেট নিয়ে যাওয়ার পথে হেতিমগঞ্জ এলাকায় মাহতাব উদ্দিনের (৪৫) মৃত্যু ঘটে। তিনি আলীনগর গ্রামের মখন মিয়ার পুত্র। ঘটনার পর পর সুমন ও তার সহযোগিরা পালিয়ে বাড়িতে আশ্রয় নিলে এলাকাবাসী তাদের বাড়ী ঘেরাও করে রাখেন। থানা পুলিশ পরবর্তীতে বাড়িতে অভিযান চালিয়ে হত্যাকারী দুজনসহ ৮ জনকে আটক করেছে। আটককৃতরা হলো, আলীনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মুমিত সুমন (৩০), আব্দুল মুমিন লিমন (৩২) ও রাজন (২৮) তারা মৃত সিকই মিয়ার পুত্র। তুতাই মিয়ার পুত্র রুবেল আহমদ (২৪), মৃত ছিদ্দিক আলীর পুত্র ফাত্তাহ (৫৫), মৃত অলিউর রহমান চৌধুরীর পুত্র রায়হানুর রেজা চৌধুরী (৩৮) ও মৃত খদর আলীর পুত্র শাকিল (৩৫), সেবু মিয়ার কন্যা পারভীন বেগম (২২)। এলাকাবাসী জানিয়েছেন, পুলিশ আগাম ব্যবস্থা গ্রহণ করলে পবিত্র এ মাসে একটি খুনের ঘটনা ঘটতো না।

এব্যাপারে বিয়ানীবাজার থানার ওসি তদন্ত আবুল বাশার বদরুজ্জামান বলেন, মঙ্গলবার ফোনে আগাম সংঘর্ষের খবর পেয়ে ওসি (সার্বিক) সাহেবকে জানিয়ে ছিলাম। তিনি বলেন, খুনের ঘটনায় ৮ জনকে পুলিশ আটক করেছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুুতি চলছে।

অনলাইন : জঙ্গিবাদের আর্বিভাবে অগণতা‌ন্ত্রিক সরকারই দায়ী বলে মন্তব্য ক‌রে‌ছেন বাংলাদেশ ছাত্র ফেডা‌রেশ‌নের সহ-সভাপ‌তি আল জা‌হিদ। তিনি বলেন, রা‌ষ্ট্রে যখন অগণতা‌ন্ত্রিক সরকার থা‌কে তখন দে‌শে জ‌ঙ্গিবাদের আবির্ভাব ঘ‌টে।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতা মোকাবেলায় গণতন্ত্র ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় করণীয় শীর্ষক এক মানববন্ধনের আয়োজন করে বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন।

এতে আল জাহিদ ব‌লেন, দে‌শে যখন আইনের শাসন ও জবাব‌দি‌হিতা থা‌কে না, তখন সেখা‌নে অস্থিরতা বিরাজ ক‌রে। গত ক‌য়েক মাস ধ‌রে রাজনী‌তি‌তে সাম্প্রদা‌য়িকতা ও জ‌ঙ্গিবাদ নি‌য়ে আলোচনা হ‌চ্ছে, যা দে‌শের জন্য অশ‌নিসং‌কেত। তিনি আরো বলেন, ৫ জানুয়া‌রি অবৈধ নির্বাচনের মাধ্যমে দে‌শে অবৈধ সরকার ক্ষমতায় আছে। এ সরকার জনগ‌ণের নিরাপত্তা দি‌তে পার‌ছে না বরং তারা দে‌শে দুর্নী‌তি লুঠপাটের রাজত্ব কা‌য়েম কর‌ছে। জ‌ঙ্গিবাদের মূল রহস্য জনগণ জান‌তে চায়।জনগ‌ণের সিম নিবন্ধ‌নের ক্ষে‌ত্রে বর্তমান সরকার‌ পা‌কিস্তান‌কে অনুসরণ কর‌ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।মানববন্ধনে আরো বক্তব্য দেন, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল আলম, সিনিয়র সাংগঠনিক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম মোস্তফা প্রমুখ।

অনলাইন ডেস্ক : পুলিশের খাতায় তিনি পলাতক। অথচ সেই পুলিশের সামনে দিয়েই গতকাল সোমবার জাতীয় সংসদে গিয়ে সাংসদদের হাজিরা খাতায় সই করলেন তিনি। অধিবেশনে যোগ না দিয়ে সবার সামনে দিয়ে চলেও গেলেন। তিনি টাঙ্গাইল-৩ আসনের সাংসদ আমানুর রহমান। একই জেলার আওয়ামী লীগ নেতা ও মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদ হত্যা মামলার অভিযোগপত্রভুক্ত আসামি তিনি।

২০১৩ সালের ১৮ জানুয়ারি রাতে ফারুক আহমেদের গুলিবিদ্ধ লাশ টাঙ্গাইলে তাঁর কলেজপাড়া এলাকার বাসার সামনে পাওয়া যায়। ঘটনার তিন দিন পর তাঁর স্ত্রী নাহার আহমেদ টাঙ্গাইল সদর থানায় মামলা করেন। প্রথমে থানার পুলিশ ও পরে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) মামলার তদন্ত শুরু করে। ২০১৪ সালের আগস্টে এই মামলার আসামি আনিছুল ইসলাম ওরফে রাজা ও মোহাম্মদ আলী গ্রেপ্তার হন। আদালতে তাঁদের স্বীকারোক্তিতে সাংসদ আমানুর ও তাঁর তিন ভাইয়ের এ হত্যায় জড়িত থাকার বিষয়টি বের হয়ে আসে। এরপর থেকে সাংসদ ও তাঁর ভাইয়েরা আত্মগোপনে আছেন।
এ বছরের ৩ ফেব্রুয়ারি সাংসদ আমানুর ও তাঁর তিন ভাইসহ ১৪ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেওয়া হয়। ৬ এপ্রিল আদালত মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করে পলাতক আমানুরসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। ১৭ মে এই ১০ জনের বিরুদ্ধে হুলিয়া ও মালামাল জব্দ করার নির্দেশ দেন আদালত। ২০ মে পুলিশ সাংসদ ও তাঁর তিন ভাইয়ের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে মালামাল জব্দ করে, তবে সেখানে উল্লেখযোগ্য কিছু ছিল না। সর্বশেষ ১৬ জুন আদালত আসামিদের হাজির হওয়ার জন্য পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দেওয়ার নির্দেশ দেন। সাংসদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির বিষয়টি চিঠি দিয়ে জাতীয় সংসদের স্পিকারকে জানানো হয়।

সাংসদ আমানুর রহমান সর্বশেষ গত বছরের ৫ জুলাই সংসদের অধিবেশনে যোগ দিয়েছিলেন। টানা ৭৩ কার্যদিবস অনুপস্থিত থাকার পর গতকাল তিনি সংসদে হাজিরা দেন।
প্রসঙ্গত, সংবিধান অনুযায়ী, কোনো সাংসদ টানা ৯০ কার্যদিবস সংসদে অনুপস্থিত থাকলে তাঁর সদস্যপদ বাতিল হয়ে যাবে। সংসদের কার্যপ্রণালিবিধি অনুযায়ী, সংসদ এলাকায় কোনো সাংসদকে গ্রেপ্তার করতে হলে স্পিকারের অনুমতি নিতে হবে।
সংসদের প্রধান ফটকে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্য ও সংসদ সদস্য লবির গার্ডদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, আমানুর রহমান গতকাল বেলা ১১টার পর নিজস্ব গাড়িতে চেপে সংসদে আসেন। এরপর তিনি অধিবেশন কক্ষের ৪ নম্বর লবিতে রাখা হাজিরা বইয়ে সই করেন। সই শেষে কয়েক মিনিট অপেক্ষা করে তিনি লবি ছেড়ে চলে যান।
জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল প্রথম আলোকে বলেন, সংসদে তো প্রতিদিন শত শত মানুষ আসা-যাওয়া করে। সম্ভবত পুলিশ আমানুর রহমানকে চিনতে পারেনি। চিনতে পারলে তারা নিশ্চয় বিষয়টি স্পিকারকে জানাত।
পলাতক থেকেও এই সাংসদ গত এপ্রিলে নিজস্ব প্যাডে মামলাটি পুনঃ তদন্তের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে চাহিদাপত্র জমা দেন। গতকাল সংসদ সচিবালয়ের একাধিক শীর্ষ কর্মকর্তা বলেন, মামলা পুনঃ তদন্তের বিষয়ে সরকারের শীর্ষ কোনো কর্মকর্তার কাছে তদবির করার জন্য আমানুর রহমান সংসদে এসেছেন। তবে তার আগে তিনি যে গ্রেপ্তার হবেন না, সে বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছেন।
দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, আমানুর রহমান সংসদে ঢোকার সঙ্গে সঙ্গে তারা বিষয়টি সংসদের নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত শীর্ষ কর্মকর্তাদের জানান। কিন্তু কর্মকর্তারা গ্রেপ্তারের ব্যাপারে কোনো নির্দেশ দেননি।
তবে সংসদের প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা (সার্জেন্ট অ্যাট আর্মস) কমোডর সৈয়দ আরিফুল ইসলাম ও ডেপুটি সার্জেন্ট অ্যাট আর্মস (অপারেশন) সেলিম খান এ বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে দাবি করেন।

সংসদের চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজ বলেন, আমানুর রহমান সংসদে এসে হাজিরা দেওয়ার বিষয়টি আজই (মঙ্গলবার) শুনলাম। তবে সংসদে এলেও তিনি অধিবেশনে যোগ দেননি। দিলে আমার চোখে পড়ত।
এ ব্যাপারে জানতে সাংসদ আমানুর রহমানের দুটি মোবাইল ফোন নম্বরে ফোন করে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

 অনলাইন : মিসরের অধীনে থাকা লোহিত সাগরের দুটি দ্বীপ সৌদি আরবের হাতে তুলে দেয়ার সরকারি সিদ্ধান্ত বাতিল করে দিয়েছে মিসরের একটি আদালত।

প্রেসিডেন্ট আব্দুল ফাত্তাহ আল-সিসি গত এপ্রিল মাসে সৌদি আরব সফরে গিয়ে বাদশাহ সালমানকে কথা দিয়ে এসেছিলেন যে তিনি সানাফির ও তিরান নামের এই দুটো দ্বীপ ফিরিয়ে দেবেন।সরকারের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে মিসরে বিক্ষোভের মধ্যেই আদালতের এই রায় ঘোষণা করা হলো।
খুব ছোট দ্বীপ দুটি সিনাইয়ের দক্ষিণে লোহিত সাগরের মুখে অবস্থিত।
১৯৮২ সাল থেকে এখানে কিছু মিসরীয় সৈন্য এবং জাতিসঙ্ঘ শান্তিরক্ষী মোতায়েন আছে, এ ছাড়া দ্বীপদুটিতে কোনো মানুষের বসতি নেই।
এই জায়গাটা কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ কারণ এই পানিপথটি ইসরাইল ব্যবহার করে লোহিত সাগরে ঢোকার জন্য।
বলা হয় দ্বীপ দুটির মূল মালিক সৌদি আরব, তারাই ১৯৫০ সাল থেকে মিসরকে এগুলো পাহারার দায়িত্ব দিয়েছিল।
ইসরাইল ১৯৫৬ এবং ১৯৮২ সালে দুবার দ্বীপ দুটি দখল করে নিয়েছিল - তবে পরে তারা এগুলো আবার মিশরকেই ফেরত দেয়।
এর পর ২০১৬ সালে মিশরের প্রেসিডেন্ট আবদুল ফাত্তাহ আল-সিসি সিদ্ধান্ত নেন যে দ্বীপ দুটি তিনি সৌদি আরবকে ফিরিয়ে দেবেন।
কিন্তু মিসরে এরর তীব্র সমালোচনা ও প্রতিবাদ বিক্ষোভ শুরু হয় - যার পরিণতিতে ১৫০ জন লোকের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড হয়েছে।
অনেকে অভিযোগ করেন যে আল-সিসি মিশরের ভুখন্ড সৌদি আরবকে বিক্রি করে দিচ্ছেন। খালেদ আলি নামে একজন অধিকারকর্মী এ নিয়ে একটি মামলা করেন।
সেই মামলার রায়ে এখন মিসরের স্টেট কাউন্সিল নামের প্রশাসনিক আদালত সিসির সিদ্ধান্ত খারিজ করে রায় দেয়, দ্বীপ দুটি মিসরের অধীনই থাকবে।
এই রায়ের সময় আদালতে অনেকে হর্ষধ্বনি করেন এবং শ্লোগান দেন 'এই দ্বীপ মিসরেরই'
সরকার এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারে, তবে উচ্চতর প্রশাসনিক আদালত যদি তা বহাল রাখে তাহলে এ সিদ্ধান্ত আইনি বাধ্যবাধকতা পেয়ে যাবে।
রাজনৈতিকভাবে প্রেসিন্টে সিসির জন্য এই রায় বিব্রতকর।
কারণ আল-সিসি বলে আসছেন, এই দ্বীপগুলো বরাবরই সৌদি আরবেরই ছিল - কিন্তু আদালত আজ রায় দিল যে না, এগুলো মিসরেরই।
সূত্র : বিবিসি 

অনলাইন ডেস্ক : বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকারে উদ্দেশ্য জঙ্গিবাদ নির্মূল নয়; সরকারের উদ্দেশ্য জঙ্গিবাদের কথা ব্যবহার করে বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করে দেয়া, গণতন্ত্রকে ধ্বংস করে দেয়া।

বিরোধী দলকে বাইরে রেখে জঙ্গিবাদ নির্মূল করা যাবে না। অবিলম্বে জাতীয় কনভেনশন দরকার। তিনি আজ মঙ্গলবার রাজধানীতে ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে এক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে অংশ নিয়ে এসব বলেন। সহাবস্থা: পরমত সহিষ্ণু-ইতিবাচক ছাত্র রাজনীতি চর্চার মাধ্যমে আগামী দিনের জাতীয় নেতৃত্ব বিকাশে ডাকুস নির্বাচনের প্রয়োজনীয়তা ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে ছাত্র সমাজের করণীয় শীর্ষক এই আলোচনা সভার আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা। ঢাবি ছাত্রদল সভাপতি আল মেহেদি তালুকদারের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আবুল বাশারের পরিচালনায় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দীন আহমদ, অধ্যাপক আ ফ ম ইউসুফ হায়দার, অধ্যাপক সুকোমাল বড়য়া, অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবীর খোকন, কেন্দ্রীয় নেতা শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, ছাত্রদল সভাপতি রাজীব আহসান, সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান, সিনিয়র সহসভাপতি মামুনুর রশীদ মামুন, যুগ্ম সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে ছাত্রদলের সাবেক নেতা আজিজুল বারী হেলাল, শফিউল বারী বাবু, আবদুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েল, শহিদুল ইসলাম বাবুল, ওবায়দুল হক নাসিরসহ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলের নেতা-কর্মীরা অংশ নেন। জঙ্গিবাদ দমন প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা বলতে চাই- বিরোধী দলকে বাইরে রেখে এই ভয়াবহ সমস্যার সমাধান করা যাবে না। ছাত্রদলের এই সমাবেশ থেকে আমি সরকারের প্রতি আবারো আহবান রাখতে চাই- অনেক হয়েছে। এনাফ ইজ এনাফ, দেশ ধ্বংস করে দিয়েছেন। এখন জঙ্গিবাদের নাম করে আরো যে ভয়াবহ ধ্বংসযজ্ঞের দিকে দেশ যাচ্ছে, তাকে বন্ধ করা চেষ্টা করুন। সব রাজনৈতিক দলগুলোকে নিয়ে কনভেনশনের মধ্য দিয়ে একটা জাতীয় প্রতিরোধ গড়ে তুলুন। অন্যায় এই ভয়াবহ এই অবস্থা থেকে মুক্ত হওয়ার আমাদের কোনো উপায় নেই। মির্জা ফখরুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, দেশে গণতন্ত্র নেই। এই সরকার গণতন্ত্রকে গলাটিপে হত্যা করেছে। এখন তারা জঙ্গিবাদ দমন করার কথা বলে মিথ্যাচার করছে, তারা গণতান্ত্রিক শক্তিগুলোকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। জঙ্গিবাদ নির্মূলে জাতীয় ঐক্যের আহবানের কথা ফের উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা এই জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বার বার বক্তব্য রেখেছি। শুধু বক্তব্য রাখিনি, আমরা কাজ করেছি। আমরা ইতালীর নাগরিক তাবেল্লা হত্যার সঙ্গে সঙ্গে সরকারকে একটা প্রস্তাব দিয়েছিলাম, সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলো নিয়ে একটা জাতীয় কনভেনশন ডাকার জন্য। যেখানে সব রাজনৈতিক দলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা এই জঙ্গিবাদকে রুখে দেবে, জঙ্গিবাদকে সমূল উৎপাটন করবে। সরকারে উদ্দেশ্য জঙ্গিবাদ নির্মূল নয় মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, সরকারের উদ্দেশ্য জঙ্গিবাদের কথা ব্যবহার করে বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করে দেয়া, গণতন্ত্রকে ধ্বংস করে দেয়া। আর সেজন্যই সরকার কী মিথ্যা করছে? শরীফ অভিজিৎ হত্যার আসামী করে যাকে ধরা হয়েছিলো, যাকে ধরার জন্য পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছিলো। সেই শরীফ দেখা গেলো আজকের পত্রিকায় এসেছে, সে শরীফ নয়, মুকুল রানা। তাকে চার মাস আগে গ্রেফতার করা হয়েছিলো, তাকে আটকিয়ে রাখা হয়েছিলো। তারপর তাকে হত্যা করা হয়েছে। তার আগে ফাহিমকে হত্যা করা হয়েছে, যার ১৮ বছর বয়স। কেনো তাকে গুলি করে মারলেন? কেনো রিমান্ডে নেয়ার প্রথম দিনই তাকে গুলি করে মারা হলো? লক্ষ্য করবেন প্রত্যেকটি গুপ্তহত্যার আসামি চিহ্নিত করে ধরা হচ্ছে, অভিযুক্ত করে ধরা হচ্ছে, তাদেরকে গুলি করে, ক্রসফায়ার করে মারা হচ্ছে। কেনো? আসল সত্য গোপন করেছেন, বিরোধী দলের ওপর দোষ চাপাচ্ছেন। মিথ্যা কথা বলে, জনগনকে বিভ্রান্ত করে এই সমস্যার সমাধান সম্ভব নয়। দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে ছাত্র সমাজকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, আমাদের সামনে ঘোর অন্ধকার। আমরা অন্ধকার গহ্বরের মধ্যে চলে গেছি। এই সরকার দেশকে অন্ধকারের গহ্বরে আমাদের নিয়ে গেছে। এখান থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, আমরা একটু আশার আলো দেখতে পাই, সেই আশার আলো হচ্ছে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। যিনি সবসময় গণতন্ত্রের জন্য আপোসহীন নেতৃত্ব দিয়েছেন। এখনো তিনি বলছেন, আমার শেষ বয়সে, জীবনের শেষ সায়াহ্নে এসে আমি আরো শক্ত হয়ে গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠার জন্য লড়তে চাই। আসুন আমরা গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য একযোগে কাজ করি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচন না দেয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করে এ ব্যাপারে ছাত্রদের সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানান মির্জা ফখরুল। 

অনলাইন ডেস্ক : জামায়াতের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য মীর কাসেম আলীর রিভিউ আবেদনের শুনানির জন্য আগামী ২৫ জুলাই দিন ধার্য করেছে আপিল বিভাগ। রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকি আজ মঙ্গলবার এই দিন ধার্য করেন। 

আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। এর আগে মীর কাসেম আলীর দাখিলকৃত রিভিউ পিটিশনের শুনানির দিন ধার্যের জন্য আপিল বিভাগে আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ। মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ আবেদন করা হয়। রবিবার আপিল বিভাগের ফাঁসির রায় পুনর্বিবেচনা চেয়ে আবেদন করেন মীর কাসেম আলী। ওই আবেদনে ১৪টি আইনগত যুক্তি তুলে ধরে তাকে বেকসুর খালাস দেয়ার আবেদন জানানো হয়। উল্লেখ্য, মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় ট্রাইব্যুনাল-২ মীর কাসেম আলীকে মৃত্যুদণ্ড দেয়। ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন তিনি। ৮ মার্চ আপিল বিভাগ তার বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের দেয়া মৃত্যুদণ্ডের রায় বহাল রাখে। 

সুফিয়ান আহমদ,বিয়ানীবাজার প্রতিনিধিঃ বিয়ানীবাজারে একই দিনে দুটি আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার কুড়ারবাজার ইউনিয়নের আকাখাজনা গ্রামে গোলাব আহমদের পুত্র লুকুর আহমদ (৩০) ও তিলপাড়া ইউনিয়নের শানেশ্বরে নিখিল চন্দ্র দাসের কন্যা জনি রানী দাস (১৫) এর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়।

খবর পেয়ে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার কওে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট প্রেরণ করেছে।তবে কি কারণে তারা আত্মহত্যা করেছে তাঁর কোন কারণ জানাতে পারেনি পুলিশ।

এব্যাপারে বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) আবুল বাশার মোঃ বদরুজ্জামান  জানান, আত্মহত্যার পৃথক ঘটনায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। নিহতদের লাশ ময়না তদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

আব্দুল করিম ,প্যারিস,ফ্রান্স : ইউরোপিয়ান প্রবাসী বাংলাদেশি এসোসিয়েশন ইপিবিএ ফ্রান্স এর উদ্যোগে প্যারিসের সেইন্ট জার্মানে সোমবার বিপুল সংখ্যক প্রবাসি বাংলাদেশি কমিউনিটি নেতৃবৃন্দকে নিয়ে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ইপিবিএ এর সহসভাপতি মামুন মিয়ার সভাপতিত্বে ও প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এনায়েত হোসেন সোহেলের পরিচালনায় এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউরোপিয়ান প্রবাসী বাংলাদেশি এসোসিয়েশন ইপিবিএ উপদেষ্ঠা এইচ এম হায়দার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ইপিবিএ এর সাধারণ সম্পাদক ওসমান হোসাইন মনির, মতিন মিয়া,সালেহ আহমদ চৌধুরী ,আজহারুল হক মিন্টু,শামীম মোল্লা,হাবিব খান। বক্তব্য রাখেন,ওবায়দুল ইসলাম রুহেল,অজয় দাশ,শিরিফ আহমদ সৈকত,ওলিউর রহমান,সাইফুল ইসলাম,রাসেল মিয়া,মাজহারুল ইসলাম,ইফরাজ মিয়া,মাসুক মিয়া, জিসাদ রহমান,খলিলুর রহমান ময়না,ইকবাল মিয়া,লুৎফুর রহমান বাবু,জাকির হোসেন,আবুল কালাম মামুন,শাকিল সরকার,আব্দুস সালাম,মিজানুর রহমান প্রমুখ। এসময় রমজানের তাৎপর্য ও গুরুত্ব নিয়ে আলোচনায় বক্তারা বলেন আল্লাহ্ তাআলা এ মাসটিকে স্বীয় ওহি সহিফা ও আসমানি কিতাব নাজিল করার জন্য মনোনীত করেছেন। সুতরাং এ মাসে বেশি বেশি আমল করা সব মুসলমানদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।পরে মুসলিম উম্মার শান্তি কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

রনি মোহাম্মদ (লিসবন,পর্তুগাল): পর্তুগালের রাজধানী লিসবনের কাজাদো কবিলা হল রুমে বিপুল প্রবাসী বাংলাদেশীদের উপস্থিতিতে সুনামগঞ্জ জেলা এসোসিয়েশন পর্তুগালের এক ইফতার মাহফিল ও নব নির্বাচিত কমিটির পরিচিত সভা অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের উপদেষ্টা এডভোকেট ফজলুল হক এনামের পরিচালনায় সুনামগঞ্জ জেলা এসোসিয়েশন পর্তুগালের সভাপতি জাহির আলীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পর্তুগালে অবস্তিত বাংলাদেশ দুতাবাসের রাষ্টদূত ইমতিয়াজ আহমেদ। উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ দুতাবাসের প্রথম সচিব মোহাম্মেদ খালেদ সহ পর্তুগালের বিভন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।  

অনুষ্ঠানের সূচনায় পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন মাওঃ মোঃ ছাদেক। পরে ফুল দিয়ে প্রধান অতিথিকে সংগঠনের পক্ষ থেকে বরন করা হয়। অনুষ্ঠানে শুভেচছা বক্তব্য রাখেন দুতাবাসের প্রথম সচিব মোহাম্মেদ খালেদ, পর্তুগালের প্রবীন ও কমিউনিটি ব্যাক্তিও অলিউর রহমান, জহিরুল আলম জসিম, সুনামগঞ্জ জেলা এসোসিয়েশনের আব্দুস সালাম, দেলোয়ার রেজা, পীর ফারুখ আহমেদ, আব্দুল মালিক, তাজ উদ্দিন, হামিদ রেজা সহ প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় রাষ্টদূত ইমতিয়াজ আহমেদ সামাজিক সংগঠন সমূহের ভ্রাতৃত্ববোধ ও সমাজ সেবার প্রশংসা করেন। এছাড়াও প্রবাসীদের কর্ম সংস্তানের সহায়তা, আইনি সহায়তার সহ সকল সমাজকল্যাণমূলক কাজে প্রবাসীদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানান। সভাপতি জাহির আলী বক্তৃতায় ইফতার মাহফিলে আসা সকল প্রবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়ে সুনামগঞ্জ জেলা এসোসিয়েশন পর্তুগালের ৮৩ সদস্য বিশিষ্ট্য একটি নতুন কমিটি ঘোষনাদেন। ইফতারের পূর্ব মূহুর্তে প্রবাসী এবং দেশ-জাতির কল্যাণ কামনায় দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক।


এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন মাহবুব আলম, ফরহাদ মিয়া, হুমায়ন কবির জাহাঙ্গীর, কাজী ইমদাদ মিয়া, মহিন উদ্দিন, শওকত ওসমান, আবুল কালাম আজাদ, আবু তাহের, এম এ খালেক, ইউসুফ তালুকদার, মজিবুর মোল্লা, মিজানুর রহমান মাসুদ, সৈয়দ মাহবুব, নজরুল ইসলাম সুমন, আইয়ুব খান সহ পর্তুগালের বিভন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। 
ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন :

মাম হিমু,প্যারিস-ফ্রান্স : জঙ্গিবাদ দমনের নামে দেশব্যাপী বিরোধী দলের নেতাকর্মীদেরকে "গণ গ্রেফতার" এর প্রতিবাদে জাতীয়তাবাদী নাগরিক মুক্তি পরিষদ, ফ্রান্সের উদ্যোগে প্রতিবাদ সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে । রোরবার ফ্রান্সের প্যারিসের একটি রেষ্টুরেন্টের আয়োজিত এ প্রতিবাদ সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভানেত্রী শামীমা আক্তার রুবী ।

গোলাম রসুল রুবেলের পরিচালনায় এতে বক্তব্যে ফ্রান্স বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি মিজানুর রহমান শিকদান, কলামিষ্ট ও সাংবাদিক এম এ মান্নান আজাদ, ফ্রান্স বিএনপির সহ সাধারন সম্পাদক কৃষক আব্দুল কাইয়ূম, সংগঠনের উপদেষ্ঠা ড. কামরুল হাসান, ফ্রান্স বিএনপির মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক ওমর গাজী, বিএনপি নেতা কবি আতিকুল ইসলাম, তৃণমুল বিএনপির সহ সভাপতি লেলিন মিয়া, কলামিষ্ট ও লেখক শরিফ আহমদ সৈকত, ফ্রান্স যুবদলের যুগ্ন সম্পাদক মিল্টন সরকার, জহিরুল ইসলাম লিটন, ফ্রান্স যুবদলের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা সারা শফি উল্লাহ, লেখিকা নাজমা আহমদ নিঝুম ।

বক্তারা বলেন, শেখ হাসিনা নিজেকে ধার্মিক ও নামাজী বলে দাবী করেন অথচ পবিত্র মাহে রমজানে উচ্চ আদালতের নির্দেশনা উপেক্ষা বিরোধী দলের নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে রোজাদার লোকদের কষ্ট দিচ্ছে। ভারতকে ট্রানজিট এবং এসপির স্ত্রী হত্যার ঘটনা কে আড়াল করতেই  দেশব্যাপী গণ-গ্রেফতার নাটক সাজানো হয়েছে। পুলিশকে খুশি করতেই ঈদের আগে গোপালী পুলিশ কে গ্রেফতার বাণিজ্য করার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। বক্তরা হুশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন, গণ গ্রেফতার করে ক্ষমতা দীর্ঘস্থায়ী করা যাবে না। জনতার বিজয় হবেই হবে । অবিলম্বে গণগ্রেফতার ও তথাকথিত ক্রসফায়ার বন্ধ করে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দিয়ে দেশে শান্তি পরিবেশ সৃষ্ঠি আহবান জানান । প্রতিবাদ সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, আব্দুল করিম, প্রফেসর তছলিম উদ্দিন, ইঞ্জি : শহিদুল ইসলাম, কামরুল হাসান, আব্দুল লতিফ টিপু, ইকবাল হোসেন, নাছিমা আক্তার, জিতেন্দ্র চন্দ্র ধর , হুমায়ুন রহমান, আলম সরকার, শাহরিনা আক্তার কবির, নাজমুল হাসান, মিনা গোমেজ , সাজরিন আক্তার, সুমন, ফরিদ উদ্দিন বকুল, আফরোজা ফারহানা ,কাকন খান, নুরুল ইসলাম, জসিম উদ্দিন, আমির হোসেন, মোহাম্মদ আকমল, আং কাইয়ুম, আকমল হোসেন, এমরান, পলাশ, লুৎফুর রহমান প্রমুখ । সভা শেষে ইফতার মাহফিলে বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর শান্তি ও দেশের নির্যাতিত নিপীড়িত মানুষের জন্য মুনাজাত করা হয় । 

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget