বিয়ানীবাজারে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দূর্বিত্তরা

জনপ্রিয় অনলাইন: বিয়ানীবাজার উপজেলার পূর্ব মুড়িয়া ইউনিয়নে ওয়াহিদুর রহমান(১৬) নামের এক যুবককে রাতের আধারে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বিত্তরা। আজ ১লা নভেম্বর সকাল ৬টার দিকে ইউনিয়নের মিজারচক নামক স্থানে রাস্তার পাশে ধান ক্ষেতে তাহার লাশ দেখতে পায় পথচারীরা। নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায় ৩১শে অক্টোবর রাত আনুমানিক সাড়ে ১০টার দিকে তাহাকে কে বা কাহারা মোবাইল ফোনে ঘর থেকে বের হতে বলে,এসময় সে ভাত খাওয়াতে ছিল,খাবার শেষ করে যখন বের হয়ে যায় তখন তার বাবা জিজ্ঞাস করেন এত রাতে কোথায় যাচ্ছ তখন নিহত ওয়াহিদ বলে তার এক পরিচিত লোক ডাকছে ১০মিনিটের মধ্যে চলে আসবে কিন্তু সে আসতে দেরী হওয়ায় তাহার বাবার টেনশন বেড়ে যায়,তখন তিনি তাহার ছেলের ব্যাক্তিগত ব্যবহ্রত মোবাইলে ফোন করলে কেউ ফোন রিসিভ করেনি। অথচ কিছুক্ষন পর তার মোবাইলটি বন্ধ পাওয়া যায়। আজ সকালে পূর্ব মুড়িয়া ইউনিয়নের মিজারচক নামক স্থানে রাস্তার পাশে ধান ক্ষেতে তাহার লাশ পথচারীরা দেখতে পেয়ে তার বাড়ীতে খবর দেয়।

হত্যাকান্ডের শিকার নিহত ওয়াহিদুর পূর্ব মুড়িয়া ইউনিয়নের পাথারী পাড়া গ্রামের মিজারচক এর মন্নান আলীর পুত্র। মন্নান আলী স্থানীয় শাহবাজপুর বাজারে দারোয়ানের কাজ করেন, নিহত ওয়াহিদ শ্রমিকের কাজ করতো। এদিকে হত্যাকান্ডের খবর পেয়ে পূর্ব মুড়িয়া ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড মেম্বার মো: রফিক উদ্দিন, সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার আসমা বেগম(৭,৮ ও ৯)ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা যায় তাহার কোন শত্রু নেই। কারো সাথে বিবাদও নেই কিন্তু কি কারনে খুন হয়েছে কেউ বুঝতে পাছেননা। তবে তাদের সন্দেহ হত্যাকান্ডের পিছনে প্রেমঘটিত কোন কারণ থাকতে পারে।

খবর পেয়ে বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ চন্দন কুমার একদল ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন। তবে খন ও পর্যন্ত মামলা দায়ের হয়নি। 

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget