বঙ্গবন্ধু হত্যায় ‘সক্রিয়ভাবে জড়িত’ জিয়া: নৌমন্ত্রী


জনপ্রিয় অনলাইন ডেস্ক : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যায় সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন বলে মন্তব্য করেছেন নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে এ যুগের ঘষেটি বেগম বলেও অভিহিত করেন তিনি।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ হরিজন ঐক্য পরিষদ আয়োজিত সন্ত্রাস নয় শান্তি চাই শীর্ষক আলোচনা সভায় নৌমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
শাজাহান খান বলেন,
বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী কর্নেল রশীদ তাঁর সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, তিনি যখন জিয়াউর রহমানের কাছে বললেন রাষ্ট্রপতিকে তাঁরা হত্যা করতে চান। তখন জিয়া বলেছিলেন, আমরা উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তা, এগুলোর সঙ্গে জড়িত হতে পারি না। তোমরা যদি পারো এগিয়ে যাও। এগুলো ইতিহাসের কথা। এ কথার মধ্য দিয়ে এটাই প্রমাণিত হয় যে জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর হত্যায় সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন। জেলহত্যার সঙ্গে সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন।
নৌমন্ত্রী শাজাহান খান বলেন,
নবাব সিরাজউদ্দৌলাকে হত্যার পর তাঁর হত্যাকারীরা ঘষেটি বেগমকে নেতা নির্বাচন করেন। এখন খুনিরা মিলে নেতা বানিয়েছে খালেদা জিয়াকে। তাহলে এ যুগের ঘষেটি বেগম খালেদা জিয়া। সুতরাং আমাদের সাবধান থাকতে হবে।
হরিজন সম্প্রদায়ের মানুষদের উদ্দেশে সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ বলেন, আপনাদের যে সমস্যা আছে, সেটা আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। আপনাদের সমস্যাগুলো সমাধান করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ভবিষ্যতে চাকরিতে যেন আপনাদের জন্য কোটা সিস্টেম থাকে, এ জন্য সবাই মিলে চেষ্টা করব।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক মেজবাহ কামাল হরিজন সম্প্রদায়ের অধিকার প্রতিষ্ঠায় বৈষম্য নিরোধ আইন করার দাবি জানিয়ে বলেন,হরিজন সম্প্রদায় যে সামাজিক যন্ত্রণায় ভোগে, এ জন্য প্রয়োজন বৈষম্য নিরোধ আইন। কিন্তু আইনটি মানবাধিকার কমিশন ও আইন কমিশন গ্রহণ করেছে। আমরা শুনেছি, এটা আইন মন্ত্রণালয়ে আটকে আছে। আইনটি পাসের জন্য অনুষ্ঠানে উপস্থিত মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।
আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ হরিজন ঐক্য পরিষদের সভা​পতি কৃষ্ণলাল দাস এবং পরিচালনা করেন সংগঠনের মহাসচিব নির্মল চন্দ্র দাস।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget