পূর্ব বিরোধের জের ধরে বিয়ানীবাজারে দু’গ্রামের সংঘর্ষ আহত ১০ ॥ যান চলাচল বন্ধ

সুফিয়ান আহমদ,বিয়ানীবাজার প্রতিনিধিঃ বিয়ানীবাজার উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের সারপার ও নয়াগ্রামের লোকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। পূর্ব বিরোধের জের ধরে রোববার দুপুরে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে উভয় গ্রাম। সংঘর্ষের এঘটনায় উভয় গ্রামের অন্ততঃ ১০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আহতদের অনেকেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এঘটনায় এলাকাজুড়ে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। বন্ধ রয়েছে যানবাহন চলাচল। যার ফলে বিপাকে পড়েছেন উপজেলা শহরে যাতায়াতকারী চাকুরীজীবি,ছাত্রছাত্রীসহ স্থানীয় বাসিন্দারা। যেকোন সময় উভয় গ্রাম আবারো সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়তে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে। তবে উদ্ভট পরিস্থিতি এড়াতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

জানা যায়, বিয়ানীবাজার উপজেলার মুড়িয়া ইউনিয়নের স্থানীয় পূর্ব মুড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে দীর্ঘ কয়েকমাস ধরে সারপার গ্রামের বাসিন্দা সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম এর সাথে নয়াগ্রাম এলাকাবাসীর বিরোধ চলে আসছিল। এনিয়ে বিগত বছর উভয় গ্রাম বেশ কয়েকবার সংঘর্ষেও জড়ায়। পরে উভয় গ্রামের মুরুব্বী ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ ক্ষমতাসীন দলের বেশ কয়েকজন নেতার মধ্যস্থতায় তা শেষ হয়। কিন্তু মীমাংসার লক্ষ্যে অনুষ্টিত সেই বৈঠকে নয়াগ্রামে বসবাসকারী সেলিম উদ্দিন নজরুল চেয়ারম্যানের পক্ষে সাক্ষ্য দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে নয়াগ্রামের বাসিন্দারা। এদিকে রোববার দুপুরে  স্থানীয় ফাটাই বিলে নয়াগ্রাম এলাকার বেশ কয়েকজন সেলিম উদ্দিনের জায়গা দখল করতে গেছেন এমন খবরে সেখানে যান সারপারে বসবাসকারী সেলিম উদ্দিনের মহল্লার লোকেরা। এনিয়ে উভয় গ্রামের বাসিন্দারা প্রথমে বাগবিতন্ডা ও পরে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এতে উভয় গ্রামের মস্তকিন আলী, ছানা মিয়া, কয়েছ আহমদ,গৌছ উদ্দিন,সেলিম উদ্দিনসহ অন্ততঃ ১০জন আহত হয়েছেন। আহতরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন। এঘটনায় উভয় গ্রামবাসী আবারো রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়াতে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে উপজেলার সাথে গাড়ি চলাচলও বন্ধ হয়ে পড়েছে। যার ফলে দূর্ভোগে পড়েছে উপজেলা শহরে যাতায়াতকারী ছাত্রছাত্রীসহ এলাকার বাসিন্দারা। এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
সংঘর্ষের বিষয়ে মুড়িয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের জানান, সারপার ও নয়াগ্রাম এলাকাবাসীর সংঘর্ষের এই ঘটনায় উভয় গ্রামের মধ্য সমাধানের লক্ষ্যে আলাপ আলোচনা হচ্ছে। আশা করি, এই ঘটনার সুষ্টু সমাধান হবে।
এবিষয়ে বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা চন্দন কুমার চক্রবর্তী জানান, আমরা সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছি। তবে উভয় গ্রাম যাতে আর সংঘর্ষে জড়াতে না পারে সেজন্য অতিরিক্ত পুলিশও মোতায়েন করা হয়েছে।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget