বাংলাদেশ দূতাবাস ডেনমার্কের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালন


মাহবুবুল হক,ডেনমার্কঃ হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪১তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ১৫ই আগস্ট ২০১৬ বাংলাদেশ দূতাবাস ডেনমার্ক এর উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালন করা হয়। 

প্রত্যুষে বাংলাদেশ দূতাবাস ডেনমার্কের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ আব্দুল মুহিত দূতাবাস চত্ত্বরে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করে দিবসের কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন। বিকেলে দূতাবাস কর্তৃক দূতাবাস মিলনায়তনে দিবসটি উপলক্ষ্যে বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠান ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ দূতাবাস ডেনমার্কের হেড অব চ্যান্সারি শাকিল শাহরিয়ারের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন রাষ্ট্রদূত এম আবদুল মুহিত , ডেনমার্কস্থ প্রবাসী বাংলাদেশী রাজনৈতিক ব্যাক্তিত্ব, শিল্পী , ও বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার ব্যাক্তিবর্গ সহ ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের বাবু সুভাষ ঘোষ, মাহবুবুল হক, মোস্তফা মজুমদার , মোহাম্মদ আলী মোল্লা লিঙ্কন, মাহবুবুর রহমান, সাব্বির আহমেদ , জাহিদ বাবু , নাছির উদ্দিন সারকার তাইফুর ভুঁইয়া, সাহাবুদ্দিন ভুঁইয়া, রুবেল হাসনাত, নিজান উদ্দীন, খোকন মজুমদার, মোহাম্মদ শহীদ, সাফিকুর রহমান আরিফ খালেক , নইম উদ্দিন বাবু, নুরুল ইসলাম টিটু , সামি দাস, মঞ্জুর আহমেদ, বোরহান আহমেদ, শামিম, রাসেল আহমেদ, বেলাল হোসেন রুমি , এবং গিনেজ বুকে স্থান করে নেয়া একমাত্র বাংলাদেশী ডেনমার্ক প্রবাসী চিত্র শিল্পী রুহুল আমিন কাজল অংশগ্রহণ করেন। জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও মাননীয় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত বাণী পাঠ করে শোনানো হয়। অনুষ্ঠানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুশেখ মুজিবুর রহমানের সাধীনতাত্তোর সরকারের সাড়ে তিন বছরের সাফল্যের উপর নির্মিত একটি প্রামান্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়। প্রবাসী বাংলাদেশীরা এ আলোচনা অনুষ্ঠানে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেন। বক্তাগণ তাঁদের আলোচনায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনের উল্লেখযোগ্য দিক গুলোর উপর আলোকপাত করে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালীর জীবনদর্শণ থেকে শিক্ষা নেয়ার জন্য প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। এছাড়া প্রবাসী বাংলাদেশীরা জাতির পিতা ও তাঁর পরিবারের উপর যে নির্মম ও ঘৃণিত হত্যাযজ্ঞ চালানো হয় তার তীব্র নিন্দা জানান। রাষ্ট্রদূত জাতির পিতার স্বপ্ন ও আদর্শকে সামনে রেখে একটি অসাম্পদ্রায়িক, প্রগতিশীল এবং গনতান্ত্রিক স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে বর্তমান সরকারের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের সাফল্যের কথা তুলে ধরেন । পরিশেষে তিনি বাঙ্গালী জাতির সত্যিকার অর্থনৈতিক ও সামাজিক মুক্তির লক্ষ্যে সবাইকে যাঁর যাঁর অবস্থানে থেকে অবদান রাখার জন্য উদাত্ত আহবান জানান। দূতাবাসের আয়োজনে উপস্থিত অতিথিদের আপ্যায়নের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের পরিসমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget