পর্তুগালে অনুষ্টিত বাংলা মেলায় এ যেন একখন্ড ছোট্র বাংলাদেশ

রনি মোহাম্মদ,লিসবন : পর্তুগালের রাজধানী লিসবনের মার্তিম মনিজের কেন্দ্রস্থল বাঙ্গালী অদ্যসিত রুয়া দো বেনফরমসোর ও ইন্তেদেন্তেতে ''কামারা মিউনিসিপাল দি লিসবন'' এবং ''ইজেইএসি'' পর্তুগালের আয়োজনে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে অনুষ্টিত হলো দিনব্যাপি বাংলা মেলা২০১৬।

উক্ত মেলায় বাংলাদেশি খাবারের পাশাপাশি দেশীয় পোষাক ও বিভিন্ন দেশের পর্যটকদের মাঝে বাংলাদেশ কে তুলে ধরার জন্য আয়োজন করা হয় বিউটিফুল বাংলাদেশ নামক প্রামান্য চিত্র, ফ্যাশান শো এবং কনসার্টের।

মেলায় প্রবাসী বাংলাদেশী, পর্তুগীজ ছাড়াও বিভিন্ন দেশের পর্যটকদের উপস্থিতি ছিল লক্ষ্যনীয়। শাড়ির সাথে বাঙ্গালী সাজে বাংলাদেশী মহিলার ছাড়াও পর্তুগীজ নানা বয়সি মহিলাদের উপস্থিতি মেলার সৌন্দর্য বাড়িতে তুলে।

তাছাড়া রুয়া দো বেনফরমসোয় পর্তুগাল প্রবাসী বাংলাদেশী ব্যাবসায়িরা লুঙ্গি-পাঞ্জাবি আর মাথায় গামছা বেধে নিজদের দোকানের পসরা সাজিয়ে বসতে দেখা যায়। মেলা উপলক্ষ্যে বাংলা জোন মার্তিম মনিজ যেনো সেজেছিল একখন্ড ছোট্র বাংলাদেশে সাজে।

''বাংলা রেস্টুরেন্টে''র সৌজন্যে পর্তুগীজ ও বিভিন্ন দেশের পর্যটকদের মাঝে বাংলাদেশ কে তুলে ধরার জন্য আয়োজন করা হয় ''বিউটিফুল বাংলাদেশ'' নামক একটি প্রামান্য চিএ। 

দেশীয় পোশাক আর সংস্কৃতির মাধ্যমে অন্য দেশের পোশাক আর সংস্কৃতির সাথে সেতুবন্ধন তৈরি করার জন্য ''শারমিন মৌ''র পরিচালনায় দেশীয় পোষাকের ফ্যাশন শো মেলাকে আরো আকর্ষনীয় করে তোলে।

ফ্যাশন শোর মডেল হিসেবে অংশ নেয় পর্তুগাল, ফ্রান্স, স্পেন, লুক্সেমবার্গ, ইতালী, জার্মান, ব্রাজিল, ভারত, পাকিস্তান, নেপাল সহ প্রবাসী বাংলাদেশী ও শিশু কিশোররা। সব শেষ পর্তুগিজ শিল্পীদের কনসার্ট মেলাকে আরো প্রাণবন্ত করে তোলে।


মেলায় বাংলাদেশ দূতাবাস লিসবনের কর্মকর্তা ছাড়াও কমিউনিটির শীর্ষ এবং প্রবীণ নেতৃবৃন্দের উপস্থিতি ও ছিল উল্লেখ করার মতো।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget