বড়লেখায় হত্যার বিচারের দাবীতে প্রতিবাদ চান্দ গ্রাম বাজারে শান্তি পূর্ণ রাস্থা অবরোধ

অনলাইন ডেস্ক:  বড়লেখার চান্দ গ্রামের আলোচিত আব্দুল মজিদ (সাদ) হত্যার বিচারের দাবীতে আজ ২৬ জুলাই রোজ মঙ্গলবার দুপুর ২ ঘটিকার সময় চান্দ গ্রাম বাজারে এক প্রতিবাদ সভা ও মৌন মিছিল করা হয়েছে। প্রতিবাদ সভায় চান্দ-গ্রামের সামাজিক সংগঠন তরুণ প্রজন্ম চান্দ-গ্রাম , চান্দ-গ্রামের বাজারের পরিচালনা কমিটি ও ব্যবসায়ীবৃন্দ, ,চান্দ-গ্রাম বাজার সি এন জি শ্রমিকবৃন্দ,রহমানিয়া ছাএ সংসদ চান্দগ্রাম মাদ্রাসা,চান্দগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়, চান্দগ্রাম ক্রিকেট ক্লাব,ইউনিটি ক্রিকেট ক্লাব চান্দ-গ্রাম, মুক্তিযােদ্ধা সোলায়মান মিয়া একাডেমি চান্দ-গ্রাম ,চান্দগ্রাম এ ইউ ফাজিল ডিগ্রি মাদরাসা ,চান্দ-গ্রাম যুব সংঘ ,সানরাইজ কিন্ডার গার্ডেন ,লিটল বার্ডস কিন্ডার গার্ডেন সহ চান্দ-গ্রামের আরও বিভিন্ন সংগঠন যোগদান।

বেলা ২ঘঠিকা হতে চান্দ গ্রাম বাজারে প্রায় ২হাজার গ্রামবাসী রাস্থা বন্ধ করে কালো ব্যাজ বুকে লাগিয়ে মানব-বন্ধন করে।এর পর বাজার থেকে গ্রামের প্রতিটি রাস্থা মৌন মিছিল নিয়ে প্রদক্ষিণ করে। এসময় ব্যবসায়ী সাদ মিয়া হত্যার সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে আসামিদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবী জানানো হয়।

এর পর চান্দ গ্রাম বাজার ব্যবসায়ী সমিতির ব্যানারে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। চান্দ গ্রাম বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সহ সভাপতি নজমুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং খাইরুল আলম নুনুর পরিচালনায় এসময় সন্ত্রাস বিরুদ্ধই ও সাদ মিয়ার বিচার দাবী করে বক্তব্য রাখেন বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান,বড়লেখা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বিবেকানন্দ দাশ নান্টু, নিজ বাহদুরপুর ইউ পি চেয়ারম্যান ময়নুল হক,ব্যবসায়ী আব্দুস সালাম, আলহাজ্ব হেলাল উদ্দিন, আব্দুল মুতাল্লিব, প্রবীণ মুরব্বি আব্দুল খালিক,সাবেক ইউ পি সদস্য আব্দুল খালিক,তরুন প্রজন্ম চান্দ গ্রামের প্রধান উপদেষ্টা জহুরুল ইসলাম,তরুন প্রজন্ম চান্দ গ্রামের সভাপতি ও নিহতের ভাতিজা বাবলু হুসেন,সাধারন সম্পাদক আবু সুফিয়ান। মৌলভীবাজারের বড়লেখার চান্দগ্রাম থেকে ১৮ই জুলাই সোমবার রাতে নিখোঁজের দু'দিন পর বাড়ির অদূরে ছাদ উদ্দিনের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ।

এলাকাবাসী ও থানা পুলিশ সূত্র জানায়, নিজবাহাদুরপুর ইউপির উত্তর চান্দগ্রাম গ্রামের মৃত সুরুজ আলীর ছেলে ও স্থানীয় চান্দ্রগাম বাজারের ব্যবসায়ী আব্দুল মজিদ দোকান থেকে বাড়ি যাওয়ার পথে গত শুক্রবার রাত থেকে নিখোঁজ হন। এরপর পরিবারের সদস্যরা বিভিন্ন স্থানে খোঁজ নিয়েও তার কোনো সন্ধান পায়নি। তাকে না পেয়ে শনিবার জিডি করা হয় পরিবারের পক্ষ থেকে। সোমবার রাত আনুমানিক ১১টায় বাড়ির অদূরে আব্দুল মজিদের লাশ পাওয়া যায়। খবর পেয়ে রাতেই লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজার মর্গে পাঠায় পুলিশ। এলাকাবাসীর ধারণা, ব্যবসায়িক লেনদেন সংক্রান্ত কারণে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ওই ব্যবসায়ীকে হত্যা করা হয়েছে। লাশের সুরতহাল রিপোর্ট প্রদানকারী থানা পুলিশের এসআই আনোয়ার হোসেন সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লাশটি প্রায় পঁচে গিয়েছিল।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget