হৃদয় আল মিরুর একান্ত সাক্ষাৎকার

আবিদ রাহমান :  ১.ঈদ কেমন কাটলো?
মিরু: ঈদ মানেই আমার কাছে অন্যরকম একটা মুহুর্ত।অন্যরকম একটা দিবস। এবারের ঈদটা আমার জীবনের সবচেয়ে ভাল লাগার ঈদ ছিল। কারন প্রতি ঈদে আমি আমার পরিবারের সাথে টিভিতে আমার ভাল লাগামানুষ গুলোর ঈদ অনুষ্ঠান গুলো উপভোগ করতাম।আর এবার সেই ঈদ অনুষ্ঠান মালায় আমিও ছিলাম। বুঝতেই পারছেন!সপরিবারে আমার অনুষ্ঠান গুলো উপভোগ করছি। আর ঈদের দিন সারাটি বিকেল বাইকে করে মামাতো ভাই নিয়ে সারা গ্রাম ঘুরেছি। অন্যরকম অনুভূতি।

২.ঈদে কি কি কাজ করলেন?
মিরু: ঈদে আমার তিনটি কাজ ছিল।ঈদের দিন বিকেল ৩.০৫ মিনিটে ছিল বৈশাখী টিভিতে কমেডি শো - লাফটার লাউঞ্জ, উপস্হাপনায় ছিল আর জে নীরব।ঈদের দিন রাত ১১.৫০ মিনিটে ছিল,এটিএন বাংলায় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান -কমেডি আওয়ার,উপস্হাপনা- দেবাশীষ বিশ্বাস।এবং ঈদের ৭ম দিন এনটিভিতে ছিল.. কমেডি শো - দি কমেডি কোম্পানি। উপস্হাপনায় ছিল দীপা খন্দকার।
৩.সাড়া পেয়েছেন কোন অনুষ্ঠান থেকে বেশী?
মিরু: সবকয়টা অনুষ্ঠান থেকেই সারা পাইছি।তবে আমার ফেসবুক কমেন্ট দেখে বুঝতে পারছি যে, দর্শক আরও কিছু আমার কাছ থেকে আশা করছিল।
৪.প্রথম বারের মতো আবু হেনা রনির সাথে ডুয়েট করলেন? কেমন লেগেছে?
মিরু: রনি ভাই আমার কাছের অসাধারণ একজন মানুষ।রনি ভাই যখন ক্যাম্পাসে ছিল,আমরা ক্যাম্পাসে অনেক কাজ একসাথে করেছি।রনি ভাইয়ের সাথে বিটিভিতে ১ম কাজ করেছি যেখানে ভাই ছিল উপস্থাপক কিন্তু দুজনে একসাথে পারফর্ম করলাম এবার ঈদে। পারফর্ম করতে গিয়ে ভাই অনেক হেল্প করেছে।আমার বড় বড় ভুল গুলো খুব ছোট ছোট করে ধরিয়ে দিয়েছে এবং শেষ পর্যন্ত ভাইয়ের সাথে এনার্জি ঠিক রেখে পারফর্মটা শেষ করতে পেরেছি।
. হাতে আর কি কাজ আছে?

মিরু: আমার হাতে এখন কাজ আাছে।আসছে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় কমেডি রিয়েলিটি শো হাশো সিজন -৪ এ এবার আমি মেন্টর/গ্রুমার হিসাবে থাকছি। এনটিভির একটা ধারাবাহিক নাটকে কাজ করবো, শুটিং ডেট এখনও ফাইনাল হয় নি।আর স্ট্যান্ড আপ কমেডিয়ান হিসাবে তো স্টেজ শো গুলোর কাজের অফার আছেই। আর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কমেডি ক্লাব এবং রাজশাহী কমেডি ক্লাব নীয়ে অন্যরকম একটা কাজ করার প্লান চলছে।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget