অন্য রকম পুলিশ : হাবিবুর রহমান

হাবিবুর রহমান : পুলিশকে নিয়ে অনেক খবরই বের হয় আর সাবজেক্ট যদি পুলিশ হয় পাঠকের কৌতুহলও যেন বেড়ে যায়। পুলিশ বাহিনীর জনস্বার্থে হলেও জনসাধারনের কাছে এর বদনামও আছে।

তেমনি আছে গর্ব করার মত অনেক বিষয়। এইতো কিছু দিন আগের কথা, একজন পুলিশ সার্জেন্ট ডিউটির ফাঁকে ঢাকার রাজপথে এক পথচারীর শিশু শ্রমিক আদরের হাতের নখ কেটে দিয়েছিল। ছবিটি সুশীল মিডিয়ায় বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছিল। এমনি আরো অনেক সৎ নীতিবান পুলিশ অফিসার আছে যারা নিরবে নিভৃতে তার নিজের কর্মব্যস্ত জীবনের বাইরেও সমাজের সেবা মূলক কাজে এগিয়ে এসেছে, একজন সাধারণ মানুষ হয়ে এগিয়ে এসেছে অসাধারণ অনেক কাজে। জ্বেলে দিচ্ছে আশাহত মানুষের জীবনের আশার আলো। এমনিই একজন নিষ্ঠা ও হৃদয়বান হাবিবুর রহমান, তিনি আমাদের সমাজ ও জাতির অহংকার। হাবিবুর রহমান ঢাকার জেলার পুলিশ সুপার যিনি সদ্য প্রমোশন পাওয়া একজন এডিশনাল ডি.আই.জি। তিনি সব সময়ই চান সমাজের অবহেলিত মানুষের পাশে দাঁড়াতে। যিনি অন্য এক পরিবেশ; অন্য এক জগতের জীবনধারা পরিবর্তনের হাতিয়ার হিসাবে আজ পুলিশ বাহিনীর গর্ব। তেমনি গর্ব আমাদের দেশ ও জাতির। সমাজকে সুন্দর করে সাঁজাতে কাজ করে যাচ্ছেন সমাজের অনেক গভীর থেকে। এক সময় যারা শুধু সূচপুতে জীবন যাপন করতো, রোগ বালায়ের নামে ঝাড়ফু দিয়ে প্রতারণা করে জীবন চালাতো সেই বেদে সম্প্রদায়কে দিয়েন একটি নতুন জীবনের সন্ধান। হাবিবুর রাহমানের কল্ল্যানে বেদেরা আজ ঐ পেশাকে বিদায় জানিয়ে বেদে পল্লীর ছেলে মেয়েরা কাজ করছে গার্মেন্টস শিল্পে। শুধু তাই নয় তারা বিনা পয়সায় স্কুল-কলেজে পড়াশোনা করছে। এক সময় যারা সমাজে অবহেলিত ছিল, ছিল সকলের চোখে একটি নিচু জাতের পরিচয়ে। তাদের জীবন এখন পাল্টে গেছে। তারা উপভোগ করছে জীবনের আসল স্বাদ। হাবিবুর রহমান বলেন, সততা আর ইচ্ছা থাকলে আমাদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে অনেক কিছুই করা সম্ভব। আমরাই পারি এই সমাজকে সুন্দর করে নিজের মত করে সাঁজাতে। আলোকিত সমাজের উজ্জ্বল নক্ষত্র হাবিবুর রহমান তোমার প্রতি থাকবে সর্বোচ্চ সম্মান।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget