টাকে চুল লাগাতে গিয়ে প্রাণ গেলো মেডিকেল ছাত্রের

অনলাইন ডেস্ক: মেধাবী ছাত্র, পড়েন মেডিকেল কলেজে। কিন্তু সন্তোষ নামে ২২ বছরের ওই মেডিকেল ছাত্রের মাথায় সামান্য টাক ছিল। তাতেই চিন্তিত।

এজন্য গতমাসে হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট করার সিদ্ধান্ত নেন। একটি সেন্টারে গিয়ে তিনি তার টাকে চুল লাগান। কিন্তু এর দুদিন পরই তার মৃত্যু হয়।
মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের চেন্নাইয়ে। সন্তোষের মা পি জোসেবিন জানিয়েছেন, হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট প্রক্রিয়া প্রায় ১০ ঘণ্টা ধরে চলে। প্রায় ১ হাজার ২০০ হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট হয়। এজন্য সন্তোষের খরচ হয়েছিল ৭৩ হাজার রুপি। তবে এরপরই তার জ্বর শুরু হয়।
সন্তোষের বাবা-মায়ের অভিযোগ, যেখানে হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট হয় সেখানকার চিকিত্সকরা কেউই সার্জেন ছিলেন না। সন্তোষের মৃত্যুর পরই তারা পালিয়ে গেছেন।
এদিকে পুলিশ জানিয়েছে, সংশ্লিষ্ট হেয়ার ট্রান্সপ্ল্যান্ট সেন্টারটির শুধুমাত্র সেলুন চালানোর লাইসেন্স ছিল। এমনকি ওই লাইসেন্সের মেয়াদও কয়েকমাস আগেই শেষ হয়ে গেছে। সেখানে ন্যূনতম পরিকাঠামোও নেই। ঘটনার পরপরই পুলিশ ওই সেন্টারটি সিলগালা করে দেয়।

এ ঘটনায় পুলিশ একটি মামলা দায়ের করেছে। সন্তোষের মরদেহ কবর থেকে তুলে ময়না তদন্তর কথা বিবেচনা করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget