ফ্রান্স দুতাবাসে বাংলা নববর্ষ এবং রবীন্দ্র-নজরুল জয়ন্তী উদযাপিত

মোহা: আব্দুল মালেক হিমু, প্যারিস-ফ্রান্স  : প্যারিসে বাংলাদেশ দুতাবাসের আয়োজনে  দূতাবাস প্রাঙ্গণে ৮ মে রোববার  একযোগে উদযাপিত হল বাংলা নববর্ষ-১৪২৩ এবং রবীন্দ্র-নজরুল জয়ন্তী ২০১৬ । অনুষ্ঠানকে ঘিরে উৎসবের আমেজে ভরপুর ছিল দূতাবাস প্রাঙ্গণ। বিপুল সংখ্যক প্রবাসী বাংলাদেশী নারী-পুরুষ এবং শিশু-কিশোর রং বেরং-এর পোশাক পরিধান করে অনুষ্ঠানে যোগদান করেন।

দূতাবাসের প্রথম সচিব ফারহানা আহমেদ চৌধুরীর উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানের শুরুতে রাষ্ট্রদূত এম, শহিদুল ইসলাম তাঁর শুভেচ্ছা বক্তব্যে বলেন, বাংলা নববর্ষ আমাদের লৌকিক উৎসব; ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বাংলাদেশের আপামর মানুষ এ উৎসবকে  ঐতিহ্যগতভাবে পালন করে আসছে, এ ধারাবাহিকতায় দুতাবাস প্রতি বছরই নববর্ষ ও রবীন্দ্র-নজরুল জয়ন্তী পালন করে আসছে । তিনি নোবেল বিজয়ী বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ এবং বিদ্রোহী কবি নজরুলের কাব্যিক ও সঙ্গীত জীবনের উপর আলোকপাত করে বলেন, বাংলা ভাষা ও সাহিত্য সমৃদ্ধিকরণে এই দুই মহান কবির অবদান অনন্য সাধারণ। তিনি আরো বলেন যে, বাঙালীর জাতীয় সংস্কৃতিতে সবিশেষ গুরুত্ব বহনকারী তিনটি দিবসই অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনে ভূমিকা রাখছে।

দূতাবাসের নিজস্ব আয়োজনে মধ্যাহ্নভোজে বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী বাহারী খাবার পরিবেশন করা হয় । খাবারের মধ্যে ছিল পান্তা ভাত, আলু ভর্তা, বেগুন ভর্তা, শুটকিমাছ ভর্তা, ডাল, দেশী মাছ, তেলি ভাজা পিঠা, পাটিশাপ্টা পিঠা সহ হরেক রকমের পিঠা ।


সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে দূতাবাস পরিবার, ফ্রান্স-বাংলা স্কুলের শিশুরা, স্বরলিপি শিল্পিগোষ্ঠির শিল্পিরা ছাড়াও প্রবাসী বাংলাদেশী শিল্পীরা বাংলা নববর্ষ সংশ্লিষ্ট সঙ্গীত, রবীন্দ্র সঙ্গীত, নজরুলগীতি ও লালন গীতি পরিবেশন করেন।  কবিতা আবৃতি করেন দুতাবাসের হেড অব চান্সেরি হজরত আলী খান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক ড সৈয়দ কামাল আহমেদ এবং ফরাসি বিশ্ববিদ্যালয় ইনালকোর বাংলা বিভাগের ছাত্রী মিস নিনা । এ সময় অনুষ্ঠান উপভোগ করেন ফ্রান্সে বসবাসরত বিপুল সংখ্যক প্রবাসী, রাজনীতিবিদ, ব্যবসায়ী, শিল্পী-কলা-কুশলী, সাংবাদিক এবং পেশাজীবিগণ ।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget