মাওলানা নিজামীর সন্তানরা কে কি করেন

মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডাদেশ পাওয়া জামায়াতে ইসলামীর আমির মতিউর রহমান নিজামীর আপিলের চূড়ান্ত রায়েও ফাঁসি বহাল রেখেছেন সর্বোচ্চ আদালত। কিন্তু কোথায় কি করছেন নিজামীর সন্তানেরা?
চার ছেলে এবং দুই মেয়ে সহ মোট ছয় সন্তানের জনক নিজামী। ছোট ছেলে নাদিম তালহা এখনো ছাত্র হলেও বাকি পাঁচ সন্তানই প্রতিষ্ঠিত।

নিজামীর সন্তানদের পরিচয় তুলে ধরা হলো:
সন্তানদের মধ্যে সবার বড় মেয়ে মোহসিনা ফাতেমা। তিনি পড়াশোনা শেষ করে বর্তমানে চট্টগ্রাম আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করছেন। আর মোহসিনা ফাতেমার স্বামী সাইফুল্লাহ মানসুর বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময় বিটিভির সংবাদ পাঠক ছিলেন। তবে মহাজোট সরকার ক্ষমাতায় আসার পর তিনি আর সুবিধা করতে পারেননি। বর্তমানে ঢাকার একটি বেসরকারি কলেজে শিক্ষকতা করছেন তিনি।
বড় ছেলে ড. নাকিবুর রহমান পড়ালেখা করেছেন মালয়েশিয়ার আন্তজার্তিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ করোলিনা ইউনিভার্সিটিতে অধ্যাপনা করছেন। পরিবার-পরিজন নিয়ে বেশ ভালোই আছেন তিনি। তবে দূরে থাকলেও দেশ বা দেশের রাজনীতি নিয়ে ভার্চুয়াল জগতে সর্বদাই ব্যস্ত তিনি ।
দ্বিতীয় ছেলে ব্যারিস্টার নাজিব মোমেন। রাবেয়া ভূঁইয়া একাডেমীতে আইন বিষয়ে পড়ালেখা শেষ করে লন্ডন গিয়ে বার-অ্যাট-ল ডিগ্রি অর্জন করেছেন। এ ছাড়া নিজামীর এই ছেলে তামিরুল মিল্লাত মাদ্রাসা থেকেও কামিল পাশ করেছেন। ছেলেদের মধ্যে কেবল নাজিব মোমেনই দেশে অবস্থান করছেন। তিনি বর্তমানে হাইকোর্টে আইন পেশায় নিয়োজিত রয়েছেন।
ডা. নাইমুর রহমান খালেদ। তিনি নিজামীর তৃতীয় ছেলে। পড়াশোনা করেছেন পাকিস্থানের একটি মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে। বর্তমানে অস্টেলিয়ায় চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত। চিকিৎসা সেবায় তিনি বেশ মনযোগী হওয়ায় দেশ বা দেশের রাজনীতি নিয়ে কোন মাথা ব্যথা নেই তার। ব্যস্ত শুধু নিজেকে নিয়েই।
ছোট ছেলে নাদিম তালহা মালয়েশিয়া আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতিতে পড়ালেখা করছেন। নিজামীর এই ছেলেই কেবল ছাত্রজীবনে রয়েছেন। তবে এখনো ছাত্র হলেও ট্রাইব্যুনালের বিচারিক কার্যক্রমে রয়েছে তার ব্যাপক বিরোধিতা। প্রায়ই সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেইসবুকে ট্রাইব্যুনালবিরোধী বিভিন্ন প্রচারণা চালিয়ে ব্যস্ত সময় কাটান তিনি।
ছোট মেয়ে খাদিজা পড়াশোনা শেষ করে বর্তমানে লন্ডনের একটি স্কুলে শিক্ষকতা করেন। ছোট মেয়ের স্বামী ব্যারিস্টার নজরুল ইসলাম। তিনি এক সময় শিবিরের সেক্রেটারি ছিলেন। নজরুল ইসলাম বর্তমানে লন্ডনে আইন পেশায় নিয়োজিত রয়েছেন।

নিজামীর স্ত্রী সামসুন্নাহার নিজামীও পিছিয়ে নেই। তিনি গুলশানে অবস্থিত ইসলামিক ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। একই সঙ্গে জামায়াতের নারী শাখার নেত্রীও তিনি।
Labels:

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget