আসলাম চৌধুরীর জামিন নাকচ, অন্য ২ মামলায় গ্রেফতার

জনপ্রিয় অনলাইন ডেস্ক : সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত থাকার সন্দেহে গ্রেফতারকৃত আসলাম চৌধুরী ও আসাদুজ্জমানকে জামিন আবেদন নাকচ করে আজ মঙ্গলবার জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। একই সাথে তাদের দুই জনকে মতিঝিল ও লালবাগ থানায় ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে ১০ দিন করে ২০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। গ্রেফতারের আবেদন মঞ্জুর করে আগামী ৩০ মে রিমান্ড শুনানির জন্য পরবর্তী তারিখ ধার্য করেন আদালত।


এদিকে আজ আসলাম চৌধুরীকে নিয়ে সকাল থেকে পৌনে ৪টা পর্যন্ত পুলিশের অভিনব কৌশল অবলম্বন করতে দেখা যায়। আইনজীবীরা আসলাম চৌধুরী ও আসাদুজ্জমান আদালতে আনা হবে জেনে সকাল থেকে ঢাকার সি.এম.এম আদালতে ভিড় করতে থাকেন। আইনজীবীদের এক কোর্টে বসিয়ে রেখে পুলিশ আসামিদেরকে নিয়ে যায় অন্য কোর্টে। এভাবে এক কোর্ট থেকে অন্য কোর্টে আসামিকে টানা-হেঁচড়া করতে দেখা যায়।এক সময় আইনজীবী মো: সানাউল্লাহ মিয়া, মো: মহসীন মিয়া, মো: মাসুদ আহমেদ তালুকদার, মো: ইকবাল হোসেন, মো: তাহেরুল ইসলাম তৌহিদ, নিহার হোসেন ফারুক, ইলতুৎ মিশ সওদাগর, আব্দুল হান্নান ভূইয়াসহ শতাধিক আইনজীবী এক কোর্ট থেকে অন্য কোর্টে দৌড়াদৌড়ি করতে থাকেন। অবশেষে সংবাদ পান ২৪ নং কোর্ট মারুফ হোসেনের আদালতে তাদের দুই জনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। এ আদালত থেকে আইনজীবীরা দৌড়ে ১৬ নং কোর্টে সাজ্জাদুর রহমানের আদালতে যান। সেখানেও তাদেরকে শ্যোন এরেস্ট দেখানো হয়। অবশেষে ১১ নং কোর্ট আব্দুল্লাহ আল মাসুদের আদালতে যান। এই কোর্টেেই রিমান্ড শুনানির তারিখ ধার্য হয়েছে। পুলিশ আইনজীবীদেরকে জানায়, আগামী ৩০ মে মতিঝিল ও লালবাগ থানার মামলায় ১০ দিন করে ২০ দিনের রিমান্ড শুনানি অনুষ্ঠিত হইবে।এ ব্যাপারে সানাউল্লাহ মিয়া বলেন, আজ পুলিশ যা করেছে তা অত্যন্ত বাড়াবাড়ি এবং হয়রানিমূলক। আমাদের মতো আইনজীবীদের সাথে আসলাম চৌধুরীকে নিয়ে যে লুকোচুরি করেছে তা সত্যি লজ্জাজনক। আমরা কখনো এরূপ আচরণ আশা করিনি।এদিকে ৫৪ ধারায় গ্রেফতারকৃত আসলাম চৌধুরী ও আসাদুজ্জামানকে ম্যাজিস্ট্রেট লাশকার সোহেল রানার আদালতে হাজির করা হয়। সেখানে আইনজীবীরা তার জামিন চান। আদালত শুনানি শেষে জামিন আবেদন নাকচ করে কারাগারে প্রেরণ করেন।গত ১৬ মে আসলাম চৌধুরী ও আসাদুজ্জামানকে ৭ দিনের রিমান্ডে দিয়েছিল আদালত। সেদিন জামিনের আবেদন নাকচ করেছিল।বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব এম আসলাম চৌধুরীকে ইসরাইলের গোয়েন্দা সংস্থার সাথে হাত মিলিয়ে সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্রের অভিযোগে তাদেরকে ৫৪ ধারায় গ্রেফতার করা হয়।মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরির্দশক (ডিবি) গোলাম রব্বানী আসলাম চৌধুরী ও আসাদুজ্জামানকে ঢাকার সিএমএম আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডে দেয়ার আবেদন করেন। আসামি পক্ষে রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন চান। ঢাকা মহানগর হাকিম মো: শরীফুজ্জামানের উভয় পক্ষের বক্তব্য শুনে উপরোক্ত মর্মে আদেশ দেন।গত রোববার রাজধানীর খিলক্ষেত থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার ব্যক্তিগত কর্মী মো: আসাদুজ্জামান ও গাড়িচালক আল আমিনকেও আটক করে মিন্টো রোডে ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। আসলাম চৌধুরী ও আসাদুজ্জামানকে ৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখানো হয়।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget