ইলিয়াস আলী ফিরে আসবেন

জনপ্রিয় ডেস্ক: ২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল রাত থেকেই খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না বিএনপি নেতা এম ইলিয়াস আলীর। বিএনপির সদ্য বিদায়ী কমিটির সিলেট বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক তিনি। ইলিয়াস আলী নিখোঁজের চারবছর পূর্ণ হলো আজ। নিখোঁজ হওয়ার পর থেকেই স্বামীকে খুঁজে পাওয়ার আশায় থানা পুলিশ করে স্ত্রী তাহসীনা রুশদির লুনা গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কাছে। ওই সময় আন্তরিকতার সঙ্গে উদ্ধারের চেষ্টার আশ্বাস দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নিজেও। কিন্তু পরবর্তীতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছ থেকে এ ব্যাপারে আর কোনো সহযোগিতা পাওয়া যায়নি। ইলিয়াস আলী নিখোঁজের পর যে আন্দোলন শুরু হয়েছিল তা বন্ধ করতেই আশ্বাসটা ছিল লোক দেখানো, এমনটাই মনে করেন লুনা। তিনি বলেন, চেষ্টা করলে ওনারা খুঁজে বের করতে পারবে। কিন্তু এটাতে তাদের যদি আগ্রহ না থাকে তাহলে তো আর খুঁজে বের করবে না।এদিকে ইলিয়াস 

আলী নিখোঁজ হওয়ার পর রাজনীতিতে নানা ধরনের গুঞ্জন সৃষ্টি হয়। গুঞ্জনের মধ্যে- তিনি বেঁচে আছেন! মেরে ফেলেছে হাসিনা সরকার! ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা উঠিয়ে নিয়ে গেছে! ইলিয়াস আলীর নিখোঁজ ইস্যুকে করে হাসিনা সরকার পতনের পরিকল্পনা হিসেবে পকিস্তানী গোয়েন্দা তাকে তুলে নিয়ে গেছে! বিএনপির সাবেক নেতা শমসের মবিন চৌধুরী ইলিয়াস আলীকে সরিয়ে দিয়েছে! আওয়ামী লীগ নেতা সুরঞ্জিত সেনের কালো বিড়ালের হাড়ির খবর ছিল ইলিয়াসের কাছে, এ কারণে তাকে মেরে ফেলা হয়েছে! ইলিয়াস আলী লন্ডনে! ইলিয়াস আলী ভারতের কারাগারে! মাঝে মধ্যে ইলিয়াস আলীর মোবাইল থেকে মিসডকল আসার খবরও শোনা যায় বলেও গুঞ্জন ওঠে।তবে স্বামী বেঁচে আছেন, এমনটাই বিশ্বাস করেন তাহসিনা রুশদির লুনা। সেই সঙ্গে তাকে ফিরে পাবেন বলে আজও আশা আছে তার। তিনি বলেন, ফিরে পাবো এই আশাটা যেমন থাকবে তেমনই দাবিটাও থাকবে যে, আমার স্বামীকে ফিরিয়ে দেয়া হোক। আর এ দাবিটা শেষ পর্যন্ত থাকবে।ইলিয়াস আলীর নিখোঁজের ব্যাপারে একটা জিডি এবং হাইকোর্টে রিট হয়েছিল। রিট অনুযায়ী পুলিশকে মাসিক অগ্রগতি প্রতিবেদন দিতেও বলা হয়েছিল। কিন্তু ইলিয়াসের স্ত্রী লুনা বলেন, পরবর্তী কোনো অগ্রগতি আমি জানি না। ইলিয়াস আলীর নিখোঁজ নিয়ে গুজব আর প্রশ্ন থাকলেও অনেক মানুষ রয়েছেন যারা সত্যিকার অর্থে ইলিয়াস আলীকে ভালোবাসেন। তারা এখনও ইলিয়াস আলীর সন্ধানে রয়েছেন, তাদের বিশ্বাস তিনি একদিন ফিরে আসবেন।প্রসঙ্গত, ২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল রাজধানীর বনানী থেকে গাড়িচালক আনসার আলীসহ অপহৃত হন বিএনপির তৎকালীন সিলেট বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ইলিয়াস আলী। পরে রাস্তায় পড়ে থাকা তার গাড়ি উদ্ধার করে বনানী থানা পুলিশ। অপহরণের পর থেকেই পরিবার ও বিএনপির পক্ষ থেকে ইলিয়াস আলীকে খুঁজে বের করার দাবি জানানো হচ্ছে। কিন্তু এতোদিনেও তার কোনো সন্ধান দিতে পারেনি সরকার।তিনি জীবিত আছেন, না মারা গেছেন- এ ব্যাপারেও সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য দিচ্ছে না আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এমন অবস্থার মধ্যে আজ (১৭ এপ্রিল) ইলিয়াস আলীর অপহরণের চার বছর পূর্ণ হলো।

Post a Comment

Contact Form

Name

Email *

Message *

Powered by Blogger.
Javascript DisablePlease Enable Javascript To See All Widget