ঢাকা ০৮:২২ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
অ্যাসোসিয়াসিয়ন কুলতুরাল দে বাংলাদেশ এন কাতালোনিয়ার মতবিনিময় ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যে সর্বপ্রথম স্পেনে “মুজিব: একটি জাতির রূপকার” বায়োপিক প্রদর্শিত হলো জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল স্পেন দক্ষিণ উদ্যোগে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত বিয়ানীবাজার পৌরসভা ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট এর উদ্যোগে ঈদ পূনমির্লনী ও নতুন কমিটি গঠন বিজনেস এসোসিয়েশন এন কাতালোনিয়া এর উদ্যোগে ঈদ পূনমির্লনী ও আলোচনা সভা অ্যাসোসিয়াসিয়ন কুলতুরাল দে বাংলাদেশ এন কাতালোনিয়া এর নতুন কমিটি ঘোষণা বার্সেলোনায় ওপেন কনসার্টে বাংলাদেশীদের মিলন মেলা বার্সেলোনায় জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত স্পেন, নরওয়ে ও আয়ারল্যান্ড তিন দেশ ফিলিস্তিনকে স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বীকৃতি দিল ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসির মৃত্যুতে বাংলাদেশে একদিনের রাষ্ট্রীয় শোক কাল

২০২৪ সালে ফের নির্বাচনে লড়বেন ট্রাম্প!

জনপ্রিয় অনলাইন
  • আপডেট সময় : ০৫:৩৭:৫৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ মার্চ ২০২১ ৮২৯ বার পড়া হয়েছে

তার বক্তব্য, ২০২২ সালে কংগ্রেসে তার সমর্থক রিপাবলিকানদের সংখ্যা অনেক বাড়বে, তখন বাইডেন প্রশাসনের ওপর চাপ আরো বাড়ানো হবে

আবারও মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার কথা স্পষ্ট করলেন দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট  ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর আগে অবশ্য মাসখানেক বিশেষ কোনও খবরে ছিলেন না তিনি। ২০ জানুয়ারি জো বাইডেনের শপথ নেওয়ার ঘণ্টাকয়েক আগে হেলিকপ্টারে চড়ে হোয়াইট হাউস ছেড়েছিলেন। তারপর আর টেলিভিশনের সামনে আসেননি।

তবে রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) ফের  অবতীর্ণ হলেন ট্রাম্প। জানিয়ে দিলেন, ২০২৪ সালে ফের প্রেসিডেন্ট পদের জন্য লড়বেন তিনি। সেদিন যুক্তরাষ্ট্রের ওরল্যান্ডোয় কনসারভেটিভ পলিটিক্যাল অ্যাকশনের অনুষ্ঠান ছিল। রিপাবলিকানদের এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন ট্রাম্প।

বক্তৃতায় প্রথমেই তিনি বলেন, নতুন দল তৈরি করার কোনো পরিকল্পনা তার নেই। ট্রাম্প হেরে যাওয়ার পরে অনেকেই বলছিলেন, এরপর নতুন দল তৈরি করে ফের প্রেসিডেন্ট পদের জন্য লড়াই শুরু করবেন সাবেক প্রেসিডেন্ট।

তবে ট্রাম্প এদিন বলেন, নতুন দলের প্রয়োজন নেই। কারণ, তার দল আছে। তিনি রিপাবলিকান পার্টির হয়েই লড়াইয়ে নামবেন। এরপরেই পুরনো বক্তব্যে চলে যান ট্রাম্প। দাবি করেন, তৃতীয়বার ডেমোক্র্যাটদের হারানোর জন্য তিনি প্রস্তুত।

ডেমোক্র্যাটদের পাশপাশি রিপাবলিকানদের একাংশেরও সমালোচনা করেন ট্রাম্প। একটি তালিকা সঙ্গে নিয়ে এসেছিলেন তিনি। সেখানে তার বিরুদ্ধে মুখ খোলা রিপাবলিকানদের নাম ছিল। ইমপিচমেন্ট প্রস্তাবে যে রিপাবলিকানরা সমর্থন জানিয়েছিলেন, তাদেরও নাম ছিল। তালিকা পড়ে তিনি বলেন, এই নেতাদের দল থেকে সরিয়ে দেওয়া উচিৎ।

তার বক্তব্য, ২০২২ সালে কংগ্রেসে তার সমর্থক রিপাবলিকানদের সংখ্যা অনেক বাড়বে। তখন বাইডেন প্রশাসনের ওপর চাপ আরো বাড়ানো হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

২০২৪ সালে ফের নির্বাচনে লড়বেন ট্রাম্প!

আপডেট সময় : ০৫:৩৭:৫৪ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ মার্চ ২০২১

তার বক্তব্য, ২০২২ সালে কংগ্রেসে তার সমর্থক রিপাবলিকানদের সংখ্যা অনেক বাড়বে, তখন বাইডেন প্রশাসনের ওপর চাপ আরো বাড়ানো হবে

আবারও মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার কথা স্পষ্ট করলেন দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট  ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর আগে অবশ্য মাসখানেক বিশেষ কোনও খবরে ছিলেন না তিনি। ২০ জানুয়ারি জো বাইডেনের শপথ নেওয়ার ঘণ্টাকয়েক আগে হেলিকপ্টারে চড়ে হোয়াইট হাউস ছেড়েছিলেন। তারপর আর টেলিভিশনের সামনে আসেননি।

তবে রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) ফের  অবতীর্ণ হলেন ট্রাম্প। জানিয়ে দিলেন, ২০২৪ সালে ফের প্রেসিডেন্ট পদের জন্য লড়বেন তিনি। সেদিন যুক্তরাষ্ট্রের ওরল্যান্ডোয় কনসারভেটিভ পলিটিক্যাল অ্যাকশনের অনুষ্ঠান ছিল। রিপাবলিকানদের এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন ট্রাম্প।

বক্তৃতায় প্রথমেই তিনি বলেন, নতুন দল তৈরি করার কোনো পরিকল্পনা তার নেই। ট্রাম্প হেরে যাওয়ার পরে অনেকেই বলছিলেন, এরপর নতুন দল তৈরি করে ফের প্রেসিডেন্ট পদের জন্য লড়াই শুরু করবেন সাবেক প্রেসিডেন্ট।

তবে ট্রাম্প এদিন বলেন, নতুন দলের প্রয়োজন নেই। কারণ, তার দল আছে। তিনি রিপাবলিকান পার্টির হয়েই লড়াইয়ে নামবেন। এরপরেই পুরনো বক্তব্যে চলে যান ট্রাম্প। দাবি করেন, তৃতীয়বার ডেমোক্র্যাটদের হারানোর জন্য তিনি প্রস্তুত।

ডেমোক্র্যাটদের পাশপাশি রিপাবলিকানদের একাংশেরও সমালোচনা করেন ট্রাম্প। একটি তালিকা সঙ্গে নিয়ে এসেছিলেন তিনি। সেখানে তার বিরুদ্ধে মুখ খোলা রিপাবলিকানদের নাম ছিল। ইমপিচমেন্ট প্রস্তাবে যে রিপাবলিকানরা সমর্থন জানিয়েছিলেন, তাদেরও নাম ছিল। তালিকা পড়ে তিনি বলেন, এই নেতাদের দল থেকে সরিয়ে দেওয়া উচিৎ।

তার বক্তব্য, ২০২২ সালে কংগ্রেসে তার সমর্থক রিপাবলিকানদের সংখ্যা অনেক বাড়বে। তখন বাইডেন প্রশাসনের ওপর চাপ আরো বাড়ানো হবে।