ঢাকা ০১:২১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

স্পেন অভিবাসন আইন সহজ করলো

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:৩৯:২৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ জুলাই ২০২২ ৪৫৫ বার পড়া হয়েছে

বিভিন্ন খাতে কর্মী সংকট দেখা দেয়ায় অভিবাসন আইন সহজ করেছে স্পেন। এরফলে দেশটিতে বৈধ কাগজ না থাকা বিদেশিদের শ্রমবাজারে যুক্ত করা যাবে। একইসঙ্গে  বিদেশ থেকে কর্মী আনার ক্ষেত্রেও নিয়ম শিথিল করেছে স্পেন। মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত আইন পরিবর্তন করে দেশটি। মূলত পর্যটন ও কৃষি শিল্পের মতো কর্মী সংকটে থাকা খাতগুলোর চাহিদা মেটাতেই অভিবাসন আইনে এই সংস্কার এনেছে স্পেন।

দক্ষিণ-পশ্চিম ইউরোপের দেশটিতে এখন থেকে সহজেই বিদেশ থেকে কর্মী আনার অনুমতি পাওয়া যাবে। পাশাপাশি স্পেনে এখন বসবাস করছেন এমন অভিবাসীদের নিয়োগ দিতে আলাদা করে আর কাজের অনুমতির প্রয়োজন হবে না। দেশটির অভিবাসন মন্ত্রণালয়ের মতে, আগের কর্মী নিয়োগের প্রক্রিয়াটি ছিল ধীর এবং প্রয়োজনের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ। তাই স্পেন সামাজিক ও অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছিল। মন্ত্রীসভার বৈঠকে বিলটি পাসের পর দেশটির সামাজিক নিরাপত্তা ও অভিবাসনমন্ত্রী হোসে লুইস এসক্রিভা সাংবাদিকদের বলেন, এই উদ্যোগের ফলে অভিবাসনের কারণে সৃষ্ট চ্যালেঞ্চগুলো আমরা ভালোভাবে মোকাবিলা করতে পারবো।

নতুন নিয়ম অনুযায়ী দুই বছর বা তার বেশি সময় ধরে দেশটিতে বসবাসরত বিদেশিরা এখন সাময়িক বসবাসের অনুমতিপত্র সংগ্রহ করতে পারবেন৷ এজন্য শর্ত হিসেবে কর্মী সংকট থাকা খাত সংশ্লিষ্ট কোনো প্রশিক্ষণে নিবন্ধন করতে হবে। এছাড়া যারা ছয়মাস ধরে কাগজবিহীনভাবে কাজ করেছেন, তারা প্রমাণ সাপেক্ষে বৈধভাবে কাজের অনুমতির আবেদন করতে পারবেন।

সরকারের হিসাবে স্পেনে এমন পাঁচ লাখ মানুষ আছেন। আবার বিদেশি শিক্ষার্থীরাও দেশটিতে পড়াশোনা শেষ করার সাথে সাথেই কাজে যোগ দিতে পারবেন। আগের নিয়ম অনুযায়ী, তাদের তিন বছর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে না। এছাড়া পড়াশোনারত অবস্থায় তারা সপ্তাহে ৩০ ঘণ্টা পর্যন্ত কাজের অনুমতি পাবেন।

যদিও স্পেন নিজেই বেকারত্বের সমস্যায় জর্জরিত। দেশটিতে বেকারত্বের হার ১৩.৬ শতাংশ। তারপরেও চাকরিদাতাদের তথ্য অনুযায়ী, পর্যটন, কৃষি, নির্মাণ ও পণ্য পরিবহণ খাতে কর্মী সংকটে ভুগছেন তারা। ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোর নাগরিকদের কাজের অনুমতি সত্ত্বেও চাহিদা মেটানো সম্ভব হচ্ছে না।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

স্পেন অভিবাসন আইন সহজ করলো

আপডেট সময় : ০৭:৩৯:২৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ জুলাই ২০২২

বিভিন্ন খাতে কর্মী সংকট দেখা দেয়ায় অভিবাসন আইন সহজ করেছে স্পেন। এরফলে দেশটিতে বৈধ কাগজ না থাকা বিদেশিদের শ্রমবাজারে যুক্ত করা যাবে। একইসঙ্গে  বিদেশ থেকে কর্মী আনার ক্ষেত্রেও নিয়ম শিথিল করেছে স্পেন। মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত আইন পরিবর্তন করে দেশটি। মূলত পর্যটন ও কৃষি শিল্পের মতো কর্মী সংকটে থাকা খাতগুলোর চাহিদা মেটাতেই অভিবাসন আইনে এই সংস্কার এনেছে স্পেন।

দক্ষিণ-পশ্চিম ইউরোপের দেশটিতে এখন থেকে সহজেই বিদেশ থেকে কর্মী আনার অনুমতি পাওয়া যাবে। পাশাপাশি স্পেনে এখন বসবাস করছেন এমন অভিবাসীদের নিয়োগ দিতে আলাদা করে আর কাজের অনুমতির প্রয়োজন হবে না। দেশটির অভিবাসন মন্ত্রণালয়ের মতে, আগের কর্মী নিয়োগের প্রক্রিয়াটি ছিল ধীর এবং প্রয়োজনের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ। তাই স্পেন সামাজিক ও অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছিল। মন্ত্রীসভার বৈঠকে বিলটি পাসের পর দেশটির সামাজিক নিরাপত্তা ও অভিবাসনমন্ত্রী হোসে লুইস এসক্রিভা সাংবাদিকদের বলেন, এই উদ্যোগের ফলে অভিবাসনের কারণে সৃষ্ট চ্যালেঞ্চগুলো আমরা ভালোভাবে মোকাবিলা করতে পারবো।

নতুন নিয়ম অনুযায়ী দুই বছর বা তার বেশি সময় ধরে দেশটিতে বসবাসরত বিদেশিরা এখন সাময়িক বসবাসের অনুমতিপত্র সংগ্রহ করতে পারবেন৷ এজন্য শর্ত হিসেবে কর্মী সংকট থাকা খাত সংশ্লিষ্ট কোনো প্রশিক্ষণে নিবন্ধন করতে হবে। এছাড়া যারা ছয়মাস ধরে কাগজবিহীনভাবে কাজ করেছেন, তারা প্রমাণ সাপেক্ষে বৈধভাবে কাজের অনুমতির আবেদন করতে পারবেন।

সরকারের হিসাবে স্পেনে এমন পাঁচ লাখ মানুষ আছেন। আবার বিদেশি শিক্ষার্থীরাও দেশটিতে পড়াশোনা শেষ করার সাথে সাথেই কাজে যোগ দিতে পারবেন। আগের নিয়ম অনুযায়ী, তাদের তিন বছর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে না। এছাড়া পড়াশোনারত অবস্থায় তারা সপ্তাহে ৩০ ঘণ্টা পর্যন্ত কাজের অনুমতি পাবেন।

যদিও স্পেন নিজেই বেকারত্বের সমস্যায় জর্জরিত। দেশটিতে বেকারত্বের হার ১৩.৬ শতাংশ। তারপরেও চাকরিদাতাদের তথ্য অনুযায়ী, পর্যটন, কৃষি, নির্মাণ ও পণ্য পরিবহণ খাতে কর্মী সংকটে ভুগছেন তারা। ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোর নাগরিকদের কাজের অনুমতি সত্ত্বেও চাহিদা মেটানো সম্ভব হচ্ছে না।