বার্সেলোনা, স্পেন | রবিবার , ১ মে ২০২২ | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. #টপ৯
  2. #লিড
  3. অপরাধ
  4. অভিবাসন
  5. আইন-আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আফ্রিকা
  8. ইউরোপ
  9. ইসলাম ও ধর্ম
  10. এশিয়া
  11. কমিউনিটি
  12. ক্যাম্পাস
  13. খেলাধুলা
  14. গণমাধ্যম
  15. জাতীয়

স্পেনের বার্সেলোনায় সীফুড এক্সপো গ্লোবালে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ

প্রতিবেদক
jonoprio24
মে ১, ২০২২ ৬:৪০ পূর্বাহ্ণ

বিশ্বের সবচেয়ে বড় সি ফুড এক্সপো গ্লোবালের আয়োজনে বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠানগুলো ৬০ লাখ ডলারের রপ্তানি আদেশ পেয়েছে। এর পাশাপাশি আরও ১২০ লাখ ডলার সমপরিমাণের সি ফুড রপ্তানির সম্ভাব্যতাও তৈরি হয়েছে। স্পেনের পর্যটন নগরী বার্সেলোনায় এই ‘সি ফুড এক্সপো’ ২৬ এপ্রিল থেকে শুরু হয়ে চলে ২৮ এপ্রিল এপ্রিল পর্যন্ত। আর এতে অংশ নেয় বাংলাদেশের ৯টি রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান। মেলার শেষ দিন এসব কোম্পানির রপ্তানি সংক্রান্ত তথ্যাদি সাংবাদিকদের কাছে তুলে ধরে ধরেন স্পেনে বাংলাদেশদূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সেলর রেদোয়ান আহমেদ। তিনি এবারের মেলায় বাংলাদেশের অর্জন ‘আশাব্যঞ্জক’ বলে মন্তব্য করেছেন। মেলায় অংশগ্রহণকারী ৯টি রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- ক্রিমসন রোজেলা সি ফুড লিমিটেড, এম ইউ সি ফুডস লিমিটেড, সাউদার্ন ফুডস লিমিটেড, ব্রাইট সি ফুড লিমিটেড, ন্যাশনাল সি ফুড ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, বিডি সি ফুড, সবি ফিশ প্রসেসিং ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, গ্লোব ফিশারিজ লিমিটেড এবং মাসুদ ফিশ প্রসেসিং অ্যান্ড আইস কমপ্লেক্স লিমিটেড। বাংলাদেশ রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর পৃষ্ঠপোষকতায় স্থাপিত বাংলাদেশ প্যাভিলিয়নে বাংলাদেশের সি ফুড রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানগুলোর পাশাপাশি বাংলাদেশ থেকে সি ফুড রপ্তানিকারক এজেন্ট, সি ফুড সম্পৃক্ত ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান এবং বাংলাদেশ ফিস ও শ্রিম্প ফাউন্ডেশন এ মেলায় অংশ নেয়। মেলার প্রথমদিন বাংলাদেশ প্যাভিলিয়ন উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর ভাইস চেয়ারম্যান এএইচএম আহসান এবং স্পেনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারওয়ার মাহমুদ। এসময় বাংলাদেশ মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ছাড়াও বাংলাদেশ মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক খন্দকার মাহবুবুল হক, সাসটেইনেবল কোস্টাল অ্যান্ড মেরিন ফিশারিজ প্রোগ্রাম এর টিম লিডার সাবেক এনবিআর চেয়ারম্যান মো. গোলাম হোসেইন, বার্সেলোনায় বাংলাদেশের অনারারি কনসাল রামন পেদ্রো, স্পেন বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি নুরিয়া লোপেজ, বাংলাদেশ ফ্রোজেন ফুড এক্সপোর্টারস এসোসিয়েশন এর নেতারা এবং শীর্ষ সি ফুড রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানের কর্ণধারেরা উপস্থিত ছিলেন।ওইদিন রাতে বাংলাদেশ ফ্রোজেন ফুড এক্সপোর্টারস অ্যাসোসিয়েশন এবং বার্সেলোনার গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসায়ীদের সম্মানে বাংলাদেশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে এক নৈশভোজের আয়োজন করা হয়। ‘রিয়াল ক্লাব নটিক দে বার্সেলোনা’তে আয়োজিত এ নৈশভোজে সাবাদেল চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি রামন আলবেরিখ, রেউস চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি খরদি জুস্ট মিরো, কাতালোনিয়ার জেনারেল কাউন্সিল অব চেম্বারের সিইও নার্সিস বোশ, কাসা এশিয়া বার্সেলোনার ডিরেক্টর আমাদেও জেনসানা, স্পেন বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের প্রেসিডেন্ট নুরিয়া লোপেজ, গ্লোবাল সি ফুড অ্যালায়েন্সের প্রেসিডেন্ট জর্জ চেম্বারলিন, সিউদাত দে লা বার্সেলোনার ডাইরেক্টর এস্টেলা বেরগেলসহ উল্লেখযোগ্য সংখ্যক স্প্যানিশ ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।

নৈশভোজে বাংলাদেশি ফ্রোজেন ফুড এক্সপোর্টারস এসোসিয়েশন এর নেতারা এবং শীর্ষ সি ফুড রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানের কর্ণধারেরা ছাড়াও রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর ভাইস-চেয়ারম্যান এএইচএম আহসান, পরিচালক মাহমুদুল হাসান, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব তানিয়া ইসলাম, মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক খন্দকার মাহবুবুল হক, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব হাফসা বেগম, স্পেনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারওয়ার মাহমুদ এনডিসি, মিশন উপপ্রধান এটিএম আব্দুর রউফ মন্ডল ও কমার্শিয়াল কাউন্সেলর রেদোয়ান আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

নৈশভোজে বাংলাদেশ দূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সেলর রেদোয়ান আহমেদের পরিচালনায় আয়োজিত এক সংক্ষিপ্ত আলোচনায় রাষ্ট্রদূত সারওয়ার মাহমুদ স্পেনের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের কাছে বাংলাদেশের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে বাংলাদেশে বিনিয়োগের আহ্বান জানান।

মেলার দ্বিতীয় দিন বাংলাদেশ শ্রিম্প অ্যান্ড ফিস ফাউন্ডেশন ও গ্লোবাল সি-ফুড অ্যালায়েন্সের যৌথ উদ্যোগে ‘Revitalization of  black tiger shrimp in the global seafood market’ বিষয়ে ইউরোপিয়ান সি ফুড আমদানিকারক ও পরিবেশকদের সাথে এক মধ্যাহ্নভোজ ও সভার আয়োজন করা হয়। এতে ব্ল্যাক টাইগার শ্রিম্পের সমস্যা, সম্ভাবনা, উত্তরণ নিয়ে আলোচনা করেন পার্টনারশিপ অ্যাসুরেন্স মডেলের করম্যাক ও সুলিভান, সি ফ্রেশ গ্রুপের ডমিনিক গোটিয়ে, এশিয়া শ্রিম্প ইমপ্রুভমেন্ট কোলাবোরটিভের ত্রিনি প্রাতিউই এবং সাসটেইনেবল ফিশারিজ পার্টনারশিপ থেকে এলেনা পিয়ানা।

এ আলোচনায় বাংলাদেশ মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক খন্দকার মাহবুবুল হক, সাসটেইনেবল কোস্টাল অ্যান্ড মেরিন ফিশারিজ প্রোগ্রাম এর টিম লিডার সাবেক এনবিআর চেয়ারম্যান মো. গোলাম হোসেইন এবং বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সারওয়ার মাহমুদও অংশ নেন।

সর্বশেষ - অভিবাসন