ঢাকা ০৭:১৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
স্পেনে ঐতিহাসিক মুজিব নগর দিবস উদযাপন মহিলা সমিতি বার্সেলোনার পহেলা বৈশাখ উদযাপন বাংলাদেশ কোলতোরাল এসোসিয়েশন এন কাতালোনিয়ার ৯ সদস্য বিশিষ্ট সমন্বয় কমিটি গঠন টেনেরিফে ঈদুল ফিতর উদযাপন ও ঈদ পূর্ণমিলনী অনুষ্ঠিত শান্তাকলমায় শরীয়তপুর জেলা সমিতির ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত নোয়াখালী এসোসিয়েশনের ইফতার মাহফিল সম্পন্ন বার্সেলোনায় গোলাপগঞ্জ অ্যাসোসিয়েশনের ইফতার সম্পন্ন বিয়ানীবাজার পৌরসভা ওয়েলফেয়ার ট্রাষ্ট বার্সেলোনার ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত বার্সেলোনায় বিয়ানীবাজার ইয়াং স্টারের ইফতার সম্পন্ন বার্সেলোনা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে তাফসীরুল কুরআন ও ইফতার মাহফিল অনুষ্টিত

স্পেনের হুয়ান কার্লোস ইউনিভার্সিটিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন

লায়েবুর খাঁন
  • আপডেট সময় : ১০:৩৫:৪৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৯১ বার পড়া হয়েছে

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ দূতাবাস মাদ্রিদ ও হুয়ান কার্লোস ইউনিভার্সিটি গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ বিশ্ববিদ্যালয়ের মিলনায়তনে যৌথভাবে একটি সেমিনার আয়োজন করে।

সেমিনারে রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারওয়ার মাহমুদ, এনডিসি স্বাগত বক্তব্যে ভাষা আন্দোলনে জাতির পিতার গৌরবময় নেতৃত্বের উপর আলোকপাত করেন। তিনি তার বক্তব্যে বিশ্বে বিলুপ্তির ঝুঁকিতে থাকা ভাষাসমূহ সংরক্ষণে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিদেরকে আরো বেশী কার্যকর ভ‚মিকা রাখার আহবান জানান। । তিনি উল্লেখ করেন যে, পৃথিবীর  শতকরা ৪০ ভাগ মানুষের নিজের মাতৃভাষায় শিক্ষা অর্জনের সুযোগ নেই। পৃথিবীর কোন কোন অঞ্চলে এই সংখ্যা আরো অধিক। তিনি আরো বলেন যে, প্রায় ৩০০ মিলিয়ন গনগোষ্ঠী বাংলা ভাষায় কথা বলে। এছাড়াও তিনি টেকসই উন্নয়ন ও অন্তর্ভূক্তিমূলক সমাজ নিশ্চিতকরণে মাতৃভাষার জ্ঞান আরোপের প্রতি গুরুত্ব আরোপ করেন।

রে হুয়ান কার্লোস বিশ্ববিদ্যালয়েরআইন বিভাগের প্রখ্যাত অধ্যাপক কার্লোস ইউরিটে সানচেজ সেমিনারে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের গুরুত্বের উপর মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন। বহুমাত্রিক ভাষাকে বিশ্ব সংস্কৃতির ঐতিহ্য হিসেবে উল্লেখ করে তিনি ঝুঁকিপূর্ণ ভাষাসমূহ সংরক্ষণের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে আরো গবেষণার দরকার বলে মনে করেন। এছাড়াও সেমিনারে দর্শন বিভাগের অধ্যাপক রেনা গাফারোভা ও আইন বিভাগের অধ্যাপক খাভিয়ার পোরাস বেলারা বক্তব্য রাখেন। সেমিনারে ভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধুর বলিষ্ঠ নেতৃত্বের উপর নির্মিত একটি প্রামান্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়। রাষ্ট্রদূত, আমন্ত্রিত অধ্যাপকগণ ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ অস্থায়ীভাবে স্থাপিত শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পনের মাধ্যমে ভাষা শহিদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করেন।

সেমিনারে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক, বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী, থিংকট্যাঙ্ক, কুটনৈতিক কোরের সদস্যবৃন্দ, প্রেস ও মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ, প্রবাসী বাংলাদেশ কম্যুনিটির সদস্যবৃন্দ ও দূতাবাসের সকল সদস্য উপস্থিত ছিলেন। সেমিনারে আগত প্রায় ১৫০ জন অতিথিকে দুপুরের খাবারে আপ্যায়ন করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

স্পেনের হুয়ান কার্লোস ইউনিভার্সিটিতে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন

আপডেট সময় : ১০:৩৫:৪৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ দূতাবাস মাদ্রিদ ও হুয়ান কার্লোস ইউনিভার্সিটি গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ বিশ্ববিদ্যালয়ের মিলনায়তনে যৌথভাবে একটি সেমিনার আয়োজন করে।

সেমিনারে রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারওয়ার মাহমুদ, এনডিসি স্বাগত বক্তব্যে ভাষা আন্দোলনে জাতির পিতার গৌরবময় নেতৃত্বের উপর আলোকপাত করেন। তিনি তার বক্তব্যে বিশ্বে বিলুপ্তির ঝুঁকিতে থাকা ভাষাসমূহ সংরক্ষণে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিদেরকে আরো বেশী কার্যকর ভ‚মিকা রাখার আহবান জানান। । তিনি উল্লেখ করেন যে, পৃথিবীর  শতকরা ৪০ ভাগ মানুষের নিজের মাতৃভাষায় শিক্ষা অর্জনের সুযোগ নেই। পৃথিবীর কোন কোন অঞ্চলে এই সংখ্যা আরো অধিক। তিনি আরো বলেন যে, প্রায় ৩০০ মিলিয়ন গনগোষ্ঠী বাংলা ভাষায় কথা বলে। এছাড়াও তিনি টেকসই উন্নয়ন ও অন্তর্ভূক্তিমূলক সমাজ নিশ্চিতকরণে মাতৃভাষার জ্ঞান আরোপের প্রতি গুরুত্ব আরোপ করেন।

রে হুয়ান কার্লোস বিশ্ববিদ্যালয়েরআইন বিভাগের প্রখ্যাত অধ্যাপক কার্লোস ইউরিটে সানচেজ সেমিনারে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের গুরুত্বের উপর মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন। বহুমাত্রিক ভাষাকে বিশ্ব সংস্কৃতির ঐতিহ্য হিসেবে উল্লেখ করে তিনি ঝুঁকিপূর্ণ ভাষাসমূহ সংরক্ষণের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে আরো গবেষণার দরকার বলে মনে করেন। এছাড়াও সেমিনারে দর্শন বিভাগের অধ্যাপক রেনা গাফারোভা ও আইন বিভাগের অধ্যাপক খাভিয়ার পোরাস বেলারা বক্তব্য রাখেন। সেমিনারে ভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধুর বলিষ্ঠ নেতৃত্বের উপর নির্মিত একটি প্রামান্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়। রাষ্ট্রদূত, আমন্ত্রিত অধ্যাপকগণ ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ অস্থায়ীভাবে স্থাপিত শহিদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পনের মাধ্যমে ভাষা শহিদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করেন।

সেমিনারে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক, বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী, থিংকট্যাঙ্ক, কুটনৈতিক কোরের সদস্যবৃন্দ, প্রেস ও মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ, প্রবাসী বাংলাদেশ কম্যুনিটির সদস্যবৃন্দ ও দূতাবাসের সকল সদস্য উপস্থিত ছিলেন। সেমিনারে আগত প্রায় ১৫০ জন অতিথিকে দুপুরের খাবারে আপ্যায়ন করা হয়।