ঢাকা ০৮:৩৭ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
স্পেনে ঐতিহাসিক মুজিব নগর দিবস উদযাপন মহিলা সমিতি বার্সেলোনার পহেলা বৈশাখ উদযাপন বাংলাদেশ কোলতোরাল এসোসিয়েশন এন কাতালোনিয়ার ৯ সদস্য বিশিষ্ট সমন্বয় কমিটি গঠন টেনেরিফে ঈদুল ফিতর উদযাপন ও ঈদ পূর্ণমিলনী অনুষ্ঠিত শান্তাকলমায় শরীয়তপুর জেলা সমিতির ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত নোয়াখালী এসোসিয়েশনের ইফতার মাহফিল সম্পন্ন বার্সেলোনায় গোলাপগঞ্জ অ্যাসোসিয়েশনের ইফতার সম্পন্ন বিয়ানীবাজার পৌরসভা ওয়েলফেয়ার ট্রাষ্ট বার্সেলোনার ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত বার্সেলোনায় বিয়ানীবাজার ইয়াং স্টারের ইফতার সম্পন্ন বার্সেলোনা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে তাফসীরুল কুরআন ও ইফতার মাহফিল অনুষ্টিত

সাংবাদিককে ইসরাইলি বাহিনীর আটকের পর মুক্তি

জনপ্রিয় অনলাইন
  • আপডেট সময় : ০৯:২৯:৩৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৬ জুন ২০২১ ৬২২ বার পড়া হয়েছে

ফিলিস্তিন, জেরুসালেম, ইসরাইল, সাংবাদিক, সংবাদমাধ্যম, আলজাজিরা, Palestine, Jerusalem, Israel, Journalist, Al Jazeera, www.dailynayadiganta.com

অধিকৃত পূর্ব জেরুসালেমের শেখ জাররাহ মহল্লায় পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার আরবি বিভাগের সংবাদদাতা জিভারা আল-বুদাইরিকে আটক করেছে ইসরাইলি পুলিশ। শনিবার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যমটির জেরুসালেম প্রতিনিধি এই
সাংবাদিককে আটক করা হয়।
পরে শনিবার রাতে জিভারা আল-বুদাইরিকে মুক্তি দেয়া হয়। মুক্তির পর আল-বুদাইরি বলেন, ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ তাকে ১৫ দিন শেখ জাররাহ মহল্লায় না যাওয়ার শর্তে মুক্তি দিয়েছে।
শনিবার জিভারা আল-বুদাইরি শেখ জাররাহ মহল্লায় ১৯৬৭ সালে ইসরাইলের পুরো ফিলিস্তিন ভূখণ্ড দখলের স্মরণে ৫৪তম নাকাসা দিবস উপলক্ষে এক বিক্ষোভ সমাবেশের সংবাদ সংগ্রহে গিয়েছিলেন। ইসরাইলি পুলিশের সাথে ধস্তাধস্তিতে তার সহকর্মী ক্যামেরাম্যান নাবিল মাজায়ীর ক্যামেরা ভেঙ্গে যায়।
আল-বুদাইরি বলেন, ‘চারদিক থেকে তারা ঘিরে ধরে। কি কারণে জানি না তারা আমাকে দেয়ালের সাথে ধাক্কাতে থাকে।’
তিনি বলেন, ‘গাড়ির ভেতরেও তারা আমাকে ভয়াবহভাবে ধাক্কাতে থাকে… তারা আমাকে সবদিক থেকেই ধাক্কাতে থাকে।’
জিভারা আল-বুদাইরি ২০০০ সাল থেকে আলজাজিরায় কাজ করছেন। আটকের সময় তিনি ‘প্রেস’ চিহ্নিত জ্যাকেট পরেছিলেন এবং ইসরাইলি সরকারের প্রেস অফিসের সরবরাহ করা আইডি কার্ড তার সাথে ছিল।
আল-বুদাইরি বলেন, তা সত্ত্বেও পুলিশ স্টেশনে তার সাথে ‘অপরাধীর’ মতো ব্যবহার করা হয়। তাকে তার ভারী জ্যাকেট খুলতে বা চোখ বন্ধ করতেও বাধা দেয়া হয়।
তিনি জানান, পুলিশ তার বিরদ্ধে এক নারী সৈন্যকে ধাক্কা দেয়ার অভিযোগ আনে। তবে তিনি তা অস্বীকার করেন।
সাম্প্রতিক সময়ে ফিলিস্তিন ভূখণ্ডে দায়িত্ব পালনকারী সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ইসরাইলি পুলিশ ও সামরিক বাহিনী আক্রমণ চালিয়ে আসছে। রিপোর্টার্স উইদআউট বর্ডারসের তথ্য অনুসারে, সাম্প্রতিক কয়েক সপ্তাহে অন্তত ১৪ জন সাংবাদিককে ইসরাইলি বাহিনী আটক করে।
গত সপ্তাহে শেখ জাররাহ মহল্লায় দায়িত্ব পালনকালে স্থানীয় সাংবাদিক জিনা হালাওয়ানি ও তার ক্যামেরাম্যান ওয়াহাব মাক্কিয়েকে আটক করা হয়। পরে ৩০ দিনের গৃহবন্দীত্বের আদেশ দিয়ে তাদের জামিন দেয়া হয়।
এর আগে অবরুদ্ধ ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড গাজায় ইসরাইলের সাম্প্রতিক আগ্রাসন চলাকালীন ১৫ মে সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা ও বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েট প্রেস (এপি) সহ আরো কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের অফিস থাকা গাজার মিডিয়া ভবন হিসেবে পরিচিত ‘আল-জালা টাওয়ার’ বোমা বর্ষণে ধ্বংস করে ইসরাইলি বিমান। এছাড়া ইসরাইলি হামলায় স্থানীয় বেশ কয়েক জন সাংবাদিক আহতও হয়েছেন।
গত ২৫ এপ্রিল ইসরাইলি আদালতে জেরুসালেমের শেখ জাররাহ মহল্লা থেকে ছয় ফিলিস্তিনি পরিবারকে উচ্ছেদ করে ইহুদি বসতি স্থাপনের জন্য আদেশ দেয়া হয়। এই আদেশের জেরে পুরো ফিলিস্তিন ভূখণ্ডে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। বিক্ষোভের ধারাবাহিকতায় ইসরাইলি বাহিনী মসজিদুল আকসায় মুসল্লিদের ওপর হামলা করে এবং অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় আগ্রাসন চালায়। ১০ মে থেকে ২১ মে পর্যন্ত গাজায় টানা ১১ দিনের আগ্রাসনে মোট ২৫৪ জন নিহত হন। অপরদিকে অধিকৃত পশ্চিম তীরে ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের ওপর ইসরাইলি বাহিনীর হামলায় ২৫ জনের বেশি নিহত হয়েছেন।
ফিলিস্তিনিদের বিক্ষোভের জেরে শেখ জাররাহ মহল্লা থেকে উচ্ছেদের আদেশ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে। অপরদিকে ফিলিস্তিনিরা এই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল আবেদন করেছেন।
সূত্র : আলজাজিরা

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

সাংবাদিককে ইসরাইলি বাহিনীর আটকের পর মুক্তি

আপডেট সময় : ০৯:২৯:৩৭ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৬ জুন ২০২১

অধিকৃত পূর্ব জেরুসালেমের শেখ জাররাহ মহল্লায় পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার আরবি বিভাগের সংবাদদাতা জিভারা আল-বুদাইরিকে আটক করেছে ইসরাইলি পুলিশ। শনিবার কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যমটির জেরুসালেম প্রতিনিধি এই
সাংবাদিককে আটক করা হয়।
পরে শনিবার রাতে জিভারা আল-বুদাইরিকে মুক্তি দেয়া হয়। মুক্তির পর আল-বুদাইরি বলেন, ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ তাকে ১৫ দিন শেখ জাররাহ মহল্লায় না যাওয়ার শর্তে মুক্তি দিয়েছে।
শনিবার জিভারা আল-বুদাইরি শেখ জাররাহ মহল্লায় ১৯৬৭ সালে ইসরাইলের পুরো ফিলিস্তিন ভূখণ্ড দখলের স্মরণে ৫৪তম নাকাসা দিবস উপলক্ষে এক বিক্ষোভ সমাবেশের সংবাদ সংগ্রহে গিয়েছিলেন। ইসরাইলি পুলিশের সাথে ধস্তাধস্তিতে তার সহকর্মী ক্যামেরাম্যান নাবিল মাজায়ীর ক্যামেরা ভেঙ্গে যায়।
আল-বুদাইরি বলেন, ‘চারদিক থেকে তারা ঘিরে ধরে। কি কারণে জানি না তারা আমাকে দেয়ালের সাথে ধাক্কাতে থাকে।’
তিনি বলেন, ‘গাড়ির ভেতরেও তারা আমাকে ভয়াবহভাবে ধাক্কাতে থাকে… তারা আমাকে সবদিক থেকেই ধাক্কাতে থাকে।’
জিভারা আল-বুদাইরি ২০০০ সাল থেকে আলজাজিরায় কাজ করছেন। আটকের সময় তিনি ‘প্রেস’ চিহ্নিত জ্যাকেট পরেছিলেন এবং ইসরাইলি সরকারের প্রেস অফিসের সরবরাহ করা আইডি কার্ড তার সাথে ছিল।
আল-বুদাইরি বলেন, তা সত্ত্বেও পুলিশ স্টেশনে তার সাথে ‘অপরাধীর’ মতো ব্যবহার করা হয়। তাকে তার ভারী জ্যাকেট খুলতে বা চোখ বন্ধ করতেও বাধা দেয়া হয়।
তিনি জানান, পুলিশ তার বিরদ্ধে এক নারী সৈন্যকে ধাক্কা দেয়ার অভিযোগ আনে। তবে তিনি তা অস্বীকার করেন।
সাম্প্রতিক সময়ে ফিলিস্তিন ভূখণ্ডে দায়িত্ব পালনকারী সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ইসরাইলি পুলিশ ও সামরিক বাহিনী আক্রমণ চালিয়ে আসছে। রিপোর্টার্স উইদআউট বর্ডারসের তথ্য অনুসারে, সাম্প্রতিক কয়েক সপ্তাহে অন্তত ১৪ জন সাংবাদিককে ইসরাইলি বাহিনী আটক করে।
গত সপ্তাহে শেখ জাররাহ মহল্লায় দায়িত্ব পালনকালে স্থানীয় সাংবাদিক জিনা হালাওয়ানি ও তার ক্যামেরাম্যান ওয়াহাব মাক্কিয়েকে আটক করা হয়। পরে ৩০ দিনের গৃহবন্দীত্বের আদেশ দিয়ে তাদের জামিন দেয়া হয়।
এর আগে অবরুদ্ধ ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড গাজায় ইসরাইলের সাম্প্রতিক আগ্রাসন চলাকালীন ১৫ মে সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা ও বার্তা সংস্থা অ্যাসোসিয়েট প্রেস (এপি) সহ আরো কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের অফিস থাকা গাজার মিডিয়া ভবন হিসেবে পরিচিত ‘আল-জালা টাওয়ার’ বোমা বর্ষণে ধ্বংস করে ইসরাইলি বিমান। এছাড়া ইসরাইলি হামলায় স্থানীয় বেশ কয়েক জন সাংবাদিক আহতও হয়েছেন।
গত ২৫ এপ্রিল ইসরাইলি আদালতে জেরুসালেমের শেখ জাররাহ মহল্লা থেকে ছয় ফিলিস্তিনি পরিবারকে উচ্ছেদ করে ইহুদি বসতি স্থাপনের জন্য আদেশ দেয়া হয়। এই আদেশের জেরে পুরো ফিলিস্তিন ভূখণ্ডে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। বিক্ষোভের ধারাবাহিকতায় ইসরাইলি বাহিনী মসজিদুল আকসায় মুসল্লিদের ওপর হামলা করে এবং অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় আগ্রাসন চালায়। ১০ মে থেকে ২১ মে পর্যন্ত গাজায় টানা ১১ দিনের আগ্রাসনে মোট ২৫৪ জন নিহত হন। অপরদিকে অধিকৃত পশ্চিম তীরে ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের ওপর ইসরাইলি বাহিনীর হামলায় ২৫ জনের বেশি নিহত হয়েছেন।
ফিলিস্তিনিদের বিক্ষোভের জেরে শেখ জাররাহ মহল্লা থেকে উচ্ছেদের আদেশ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে। অপরদিকে ফিলিস্তিনিরা এই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল আবেদন করেছেন।
সূত্র : আলজাজিরা