ঢাকা ০৯:০৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
স্পেনে ঐতিহাসিক মুজিব নগর দিবস উদযাপন মহিলা সমিতি বার্সেলোনার পহেলা বৈশাখ উদযাপন বাংলাদেশ কোলতোরাল এসোসিয়েশন এন কাতালোনিয়ার ৯ সদস্য বিশিষ্ট সমন্বয় কমিটি গঠন টেনেরিফে ঈদুল ফিতর উদযাপন ও ঈদ পূর্ণমিলনী অনুষ্ঠিত শান্তাকলমায় শরীয়তপুর জেলা সমিতির ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত নোয়াখালী এসোসিয়েশনের ইফতার মাহফিল সম্পন্ন বার্সেলোনায় গোলাপগঞ্জ অ্যাসোসিয়েশনের ইফতার সম্পন্ন বিয়ানীবাজার পৌরসভা ওয়েলফেয়ার ট্রাষ্ট বার্সেলোনার ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত বার্সেলোনায় বিয়ানীবাজার ইয়াং স্টারের ইফতার সম্পন্ন বার্সেলোনা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে তাফসীরুল কুরআন ও ইফতার মাহফিল অনুষ্টিত

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলা, নিহত ৩ আহত ১১

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:২৮:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ জুন ২০২২ ২৫৮ বার পড়া হয়েছে

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলা থামার কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। এবার দেশটির উত্তরপূর্বাঞ্চীলয় অঙ্গরাজ্য পেনসিলভেনিয়ার বৃহত্তম শহর ফিলাডেলফিয়ায় বন্দুক হামলা হয়েছে।

ফিলাডেলফিয়া পুলিশের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে বার্তাসংস্থা এএফপি জানিয়েছে শনিবার রাতে নগরের সাউথ স্ট্রিট এলাকায় হামলা চালিয়েছে একাধিক বন্দুকধারী। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন দুই জন পুরুষ ও একজন নারী, আহত হন আরও ২৪ জন।

সাউথ স্ট্রিট এলাকাটি শহরের জনপ্রিয় বিনোদন পার্কগুলোর একটি। ফিলাডেলফিয়া পুলিশের পরিদর্শক ও মুখপাত্র ডি. এফ. পেস এএফপিকে বলেন, ‘গ্রীষ্মকালে উইকএন্ডের দিনগুলোতে সাউথ স্ট্রিট এলাকায় জনসমাগম বেশি হয়। মতো শনিবার রাতেও সেখানে শত শত মানুষ উপস্থিত ছিলেন। এ সময় হঠাৎ কয়েকজন বন্দুকধারী সেখানে উপস্থিত হয়ে এলোপাথারি গুলি চালাতে শুরু করে।’

‘সেখানে উপস্থিত পুলিশ কর্মকর্তারা তাৎক্ষনিকভাবে তৎপর হয় এবং তারাও হামলাকারীদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে থাকে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দুর্বৃত্তরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়।’

হামলায় সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে দুটি সেমি অটোমেটিক পিস্তল ও একটি খালি ম্যাগাজিন উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডি. এফ. পেস।

 

তিনি আরও জানান, পুলিশ ইতোমধ্যে হামলার তদন্ত শুরু করেছে। হামলার ঘটনাস্থলের ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহের চেষ্টা চলছে। তবে এখনও প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে তদন্ত।

‘হামলাকারীকে শনাক্ত করার মতো পর্যাপ্ত তথ্য এখনও আমাদের হাতে নেই। এ ঘটনাকে ঘিরে প্রচুর প্রশ্ন রয়েছে আমাদের, যেসবের উত্তর আমরা এখনও পাইনি।’

উন্নত বিশ্বের যে কোনো দেশের তুলনায় যুক্তরাষ্ট্রে আগ্নেয়াস্ত্র অনেক সহজলভ্য। এ কারণে দেশটিতে বন্দুক হামলার ঘটনাও অন্য যে কোনো দেশের চেয়ে বেশি।

গত সপ্তাহেই যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের একটি স্কুলে প্রাণঘাতী বন্দুক হামলায় ১৯ শিশুসহ অন্তত ২১ জন নিহত হয়েছে। এছাড়া গত কয়েকদিনে হামলা হয়েছে  নিউ ইয়র্কের বাফেলো, ওকলাহোমার তুলসা শহর ও ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যে।

সাউথ স্ট্রিটে হামলার সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত প্রত্যক্ষদর্শী জো স্মিথ (২৩) এএফপিকে বলেন, ‘যখন প্রথম গুলির শব্দ শুনলাম, আমার ভয় হচ্ছিল যে এটি আর থামবে না।’

‘চারদিক থেকে শুধু আতঙ্কিত আর্তনাদ শোনা যাচ্ছিল। এখনও আমার কানে বাজছে সেসব।’

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলা, নিহত ৩ আহত ১১

আপডেট সময় : ০৭:২৮:১৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ জুন ২০২২

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলা থামার কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। এবার দেশটির উত্তরপূর্বাঞ্চীলয় অঙ্গরাজ্য পেনসিলভেনিয়ার বৃহত্তম শহর ফিলাডেলফিয়ায় বন্দুক হামলা হয়েছে।

ফিলাডেলফিয়া পুলিশের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে বার্তাসংস্থা এএফপি জানিয়েছে শনিবার রাতে নগরের সাউথ স্ট্রিট এলাকায় হামলা চালিয়েছে একাধিক বন্দুকধারী। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন দুই জন পুরুষ ও একজন নারী, আহত হন আরও ২৪ জন।

সাউথ স্ট্রিট এলাকাটি শহরের জনপ্রিয় বিনোদন পার্কগুলোর একটি। ফিলাডেলফিয়া পুলিশের পরিদর্শক ও মুখপাত্র ডি. এফ. পেস এএফপিকে বলেন, ‘গ্রীষ্মকালে উইকএন্ডের দিনগুলোতে সাউথ স্ট্রিট এলাকায় জনসমাগম বেশি হয়। মতো শনিবার রাতেও সেখানে শত শত মানুষ উপস্থিত ছিলেন। এ সময় হঠাৎ কয়েকজন বন্দুকধারী সেখানে উপস্থিত হয়ে এলোপাথারি গুলি চালাতে শুরু করে।’

‘সেখানে উপস্থিত পুলিশ কর্মকর্তারা তাৎক্ষনিকভাবে তৎপর হয় এবং তারাও হামলাকারীদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে থাকে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দুর্বৃত্তরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়।’

হামলায় সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে দুটি সেমি অটোমেটিক পিস্তল ও একটি খালি ম্যাগাজিন উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডি. এফ. পেস।

 

তিনি আরও জানান, পুলিশ ইতোমধ্যে হামলার তদন্ত শুরু করেছে। হামলার ঘটনাস্থলের ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহের চেষ্টা চলছে। তবে এখনও প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে তদন্ত।

‘হামলাকারীকে শনাক্ত করার মতো পর্যাপ্ত তথ্য এখনও আমাদের হাতে নেই। এ ঘটনাকে ঘিরে প্রচুর প্রশ্ন রয়েছে আমাদের, যেসবের উত্তর আমরা এখনও পাইনি।’

উন্নত বিশ্বের যে কোনো দেশের তুলনায় যুক্তরাষ্ট্রে আগ্নেয়াস্ত্র অনেক সহজলভ্য। এ কারণে দেশটিতে বন্দুক হামলার ঘটনাও অন্য যে কোনো দেশের চেয়ে বেশি।

গত সপ্তাহেই যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের একটি স্কুলে প্রাণঘাতী বন্দুক হামলায় ১৯ শিশুসহ অন্তত ২১ জন নিহত হয়েছে। এছাড়া গত কয়েকদিনে হামলা হয়েছে  নিউ ইয়র্কের বাফেলো, ওকলাহোমার তুলসা শহর ও ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যে।

সাউথ স্ট্রিটে হামলার সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত প্রত্যক্ষদর্শী জো স্মিথ (২৩) এএফপিকে বলেন, ‘যখন প্রথম গুলির শব্দ শুনলাম, আমার ভয় হচ্ছিল যে এটি আর থামবে না।’

‘চারদিক থেকে শুধু আতঙ্কিত আর্তনাদ শোনা যাচ্ছিল। এখনও আমার কানে বাজছে সেসব।’