ঢাকা ০১:৩২ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

ডেনমার্ক কোরআন পোড়ানো ঠেকাতে আইন করছে

জনপ্রিয় অনলাইন
  • আপডেট সময় : ০৮:০১:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ অগাস্ট ২০২৩ ২৯৫ বার পড়া হয়েছে

ডেনমার্কে প্রকাশ্যে কোরআন পোড়ানো নিয়ে মুসলিম দেশগুলোতে প্রতিবাদ-বিক্ষোভে উত্তেজনা দেখা দেওয়ার পর এমন উদ্যোগ নিয়েছে ড্যানিশ সরকার।

কোরআন পোড়ানো ঠেকাতে একটি আইন প্রস্তাব করতে চলেছে ডেনমার্ক সরকার। এমন আইন হলে প্রকাশ্যে কোরআন পোড়ানো অবৈধ হয়ে যাবে দেশটিতে।

ডেনমার্কে প্রকাশ্যে কোরআন পোড়ানো নিয়ে মুসলিম দেশগুলোতে প্রতিবাদ-বিক্ষোভে উত্তেজনা দেখা দেওয়ার পর এমন উদ্যোগ নিয়েছে ড্যানিশ সরকার।

সম্প্রতি কয়েক সপ্তাহে ডেনমার্ক ও সুইডেনে পবিত্র কোরআনের অনুলিপি পোড়ানোর ঘটনায় মুসলিম বিশ্বে ক্ষোভ সৃষ্টি হওয়ার পর বাক্‌স্বাধীনতার নামে এ দুই দেশে ইসলামের বিরুদ্ধে এমন বিদ্বেষমূলক আচরণ বন্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি ওঠে।

গত সপ্তাহে এক বিবৃতিতে ডেনমার্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছিলেন, ধর্মগ্রন্থ জ্বালিয়ে দেওয়া আপত্তিকর ও বেপরোয়া কাজ। যারা এমন কাজ করেছেন, তারা ড্যানিশ সমাজ বা মূল্যবোধের প্রতিনিধিত্ব করেন না।

এবার কোরআন পোড়ানো ঠেকাতে আইন প্রস্তাবের কথা জানিয়ে শুক্রবার ডেনমার্কের আইনমন্ত্রী পিটার হামেলগার্ড বলেছেন, “সরকার একটি আইন প্রস্তাব করবে, যা একটি ধর্মীয় সম্প্রদায়ের পবিত্র গ্রন্থের প্রতি যথার্থ নয় এমন আচরণ নিষিদ্ধ করবে।”

 

“এভাবে প্রস্তাবিত আইনটি প্রকাশ্যে কোরআন, বাইবেল কিংবা তোরাহ পোড়ানোর ক্ষেত্রে শাস্তির বিধান হবে।”

 

নতুন আইনটি ডেনমার্কের দণ্ডবিধির ১২ অধ্যায়ে অন্তর্ভুক্ত হবে এবং এটি জাতীয় নিরাপত্তা রক্ষার পাশাপাশি তা আরও শক্তিশালী করবে বলেও উল্লেখ করেন পিটার। তিনি বলেন, নতুন আইন ভঙ্গের শাস্তি হবে জরিমানা বা দুই বছরের কারাদণ্ড।

 

তবে আইনটি করার জন্য আনা বিলে পার্লামেন্টে কখন ভোটাভুটি হবে সে ব্যাপারে তিনি কিছু বলেননি।

 

ডেনমার্কের কয়েকটি বিরোধীদল কোরআন পোড়ানো নিষিদ্ধ করাকে বাকস্বাধীনতার টুঁটি চেপে ধরা বলে অভিযোগ করে এর প্রতিবাদ জানিয়েছে।

 

তবে ডেনমার্কের আইনমন্ত্রী পিটার এ বিরোধিতা প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, কোনও কিছু পুড়িয়ে কারও মতপ্রকাশ করার চাইতে আরও নানা সভ্য পন্থায়ও মত প্রকাশ করা যেতে পারে বলেই মূলত বিশ্বাস করেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

ডেনমার্ক কোরআন পোড়ানো ঠেকাতে আইন করছে

আপডেট সময় : ০৮:০১:৫৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ অগাস্ট ২০২৩

ডেনমার্কে প্রকাশ্যে কোরআন পোড়ানো নিয়ে মুসলিম দেশগুলোতে প্রতিবাদ-বিক্ষোভে উত্তেজনা দেখা দেওয়ার পর এমন উদ্যোগ নিয়েছে ড্যানিশ সরকার।

কোরআন পোড়ানো ঠেকাতে একটি আইন প্রস্তাব করতে চলেছে ডেনমার্ক সরকার। এমন আইন হলে প্রকাশ্যে কোরআন পোড়ানো অবৈধ হয়ে যাবে দেশটিতে।

ডেনমার্কে প্রকাশ্যে কোরআন পোড়ানো নিয়ে মুসলিম দেশগুলোতে প্রতিবাদ-বিক্ষোভে উত্তেজনা দেখা দেওয়ার পর এমন উদ্যোগ নিয়েছে ড্যানিশ সরকার।

সম্প্রতি কয়েক সপ্তাহে ডেনমার্ক ও সুইডেনে পবিত্র কোরআনের অনুলিপি পোড়ানোর ঘটনায় মুসলিম বিশ্বে ক্ষোভ সৃষ্টি হওয়ার পর বাক্‌স্বাধীনতার নামে এ দুই দেশে ইসলামের বিরুদ্ধে এমন বিদ্বেষমূলক আচরণ বন্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি ওঠে।

গত সপ্তাহে এক বিবৃতিতে ডেনমার্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছিলেন, ধর্মগ্রন্থ জ্বালিয়ে দেওয়া আপত্তিকর ও বেপরোয়া কাজ। যারা এমন কাজ করেছেন, তারা ড্যানিশ সমাজ বা মূল্যবোধের প্রতিনিধিত্ব করেন না।

এবার কোরআন পোড়ানো ঠেকাতে আইন প্রস্তাবের কথা জানিয়ে শুক্রবার ডেনমার্কের আইনমন্ত্রী পিটার হামেলগার্ড বলেছেন, “সরকার একটি আইন প্রস্তাব করবে, যা একটি ধর্মীয় সম্প্রদায়ের পবিত্র গ্রন্থের প্রতি যথার্থ নয় এমন আচরণ নিষিদ্ধ করবে।”

 

“এভাবে প্রস্তাবিত আইনটি প্রকাশ্যে কোরআন, বাইবেল কিংবা তোরাহ পোড়ানোর ক্ষেত্রে শাস্তির বিধান হবে।”

 

নতুন আইনটি ডেনমার্কের দণ্ডবিধির ১২ অধ্যায়ে অন্তর্ভুক্ত হবে এবং এটি জাতীয় নিরাপত্তা রক্ষার পাশাপাশি তা আরও শক্তিশালী করবে বলেও উল্লেখ করেন পিটার। তিনি বলেন, নতুন আইন ভঙ্গের শাস্তি হবে জরিমানা বা দুই বছরের কারাদণ্ড।

 

তবে আইনটি করার জন্য আনা বিলে পার্লামেন্টে কখন ভোটাভুটি হবে সে ব্যাপারে তিনি কিছু বলেননি।

 

ডেনমার্কের কয়েকটি বিরোধীদল কোরআন পোড়ানো নিষিদ্ধ করাকে বাকস্বাধীনতার টুঁটি চেপে ধরা বলে অভিযোগ করে এর প্রতিবাদ জানিয়েছে।

 

তবে ডেনমার্কের আইনমন্ত্রী পিটার এ বিরোধিতা প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, কোনও কিছু পুড়িয়ে কারও মতপ্রকাশ করার চাইতে আরও নানা সভ্য পন্থায়ও মত প্রকাশ করা যেতে পারে বলেই মূলত বিশ্বাস করেন তিনি।