ঢাকা ০২:১৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

প্রধানমন্ত্রী টিকা নিয়েছেন

জনপ্রিয় অনলাইন
  • আপডেট সময় : ০৬:২৭:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ মার্চ ২০২১ ৫৮১ বার পড়া হয়েছে

করোনাভাইরাসের টিকা নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আজ বিকেলে টিকা নিয়েছেন।’

এর আগে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি টিকা নেন প্রধানমন্ত্রীর ছোট বোন শেখ রেহানা। গত ২৭ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনার টিকা কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

গত ২২ জানুয়ারি ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট থেকে বাংলাদেশে টিকা আসে প্রথমবারের মতো। সেদিন ভারত সরকারের উপহারের ২০ হাজার টিকা পৌঁছে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। তিন দিন পর বাংলাদেশের কেনা ৫০ লাখ টিকা আসে।

সরকার শুরুতেই সিদ্ধান্ত নেয়, টিকা প্রথমে পাবে সম্মুখসারির যোদ্ধা অর্থাৎ স্বাস্থ্যকর্মীরা। সেই সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, সশস্ত্র বাহিনী, বীর মুক্তিযোদ্ধা, সরকারের অত্যাবশ্যকীয় কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, গণমাধ্যমকর্মী ও ৬০ বছরের বেশি বয়সীদেরকে রাখা হয় অগ্রাধিকার তালিকায়।

সুত্র, দৈনিক আমাদের সময় ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

প্রধানমন্ত্রী টিকা নিয়েছেন

আপডেট সময় : ০৬:২৭:০৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৪ মার্চ ২০২১

করোনাভাইরাসের টিকা নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আজ বিকেলে টিকা নিয়েছেন।’

এর আগে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি টিকা নেন প্রধানমন্ত্রীর ছোট বোন শেখ রেহানা। গত ২৭ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা করোনার টিকা কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

গত ২২ জানুয়ারি ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট থেকে বাংলাদেশে টিকা আসে প্রথমবারের মতো। সেদিন ভারত সরকারের উপহারের ২০ হাজার টিকা পৌঁছে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। তিন দিন পর বাংলাদেশের কেনা ৫০ লাখ টিকা আসে।

সরকার শুরুতেই সিদ্ধান্ত নেয়, টিকা প্রথমে পাবে সম্মুখসারির যোদ্ধা অর্থাৎ স্বাস্থ্যকর্মীরা। সেই সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, সশস্ত্র বাহিনী, বীর মুক্তিযোদ্ধা, সরকারের অত্যাবশ্যকীয় কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, গণমাধ্যমকর্মী ও ৬০ বছরের বেশি বয়সীদেরকে রাখা হয় অগ্রাধিকার তালিকায়।

সুত্র, দৈনিক আমাদের সময় ।