ঢাকা ০৭:১৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
স্পেনে ঐতিহাসিক মুজিব নগর দিবস উদযাপন মহিলা সমিতি বার্সেলোনার পহেলা বৈশাখ উদযাপন বাংলাদেশ কোলতোরাল এসোসিয়েশন এন কাতালোনিয়ার ৯ সদস্য বিশিষ্ট সমন্বয় কমিটি গঠন টেনেরিফে ঈদুল ফিতর উদযাপন ও ঈদ পূর্ণমিলনী অনুষ্ঠিত শান্তাকলমায় শরীয়তপুর জেলা সমিতির ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত নোয়াখালী এসোসিয়েশনের ইফতার মাহফিল সম্পন্ন বার্সেলোনায় গোলাপগঞ্জ অ্যাসোসিয়েশনের ইফতার সম্পন্ন বিয়ানীবাজার পৌরসভা ওয়েলফেয়ার ট্রাষ্ট বার্সেলোনার ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত বার্সেলোনায় বিয়ানীবাজার ইয়াং স্টারের ইফতার সম্পন্ন বার্সেলোনা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে তাফসীরুল কুরআন ও ইফতার মাহফিল অনুষ্টিত

খালেদা জিয়ার জ্বর আসেনি গত ২৪ ঘণ্টায়

জনপ্রিয় অনলাইন
  • আপডেট সময় : ১১:৫২:৫৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১ ৭৪৬ বার পড়া হয়েছে

করোনা আক্রান্ত বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গত ২৪ ঘণ্টা জ্বর ছিল না বলে জানিয়েছেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক দলের সদস্য ডা: এ জেড এম জাহিদ হোসেন।

সোমবার রাত পৌনে ১২টায় গুলশানে বেগম জিয়ার বাসভবন থেকে বেরিয়ে তিনি একথা জানান।

ডা: জাহিদ বলেন, ‘গতকাল আমাদের এই মেডিকেল টিমের একজন, সিদ্দিক বলেছিলেন যে আগামী ৪৮ ঘণ্টা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ আজকে ম্যাডামের ১২তম দিন শুরু হয়েছে। কাজেই এই যে ১২, ১৩ ও ১৪তম দিন এই টাইমটা হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ। করোনার জন্য সেকেন্ড সপ্তাহের লাস্ট ফেজে আমরা আছি।’

জাহিদ বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ আপনাদের সকলের অবগতির জন্য দেশবাসীকে জানাতে চাই গতকাল ভোর ছয়টা থেকে আজকে রাত পৌনে ১২টা পর্যন্ত সময়ের মধ্যে উনার (বেগম খালেদা জিয়া) কোনো ধরনের জ্বর আসেনি। এটা একটা ভালো দিক। এবং এটাকে আমরা একটি ইতিবাচক দিক হিসেবে গণনা করছি। তার সেশন আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছে। বিপি ডাক্তারি ভাষায় অত্যন্ত গ্রহণযোগ্য। উনার অন্যান্য উপসর্গ সেটিও বৃদ্ধি পায়নি অথবা নতুনভাবে হয় নাই। কাজেই এই অবস্থায় আপনারা বা আমরা সবাই বলতে পারি ম্যাডামের চিকিৎসা যেভাবে চলছে তাতে তিনি স্থিতিশীল পর্যায়ে আছেন।’

এ সময় এই চিকিৎসক আশা ব্যক্ত করে বলেন, ‘এভাবে যদি আগামী দুই দিন যায় ইনশাআল্লাহ আমরা আশা করতে পারি করোনা থেকে হয়তো ভালো একটা পর্যায়ে উনি যেতে পারবেন। এবং সে জন্য দেশবাসীর কাছে আপনাদের মাধ্যমে আমরা দোয়া চাই।’

জাহিদ হোসেন বলেন, ‘করোনা আক্রান্ত আমাদের তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার রুটিন চেকআপের জন্য আমি এবং মামুন আমরা দুজনে এসেছিলাম। যদিও সারাদিন আমাদের ভিজিলেন্স অর্থাৎ মনিটরিং টিম উনার স্যাচুরেশন দেখা, পালস দেখা, ব্লাড প্রেসার দেখেন। সারাদিনই কয়েক ঘণ্টা পরপর এগুলো পর্যবেক্ষণ করা হয়। এরপরও ফিজিক্যালি যে রুটিন পরীক্ষা তার জন্য আমরা আসছিলাম।’

এ সময় বেগম খালেদা জিয়ার আরেক চিকিৎসক ডা: মোহাম্মদ আল মামুন ও চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

খালেদা জিয়ার জ্বর আসেনি গত ২৪ ঘণ্টায়

আপডেট সময় : ১১:৫২:৫৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১

করোনা আক্রান্ত বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গত ২৪ ঘণ্টা জ্বর ছিল না বলে জানিয়েছেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক দলের সদস্য ডা: এ জেড এম জাহিদ হোসেন।

সোমবার রাত পৌনে ১২টায় গুলশানে বেগম জিয়ার বাসভবন থেকে বেরিয়ে তিনি একথা জানান।

ডা: জাহিদ বলেন, ‘গতকাল আমাদের এই মেডিকেল টিমের একজন, সিদ্দিক বলেছিলেন যে আগামী ৪৮ ঘণ্টা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ আজকে ম্যাডামের ১২তম দিন শুরু হয়েছে। কাজেই এই যে ১২, ১৩ ও ১৪তম দিন এই টাইমটা হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ। করোনার জন্য সেকেন্ড সপ্তাহের লাস্ট ফেজে আমরা আছি।’

জাহিদ বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ আপনাদের সকলের অবগতির জন্য দেশবাসীকে জানাতে চাই গতকাল ভোর ছয়টা থেকে আজকে রাত পৌনে ১২টা পর্যন্ত সময়ের মধ্যে উনার (বেগম খালেদা জিয়া) কোনো ধরনের জ্বর আসেনি। এটা একটা ভালো দিক। এবং এটাকে আমরা একটি ইতিবাচক দিক হিসেবে গণনা করছি। তার সেশন আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছে। বিপি ডাক্তারি ভাষায় অত্যন্ত গ্রহণযোগ্য। উনার অন্যান্য উপসর্গ সেটিও বৃদ্ধি পায়নি অথবা নতুনভাবে হয় নাই। কাজেই এই অবস্থায় আপনারা বা আমরা সবাই বলতে পারি ম্যাডামের চিকিৎসা যেভাবে চলছে তাতে তিনি স্থিতিশীল পর্যায়ে আছেন।’

এ সময় এই চিকিৎসক আশা ব্যক্ত করে বলেন, ‘এভাবে যদি আগামী দুই দিন যায় ইনশাআল্লাহ আমরা আশা করতে পারি করোনা থেকে হয়তো ভালো একটা পর্যায়ে উনি যেতে পারবেন। এবং সে জন্য দেশবাসীর কাছে আপনাদের মাধ্যমে আমরা দোয়া চাই।’

জাহিদ হোসেন বলেন, ‘করোনা আক্রান্ত আমাদের তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার রুটিন চেকআপের জন্য আমি এবং মামুন আমরা দুজনে এসেছিলাম। যদিও সারাদিন আমাদের ভিজিলেন্স অর্থাৎ মনিটরিং টিম উনার স্যাচুরেশন দেখা, পালস দেখা, ব্লাড প্রেসার দেখেন। সারাদিনই কয়েক ঘণ্টা পরপর এগুলো পর্যবেক্ষণ করা হয়। এরপরও ফিজিক্যালি যে রুটিন পরীক্ষা তার জন্য আমরা আসছিলাম।’

এ সময় বেগম খালেদা জিয়ার আরেক চিকিৎসক ডা: মোহাম্মদ আল মামুন ও চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান উপস্থিত ছিলেন।