বার্সেলোনা, স্পেন | শুক্রবার , ৭ মে ২০২১ | ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. #টপ৯
  2. #লিড
  3. অপরাধ
  4. অভিবাসন
  5. আইন-আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আফ্রিকা
  8. ইউরোপ
  9. ইসলাম ও ধর্ম
  10. এশিয়া
  11. কমিউনিটি
  12. ক্যাম্পাস
  13. খেলাধুলা
  14. গণমাধ্যম
  15. জাতীয়

কাতারের হুমকি পাত্তা না দিয়েই নেইমারের পেছনে ছুটবে বার্সা

প্রতিবেদক
jonoprio24
মে ৭, ২০২১ ৮:৫২ অপরাহ্ণ

নতুন দলবদল মৌসুম। নেইমারের পিএসজি ছেড়ে বার্সেলোনায় ফেরার নতুন গুঞ্জন। শেষ পর্যন্ত গুঞ্জন সত্যি হবে কি না, তা ভবিষ্যৎ বলবে, তবে আপাতত ‘নেইমার টু বার্সেলোনা’ নাটকে আরেকবার স্বাগতম।

মাঝে কিছুদিন নেইমারের পিএসজিতে চুক্তি নবায়ন করে আরও লম্বা সময় থেকে যাওয়ার কথা শোনা গিয়েছিল। নেইমার নিজেও সংবাদমাধ্যমে বলেছিলেন, তাঁর চুক্তি নবায়ন নিয়ে পিএসজির আর দুশ্চিন্তার কিছু নেই। কাতারে ২০২২ বিশ্বকাপ, সে পর্যন্ত নেইমারকে নিজেদের ‘পোস্টারবয়’ করে রাখবে কাতারি কোম্পানির মালিকানাধীন পিএসজি…এমন গুঞ্জনও শোনা যায় ইউরোপে।

কিন্তু হচ্ছে-হবে করেও গত তিন-চার মাসেও চুক্তিটা আর সই হয়নি। এর মধ্যে বার্সেলোনায় ঘটেছে অনেক বদল। কাতালান ক্লাবটাকে ঘিরে থাকা ধোঁয়াশার অনেকটা কেটে গেছে। এখন নতুন দলবদল মৌসুম ঘনিয়ে আসতে না আসতেই আবার শুরু হয়েছে বার্সেলোনায় লিওনেল মেসির সঙ্গে নেইমারের পুনর্মিলনীর গুঞ্জন।

ওদিকে এসবে আবার খেপেছে পিএসজি। বার্সেলোনাকে ঘিরে এসব গুঞ্জনে নেইমারের না আবার মন বদলে যায়, এই শঙ্কায়ই হয়তো পেয়ে বসেছে তাদের। আর তা এমনই যে যেনতেন কেউ নয়, পিএসজির চেয়ারম্যান নাসের আল-খেলাইফিই নাকি সরাসরি ফোন দিয়েছেন বার্সেলোনা সভাপতি হোয়ান লাপোর্তাকে—এমন জানাচ্ছে বার্সেলোনাভিত্তিক স্প্যানিশ পত্রিকা কাতালুনিয়া রাদিও। বার্সেলোনাকে নাকি তিনি হুঁশিয়ার করে দিয়েছেন, নেইমারকে শান্তিতে থাকতে দেওয়া হোক।

কিন্তু একই রেডিওর খবর, কাতারের আমিরের ঘনিষ্ঠজন আল-খেলাইফির হুমকি অগ্রাহ্য করেও নেইমারকে পাওয়ার চেষ্টা করে যাবে বার্সা।

 

পিএসজিকে গত দুই মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে একবার ফাইনালে আর একবার সেমিফাইনালে তুলেছেন নেইমার। ছবি : রয়টার্স

বার্সা, নেইমার—বলতে গেলে প্রতি দলবদল মৌসুমেরই চেনা চরিত্র। ২০১৭ সালের আগস্টে নেইমার বার্সা ছেড়ে পিএসজিতে যাওয়ার পর থেকেই প্রতি দলবদল মৌসুমে এই গুঞ্জন বাজার পেয়েছে। মাত্রাটা কমবেশি হয় একেক মৌসুমে, এই যা!

যদিও চ্যাম্পিয়নস লিগে গত দুই মৌসুমে পিএসজির পারফরম্যান্সের পর এবারের চিত্রপট একটু ভিন্ন। ইউরোপের ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে কুলীন টুর্নামেন্টটিতে কয়েক বছর ধরেই আরও পিছিয়েছে বার্সেলোনা, এবার পিএসজির হাতেই বাদ পড়েছে শেষ ষোলোতে। অন্যদিকে গত মৌসুমে নিজেদের ইতিহাসের প্রথম ফাইনাল খেলা পিএসজি এবার খেলেছে সেমিফাইনাল। এর সঙ্গে লিওনেল মেসির বার্সেলোনা ছাড়তে চাওয়া, বার্সেলোনার আর্থিকভাবে আরও দৈন্য হয়ে পড়া, মাঠে রক্ষণে-মাঝমাঠে দলটায় তারকার ঘাটতি মিলিয়ে ভাবা যাচ্ছিল, নেইমারের বার্সায় ফেরার গুঞ্জনের বুঝি সমাপ্তি ঘটেছে।

কিন্তু জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউর অন্ধকার যুগের অবসান আর হোয়ান লাপোর্তা সভাপতি হয়ে আসার পর গত কয়েক মাসে কাতালুনিয়ায় আশা ঘর বেঁধেছে। বার্তোমেউর সঙ্গে মেসির গুঞ্জন ছিল সর্বজনবিদিত গোপন ব্যাপার, তিতিবিরক্ত মেসি গত আগস্টে বার্সেলোনার সঙ্গে দুই দশকের সম্পর্ক ছিন্ন করে চলে যেতে চেয়েছিলেন। কিন্তু সেটা হয়নি। এখন বার্সায় সময় বদলেছে। বদলে যাওয়া সময়ে নেইমারও সঙ্গী হবেন বার্সার দিনবদলে?

কাতালুনিয়া রাদিও জানাচ্ছে, গত মার্চে দ্বিতীয়বার বার্সেলোনার সভাপতি নির্বাচিত হওয়া লাপোর্তা নেইমারকে নিজের আর্থিক, ক্রীড়া ও বিপণন—সব ধরনের প্রকল্পের কেন্দ্রীয় অংশ হিসেবেই দেখতে চান। বার্সেলোনার ব্যাংক হিসাবে টাকাপয়সার টানাটানি ঠিকই, কিন্তু ২০১৭ সালে বিশ্ব রেকর্ড ২২ কোটি ২০ লাখ ইউরোতে পিএসজিতে যাওয়া নেইমারকে নিতে এখন অনেক কম টাকা লাগবে, এমনটাই ভাবছেন লাপোর্তা।

 

ব্রাজিলিয়ান মহাতারকার বয়সও হয়ে গেছে ২৯, তা ছাড়া পিএসজিতে তাঁর বর্তমান চুক্তি শেষ হয়ে যাবে আগামী মৌসুমে…এসবও দাম কমাতে সাহায্য করবে—বার্সার চিন্তাভাবনা এমনই বলে জানাচ্ছে কাতালুনিয়া রাদিও। পাশাপাশি নেইমারও বার্সায় ফেরার ব্যাপারে ‘না’ করবেন না, বার্সার ধারণা এমনই। সব মিলিয়ে পিএসজি নেইমারকে যে দামে কিনেছে, তার অর্ধেকেরও কম দামে তাঁকে পাওয়া যাবে, এমনটাই ভাবছে বার্সার বোর্ড। কদিন আগেই স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমে খবর এসেছিল, নেইমারের জন্য ৬০ মিলিয়ন বা ৬ কোটি ইউরোর পাশাপাশি একজন খেলোয়াড়কে দেওয়ার প্রস্তাব করবে বার্সা।

কাতালুনিয়া রাদিওকে উদ্ধৃত করে স্প্যানিশ দৈনিক এএস লিখেছে, লাপোর্তা আরেকটি কারণে নেইমারকে ফেরাতে চান। মেসির সঙ্গে তাঁর পুনর্মিলনীর সম্ভাবনা বাড়লে মেসিকে বার্সেলোনায় চুক্তি নবায়নে আরও প্রলুব্ধ করা যাবে! মেসিরও বার্সেলোনায় চুক্তি শেষ এই মৌসুমের শেষে, আগামী জুনে ৩৪-এ পা দিতে যাওয়া আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড এখনো চুক্তি নবায়ন করেননি। অপেক্ষায় আছেন, লাপোর্তা বার্সেলোনাকে আবার ইউরোপে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার মতো দল হিসেবে গড়ে তুলতে কী ‘স্পোর্টিং প্রজেক্ট’ বা ক্রীড়া প্রকল্প হাতে নেন, সেটি দেখার।

মেসি যে নেইমারকে বার্সায় চান, তা তো সবারই জানা। দুই মৌসুম আগে মেসি নিজেই নেইমারকে বার্সায় ফেরার অনুরোধ জানিয়ে ফোন করেছিলেন বলে খবর এসেছিল ইউরোপিয়ান সংবাদমাধ্যমে। নেইমারকে ফেরানোর সর্বোচ্চ চেষ্টা বার্তোমেউ করেননি বলে নিজের সন্দেহের কথাও জানিয়েছিলেন মেসি। এখন নেইমারকে যদি নিজের ক্রীড়া প্রকল্পের অংশ হিসেবে দেখাতে পারেন লাপোর্তা, তাহলে মেসির সে প্রকল্পে আগ্রহ বাড়বে, তা বলাই বাহুল্য। সব মিলিয়ে নেইমারকে ফেরানো বার্সার জন্য সব দিক থেকেই ‘উইন-উইন’ পরিস্থিতি।

 

এখানে বার্সেলোনার সঙ্গে পিএসজির নড়বড়ে সম্পর্কটা অবশ্য বড় বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে। দুই মৌসুম আগে নেইমারকে ফেরানোর খুব কাছে চলে এসেছিল বার্সা, কিন্তু পিএসজি বার্সাকে চরকির মতো ঘুরিয়েও শেষে আর বিক্রি করেনি। বার্তোমেউর অধীনে ইউরোপে অনেক ক্লাবের সঙ্গে খেলোয়াড়ের দলবদল কিংবা দলবদলের প্রক্রিয়া নিয়ে বেধেছিল, সবচেয়ে বেশি লেগেছিল সম্ভবত পিএসজির সঙ্গেই।

 

থিয়াগো সিলভা, মারকিনিওস, মার্কো ভেরাত্তি…পিএসজি থেকে গত এক দশকে অনেক খেলোয়াড়কেই পাওয়ার চেষ্টা করেছে বার্সা। তা করতেই পারে, কিন্তু পাওয়ার চেষ্টা করতে গিয়ে ক্লাবের আগে খেলোয়াড়ের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে বার্সা। দাম কমানোর জন্য উল্টো পথে ঘুরেছে বারবার। পিএসজি সেসবে না দমে সিলভা-ভেরাত্তিদের কাউকে তো ছাড়েইনি, উল্টো কড়া জবাব দিয়েছিল নেইমারকে বার্সার কাছ থেকে কেড়ে নিয়ে।

তখন থেকেই বার্সা-পিএসজির সম্পর্কটা সাপে-নেউলে। এর মধ্যে গত মাস ছয়-সাতেকে মেসিকে পাওয়ার ব্যাপারে বার্সার সঙ্গে ‘বার্সা’র মতোই আচরণ করেছে পিএসজি। খোলাখুলিই বেশ কয়েকবার জানিয়ে দিয়েছে, মেসিকে তারা চায়। সেটি নিয়ে লাপোর্তা আবার তাঁর নির্বাচনী প্রচারণার সময়ে পিএসজিকে ধুয়ে দিয়েছিলেন। সব মিলিয়ে বার্তোমেউ চলে গেলেও বার্সা-পিএসজির সম্পর্কে এখনো কিছুটা তেতো স্বাদ থেকেই গেছে।

নেইমারকে পাওয়া তাই বার্সার জন্য অনেক যদি-কিন্তুর ওপর নির্ভরশীল। গত ফেব্রুয়ারিতে ২৯-এ পা দেওয়া নেইমারও জানেন, বার্সায় ফিরতে হলে এবার কিংবা আগামী মৌসুমে পিএসজিতে তাঁর চুক্তি শেষ হলে বিনা মূল্যে তাঁকে ফিরতে হবে, এরপর বয়সের কারণে আর সম্ভব হবে না।

সে কারণেই কি পিএসজিতে চুক্তির নবায়নে এখনো স্বাক্ষরটা করছেন না নেইমার? বার্সার আগ্রহ কতটা জোরালো, তা দেখার অপেক্ষা করছেন? নাকি এটা আরেকবার বার্সা-নেইমারকে ঘিরে গুঞ্জন তৈরি করে ইউরোপের সংবাদমাধ্যমের বাজার গরম করে রাখার চেষ্টামাত্র?

সর্বশেষ - দেশজুড়ে

আপনার জন্য নির্বাচিত