বার্সেলোনা, স্পেন | শুক্রবার , ৩০ এপ্রিল ২০২১ | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. #টপ৯
  2. #লিড
  3. অপরাধ
  4. অভিবাসন
  5. আইন-আদালত
  6. আন্তর্জাতিক
  7. আফ্রিকা
  8. ইউরোপ
  9. ইসলাম ও ধর্ম
  10. এশিয়া
  11. কমিউনিটি
  12. ক্যাম্পাস
  13. খেলাধুলা
  14. গণমাধ্যম
  15. জাতীয়

আজ বদর যুদ্ধ জয় ও ‘আল্লাহর সিংহের’ প্রথম আত্মপ্রকাশের ১৪৪০তম বার্ষিকী

প্রতিবেদক
jonoprio24
এপ্রিল ৩০, ২০২১ ৫:০৪ অপরাহ্ণ

চন্দ্র বছরের হিসেবে ১৪৪০ বছর আগে (খ্রিস্টীয় ৬২৪ সনের) এই দিনে (১৭ ই রমজান) মক্কার মুশরিকরা মুসলমানদের সঙ্গে তাদের প্রথম সুসংগঠিত যুদ্ধে হেরে গিয়েছিল।

বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সা.) মদীনায় হিজরত করার পর তাঁর ওপর এ যুদ্ধ চাপিয়ে দিয়েছিল মক্কার কাফের কুরাইশরা।

এ যুদ্ধে মুসলিম মুজাহিদদের সংখ্যা ছিল মাত্র ৩১৩ জন। অন্যদিকে আগ্রাসী মুশরিক বাহিনীর সদস্য ছিল এক হাজারেরও বেশি। মহান আল্লাহর সহায়তায় ঐ যুদ্ধে মুজাহিদদের হাতে ৭০ জন কাফির বাহিনীর সদস্য নিহত হয়। এছাড়া  তাদের আরো ৭০ জন মুসলিম বাহিনীর হাতে বন্দি হয়।

অন্যদিকে মুসলিম বাহিনীর ১৪ জন শাহাদত বরণ করেন। মুসলমানদের পক্ষে এই যুদ্ধের প্রধান বীর ছিলেন আমিরুল মু’মিনিন হযরত আলী (আ.)। তিনি একাই ৩৬ জন কাফেরকে হত্যা করেছিলেন যাদের মধ্যে অনেকেই ছিল নেতৃস্থানীয় কাফের সর্দার ও তৎকালীন আরব বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় খ্যাতিমান যোদ্ধা। আলী (আ.) এই প্রথমবারের মত তরবারির যুদ্ধে তাঁর অসাধারণ নৈপুণ্য দেখানোর সুযোগ পান।

বহু বছর পরে মুয়াবিয়া হযরত আলী (আ.)’র খেলাফতের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করলে এক চিঠিতে আমিরুল মু’মিনিন তাকে সতর্ক করে দিয়ে লিখেছিলেন, “যে তরবারি দিয়ে আমি তোমার নানা (উতবা), তোমার মামা (ওয়ালিদ) ও ভাই হানজালার ওপর আঘাত হেনেছিলাম (তথা তাদের হত্যা করেছিলাম) সে তরবারি এখনও আমার কাছে আছে।”

শেরে খোদা বা ‘আল্লাহর সিংহ’ নামে খ্যাত হযরত আলী (আ.) ছিলেন বিশ্বনবী (সা.)’র চাচাতো ভাই, জামাতা ও তাঁর পবিত্র আহলে বাইতের শীর্ষ সদস্য। ইসলামের ইতিহাসের প্রাথমিক যুদ্ধগুলোর বেশিরভাগেরই জয়ের মূল স্থপতি ছিলেন এই মাসুম ইমাম ও খলিফা। তিনি ও বিশ্বনবী (সা.)’র স্ত্রী উম্মুল মু’মিনিন হযরত খাদিজা (সালামুল্লাহি আলাইহা) প্রায় একই সময়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণকারী হিসেবে ইসলামের ইতিহাসের সর্বপ্রথম মুসলমান। আলী (আ.)’র বয়স ছিল সে সময় মাত্র দশ বছর।

বলা হয়ে থাকে বিশ্বনবী (সা.)’র চারিত্রিক সুষমা ও মহানুভবতা, আলী (আ.)’র তরবারি এবং ইসলামের পথে খাদিজা (সা.আ.)’র অঢেল সম্পদ দান ছাড়া ইসলাম কখনও এতটা বিকশিত হতে পারত না।

বিশ্বনবী (সা.) হযরত আলী (আ.)-কে জুলফিকার নামের নিজের একটি তরবারি উপহার দিয়েছিলেন। এই তরবারির অগ্রভাগ ছিল দুই শাখা-বিশিষ্ট।

বাংলাদেশের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের সঙ্গীতে এসেছে:

“খায়বার জয়ী আলী হায়দার জাগো জাগে আরবার

দাও দুশমন-দুর্গ-বিদারী দ্বিধারী জুলফিকার জাগো জাগো আরবার।

সর্বশেষ - অভিবাসন

আপনার জন্য নির্বাচিত

আল জাজিরায় প্রচারিত তথ্যচিত্রটি সরানোর বিষয়ে যা বলল ফেসবুক

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি

কৃষি বাণিজ্যিকীকরণের সম্ভাবনা খতিয়ে দেখতে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশির স্পেনের আলমেরিয়া সফর

স্যান্ডবার্গের ফেসবুক থেকে পদত্যাগের ঘোষণা

‘ট্রাম্প ইহুদিবাদীদের কেনা গোলাম ছিলেন

মাদ্রিদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ দিবস উদযাপন

মেসির সংবাদ সম্মেলন ‘থাকার জন্য সব কিছুই করেছিলাম’

সিরাতে মুস্তাক্বীম বার্সেলোনার মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

আল্লাহু আকবার’ বলা সেই ছাত্রীকে লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা

মাদ্রিদে বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব প্রাপ্তদের প্রথম সভা অনুষ্ঠিত