ঢাকা : মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাবহী পরিষদ মীর কাসেম আলীকে কাশিমপুর কারাগার থেকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে আনা হয়েছে।সোমবার দুপুর ১ টার দিকে তাকে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে আনা হয়েছে।কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২ এর সিনিয়র জেল সুপার প্রশান্ত কুমার বনিক জানান, সোমবার সকালে মীর কাসেম আলীকে এ কারাগার থেকে প্রিজনভ্যানে কঠোর নিরাপত্তায় ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থানান্তর করা হয়েছে।গত ৮ মার্চ আপিল আংশিক মঞ্জুর করে তার ফাঁসি বহাল রাখেন আপিল বিভাগ। আপিলের রায়ে ১১ নম্বর অভিযোগে তার ফাঁসি বহাল রাখা হয়। এ অভিযোগটি ছিল কিশোর মুক্তিযোদ্ধা জসিমকে অপহরণ, ডালিম হোটেলে তাকে অমানুষিক নির্যাতন করে হত্যা এবং লাশ কর্ণফুলী নদীতে ফেলে দেয়ার অপরাধ সংক্রান্ত।
সংশ্লিষ্ট বিচারকদের স্বাক্ষরের পর গত ৬ জুন রাত পৌনে ৮টার দিকে তা প্রথমে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে এবং পরে মধ্যরাতে ওই পরোয়ানা কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে পৌঁছে। ৭ জুন সকালে কারাগারের ফাঁসির সেলে তাকে মৃত্যু পরোয়ানা পড়ে শুনানো হয়।এরপর গত ১১ জুন মীর কাসেম আলীর সঙ্গে তার আইনজীবীরা সাক্ষাৎ করেন।
এরপর শনিবার মীর কাসেম আলীর পরিবারের ৯ জন সদস্য কাশিমপুর কারাগারে তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।এছাড়া গতকাল রোববার মীর কাসেম আলী সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় খালাস চেয়ে রিভিউ (রায় পুনর্বিবেচনা) আবেদন করেছেন।
গ্রেফতারের পর ২০১২ সাল থেকে মীর কাসেম আলী কাশিমপুর কারাগারে আছেন। তিনি হাজতবাসকালে ডিভিশনপ্রাপ্ত বন্দির মর্যাদায় ছিলেন। মৃত্যুদণ্ডের আদেশের পর তাকে ফাঁসির কনডেম সেলে রাখা হয়েছে।
Axact

Jonoprio

জনপ্রিয়২৪ একটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল। বিশ্বজুড়ে রেমিডেন্স যোদ্ধাদের প্রবাস জীবন নিয়ে আমাদের যাত্রা শুরু হয় ২০০৩ সালে। স্পেনে বাংলাভাষী প্রবাসীদের প্রথম অনলাইন নিউজ পোর্টাল।.

Post A Comment:

0 comments: